হিন্দার ঘটনা

হিন্দার ঘটনা

হিন্দার ঘটনা >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৪. অধ্যায়ঃ হিন্দার ঘটনা

৪৩৬৯

আয়েশাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

হিন্দা বিন্‌ত উত্‌বা রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর দরবারে উপস্থিত হয়ে বলিলেন, হে আল্লাহ্‌র রসূল [সাঃআঃ]! আবু সুফ্‌ইয়ান একজন কৃপণ ব্যক্তি। তিনি আমার এবং আমার সন্তানদের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যয় করেন না। তবে আমি তাকে না জানিয়েই তার সম্পদ থেকে প্রয়োজনীয় খরচাদি গ্রহন করে থাকি। এতে কি আমার কোন পাপ হইবে? তখন রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেনঃ তুমি তাহাঁর সম্পদ থেকে ততটুকু গ্রহণ করিতে পার, যা তোমার ও তোমার সন্তানদের জন্য যথেষ্ট হয়। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৩২৮, ইসলামিক সেন্টার-৪৩২৯]

৪৩৭০

মুহাম্মাদ ইবনি আবদুল্লাহ ইবনি নুমায়র, আবু কুরায়ব, ইয়াহ্‌ইয়া ইবনি ইয়াহ্‌ইয়া ও মুহাম্মাদ ইবনি রাফি [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হিশাম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

উক্ত সানাদে এ হাদীস বর্ণনা করেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৩২৯, ইসলামিক সেন্টার-৪৩৩০]

৪৩৭১

আয়েশাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, হিন্দা নবী [সাঃআঃ]-এর নিকট এসে বলিলেন, হে আল্লাহর রসূল [সাঃআঃ]! আল্লাহর কসম, পৃথিবীর মধ্যে অন্য কোন পরিবার-পরিজনের চেয়ে আল্লাহ আপনার পরিবার-পরিজনকে লাঞ্চিত করুন- এর চেয়ে অধিক পছন্দনীয় আমার কাছে আর কিছুই ছিলনা। আর এখন পৃথিবীর মধ্যে অন্য কোন পরিবার-পরিজনের চেয়ে আল্লাহ আপনার পরিবার-পরিজনকে সম্মানিত করুন- এর চেয়ে অধিক পছন্দনীয় আমার কাছে আর কিছুই নেই। তখন রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেনঃ সে মহান আল্লাহর শপথ! যাঁর হাতে আমার প্রাণ, তা আরো বাড়বে। অতঃপর তিনি বলিলেন, হে আল্লাহর রসূল [সাঃআঃ]! আবু সুফ্‌ইয়ান একজন কৃপণ স্বভাবের লোক। তবে আমি যদি তার বিনা অনুমতিতে তার সন্তান-সন্ততির জন্য তার সম্পদ থেকে খরচ করি, এতে কি আমার কোন অন্যায় হইবে? তখন নবী [সাঃআঃ] বললেনঃ তাদের জন্য তুমি যথাবিধি খরচ করলে কোন দোষ হইবেনা। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৩৩০, ইসলামিক সেন্টার-৪৩৩১]

৪৩৭২

আয়েশাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, হিন্দা বিন্‌ত উত্‌বা ইনু রবীয়াহ্‌, এসে বলিলেন, হে আল্লাহর রসূল [সাঃআঃ]! [মুসলিম হওয়ার পূর্বে] পৃথিবীর মধ্যে অন্য কোন পরিবার-পরিজনের চেয়ে আল্লাহ আপনার পরিবার-পরিজনকে লাঞ্চিত করুন- এর চেয়ে অধিক পছন্দনীয় আমার কাছে আর কিছুই ছিলনা। আর আজ [মুসলিম হওয়ার পর] পৃথিবীর মধ্যে অন্য কোন পরিবার-পরিজনের চেয়ে আল্লাহ আপনার পরিবার-পরিজনকে সম্মানিত করুন- এর চেয়ে অধিক পছন্দনীয় আমার কাছে আর কিছুই নেই। তখন রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেনঃ সে মহান আল্লাহর কসম যাঁর হাতে আমার জীবন, তা আরো বৃদ্ধি পাবে। তারপর হিন্দা বললেনঃ হে আল্লাহর রসূল [সাঃআঃ]! আবু সুফ্‌ইয়ান একজন বড় কৃপণ স্বভাবের লোক। এমতাবস্থায় আমি যদি আমাদের সন্তানাদির খাবার [তারই অজান্তে] তার সম্পদ থেকে প্রদান করি তবে কি এতে আমার কোন দোষ হইবে? তিনি বললেনঃ না। তবে তা যথাবিধি হইতে হইবে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৩৩১, ইসলামিক সেন্টার-৪৩৩২]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply