নতুন লেখা

জ্ঞানের সম্প্রচার এবং কল্যাণের পথ দেখানোর প্রতি উদ্বুদ্ধ করণ

জ্ঞানের সম্প্রচার এবং কল্যাণের পথ দেখানোর প্রতি উদ্বুদ্ধ করণ

<< সহীহ আত তারগীব ওয়াত তারহীব হাদীস বই এর মুল সুচিপত্র <<

তারগীব ওয়াত তারহীবঃ ১১২ – আবু হুরায়রা [রাঃআঃ] হতে বর্ণিতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ্ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলেছেনঃ “মু`মিন ব্যক্তির মৃত্যুর পর তার আমল ও নেকীর কাজ থেকে যা [ছোয়াব] তার নিকট পৌঁছবে তা হল, ইলম যা সে শিক্ষা দান করেছে ও প্রচার করেছে। রেখে যাওয়া সৎ সন্তান [অর্থাৎ তার দু`আ]। অথবা একটি কুরআন যা সে উত্তরাধিকার হিসেবে রেখে গেছে। অথবা একটি মসজিদ তৈরী করেছে বা মুসাফিরের জন্য একটি ঘর নিমাণ করেছে। অথবা একটি নদী প্রবাহিত করেছে। অথবা তার জীবদ্দশায় সুস্থ থাকাকালে নিজের সম্পদ থেকে সাদকা করে গেছে। এগুলোর ছোয়াব মৃত্যুর পর তার কাছে পৌঁছতে থাকিবে।”

[ইবনি মাজাহ, বায়হাক্বী এবং অনুরূপভাবে ইবনি খুযায়মা হাদীছটি বর্ণনা করিয়াছেন] হাদিসের তাহকিকঃহাসান হাদীস

তারগীব ওয়াত তারহীবঃ ১১৩ – আবু কাতাদা [রাঃআঃ] হতে বর্ণিতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ্ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলেছেনঃ “কোন ব্যক্তি তার [মৃত্যুর] পর যা ছেড়ে যায় তন্মধ্যে সর্বোত্তম হল তিনটি জিনিসঃ [১] নেক সন্তান যে তার জন্যে দুআ করিবে। [২] এমন সাদকা যার উপকার জারী থাকে, এর প্রতিদান তার নিকট পৌঁছতে থাকিবে। [৩] এমন ইলম [যা সে প্রচার করেছে] তার মৃত্যুর পর সে অনুযায়ী আমল করা হইবে।”

[ছহীহ সনদে ইবনি মাজাহ এ হাদীছটিও বর্ণনা করিয়াছেন] ইতোপূর্বে আবু হুরায়রা বর্ণিত হাদীছ উল্লেখ করা হয়েছেঃ [১]

“আদম সন্তান মৃত্যু বরণ করলে তিনটি আমল ব্যতীত তার সমস্ত আমল বন্ধ হয়ে যায়ঃ [১] সাদকায়ে জারিয়া বা [মানুষ উপকার লাভ করে এমন দান] [২] উপকারী বিদ্যা [৩] সৎ সন্তান যে তার জন্যে দু`আ করে।”
[ইমাম মুসলিম হাদীছটি বর্ণনা করিয়াছেন] [১] দ্রঃ ৭৮ নং হাদীছ। হাদিসের তাহকিকঃসহীহ হাদীস

তারগীব ওয়াত তারহীবঃ ১১৪ – আবু উমামা [রাঃআঃ] হতে বর্ণিতঃ

তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] কে একথা বলিতে  শুনেছিঃ “চারটি আমলের ছোয়াব মৃত্যুর পরেও জারি থাকেঃ [১] যে ব্যক্তি আল্লাহর পথে সীমান্ত পাহারারত থেকে মৃত্যু বরণ করে। [২] যে ব্যক্তি [মানুষকে] এলেম শিক্ষা দেয়। তদানুযায়ী যা আমল করা হয় তার ছোয়াব তার জন্যে জারি থাকে। [৩] যে ব্যক্তি সাদকায়ে জারিয়া করে। যতদিন ঐ সাদকার উপকার জারি থাকে। ততদিন ছোয়াবও তার জন্যে জারি থাকিবে। [৪] যে ব্যক্তি নেক সন্তান রেখে যায়, যে তার জন্যে দু`আ করে।”

[ইমাম আহমাদ, বাযযার, ত্বাবরানী [কাবীর ও আওসাত গ্রন্থে] হাদীছটি বর্ণনা করিয়াছেন] হাদিসের তাহকিকঃসহীহ লিগাইরিহি

তারগীব ওয়াত তারহীবঃ ১১৫ – আবু মাসউদ বাদরী [রাঃআঃ] হতে বর্ণিতঃ

তিনি বলেন, জনৈক ব্যক্তি নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] এর কাছে এসে একটি বাহন চাইল। অতঃপর বললঃ আমার বাহনটি খোঁড়া হয়ে [সফর বন্ধ হয়ে] গেছে। তখন রাসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বললেনঃ উমুক লোকের কাছে যাও। সে তার কাছে গেলে লোকটি তাকে একটি বাহন দিল। তখন রাসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বললেনঃ “যে ব্যক্তি ভাল কাজের সন্ধান দিবে, সে উহার কর্তার অথবা বলেছেন সম্পাদনকারীর সমপরিমাণ ছোয়াব লাভ করিবে।”

[হাদীছটি বর্ণনা করিয়াছেন মুসলিম, আবু দাউদ ও তিরমিযী] হাদীছের বাক্য তিরমিষীর। হাদিসের তাহকিকঃসহীহ হাদীস

তারগীব ওয়াত তারহীবঃ ১১৬ – আবু মাসউদ [রাঃআঃ] হতে বর্ণিতঃ

তিনি বলেনঃ জনৈক ব্যক্তি নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] এর কাছে এসে কিছু চাইল। তিনি বললেনঃ “তোমাকে যা দিব তা আমার কাছে নেই। কিন্তু উমুক লোকের কাছে যাও। সে লোকটির কাছে গেলে সে তাকে উহা প্ৰদান করিল। তখন রাসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বললেনঃ “যে ব্যক্তি ভাল কাজের সন্ধান দিবে, সে উহার কর্তার অথবা বলেছেন সম্পাদনকারীর সমপরিমাণ ছোয়াব লাভ করিবে।”

[ইবনি হিব্বান [ছহীহ গ্রন্থে] হাদীছটি বর্ণনা করিয়াছেন] বাযযার সংক্ষেপে হাদীছটি বর্ণনা করেছেনঃ الدَّالُّ عَلَى الْخَيْرِ كَفَاعِلِهِ “কল্যাণের বিষয়ে পথ প্ৰদৰ্শনকারী উহা সম্পাদনকারীর ন্যায় [ছওয়াবের অধিকারী]।” হাদিসের তাহকিকঃসহীহ হাদীস

তারগীব ওয়াত তারহীবঃ ১১৭ – সাহল বিন সা`দ [রাঃআঃ] হতে বর্ণিতঃ

উক্ত হাদীছটি ত্বাবরানী [কাবীর ও আওসাত গ্রন্থে] সাহল বিন সা`দ [রাঃআঃ] থেকে বর্ণনা করিয়াছেন।

হাদিসের তাহকিকঃসহীহ লিগাইরিহি

তারগীব ওয়াত তারহীবঃ ১১৮ – আবু হুরায়রা [রাঃআঃ] হতে বর্ণিতঃ

রাসূলুল্লাহ্ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলেনঃ “যে ব্যক্তি হেদায়াতের পথে আহবান করিবে, সে তার অনুসরণকারীর সমপরিমাণ ছোয়াব লাভ করিবে, অথচ তাহাদের [অনুসরণ কারীদের] ছোয়াব থেকে কোন কিছু কম করা হইবে না। আর যে ব্যক্তি বিভ্রান্তির দিকে আহ্বান করিবে, সে তার অনুসরণ কারীদের সমপরিমাণ পাপের অধিকারী হইবে, অথচ তাহাদের [অনুসরণ কারীদের] পাপের অংশ থেকে কোন কিছু কম করা হইবে না।”

[ইমাম মুসলিম প্রমূখ হাদীছটি বর্ণনা করিয়াছেন] হাদিসের তাহকিকঃসহীহ হাদীস

তারগীব ওয়াত তারহীবঃ ১১৯ – আলী [রাঃআঃ] হতে বর্ণিতঃ

তিনি আল্লাহর বাণীঃ [আরবি] “তোমরা নিজেদেরকে এবং তোমাদের পরিবারবর্গকে জাহান্নাম থেকে বাঁচাও।” [সূরা তাহরীমঃ ৬] এর ব্যাখ্যায় বলেনঃ “তোমরা তোমাদের পরিবার-পরিজনকে কল্যাণকর বিষয় শিক্ষা দান কর।”

[হাকেম মাওকূফ সূত্রে বর্ণনা করিয়াছেন] হাদিসের তাহকিকঃসহীহ মাওকুফ

About halalbajar.com

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

ওযুর প্রতি যত্নশীল হওয়া ও নতুনভাবে ওযু করা

ওযুর প্রতি যত্নশীল হওয়া << সহীহ আত তারগীব ওয়াত তারহীব হাদীস বই এর মুল সুচিপত্র << ওযুর …

Leave a Reply

%d bloggers like this: