সুরা সাফফাত বাংলা Sura Al Saffat in Words & Audio

সুরা সাফফাত বাংলা Sura Al Saffat in Words & Audio

৩৭, সুরা সাফফাত, আয়াত : ১৮২, মাক্কী, রুকু ৫

১১৪ টি সুরা >> তাফসীরঃ বুখারী >> তিরমিজি

Arabicতাফসীর

সুরা সাফফাত mp3 Download

সুরা সাফফাত ع রুকু [১][1] >> [২][2] >> [৩][3] >> [৪][4] >> [৫][5]

সুরা সাফফাত বাংলা Sura Al Saffat in Words ع Ruku [৩][3] >> [৪][4] >> [৫][5]

পরম করুণাময় অতি দয়ালু আল্লাহর নামেبِسۡمِ ٱللَّهِ ٱلرَّحۡمَٰنِ ٱلرَّحِيمِ
(1)কসম সারিবদ্ধ ফেরেশতাদের,وَٱلصَّٰٓفَّٰتِ صَفّٗا ١
(2) অতঃপর (মেঘমালা) সুচারুরূপে পরিচালনাকারীদের,فَٱلزَّٰجِرَٰتِ زَجۡرٗا ٢
(3) আর উপদেশ গ্রন্থ (আসমানী কিতাব) তিলাওয়াতকারীদের;فَٱلتَّٰلِيَٰتِ ذِكۡرًا ٣
(4) নিশ্চয় তোমাদের ইলাহ এক;إِنَّ إِلَٰهَكُمۡ لَوَٰحِدٞ ٤
(5) তিনি আসমানসমূহ, যমীন ও এ দু’য়ের মধ্যে যা আছে তার রব এবং রব উদয়স্থলসমূহের।رَّبُّ ٱلسَّمَٰوَٰتِ وَٱلۡأَرۡضِ وَمَا بَيۡنَهُمَا وَرَبُّ ٱلۡمَشَٰرِقِ ٥
(6) নিশ্চয় আমি কাছের আসমানকে তারকারাজির সৌন্দর্যে সুশোভিত করেছি।إِنَّا زَيَّنَّا ٱلسَّمَآءَ ٱلدُّنۡيَا بِزِينَةٍ ٱلۡكَوَاكِبِ ٦
(7) আর প্রত্যেক বিদ্রোহী শয়তান থেকে হিফাযত করেছি।وَحِفۡظٗا مِّن كُلِّ شَيۡطَٰنٖ مَّارِدٖ ٧
(8) তারা ঊর্ধ্বজগতের কিছু শুনতে পারে না, কারণ প্রত্যেক দিক থেকে তাদের দিকে নিক্ষেপ করা হয় (উল্কাপিন্ড)।لَّا يَسَّمَّعُونَ إِلَى ٱلۡمَلَإِ ٱلۡأَعۡلَىٰ وَيُقۡذَفُونَ مِن كُلِّ جَانِبٖ ٨
(9) তাড়ানোর জন্য, আর তাদের জন্য আছে অব্যাহত আযাব।دُحُورٗاۖ وَلَهُمۡ عَذَابٞ وَاصِبٌ ٩
(10) তবে কেউ সন্তর্পণে কিছু শুনে নিলে তাকে পিছু তাড়া করে জ্বলন্ত উল্কাপিন্ড।إِلَّا مَنۡ خَطِفَ ٱلۡخَطۡفَةَ فَأَتۡبَعَهُۥ شِهَابٞ ثَاقِبٞ ١٠
(11) অতঃপর তাদেরকে জিজ্ঞাসা কর, ‘সৃষ্টি হিসেবে তারা বেশি শক্তিশালী, না আমি অন্য যা সৃষ্টি করেছি তা’? নিশ্চয় আমি তাদেরকে সৃষ্টি করেছি আঠালো মাটি থেকে।فَٱسۡتَفۡتِهِمۡ أَهُمۡ أَشَدُّ خَلۡقًا أَم مَّنۡ خَلَقۡنَآۚ إِنَّا خَلَقۡنَٰهُم مِّن طِينٖ لَّازِبِۢ ١١
(12) বরং তুমি বিস্মিত হচ্ছ আর ওরা বিদ্রূপ করছে।بَلۡ عَجِبۡتَ وَيَسۡخَرُونَ١٢
(13) আর যখন তাদেরকে স্মরণ করিয়ে দেয়া হয় তখন তারা স্মরণ করে না।وَإِذَا ذُكِّرُواْ لَا يَذۡكُرُونَ ١٣
(14) আর যখন তারা কোন নিদর্শন দেখে তখন বিদ্রূপ করে।وَإِذَا رَأَوۡاْ ءَايَةٗ يَسۡتَسۡخِرُونَ ١٤
(15) আর বলে, ‘এতো স্পষ্ট জাদু ছাড়া আর কিছুই নয়’!وَقَالُوٓاْ إِنۡ هَٰذَآ إِلَّا سِحۡرٞ مُّبِينٌ ١٥
(16) আমরা যখন মারা যাব এবং মাটি ও হাড়ে পরিণত হব তখনও কি আমরা পুনরুত্থিত হব’?أَءِذَا مِتۡنَا وَكُنَّا تُرَابٗا وَعِظَٰمًا أَءِنَّا لَمَبۡعُوثُونَ ١٦
(17) আর আমাদের পূর্ববর্তী পিতৃপুরুষগণও’?أَوَ ءَابَآؤُنَا ٱلۡأَوَّلُونَ ١٧
(18) বল, ‘হ্যাঁ, আর তোমরা অপমানিত-লাঞ্ছিত হবে।’قُلۡ نَعَمۡ وَأَنتُمۡ دَٰخِرُونَ١٨
(19) তা হবে কেবল এক আওয়াজ আর তৎক্ষণাৎ তারা দেখতে পাবে।فَإِنَّمَا هِيَ زَجۡرَةٞ وَٰحِدَةٞ فَإِذَا هُمۡ يَنظُرُونَ ١٩
(20) আর তারা বলবে, ‘হায় আমাদের ধ্বংস, এ তো প্রতিদান দিবস’!وَقَالُواْ يَٰوَيۡلَنَا هَٰذَا يَوۡمُ ٱلدِّينِ ٢٠
(21) এটি ফয়সালা করার দিন যা তোমরা অস্বীকার করতে।هَٰذَا يَوۡمُ ٱلۡفَصۡلِ ٱلَّذِي كُنتُم بِهِۦ تُكَذِّبُونَ ٢١

সুরা সাফফাত ع রুকু [১][1] >> [২][2] >> [৩][3] >> [৪][4] >> [৫][5]

.

(22) (ফেরেশতাদেরকে বলা হবে) ‘একত্র কর যালিম ও তাদের সঙ্গী-সাথীদেরকে এবং যাদের ইবাদাত তারা করত তাদেরকে।۞ٱحۡشُرُواْ ٱلَّذِينَ ظَلَمُواْ وَأَزۡوَٰجَهُمۡ وَمَا كَانُواْ يَعۡبُدُونَ ٢٢
(23) ‘আল্লাহকে বাদ দিয়ে, আর তাদেরকে আগুনের পথে নিয়ে যাও’।مِن دُونِ ٱللَّهِ فَٱهۡدُوهُمۡ إِلَىٰ صِرَٰطِ ٱلۡجَحِيمِ ٢٣
(24) ‘আর তাদেরকে থামাও, অবশ্যই তারা জিজ্ঞাসিত হবে’।وَقِفُوهُمۡۖ إِنَّهُم مَّسۡ‍ُٔولُونَ ٢٤
(25) তোমাদের কী হল, তোমরা একে অপরকে সাহায্য করছ না?’مَا لَكُمۡ لَا تَنَاصَرُونَ ٢٥
(26) বরং তারা হবে আজ আত্মসমর্পণকারী।بَلۡ هُمُ ٱلۡيَوۡمَ مُسۡتَسۡلِمُونَ ٢٦
(27) আর তারা একে অপরের মুখোমুখি হয়ে জিজ্ঞাসা করবে,وَأَقۡبَلَ بَعۡضُهُمۡ عَلَىٰ بَعۡضٖ يَتَسَآءَلُونَ ٢٧
(28) তারা বলবে, ‘তোমরাই তো আমাদের কাছে আসতে ধর্মীয় দিক থেকে[1]’।قَالُوٓاْ إِنَّكُمۡ كُنتُمۡ تَأۡتُونَنَا عَنِ ٱلۡيَمِينِ ٢٨
(29) জবাবে তারা (নেতৃস্থানীয় কাফিররা) বলবে, ‘বরং তোমরা তো মুমিন ছিলে না’।قَالُواْ بَل لَّمۡ تَكُونُواْ مُؤۡمِنِينَ ٢٩
(30) আর তোমাদের উপর আমাদের কোন কর্তৃত্ব ছিল না, বরং তোমরা ছিলে সীমালঙ্ঘনকারী কওম’।وَمَا كَانَ لَنَا عَلَيۡكُم مِّن سُلۡطَٰنِۢۖ بَلۡ كُنتُمۡ قَوۡمٗا طَٰغِينَ ٣٠
(31)  ‘তাই আমাদের বিরুদ্ধে আমাদের রবের বাণী সত্য হয়েছে; নিশ্চয় আমরা আস্বাদন করব (আযাব)’।فَحَقَّ عَلَيۡنَا قَوۡلُ رَبِّنَآۖ إِنَّا لَذَآئِقُونَ ٣١
(32)  ‘আর আমরা তোমাদেরকে বিভ্রান্ত করেছি, কারণ আমরা নিজেরাই ছিলাম বিভ্রান্ত’।فَأَغۡوَيۡنَٰكُمۡ إِنَّا كُنَّا غَٰوِينَ ٣٢
(33) নিশ্চয় তারা সেদিন আযাবে অংশীদার হবে।فَإِنَّهُمۡ يَوۡمَئِذٖ فِي ٱلۡعَذَابِ مُشۡتَرِكُونَ٣٣
(34) অপরাধীদের সাথে আমি এমন আচরণই করে থাকি।إِنَّا كَذَٰلِكَ نَفۡعَلُ بِٱلۡمُجۡرِمِينَ ٣٤
(35) তাদেরকে যখন বলা হত, ‘আল্লাহ ছাড়া কোন (সত্য) ইলাহ নেই’, তখন নিশ্চয় তারা অহঙ্কার করত।إِنَّهُمۡ كَانُوٓاْ إِذَا قِيلَ لَهُمۡ لَآ إِلَٰهَ إِلَّا ٱللَّهُ يَسۡتَكۡبِرُونَ ٣٥
(36) আর বলত, ‘আমরা কি এক পাগল কবির জন্য আমাদের উপাস্যদের ছেড়ে দেব?’وَيَقُولُونَ أَئِنَّا لَتَارِكُوٓاْ ءَالِهَتِنَا لِشَاعِرٖ مَّجۡنُونِۢ ٣٦
(37) বরং সে সত্য নিয়ে এসেছিল এবং সে রাসূলদেরকে সত্য বলে ঘোষণা দিয়েছিল।بَلۡ جَآءَ بِٱلۡحَقِّ وَصَدَّقَ ٱلۡمُرۡسَلِينَ ٣٧
(38) অবশ্যই তোমরা যন্ত্রণাদায়ক আযাব আস্বাদন করবে।إِنَّكُمۡ لَذَآئِقُواْ ٱلۡعَذَابِ ٱلۡأَلِيمِ ٣٨
(39) আর তোমরা যে আমল করতে শুধু তারই প্রতিদান তোমাদেরকে দেয়া হবে।وَمَا تُجۡزَوۡنَ إِلَّا مَا كُنتُمۡ تَعۡمَلُونَ٣٩
(40) অবশ্য আল্লাহর মনোনীত বান্দারা ছাড়া;إِلَّا عِبَادَ ٱللَّهِ ٱلۡمُخۡلَصِينَ ٤٠
(41) তাদের জন্য থাকবে নির্ধারিত রিযিক,أُوْلَٰٓئِكَ لَهُمۡ رِزۡقٞ مَّعۡلُومٞ ٤١
(42) ফলমূল; আর তারা হবে সম্মানিত,فَوَٰكِهُ وَهُم مُّكۡرَمُونَ ٤٢
(43) নি‘আমত-ভরা জান্নাতে,فِي جَنَّٰتِ ٱلنَّعِيمِ ٤٣
(44) মুখোমুখি পালঙ্কে।عَلَىٰ سُرُرٖ مُّتَقَٰبِلِينَ ٤٤
(45) তাদের চারপাশে ঘুরে ঘুরে পরিবেশন করা হবে বিশুদ্ধ সুরাপাত্র,يُطَافُ عَلَيۡهِم بِكَأۡسٖ مِّن مَّعِينِۢ ٤٥
(46) সাদা, পানকারীদের জন্য সুস্বাদু।بَيۡضَآءَ لَذَّةٖ لِّلشَّٰرِبِينَ ٤٦
(47) তাতে থাকবে না ক্ষতিকর কিছু[2] এবং তারা এগুলো দ্বারা মাতালও হবে না।لَا فِيهَا غَوۡلٞ وَلَا هُمۡ عَنۡهَا يُنزَفُونَ ٤٧
(48) তাদের কাছে থাকবে আনতনয়না, ডাগরচোখা।وَعِندَهُمۡ قَٰصِرَٰتُ ٱلطَّرۡفِ عِينٞ ٤٨
(49) তারা যেন আচ্ছাদিত ডিম।كَأَنَّهُنَّ بَيۡضٞ مَّكۡنُونٞ ٤٩
(50) অতঃপর তারা মুখোমুখি হয়ে পরস্পরকে জিজ্ঞাসা করবে।فَأَقۡبَلَ بَعۡضُهُمۡ عَلَىٰ بَعۡضٖ يَتَسَآءَلُونَ ٥٠
(51) তাদের একজন বলবে, (‘পৃথিবীতে) আমার এক সঙ্গী ছিল’,قَالَ قَآئِلٞ مِّنۡهُمۡ إِنِّي كَانَ لِي قَرِينٞ ٥١
(52) সে বলত, ‘তুমি কি সে লোকদের অন্তর্ভুক্ত যারা বিশ্বাস করে’।يَقُولُ أَءِنَّكَ لَمِنَ ٱلۡمُصَدِّقِينَ ٥٢
(53) আমরা যখন মরে যাব এবং মাটি ও হাড়ে পরিণত হব তখনও কি আমাদেরকে প্রতিফল দেয়া হবে’?أَءِذَا مِتۡنَا وَكُنَّا تُرَابٗا وَعِظَٰمًا أَءِنَّا لَمَدِينُونَ ٥٣
(54) আল্লাহ বলবেন, ‘তোমরা কি উঁকি দিয়ে দেখবে?’قَالَ هَلۡ أَنتُم مُّطَّلِعُونَ ٥٤
(55) অতঃপর সে উঁকি দিয়ে দেখবে এবং তাকে (পৃথিবীর সঙ্গীকে) দেখবে জাহান্নামের মধ্যস্থলে।فَٱطَّلَعَ فَرَءَاهُ فِي سَوَآءِ ٱلۡجَحِيمِ ٥٥
(56) সে বলবে, ‘আল্লাহর কসম! তুমি তো আমাকে প্রায় ধ্বংস করে দিয়েছিলে’।قَالَ تَٱللَّهِ إِن كِدتَّ لَتُرۡدِينِ ٥٦
(57) আমার রবের অনুগ্রহ না থাকলে আমিও তো (জাহান্নামে) হাযিরকৃতদের একজন হতাম’।وَلَوۡلَا نِعۡمَةُ رَبِّي لَكُنتُ مِنَ ٱلۡمُحۡضَرِينَ ٥٧
(58) (জান্নাতবাসী ব্যক্তি বলবে) ‘তাহলে আমরা কি আর মরব না’?أَفَمَا نَحۡنُ بِمَيِّتِينَ ٥٨
(59) আমাদের প্রথম মৃত্যু ছাড়া, আর আমরা কি আযাবপ্রাপ্ত হব না’?إِلَّا مَوۡتَتَنَا ٱلۡأُولَىٰ وَمَا نَحۡنُ بِمُعَذَّبِينَ ٥٩
(60) নিশ্চয় এটি মহাসাফল্য!’إِنَّ هَٰذَا لَهُوَ ٱلۡفَوۡزُ ٱلۡعَظِيمُ ٦٠
(61) এরূপ সাফল্যের জন্যই ‘আমলকারীদের আমল করা উচিত।لِمِثۡلِ هَٰذَا فَلۡيَعۡمَلِ ٱلۡعَٰمِلُونَ ٦١
(62) আপ্যায়নের জন্য এগুলো উত্তম না যাক্কূম[3] বৃক্ষ?أَذَٰلِكَ خَيۡرٞ نُّزُلًا أَمۡ شَجَرَةُ ٱلزَّقُّومِ ٦٢
(63) নিশ্চয় আমি তাকে যালিমদের জন্য করে দিয়েছি পরীক্ষা।إِنَّا جَعَلۡنَٰهَا فِتۡنَةٗ لِّلظَّٰلِمِينَ ٦٣
(64) নিশ্চয় এ গাছটি জাহান্নামের তলদেশ থেকে বের হয়।إِنَّهَا شَجَرَةٞ تَخۡرُجُ فِيٓ أَصۡلِ ٱلۡجَحِيمِ ٦٤
(65) এর ফল যেন শয়তানের মাথা;طَلۡعُهَا كَأَنَّهُۥ رُءُوسُ ٱلشَّيَٰطِينِ٦٥
(66) নিশ্চয় তারা তা থেকে খাবে এবং তা দিয়ে পেট ভর্তি করবে।فَإِنَّهُمۡ لَأٓكِلُونَ مِنۡهَا فَمَالِ‍ُٔونَ مِنۡهَا ٱلۡبُطُونَ ٦٦
(67) তদুপরি তাদের জন্য থাকবে ফুটন্ত পানির মিশ্রণ।ثُمَّ إِنَّ لَهُمۡ عَلَيۡهَا لَشَوۡبٗا مِّنۡ حَمِيمٖ ٦٧
(68) তারপর তাদের প্রত্যাবর্তন হবে জাহান্নামের আগুনে।ثُمَّ إِنَّ مَرۡجِعَهُمۡ لَإِلَى ٱلۡجَحِيمِ ٦٨
(69) নিশ্চয় এরা নিজদের পিতৃপুরুষদেরকে পথভ্রষ্ট পেয়েছিল;إِنَّهُمۡ أَلۡفَوۡاْ ءَابَآءَهُمۡ ضَآلِّينَ ٦٩
(70) ফলে তারাও তাদের পদাঙ্ক অনুসরণে দ্রুত ছুটেছে।فَهُمۡ عَلَىٰٓ ءَاثَٰرِهِمۡ يُهۡرَعُونَ ٧٠
(71) আর নিশ্চয় এদের পূর্বে প্রাথমিক যুগের মানুষের বেশীরভাগই পথভ্রষ্ট হয়েছিল।وَلَقَدۡ ضَلَّ قَبۡلَهُمۡ أَكۡثَرُ ٱلۡأَوَّلِينَ ٧١
(72) আর অবশ্যই তাদের কাছে আমি সতর্ককারীদেরকে পাঠিয়েছিলাম;وَلَقَدۡ أَرۡسَلۡنَا فِيهِم مُّنذِرِينَ ٧٢
(73) সুতরাং দেখ, যাদেরকে সতর্ক করা হয়েছিল তাদের পরিণতি কী হয়েছিল!فَٱنظُرۡ كَيۡفَ كَانَ عَٰقِبَةُ ٱلۡمُنذَرِينَ ٧٣
(74) অবশ্য আল্লাহর মনোনীত বান্দারা ছাড়া।إِلَّا عِبَادَ ٱللَّهِ ٱلۡمُخۡلَصِينَ ٧٤

সুরা সাফফাত ع রুকু [২][2] >> [১][1] >> [৩][3] >> [৪][4] >> [৫][5]

.

(75) আর নিশ্চয় নূহ আমাকে ডেকেছিল, আর আমি কতইনা উত্তম সাড়াদানকারী!وَلَقَدۡ نَادَىٰنَا نُوحٞ فَلَنِعۡمَ ٱلۡمُجِيبُونَ ٧٥
(76) আর তাকে ও তার পরিজনকে আমি মহাবিপদ থেকে উদ্ধার করেছিলাম।وَنَجَّيۡنَٰهُ وَأَهۡلَهُۥ مِنَ ٱلۡكَرۡبِ ٱلۡعَظِيمِ ٧٦
(77) আর তার বংশধরদেরকেই আমি অবশিষ্ট রেখেছিলাম,وَجَعَلۡنَا ذُرِّيَّتَهُۥ هُمُ ٱلۡبَاقِينَ ٧٧
(78) আর পরবর্তীদের মধ্যে তার জন্য (সুখ্যাতি) রেখে দিয়েছিলাম।وَتَرَكۡنَا عَلَيۡهِ فِي ٱلۡأٓخِرِينَ ٧٨
(79) শান্তি বর্ষিত হোক নূহের উপর সকল সৃষ্টির মধ্যে।سَلَٰمٌ عَلَىٰ نُوحٖ فِي ٱلۡعَٰلَمِينَ ٧٩
(80) নিশ্চয় এভাবে আমি সৎকর্মশীলদের পুরস্কার দিয়ে থাকি।إِنَّا كَذَٰلِكَ نَجۡزِي ٱلۡمُحۡسِنِينَ ٨٠
(81) নিশ্চয় সে আমার মুমিন বান্দাদের একজন।إِنَّهُۥ مِنۡ عِبَادِنَا ٱلۡمُؤۡمِنِينَ ٨١
(82) তারপর আমি অন্যদের ডুবিয়ে দিয়েছিলাম।ثُمَّ أَغۡرَقۡنَا ٱلۡأٓخَرِينَ ٨٢
(83) আর নিশ্চয় ইবরাহীম তার দীনের অনুসারীদের অন্তর্ভুক্ত।۞وَإِنَّ مِن شِيعَتِهِۦ لَإِبۡرَٰهِيمَ ٨٣
(84) যখন সে বিশুদ্ধচিত্তে তার রবের নিকট উপস্থিত হয়েছিল।إِذۡ جَآءَ رَبَّهُۥ بِقَلۡبٖ سَلِيمٍ ٨٤
(85) যখন সে তার পিতা ও তার কওমকে বলেছিল, ‘তোমরা কিসের ইবাদত কর’?إِذۡ قَالَ لِأَبِيهِ وَقَوۡمِهِۦ مَاذَا تَعۡبُدُونَ ٨٥
(86) তোমরা কি আল্লাহর পরিবর্তে মিথ্যা উপাস্যগুলোকে চাও’?أَئِفۡكًا ءَالِهَةٗ دُونَ ٱللَّهِ تُرِيدُونَ ٨٦
(87) তাহলে সকল সৃষ্টির রব সম্পর্কে তোমাদের ধারণা কী’?فَمَا ظَنُّكُم بِرَبِّ ٱلۡعَٰلَمِينَ ٨٧
(88) অতঃপর সে তারকারাজির মধ্যে একবার দৃষ্টি দিল।فَنَظَرَ نَظۡرَةٗ فِي ٱلنُّجُومِ ٨٨
(89) তারপর বলল, ‘আমি তো অসুস্থ’।فَقَالَ إِنِّي سَقِيمٞ ٨٩
(90) অতঃপর তারা পৃষ্ঠপ্রদর্শন করে তার কাছ থেকে চলে গেল।فَتَوَلَّوۡاْ عَنۡهُ مُدۡبِرِينَ ٩٠
(91) তারপর চুপে চুপে সে তাদের দেবতাদের কাছে গেল এবং বলল, ‘তোমরা কি খাবে না?’فَرَاغَ إِلَىٰٓ ءَالِهَتِهِمۡ فَقَالَ أَلَا تَأۡكُلُونَ ٩١
(92)   ‘তোমাদের কী হয়েছে যে, তোমরা কথা বলছ না’?مَا لَكُمۡ لَا تَنطِقُونَ ٩٢
(93) অতঃপর সে তাদের উপর সজোরে আঘাত হানল।فَرَاغَ عَلَيۡهِمۡ ضَرۡبَۢا بِٱلۡيَمِينِ ٩٣
(94) তখন লোকেরা তার দিকে ছুটে আসল।فَأَقۡبَلُوٓاْ إِلَيۡهِ يَزِفُّونَ ٩٤
(95) সে বলল, ‘তোমরা নিজেরা খোদাই করে যেগুলো বানাও, তোমরা কি সেগুলোর উপাসনা কর’,قَالَ أَتَعۡبُدُونَ مَا تَنۡحِتُونَ٩٥
(96) ‘অথচ আল্লাহই তোমাদেরকে এবং তোমরা যা কর তা সৃষ্টি করেছেন’?وَٱللَّهُ خَلَقَكُمۡ وَمَا تَعۡمَلُونَ ٩٦
(97) তারা বলল, ‘তার জন্য একটি স্থাপনা তৈরী কর, তারপর তাকে জ্বলন্ত আগুনে নিক্ষেপ কর’।قَالُواْ ٱبۡنُواْ لَهُۥ بُنۡيَٰنٗا فَأَلۡقُوهُ فِي ٱلۡجَحِيمِ ٩٧
(98) আর তারা তার ব্যাপারে একটা ষড়যন্ত্র করতে চেয়েছিল, কিন্তু আমি তাদেরকে সম্পূর্ণ পরাভূত করে দিলাম।فَأَرَادُواْ بِهِۦ كَيۡدٗا فَجَعَلۡنَٰهُمُ ٱلۡأَسۡفَلِينَ ٩٨
(99) আর সে বলল, ‘আমি আমার রবের দিকে যাচ্ছি, তিনি অবশ্যই আমাকে হিদায়াত করবেন।وَقَالَ إِنِّي ذَاهِبٌ إِلَىٰ رَبِّي سَيَهۡدِينِ ٩٩
(100) হে আমার রব, আমাকে সৎকর্মশীল সন্তান দান করুন’।رَبِّ هَبۡ لِي مِنَ ٱلصَّٰلِحِينَ١٠٠
(101) অতঃপর তাকে আমি পরম ধৈর্যশীল একজন পুত্র সন্তানের সুসংবাদ দিলাম।فَبَشَّرۡنَٰهُ بِغُلَٰمٍ حَلِيمٖ ١٠١
(102) অতঃপর যখন সে তার সাথে চলাফেরা করার বয়সে পৌঁছল, তখন সে বলল, ‘হে প্রিয় বৎস, আমি স্বপ্নে দেখেছি যে, আমি তোমাকে যবেহ করছি, অতএব দেখ তোমার কী অভিমত’; সে বলল, ‘হে আমার পিতা, আপনাকে যা আদেশ করা হয়েছে, আপনি তাই করুন। আমাকে ইনশাআল্লাহ আপনি অবশ্যই ধৈর্যশীলদের অন্তর্ভুক্ত পাবেন’।فَلَمَّا بَلَغَ مَعَهُ ٱلسَّعۡيَ قَالَ يَٰبُنَيَّ إِنِّيٓ أَرَىٰ فِي ٱلۡمَنَامِ أَنِّيٓ أَذۡبَحُكَ فَٱنظُرۡ مَاذَا تَرَىٰۚ قَالَ يَٰٓأَبَتِ ٱفۡعَلۡ مَا تُؤۡمَرُۖ سَتَجِدُنِيٓ إِن شَآءَ ٱللَّهُ مِنَ ٱلصَّٰبِرِينَ ١٠٢
(103) অতঃপর তারা উভয়ে যখন আত্মসমর্পণ করল এবং সে তাকে[4] কাত করে শুইয়ে দিলفَلَمَّآ أَسۡلَمَا وَتَلَّهُۥ لِلۡجَبِينِ ١٠٣
(104) তখন আমি তাকে আহবান করে বললাম, ‘হে ইবরাহীম,وَنَٰدَيۡنَٰهُ أَن يَٰٓإِبۡرَٰهِيمُ ١٠٤
(105) তুমি তো স্বপ্নকে সত্যে পরিণত করেছ। নিশ্চয় আমি এভাবেই সৎকর্মশীলদের পুরস্কৃত করে থাকি’।قَدۡ صَدَّقۡتَ ٱلرُّءۡيَآۚ إِنَّا كَذَٰلِكَ نَجۡزِي ٱلۡمُحۡسِنِينَ ١٠٥
(106) নিশ্চয় এটা সুস্পষ্ট পরীক্ষা’।إِنَّ هَٰذَا لَهُوَ ٱلۡبَلَٰٓؤُاْ ٱلۡمُبِينُ ١٠٦
(107) আর আমি এক মহান যবেহের[5] বিনিময়ে তাকে মুক্ত করলাম।وَفَدَيۡنَٰهُ بِذِبۡحٍ عَظِيمٖ ١٠٧
(108) আর তার জন্য আমি পরবর্তীদের মধ্যে সুখ্যাতি রেখে দিয়েছি।وَتَرَكۡنَا عَلَيۡهِ فِي ٱلۡأٓخِرِينَ ١٠٨
(109) ইবরাহীমের প্রতি সালাম।سَلَٰمٌ عَلَىٰٓ إِبۡرَٰهِيمَ ١٠٩
(110) এভাবেই আমি সৎকর্মশীলদের পুরস্কৃত করে থাকি।كَذَٰلِكَ نَجۡزِي ٱلۡمُحۡسِنِينَ ١١٠
(111) নিশ্চয় সে আমার মুমিন বান্দাদের অন্তর্ভুক্ত।إِنَّهُۥ مِنۡ عِبَادِنَا ٱلۡمُؤۡمِنِينَ ١١١
(112) আর আমি তাকে ইসহাকের সুসংবাদ দিয়েছিলাম, সৎকর্মশীলদের অন্তর্ভুক্ত একজন নবী হিসেবে,وَبَشَّرۡنَٰهُ بِإِسۡحَٰقَ نَبِيّٗا مِّنَ ٱلصَّٰلِحِينَ ١١٢
(113) আর আমি তাকে ও ইসহাককে বরকত দান করেছিলাম, আর তাদের বংশধরদের মধ্যে কেউ কেউ ছিল সৎকর্মশীল এবং কেউ নিজের প্রতি স্পষ্ট যালিম।وَبَٰرَكۡنَا عَلَيۡهِ وَعَلَىٰٓ إِسۡحَٰقَۚ وَمِن ذُرِّيَّتِهِمَا مُحۡسِنٞ وَظَالِمٞ لِّنَفۡسِهِۦ مُبِينٞ ١١٣

সুরা সাফফাত ع রুকু [৩][3] >> [১][1] >> [২][2] >> [৪][4] >> [৫][5]

.

(114) আর আমি নিশ্চয় হারূন ও মূসার প্রতি অনুগ্রহ করেছিলাম,وَلَقَدۡ مَنَنَّا عَلَىٰ مُوسَىٰ وَهَٰرُونَ ١١٤
(115) আর আমি তাদেরকে ও তাদের কওমকে মহাসংকট থেকে নাজাত দিয়েছিলাম।وَنَجَّيۡنَٰهُمَا وَقَوۡمَهُمَا مِنَ ٱلۡكَرۡبِ ٱلۡعَظِيمِ ١١٥
(116) আর আমি তাদেরকে সাহায্য করেছিলাম, ফলে তারাই ছিল বিজয়ী।وَنَصَرۡنَٰهُمۡ فَكَانُواْ هُمُ ٱلۡغَٰلِبِينَ ١١٦
(117) আর আমি উভয়কে সুস্পষ্ট কিতাব দান করেছিলাম।وَءَاتَيۡنَٰهُمَا ٱلۡكِتَٰبَ ٱلۡمُسۡتَبِينَ ١١٧
(118) আর আমি দু’জনকেই সরল সঠিক পথে পরিচালিত করেছিলাম।وَهَدَيۡنَٰهُمَا ٱلصِّرَٰطَ ٱلۡمُسۡتَقِيمَ ١١٨
(119) আর আমি তাদের জন্য পরবর্তীদের মধ্যে সুখ্যাতি রেখে দিয়েছি।وَتَرَكۡنَا عَلَيۡهِمَا فِي ٱلۡأٓخِرِينَ ١١٩
(120) মূসা ও হারূনের প্রতি সালাম।سَلَٰمٌ عَلَىٰ مُوسَىٰ وَهَٰرُونَ ١٢٠
(121) আমি এভাবেই সৎকর্মশীলদের পুরস্কৃত করে থাকি।إِنَّا كَذَٰلِكَ نَجۡزِي ٱلۡمُحۡسِنِينَ ١٢١
(122) নিশ্চয় তারা দু’জনই ছিল আমার মুমিন বান্দাদের অন্তর্ভুক্ত।إِنَّهُمَا مِنۡ عِبَادِنَا ٱلۡمُؤۡمِنِينَ ١٢٢
(123) আর ইলইয়াসও ছিল রাসূলদের একজন।وَإِنَّ إِلۡيَاسَ لَمِنَ ٱلۡمُرۡسَلِينَ ١٢٣
(124) যখন সে তার কওমকে বলেছিল ‘তোমরা কি (আল্লাহকে) ভয় করবে না’?إِذۡ قَالَ لِقَوۡمِهِۦٓ أَلَا تَتَّقُونَ ١٢٤
(125) তোমরা কি ‘বা’ল’ কে[6] ডাকবে এবং পরিত্যাগ করবে সর্বোত্তম সৃষ্টিকর্তা-أَتَدۡعُونَ بَعۡلٗا وَتَذَرُونَ أَحۡسَنَ ٱلۡخَٰلِقِينَ ١٢٥
(126) আল্লাহকে, যিনি তোমাদের রব এবং তোমাদের পূর্ববর্তী পিতৃপুরুষদেরও রব’?ٱللَّهَ رَبَّكُمۡ وَرَبَّ ءَابَآئِكُمُ ٱلۡأَوَّلِينَ ١٢٦
(127) কিন্তু তারা তাকে অস্বীকার করেছিল, ফলে তাদেরকে অবশ্যই (আযাবের জন্য) উপস্থিত করা হবে।فَكَذَّبُوهُ فَإِنَّهُمۡ لَمُحۡضَرُونَ ١٢٧
(128) আল্লাহর (আনুগত্যের জন্য) মনোনীত বান্দাগণ ছাড়া ।إِلَّا عِبَادَ ٱللَّهِ ٱلۡمُخۡلَصِينَ ١٢٨

সুরা সাফফাত ع রুকু [৪][4] >> [১][1] >> [২][2] >> [৩][3] >> [৫][5]

.

(129) আর আমি তার জন্য পরবর্তীদের মধ্যে সুনাম সুখ্যাতি রেখে দিয়েছি।وَتَرَكۡنَا عَلَيۡهِ فِي ٱلۡأٓخِرِينَ ١٢٩
(130) ইলইয়াসের প্রতি সালাম।سَلَٰمٌ عَلَىٰٓ إِلۡ يَاسِينَ ١٣٠
(131) নিশ্চয় আমি এভাবেই সৎকর্মশীলদের পুরস্কৃত করে থাকি।إِنَّا كَذَٰلِكَ نَجۡزِي ٱلۡمُحۡسِنِينَ ١٣١
(132) নিশ্চয় সে ছিল আমার মুমিন বান্দাদের অন্তর্ভুক্ত।إِنَّهُۥ مِنۡ عِبَادِنَا ٱلۡمُؤۡمِنِينَ١٣٢
(133) আর নিশ্চয় লূতও ছিল রাসূলদেরই একজন।وَإِنَّ لُوطٗا لَّمِنَ ٱلۡمُرۡسَلِينَ ١٣٣
(134) যখন আমি তাকে ও তার পরিবার পরিজন সকলকে নাজাত দিয়েছিলাম-إِذۡ نَجَّيۡنَٰهُ وَأَهۡلَهُۥٓ أَجۡمَعِينَ١٣٤
(135) পিছনে অবস্থানকারীদের অন্তর্ভুক্ত এক বৃদ্ধা ছাড়া ।إِلَّا عَجُوزٗا فِي ٱلۡغَٰبِرِينَ ١٣٥
(136) অতঃপর আমি অবশিষ্টদেরকে সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস করে দিয়েছিলাম।ثُمَّ دَمَّرۡنَا ٱلۡأٓخَرِينَ ١٣٦
(137) আর তোমরা নিশ্চয় তাদের (ধ্বংসাবশেষের) উপর দিয়ে অতিক্রম করে থাক সকালে-وَإِنَّكُمۡ لَتَمُرُّونَ عَلَيۡهِم مُّصۡبِحِينَ ١٣٧
(138) ও রাতে। তবুও কি তোমরা বুঝবে না?وَبِٱلَّيۡلِۚ أَفَلَا تَعۡقِلُونَ ١٣٨
(139) আর নিশ্চয় ইউনুসও ছিল রাসূলদের একজন।وَإِنَّ يُونُسَ لَمِنَ ٱلۡمُرۡسَلِينَ ١٣٩
(140) যখন সে একটি বোঝাই নৌযানের দিকে পালিয়ে গিয়েছিল।إِذۡ أَبَقَ إِلَى ٱلۡفُلۡكِ ٱلۡمَشۡحُونِ ١٤٠
(141) অতঃপর সে লটারীতে অংশগ্রহণ করল এবং তাতে সে হেরে গেল।فَسَاهَمَ فَكَانَ مِنَ ٱلۡمُدۡحَضِينَ ١٤١
(142) তারপর বড় মাছ তাকে গিলে ফেলল। আর সে (নিজেকে) ধিক্কার দিচ্ছিল।فَٱلۡتَقَمَهُ ٱلۡحُوتُ وَهُوَ مُلِيمٞ١٤٢
(143) আর সে যদি (আল্লাহর) তাসবীহ পাঠকারীদের অন্তর্ভুক্ত না হত,فَلَوۡلَآ أَنَّهُۥ كَانَ مِنَ ٱلۡمُسَبِّحِينَ ١٤٣
(144) তাহলে সে পুনরুত্থান দিবস পর্যন্ত তার পেটেই থেকে যেত।لَلَبِثَ فِي بَطۡنِهِۦٓ إِلَىٰ يَوۡمِ يُبۡعَثُونَ ١٤٤
(145) অতঃপর আমি তাকে তৃণলতাহীন প্রান্তরে নিক্ষেপ করলাম এবং সে ছিল অসুস্থ।۞فَنَبَذۡنَٰهُ بِٱلۡعَرَآءِ وَهُوَ سَقِيمٞ ١٤٥
(146) আর আমি একটি ইয়াকতীন[7] গাছ তার উপর উদগত করলাম।وَأَنۢبَتۡنَا عَلَيۡهِ شَجَرَةٗ مِّن يَقۡطِينٖ ١٤٦
(147) এবং তাকে আমি এক লক্ষ বা তার চেয়েও বেশী লোকের কাছে পাঠালাম।وَأَرۡسَلۡنَٰهُ إِلَىٰ مِاْئَةِ أَلۡفٍ أَوۡ يَزِيدُونَ ١٤٧
(148) অতঃপর তারা ঈমান আনল, ফলে আমি তাদেরকে কিছুকাল পর্যন্ত উপভোগ করতে দিলাম।فَ‍َٔامَنُواْ فَمَتَّعۡنَٰهُمۡ إِلَىٰ حِينٖ ١٤٨
(149) অতএব তাদেরকে জিজ্ঞাসা কর, ‘তোমার রবের জন্য কি কন্যা সন্তান এবং তাদের জন্য পুত্র সন্তান’?فَٱسۡتَفۡتِهِمۡ أَلِرَبِّكَ ٱلۡبَنَاتُ وَلَهُمُ ٱلۡبَنُونَ ١٤٩
(150) অথবা আমি কি ফেরেশতাদেরকে নারীরূপে সৃষ্টি করেছিলাম আর তারা তা প্রত্যক্ষ করছিল?أَمۡ خَلَقۡنَا ٱلۡمَلَٰٓئِكَةَ إِنَٰثٗا وَهُمۡ شَٰهِدُونَ ١٥٠
(151) জেনে রাখ, তারা অবশ্যই তাদের মনগড়া কথা বলে যে,أَلَآ إِنَّهُم مِّنۡ إِفۡكِهِمۡ لَيَقُولُونَ ١٥١
(152) আল্লাহ সন্তান জন্ম দিয়েছেন’ আর তারা অবশ্যই মিথ্যাবাদী।وَلَدَ ٱللَّهُ وَإِنَّهُمۡ لَكَٰذِبُونَ ١٥٢
(153) তিনি কি পুত্রসন্তানদের উপর কন্যা সন্তানদের বেছে নিয়েছেন?أَصۡطَفَى ٱلۡبَنَاتِ عَلَى ٱلۡبَنِينَ ١٥٣
(154) তোমাদের কী হল? তোমরা কেমন ফয়সালা করছ!مَا لَكُمۡ كَيۡفَ تَحۡكُمُونَ ١٥٤
(155) তাহলে কি তোমরা উপদেশ গ্রহণ করবে না?أَفَلَا تَذَكَّرُونَ ١٥٥
(156) নাকি তোমাদের কোন সুস্পষ্ট দলীল- প্রমাণ আছে?أَمۡ لَكُمۡ سُلۡطَٰنٞ مُّبِينٞ ١٥٦
(157) অতএব তোমরা সত্যবাদী হলে তোমাদের কিতাব নিয়ে আস।فَأۡتُواْ بِكِتَٰبِكُمۡ إِن كُنتُمۡ صَٰدِقِينَ ١٥٧
(158) আর তারা আল্লাহ ও জিন জাতির মধ্যে একটা বংশসম্পর্ক সাব্যস্ত করেছে, অথচ জিন জাতি জানে যে, নিশ্চয় তাদেরকেও উপস্থিত করা হবে।وَجَعَلُواْ بَيۡنَهُۥ وَبَيۡنَ ٱلۡجِنَّةِ نَسَبٗاۚ وَلَقَدۡ عَلِمَتِ ٱلۡجِنَّةُ إِنَّهُمۡ لَمُحۡضَرُونَ ١٥٨
(159) আল্লাহ সে সব থেকে অতিপবিত্র ও মহান, যা তারা আরোপ করে,سُبۡحَٰنَ ٱللَّهِ عَمَّا يَصِفُونَ ١٥٩
(160) তবে আল্লাহর (আনুগত্যের জন্য) নির্বাচিত বান্দাগণ ছাড়া।إِلَّا عِبَادَ ٱللَّهِ ٱلۡمُخۡلَصِينَ ١٦٠
(161) নিশ্চয় তোমরা এবং তোমরা যাদের ইবাদাত কর তারা-فَإِنَّكُمۡ وَمَا تَعۡبُدُونَ ١٦١
(162) তোমরা আল্লাহর ব্যাপারে (মুমিনদের) কাউকে বিভ্রান্ত করতে পারবে না।مَآ أَنتُمۡ عَلَيۡهِ بِفَٰتِنِينَ ١٦٢
(163) জ্বলন্ত আগুনে প্রবেশকারী ছাড়া।إِلَّا مَنۡ هُوَ صَالِ ٱلۡجَحِيمِ ١٦٣
(164) আমাদের[8] প্রত্যেকের জন্যই একটা নির্ধারিতস্থান [9] রয়েছে।وَمَا مِنَّآ إِلَّا لَهُۥ مَقَامٞ مَّعۡلُومٞ ١٦٤
(165) আর অবশ্যই আমরা সারিবদ্ধ ।وَإِنَّا لَنَحۡنُ ٱلصَّآفُّونَ ١٦٥
(166) আর আমরা অবশ্যই তাসবীহ পাঠকারী।وَإِنَّا لَنَحۡنُ ٱلۡمُسَبِّحُونَ١٦٦
(167) আর তারা (মক্কাবাসীরা) বলত,وَإِن كَانُواْ لَيَقُولُونَ ١٦٧
(168) যদি আমাদের কাছে পূর্বর্তীদের মত কোন উপদেশ (কিতাব) থাকত,لَوۡ أَنَّ عِندَنَا ذِكۡرٗا مِّنَ ٱلۡأَوَّلِينَ ١٦٨
(169) তাহলে অবশ্যই আমরা আল্লাহর মনোনীত বান্দা হতাম’।لَكُنَّا عِبَادَ ٱللَّهِ ٱلۡمُخۡلَصِينَ ١٦٩
(170) অতঃপর তারা তা অস্বীকার করল অতএব শীঘ্রই তারা জানতে পারবে (এর পরিণাম)।فَكَفَرُواْ بِهِۦۖ فَسَوۡفَ يَعۡلَمُونَ ١٧٠
(171) আর নিশ্চয় আমার প্রেরিত বান্দাদের জন্য আমার কথা পূর্ব নির্ধারিত হয়েছে যে,وَلَقَدۡ سَبَقَتۡ كَلِمَتُنَا لِعِبَادِنَا ٱلۡمُرۡسَلِينَ ١٧١
(172) অবশ্যই তারা সাহায্যপ্রাপ্ত হবে’।إِنَّهُمۡ لَهُمُ ٱلۡمَنصُورُونَ ١٧٢
(173) আর নিশ্চয় আমার বাহিনীই বিজয়ী হবে।وَإِنَّ جُندَنَا لَهُمُ ٱلۡغَٰلِبُونَ ١٧٣
(174) অতএব কিছু কাল পর্যন্ত তুমি তাদের থেকে ফিরে থাক।فَتَوَلَّ عَنۡهُمۡ حَتَّىٰ حِينٖ ١٧٤
(175) আর তাদেরকে পর্যবেক্ষণ কর, অচিরেই তারা দেখবে (এর পরিণাম) ।وَأَبۡصِرۡهُمۡ فَسَوۡفَ يُبۡصِرُونَ ١٧٥
(176) তারা কি আমার আযাব ত্বরান্বিত করতে চায়?أَفَبِعَذَابِنَا يَسۡتَعۡجِلُونَ ١٧٦
(177) আর যখন তা তাদের আঙিনায় নেমে আসবে তখন সতর্ককৃতদের সকাল কতই না মন্দ হবে!فَإِذَا نَزَلَ بِسَاحَتِهِمۡ فَسَآءَ صَبَاحُ ٱلۡمُنذَرِينَ ١٧٧
(178) আরো কিছু কাল পর্যন্ত তুমি তাদের থেকে ফিরে থাক।وَتَوَلَّ عَنۡهُمۡ حَتَّىٰ حِينٖ ١٧٨
(179) আর তাদেরকে পর্যবেক্ষণ কর, অচিরেই তারা দেখবে (এর পরিণাম)।وَأَبۡصِرۡ فَسَوۡفَ يُبۡصِرُونَ ١٧٩
(180) তারা যা ব্যক্ত করে তোমার রব তা থেকে পবিত্র মহান, সম্মানের মালিক।سُبۡحَٰنَ رَبِّكَ رَبِّ ٱلۡعِزَّةِ عَمَّا يَصِفُونَ١٨٠
(181) আর রাসূলদের প্রতি সালাম।وَسَلَٰمٌ عَلَى ٱلۡمُرۡسَلِينَ ١٨١
(182) আর সকল প্রশংসা সৃষ্টিকুলের রব আল্লাহর জন্য।وَٱلۡحَمۡدُ لِلَّهِ رَبِّ ٱلۡعَٰلَمِينَ ١٨٢

সুরা সাফফাত ع রুকু [৫][5] >> [১][1] >> [২][2] >> [৩][3] >> [৪][4]

সুরা সাফফাত বাংলা Sura Al Saffat in Words ع Ruku >> [৩][3] >> [৪][4] >> [৫][5]

(1)

وَٱلصَّٰٓفَّٰتِ

শপথ সারি বেঁধে দাঁড়ায় যারা

By those lined

صَفًّا

সারি সারি

(in) rows

(2)

فَٱلزَّٰجِرَٰتِ

অতঃপর (শপথ) ধমকদানকারীদের

And those who drive

زَجْرًا

সজোরে

strongly

(3)

فَٱلتَّٰلِيَٰتِ

অতঃপর (শপথ তাদের) পাঠকদের

And those who recite

ذِكْرًا

উপদেশবাণী

(the) Message

(4)

إِنَّ

নিশ্চয়ই

Indeed

إِلَٰهَكُمْ

তোমাদের ইলাহ

your Lord

لَوَٰحِدٌ

একজন অবশ্যই

(is) surely One

(5)

رَّبُّ

(তিনি) রব

Lord

ٱلسَّمَٰوَٰتِ

আকাশের

(of) the heavens

وَٱلْأَرْضِ

ও পৃৃথিবীর

and the earth

وَمَا

এবং যা কিছু (আছে)

and what

بَيْنَهُمَا

তাদের উভয়ের মাঝে

(is) between both of them

وَرَبُّ

এবং রব

and Lord

ٱلْمَشَٰرِقِ

উদয়স্থলসমূহের

(of) each point of sunrise

(6)

إِنَّا

নিশ্চয়ই আমরা

Indeed We

زَيَّنَّا

আমরা সৃুশোভিত করেছি

[We] adorned

ٱلسَّمَآءَ

আকাশকে

the heaven

ٱلدُّنْيَا

কাছের

nearest

بِزِينَةٍ

চাকচিক্য দ্বারা

with an adornment

ٱلْكَوَاكِبِ

তারকাদের

(of) the stars

(7)

وَحِفْظًا

এবং (তাকে) (আমরা করেছি) সংরক্ষণ

And (to) guard

مِّن

হ’তে

against

كُلِّ

প্রত্যেক

every

شَيْطَٰنٍ

শয়তানের

devil

مَّارِدٍ

(যারা) অবাধ্য

rebellious

(8)

لَّا

না

Not

يَسَّمَّعُونَ

তারা শুনতে পায়

they may listen

إِلَى

(কোন কথা) হ’তে

to

ٱلْمَلَإِ

জগৎ

the assembly

ٱلْأَعْلَىٰ

ওপরের

[the] exalted

وَيُقْذَفُونَ

এবং নিক্ষেপ করা হয়

are pelted

مِن

থেকে

from

كُلِّ

প্রত্যেক

every

جَانِبٍ

দিক

side

(9)

دُحُورًا

তাড়ানোর (জন্যে)

Repelled;

وَلَهُمْ

এবং তাদের জন্যে রয়েছে

and for them

عَذَابٌ

শাস্তি

(is) a punishment

وَاصِبٌ

অবিরাম

perpetual

(10)

إِلَّا

তবে

Except

مَنْ

যে

(him) who

خَطِفَ

হঠাৎ করে (শুনে) নেয়

snatches

ٱلْخَطْفَةَ

হঠাৎ নেওয়া

(by) theft

فَأَتْبَعَهُۥ

তাকে তখন অনুসরণ করে

but follows him

شِهَابٌ

উল্কা

a burning flame

ثَاقِبٌ

জ্বলন্ত

piercing

(11)

فَٱسْتَفْتِهِمْ

তাদেরকে অতঃপর জিজ্ঞেস করো

Then ask them

أَهُمْ

“তারা কি

“Are they

أَشَدُّ

বেশী কঠিন

a stronger

خَلْقًا

সৃষ্টি হিসেবে

creation

أَم

অথবা

or

مَّنْ

(অন্য) যা কিছু

(those) whom

خَلَقْنَآ

আমরা সৃষ্টি করেছি”

We have created?”

إِنَّا

নিশ্চয়ই আমরা

Indeed We

خَلَقْنَٰهُم

তাদেরকে আমরা সৃষ্টি করেছি

created them

مِّن

থেকে

from

طِينٍ

মাটি

a clay

لَّازِبٍۭ

(যা) এঁটেল

sticky

(12)

بَلْ

বরং

Nay

عَجِبْتَ

তুমি অবাক হচ্ছো

you wonder

وَيَسْخَرُونَ

আর তারা বিদ্রূপ করছে

while they mock

(13)

وَإِذَا

এবং যখন

And when

ذُكِّرُوا۟

তাদের উপদেশ দেয়া হয়

they are reminded

لَا

না

not

يَذْكُرُونَ

তারা উপদেশ গ্রহণ করে

they receive admonition

(14)

وَإِذَا

এবং যখন

And when

رَأَوْا۟

তারা দেখে

they see

ءَايَةً

কোনো নিদর্শন

a Sign

يَسْتَسْخِرُونَ

তারা উপহাস করে

they mock

(15)

وَقَالُوٓا۟

এবং তারা বলে

And they say

إِنْ

“নয়

“Not

هَٰذَآ

এটা

(is) this

إِلَّا

এ ব্যতীত

except

سِحْرٌ

জাদু

a magic

مُّبِينٌ

সুস্পষ্ট

clear

(16)

أَءِذَا

কি যখন

Is it when

مِتْنَا

আমরা মরে যাব

we are dead

وَكُنَّا

এবং আমরা হয়ে যাব

and have become

تُرَابًا

মাটি

dust

وَعِظَٰمًا

ও হাড়

and bones

أَءِنَّا

নিশ্চয়ই কি আমরা

shall we then

لَمَبْعُوثُونَ

আমাদেরকে উঠানো হবে অবশ্যই

be certainly resurrected

(17)

أَوَءَابَآؤُنَا

এবং কি (উঠানো হবে) আমাদের পিতৃপুরুষদেরকেও

Or our fathers

ٱلْأَوَّلُونَ

পূর্বকালের”

former?”

(18)

قُلْ

বলো

Say

نَعَمْ

“হ্যাঁ

“Yes

وَأَنتُمْ

এবং তোমরা

and you

دَٰخِرُونَ

অপমানিত হবে”

(will be) humiliated”

(19)

فَإِنَّمَا

মূলতঃ

Then only

هِىَ

তা (হবে)

it

زَجْرَةٌ

বিকট শব্দ কম্পন

(will be) a cry

وَٰحِدَةٌ

একটি (মাত্র)

single

فَإِذَا

অতঃপর তখন

then behold!

هُمْ

তারা

They

يَنظُرُونَ

দেখবে

will see

(20)

وَقَالُوا۟

এবং তারা বলবে

And they will say

يَٰوَيْلَنَا

“আমাদের দুর্ভোগ হায়

“O woe to us!

هَٰذَا

এটাই

This

يَوْمُ

দিন

(is the) Day

ٱلدِّينِ

বিচারের”

(of) the Recompense”

(21)

هَٰذَا

“এটাই

“This

يَوْمُ

দিন

(is the) Day

ٱلْفَصْلِ

মীমাংসার

(of) Judgment

ٱلَّذِى

যা

which

كُنتُم

তোমরা ছিলে

you used to

بِهِۦ

তা সম্পর্কে

of it

تُكَذِّبُونَ

মিথ্যা বলতে”

deny”

Sura Al Saffat in Words ع Ruku [১][1]

(22)

ٱحْشُرُوا۟

(বলা হবে) একত্র করে আনো

Gather

ٱلَّذِينَ

(তাদেরকে) যারা

those who

ظَلَمُوا۟

সীমালঙ্ঘন করেছিলো

wronged

وَأَزْوَٰجَهُمْ

এবং তাদের দোসরদেরকে

and their kinds

وَمَا

এবং যাদের

and what

كَانُوا۟

তারা

they used (to)

يَعْبُدُونَ

উপাসনা করতো

worship

(23)

مِن

মধ্য হতে

Besides

دُونِ

ছাড়া

Besides

ٱللَّهِ

আল্লাহ

Allah

فَٱهْدُوهُمْ

তাই তাদেরকে পরিচালিত করো

then lead them

إِلَىٰ

দিকে

to

صِرَٰطِ

পথের

(the) Path

ٱلْجَحِيمِ

জাহান্নামের

(of) the Hellfire

(24)

وَقِفُوهُمْ

এবং থামাও তাদেরকে

And stop them;

إِنَّهُم

তারা নিশ্চয়ই

indeed they

مَّسْـُٔولُونَ

জিজ্ঞাসিত হবে”

(are) to be questioned”

(25)

مَا

“(বলা হবে) কি

“What

لَكُمْ

তোমাদের হলো (যে)

(is) for you?

لَا

না

(Why) not

تَنَاصَرُونَ

তোমরা পরস্পরে সাহায্য করছো”

you help one another?”

(26)

بَلْ

বরং

Nay

هُمُ

তারা

they

ٱلْيَوْمَ

আজ

(on) that Day

مُسْتَسْلِمُونَ

আত্মসমর্পণকারী

(will) surrender

(27)

وَأَقْبَلَ

এবং মুখোমুখী হবে

And will approach

بَعْضُهُمْ

তাদের একে

some of them

عَلَىٰ

দিকে

to

بَعْضٍ

অপরের

others

يَتَسَآءَلُونَ

তারা পরস্পরে জিজ্ঞাসাবাদ করবে

questioning one another

(28)

قَالُوٓا۟

(অনুসারীরা) বলবে

They will say

إِنَّكُمْ

“তোমরা নিশ্চয়ই

“Indeed you

كُنتُمْ

আমাদের

[you] used (to)

تَأْتُونَنَا

কাছে আসতে

come (to) us

عَنِ

থেকে

from

ٱلْيَمِينِ

ডানদিক (অর্থাৎ শক্তি নিয়ে)”

the right”

(29)

قَالُوا۟

(নেতারা) বলবে

They will say

بَل

“বরং

“Nay

لَّمْ

না

not

تَكُونُوا۟

তোমরা ছিলে

you were

مُؤْمِنِينَ

মু’মিন

believers

(30)

وَمَا

এবং না

And not

كَانَ

ছিলো

was

لَنَا

আমাদের জন্যে

for us

عَلَيْكُم

তোমাদের উপর

over you

مِّن

কোনো

any

سُلْطَٰنٍۭ

কর্তৃত্ব

authority

بَلْ

বরং

Nay

كُنتُمْ

তোমরা ছিলে

you were

قَوْمًا

সম্প্রদায়

a people

طَٰغِينَ

অবাধ্য

transgressing

(31)

فَحَقَّ

সুতরাং সত্য হলো

So has been proved true

عَلَيْنَا

আমাদের বিরুদ্ধে

against us

قَوْلُ

কথা

(the) Word

رَبِّنَآ

আমাদের রবের

(of) our Lord;

إِنَّا

নিশ্চয়ই আমরা

indeed we

لَذَآئِقُونَ

অবশ্যই (শাস্তির) স্বাদ ভোগ করতে হবে

(will) certainly taste

(32)

فَأَغْوَيْنَٰكُمْ

কারণ তোমাদেরকে আমরা বিভ্রান্ত করেছিলাম

So we led you astray;

إِنَّا

নিশ্চয়ই আমরা

indeed we

كُنَّا

ছিলাম

were

غَٰوِينَ

বিভ্রান্ত”

astray”

(33)

فَإِنَّهُمْ

অতঃপর তারা নিশ্চয়ই

Then indeed they

يَوْمَئِذٍ

সেদিন

that Day

فِى

মধ্যে

in

ٱلْعَذَابِ

শাস্তির

the punishment

مُشْتَرِكُونَ

সম অংশীদার হবে

(will be) sharers

(34)

إِنَّا

নিশ্চয়ই আমরা

Indeed We

كَذَٰلِكَ

এরূপই

thus

نَفْعَلُ

আমরা করি

We deal

بِٱلْمُجْرِمِينَ

অপরাধীদের সাথে

with the criminals

(35)

إِنَّهُمْ

তারা নিশ্চয়ই

Indeed they

كَانُوٓا۟

ছিলো

were

إِذَا

যখন

when

قِيلَ

বলা হতো

it was said

لَهُمْ

তাদেরকে

to them

لَآ

“নাই

“(There is) no

إِلَٰهَ

কোনো ইলাহ

god

إِلَّا

ছাড়া

except

ٱللَّهُ

আল্লাহ”

Allah”

يَسْتَكْبِرُونَ

তারা অহংকার করতো

were arrogant

(36)

وَيَقُولُونَ

এবং তারা বলতো

And they say

أَئِنَّا

“নিশ্চয়ই আমরা কি

“Are we

لَتَارِكُوٓا۟

অবশ্যই ত্যাগকারী হবো

to leave

ءَالِهَتِنَا

আমাদের উপাস্যদেরকে

our gods

لِشَاعِرٍ

এক কবির জন্যে

for a poet

مَّجْنُونٍۭ

(যে) পাগল”

mad?”

(56)

قَالَ

সে বলবে

He (will) say

تَٱللَّهِ

“আল্লাহর শপথ

“By Allah

إِن

যে

verily

كِدتَّ

তুমি প্রায়

you almost

لَتُرْدِينِ

আমাকে ধ্বংস করেই ফেলেছিলে

ruined me

(37)

بَلْ

বরং

Nay

جَآءَ

(এই নাবী) এসেছে

he has brought

بِٱلْحَقِّ

সত্য নিয়ে

the truth

وَصَدَّقَ

এবং সত্য বলে স্বীকার করেছে

and confirmed

ٱلْمُرْسَلِينَ

(তাঁর পূর্বের) রাসূলদের

the Messengers

(38)

إِنَّكُمْ

নিশ্চয়ই তোমার

Indeed you

لَذَآئِقُوا۟

অবশ্যই স্বাদ ভোগকারী হবে

(will) surely taste

ٱلْعَذَابِ

শাস্তির

the punishment

ٱلْأَلِيمِ

নিদারুণ

painful

(39)

وَمَا

এবং না

And not

تُجْزَوْنَ

প্রতিফল দেয়া হবে

you will be recompensed

إِلَّا

এ ছাড়া

except

مَا

যা

what

كُنتُمْ

(তোমরা)

you used (to)

تَعْمَلُونَ

কাজ করতেছিলে

do

(40)

إِلَّا

তবে

Except

عِبَادَ

দাসরা

(the) slaves

ٱللَّهِ

আল্লাহর

(of) Allah

ٱلْمُخْلَصِينَ

(যারা ছিলো) নিষ্ঠাবান (রক্ষা পাবে)

the chosen ones

(41)

أُو۟لَٰٓئِكَ

ঐসব লোক

Those

لَهُمْ

তাদের জন্যে আছে

for them

رِزْقٌ

জীবিকা

(will be) a provision

مَّعْلُومٌ

নির্ধারিত

determined

(42)

فَوَٰكِهُ

ফলমূলসমূহ

Fruits

وَهُم

এবং তারা (হবে)

and they

مُّكْرَمُونَ

সম্মানিত

(will) be honored

(43)

فِى

মধ্যে

In

جَنَّٰتِ

জান্নাতের

Gardens

ٱلنَّعِيمِ

সুখকর

(of) Delight

(44)

عَلَىٰ

উপর

On

سُرُرٍ

আসনসমূহের (সমাসীন হবে)

thrones

مُّتَقَٰبِلِينَ

মুখোমুখী হয়ে

facing each other

(45)

يُطَافُ

ঘুরে ঘুরে পরিবেশন করা হবে

Will be circulated

عَلَيْهِم

তাদের কাছে

among them

بِكَأْسٍ

পান পাত্রকে (যা ভরা হবে)

a cup

مِّن

থেকে

from

مَّعِينٍۭ

বিশুদ্ধ পানীয় পূর্ণ

a flowing spring

(46)

بَيْضَآءَ

শুভ্র উজ্জ্বল

White

لَذَّةٍ

সুস্বাদু সুপেয়

delicious

لِّلشَّٰرِبِينَ

পানকারীদের জন্যে

for the drinkers;

(47)

لَا

না

Not

فِيهَا

তার মধ্যে (থাকবে)

in it

غَوْلٌ

কোনো মানসিক বিকৃতি

(is) bad effect

وَلَا

আর না

and not

هُمْ

তারা

they

عَنْهَا

তা হ’তে

from it

يُنزَفُونَ

মাতাল হবে

will be intoxicated

(48)

وَعِندَهُمْ

এবং কাছে তাদের (এমন তরুণী থাকবে)

And with them

قَٰصِرَٰتُ

(যারা) নতকারিণী

(will be) companions of modest gaze

ٱلطَّرْفِ

দৃষ্টি

(will be) companions of modest gaze

عِينٌ

আয়তলোচনা

(having) beautiful eyes

(49)

كَأَنَّهُنَّ

তারা যেন

As if they were

بَيْضٌ

ডিম

eggs

مَّكْنُونٌ

সুরক্ষিত

well protected

(50)

فَأَقْبَلَ

অতঃপর সামনা-সামনি হবে

And (will) approach

بَعْضُهُمْ

তাদের একে

some of them

عَلَىٰ

দিকে

to

بَعْضٍ

অপরের

others

يَتَسَآءَلُونَ

তারা জিজ্ঞাসাবাদ করবে

questioning one another

(51)

قَالَ

বলবে,

Will say

قَآئِلٌ

এক বক্তা

a speaker

مِّنْهُمْ

তাদের মধ্যে হ’তে

among them

إِنِّى

“নিশ্চয়ই আমার

“Indeed I

كَانَ

ছিলো

had

لِى

আমার

for me

قَرِينٌ

একজন সঙ্গী

a companion

(52)

يَقُولُ

সে বলতো

Who (would) say

أَءِنَّكَ

“তুমি কি নিশ্চয়ই

“Are you indeed

لَمِنَ

অবশ্যই অন্তর্ভুক্ত

surely of

ٱلْمُصَدِّقِينَ

সত্যতা স্বীকারকারীদের

those who believe?

(53)

أَءِذَا

কি যখন

Is (it) when

مِتْنَا

আমরা মারা যাবো

we have died

وَكُنَّا

এবং আমরা হবো

and become

تُرَابًا

মাটি

dust

وَعِظَٰمًا

ও হাড় (সর্বস্ব)

and bones

أَءِنَّا

আমরা কি নিশ্চয়ই

will we

لَمَدِينُونَ

প্রতিফলপ্রাপ্ত হবো অবশ্যই”

surely be brought to Judgment?”

(54)

قَالَ

বলবে

He (will) say

هَلْ

“কি

“Will

أَنتُم

তোমরা

you

مُّطَّلِعُونَ

(সেসব লোকদেরকে) উঁকি মেরে দেখতে পাও”

be looking?”

(55)

فَٱطَّلَعَ

সে তখন উঁকি মেরে দেখবে

Then he (will) look

فَرَءَاهُ

তাকে ফলে দেখতে পাবে

and see him

فِى

মধ্যে

in

سَوَآءِ

মাঝখানে

(the) midst

ٱلْجَحِيمِ

জাহান্নামের

(of) the Hellfire

(57)

وَلَوْلَا

এবং যদি না

And if not

نِعْمَةُ

অনুগ্রহ (হতো)

(for the) Grace

رَبِّى

আমার রবের

(of) my Lord

لَكُنتُ

অবশ্যই আমি হতাম

certainly I (would) have been

مِنَ

অন্তর্ভুক্ত

among

ٱلْمُحْضَرِينَ

(জাহান্নামে) উপস্থিত করা লোকদের

those brought

(58)

أَفَمَا

তবে কি না

Then are not

نَحْنُ

আমরা

we

بِمَيِّتِينَ

মৃত্যুবরণকারী হবো

(to) die

(59)

إِلَّا

ব্যতীত

Except

مَوْتَتَنَا

আমাদের মৃত্যু

our death

ٱلْأُولَىٰ

প্রথম

the first

وَمَا

এবং না

and not

نَحْنُ

আমরা

we

بِمُعَذَّبِينَ

শাস্তিপ্রাপ্ত হবো”

will be punished?”

(60)

إِنَّ

নিশ্চয়ই

Indeed

هَٰذَا

এটা

this

لَهُوَ

অবশ্যই সেই

surely

ٱلْفَوْزُ

সাফল্য

(is) the attainment

ٱلْعَظِيمُ

মহা

great

(61)

لِمِثْلِ

অনুরূপ (সাফল্যের) জন্যে

For (the) like

هَٰذَا

এর

(of) this

فَلْيَعْمَلِ

সাধনা করা উচিৎ

let work

ٱلْعَٰمِلُونَ

পরিশ্রমীদের

the workers

(62)

أَذَٰلِكَ

এটা কি

Is that

خَيْرٌ

উত্তম

better

نُّزُلًا

আপ্যায়ন

(as) hospitality

أَمْ

না

or

شَجَرَةُ

গাছ

(the) tree

ٱلزَّقُّومِ

যাক্কুমের

(of) Zaqqum?

(63)

إِنَّا

নিশ্চয়ই আমরা

Indeed We

جَعَلْنَٰهَا

তা আমরা সৃষ্টি করেছি

[We] have made it

فِتْنَةً

পরীক্ষা স্বরূপ

a trial

لِّلظَّٰلِمِينَ

সীমালঙ্ঘনকারীদের জন্যে

for the wrongdoers

(64)

إِنَّهَا

তা নিশ্চয়ই (এমন)

Indeed it

شَجَرَةٌ

একটি গাছ (যা)

(is) a tree

تَخْرُجُ

বের হয়

that grows

فِىٓ

হ’তে

in

أَصْلِ

তলদেশ

(the) bottom

ٱلْجَحِيمِ

জাহান্নামের

(of) the Hellfire

(65)

طَلْعُهَا

তার গুচ্ছগুলো (হচ্ছে এমন)

Its emerging fruit

كَأَنَّهُۥ

তা যেন

(is) as if it

رُءُوسُ

মাথাসমূহ

(was) heads

ٱلشَّيَٰطِينِ

শয়তানগুলোর

(of) the devils

(66)

فَإِنَّهُمْ

নিশ্চয়ই অতঃপর তারা

And indeed they

لَءَاكِلُونَ

খেতে বাধ্য হবেই

(will) surely eat

مِنْهَا

তা থেকে

from it

فَمَالِـُٔونَ

এভাবে পূর্ণকারী হবে

and fill

مِنْهَا

তা থেকে

with it

ٱلْبُطُونَ

(তাদের) পেট

(their) bellies

(67)

ثُمَّ

এরপর

Then

إِنَّ

নিশ্চয়ই

indeed

لَهُمْ

তাদের জন্যে (থাকবে)

for them

عَلَيْهَا

তার উপর

in it

لَشَوْبًا

অবশ্যই মিশ্রিত পানীয়

(is) a mixture

مِّنْ

থেকে

of

حَمِيمٍ

ফুটন্ত পানির

boiling water

(68)

ثُمَّ

এরপর

Then

إِنَّ

নিশ্চয়ই

indeed

مَرْجِعَهُمْ

তাদের প্রত্যাবর্তন হবে

their return

لَإِلَى

অবশ্যই দিকে

(will) surely be to

ٱلْجَحِيمِ

জাহান্নামের

the Hellfire

(69)

إِنَّهُمْ

তারা নিশ্চয়ই

Indeed they

أَلْفَوْا۟

পেয়েছিলো

found

ءَابَآءَهُمْ

তাদের পিতৃপুরুষদেরকে

their fathers

ضَآلِّينَ

বিপথগামী

astray

(70)

فَهُمْ

অতঃপর তারা

So they

عَلَىٰٓ

উপর

on

ءَاثَٰرِهِمْ

তাদের পদাঙ্কের

their footsteps

يُهْرَعُونَ

ছুটে চলছে

they hastened

(71)

وَلَقَدْ

এবং নিশ্চয়ই

And verily

ضَلَّ

পথভ্রষ্ট হয়েছিলো

went astray

قَبْلَهُمْ

তাদের পূর্বেও

before them

أَكْثَرُ

অধিকাংশ

most

ٱلْأَوَّلِينَ

পূর্ববর্তীদের

(of) the former (people)

(72)

وَلَقَدْ

এবং নিশ্চয়ই

And verily

أَرْسَلْنَا

আমরা পাঠিয়েছিলাম

We sent

فِيهِم

তাদের মধ্যে

among them

مُّنذِرِينَ

সতর্ককারীদেরকে (রাসূলরূপে)

warners

(73)

فَٱنظُرْ

দেখো অতঃপর

Then see

كَيْفَ

কেমন

how

كَانَ

হয়েছিলো

was

عَٰقِبَةُ

পরিণাম (সেই লোকদের)

(the) end

ٱلْمُنذَرِينَ

যাদের সতর্ক করা হয়েছিলো

(of) those who were warned

(74)

إِلَّا

তবে স্বতন্ত্র (কথা)

Except

عِبَادَ

দাসদের

(the) slaves

ٱللَّهِ

আল্লাহর

(of) Allah

ٱلْمُخْلَصِينَ

খাঁটি (যাদের)

the chosen ones

Sura Al Saffat in Words ع Ruku [২][2]

(75)

وَلَقَدْ

এবং নিশ্চয়ই

And verily

نَادَىٰنَا

আমাদেরকে ডেকেছিলো

called Us

نُوحٌ

নূহ

Nuh;

فَلَنِعْمَ

অতঃপর কত উত্তম

and Best

ٱلْمُجِيبُونَ

সাড়াদানকারী (আমরা)

(are We as) Responders!

(76)

وَنَجَّيْنَٰهُ

এবং তাকে আমরা করেছিলাম উদ্ধার

And We saved him

وَأَهْلَهُۥ

ও তার পরিবারকে

and his family

مِنَ

হ’তে

from

ٱلْكَرْبِ

সংকট

the distress

ٱلْعَظِيمِ

মহা

the great

(77)

وَجَعَلْنَا

এবং আমরা রাখলাম

And We made

ذُرِّيَّتَهُۥ

তার বংশধরকে (এমন যে)

his offspring

هُمُ

তারাই

they

ٱلْبَاقِينَ

অবশিষ্ট

the survivors

(78)

وَتَرَكْنَا

এবং আমরা ছেড়েছি (প্রশংসা)

And We left

عَلَيْهِ

তার সম্বন্ধে

for him

فِى

মধ্যে

among

ٱلْءَاخِرِينَ

পরবর্তীদের

the later generations

(79)

سَلَٰمٌ

“শান্তি (বর্ষিত হোক)

“Peace be

عَلَىٰ

উপর

upon

نُوحٍ

নূহের

Nuh

فِى

মধ্যে

among

ٱلْعَٰلَمِينَ

সমগ্র বিশ্বের”

the worlds”

(80)

إِنَّا

নিশ্চয়ই আমরা

Indeed We

كَذَٰلِكَ

এভাবে

thus

نَجْزِى

পুরস্কার দিই আমরা

[We] reward

ٱلْمُحْسِنِينَ

সৎকর্মপরায়ণদেরকে

the good-doers

(81)

إِنَّهُۥ

সে নিশ্চয়ই (ছিলো)

Indeed he

مِنْ

অন্তর্ভুক্ত

(was) of

عِبَادِنَا

আমাদের দাসদের

Our slaves

ٱلْمُؤْمِنِينَ

মু’মিন

believing

(82)

ثُمَّ

এরপর

Then

أَغْرَقْنَا

আমরা ডুবিয়ে দিই

We drowned

ٱلْءَاخَرِينَ

অন্যদেরকে

the others

(83)

وَإِنَّ

এবং নিশ্চয়ই

And indeed

مِن

মধ্য হ’তে

among

شِيعَتِهِۦ

তার পথের অনুসারীদের

his kind

لَإِبْرَٰهِيمَ

ইব্রাহীম অবশ্যই (অন্তর্ভক্ত ছিলো)

(was) surely Ibrahim

(84)

إِذْ

(স্মরণ করো) যখন

When

جَآءَ

সে এসেছিলো

he came

رَبَّهُۥ

তার রবের (কাছে)

(to) his Lord

بِقَلْبٍ

নিয়ে অন্তর

with a heart

سَلِيمٍ

বিশুদ্ধ

sound

(85)

إِذْ

যখন

When

قَالَ

সে বলেছিলো

he said

لِأَبِيهِ

তার পিতাকে

to his father

وَقَوْمِهِۦ

ও তার জাতিকে

and his people

مَاذَا

“কিসের

“What is it

تَعْبُدُونَ

তোমরা উপাসনা করছো

you worship?

(86)

أَئِفْكًا

কি মিথ্যা

Is it falsehood –

ءَالِهَةً

উপাস্যদের

gods

دُونَ

ব্যতীত

other than

ٱللَّهِ

আল্লাহকে

Allah –

تُرِيدُونَ

তোমরা পেতে চাও

(that) you desire?

(87)

فَمَا

কি তাহ’লে

Then what

ظَنُّكُم

তোমরা মনে করো

(do) you think

بِرَبِّ

রব সম্বন্ধে

about (the) Lord

ٱلْعَٰلَمِينَ

বিশ্বজগতের”

(of) the worlds?”

(88)

فَنَظَرَ

অতঃপর সে তাকালো

Then he glanced

نَظْرَةً

একবার

a glance

فِى

দিকে

at

ٱلنُّجُومِ

তারকাদের

the stars

فَقَالَ

অতঃপর বললো

And he said

إِنِّى

“নিশ্চয়ই আমি

“Indeed I am

سَقِيمٌ

অসুস্থ”

sick”

(90)

فَتَوَلَّوْا۟

তারা অতঃপর ফিরে গেল

So they turned away

عَنْهُ

তার থেকে

from him

مُدْبِرِينَ

পিঠ ফিরিয়ে

departing

(91)

فَرَاغَ

সে অতঃপর চুপিসারে গেলো

Then he turned

إِلَىٰٓ

দিকে

to

ءَالِهَتِهِمْ

তাদের দেবতাগুলোর

their gods

فَقَالَ

অতঃপর বললো

and said

أَلَا

“কেন না

“Do not

تَأْكُلُونَ

তোমরা খাচ্ছো

you eat?

(92)

مَا

কি

What (is)

لَكُمْ

তোমাদের হয়েছে

for you

لَا

না

not

تَنطِقُونَ

তোমরা কথা বলো”

you speak?”

(93)

فَرَاغَ

সে অতঃপর ঝাঁপিয়ে পড়লো

Then he turned

عَلَيْهِمْ

তাদের উপর

upon them

ضَرْبًۢا

আঘাত

striking

بِٱلْيَمِينِ

দিয়ে ডান হাত

with his right hand

(94)

فَأَقْبَلُوٓا۟

তারা অতঃপর এগিয়ে এলো

Then they advanced

إِلَيْهِ

তার দিকে

towards him

يَزِفُّونَ

ছুটে

hastening

(95)

قَالَ

সে বললো

He said

أَتَعْبُدُونَ

“তোমরা পূজা করো কি

“Do you worship

مَا

যাকে

what

تَنْحِتُونَ

তোমরা খোদাই করে তৈরী কর

you carve

(96)

وَٱللَّهُ

অথচ আল্লাহই

While Allah

خَلَقَكُمْ

তোমাদেরকে সৃষ্টি করেছেন

created you

وَمَا

এবং (তাদেরকেও) যাদের

And what

تَعْمَلُونَ

তোমরা তৈরী করো”

you make?”

(97)

قَالُوا۟

তারা বললো

They said

ٱبْنُوا۟

“তোমরা তৈরী করো

“Build

لَهُۥ

তার জন্যে

for him

بُنْيَٰنًا

প্রাচীর বেষ্টনী (অগ্নিকুন্ডের)

a structure

فَأَلْقُوهُ

তাকে অতঃপর নিক্ষেপ করো

and throw him

فِى

মধ্যে

into

ٱلْجَحِيمِ

জ্বলন্ত আগুনে”

the blazing Fire”

(98)

فَأَرَادُوا۟

তারা অতঃপর সংকল্প করলো

And they intended

بِهِۦ

তাঁর বিরুদ্ধে

for him

كَيْدًا

একটি ষড়যন্ত্রের

a plot

فَجَعَلْنَٰهُمُ

তাদেরকে তখন আমরা করলাম

but We made them

ٱلْأَسْفَلِينَ

অতিশয় হীন

the lowest

(99)

وَقَالَ

এবং সে বললো

And he said

إِنِّى

“নিশ্চয়ই আমি

“Indeed I am

ذَاهِبٌ

চললাম

going

إِلَىٰ

দিকে

to

رَبِّى

আমার রবের

my Lord

سَيَهْدِينِ

পথ দেখাবেন শীঘ্রই তিনি আমাকে

He will guide me

(100)

رَبِّ

(সে দোয়া করলো) হে আমার রব

My Lord

هَبْ

দাও

grant

لِى

আমাকে (সন্তান)

me

مِنَ

মধ্য হ’তে

of

ٱلصَّٰلِحِينَ

সৎপরায়ণদের”

the righteous”
(101)

فَبَشَّرْنَٰهُ

তাকে আমরা ফলে সুসংবাদ দিলাম

So We gave him the glad tidings

بِغُلَٰمٍ

এক পুত্রের

of a boy

حَلِيمٍ

ধীরস্থির

forbearing

(102)

فَلَمَّا

অতঃপর যখন

Then when

بَلَغَ

পৌঁছলো

he reached

مَعَهُ

তার সাথে

the (age of) working with him

ٱلسَّعْىَ

চলাফেরার (বয়সে)

the (age of) working with him

قَالَ

সে বললো

he said

يَٰبُنَىَّ

“হে আমার পুত্র

“O my son!

إِنِّىٓ

নিশ্চয়ই আমি

Indeed, I

أَرَىٰ

দেখেছি

have seen

فِى

মধ্যে

in

ٱلْمَنَامِ

স্বপ্নের

the dream

أَنِّىٓ

যে আমি

that I am

أَذْبَحُكَ

তোমাকে জবাই করছি

sacrificing you

فَٱنظُرْ

তাই ভেবে দেখো

so look

مَاذَا

কি

what

تَرَىٰ

তোমার মত”

you consider”

قَالَ

সে বললো

He said

يَٰٓأَبَتِ

“হে আমার পিতা

“O my father!

ٱفْعَلْ

আপনি করুন

Do

مَا

যা

what

تُؤْمَرُ

আপনাকে আদেশ করা হয়েছে

you are commanded

سَتَجِدُنِىٓ

আমাকে আপনি পাবেন

You will find me

إِن

যদি

if

شَآءَ

ইচ্ছে করে

Allah wills

ٱللَّهُ

আল্লাহ

Allah wills

مِنَ

অন্তর্ভুক্ত

of

ٱلصَّٰبِرِينَ

ধৈর্য্যশীলদের”

the patient ones”

(103)

فَلَمَّآ

যখন অতঃপর

Then when

أَسْلَمَا

অনুগত হয়ে গেলো উভয়ে

both of them had submitted

وَتَلَّهُۥ

এবং তাকে শুইয়ে দিলো

and he put him down

لِلْجَبِينِ

উপুড় করে

upon his forehead

(104)

وَنَٰدَيْنَٰهُ

এবং তাকে আমরা ডাক দিলাম

And We called out to him

أَن

যে

that

يَٰٓإِبْرَٰهِيمُ

“হে ইব্রাহীম

“O Ibrahim!

(105)

قَدْ

নিশ্চয়ই

Verily

صَدَّقْتَ

তুমি সত্য করেছো

you have fulfilled

ٱلرُّءْيَآ

স্বপ্নকে”

the vision”

إِنَّا

নিশ্চয়ই আমরা

Indeed We

كَذَٰلِكَ

এরূপে

thus

نَجْزِى

প্রতিফল দিই আমরা

[We] reward

ٱلْمُحْسِنِينَ

সৎকর্মপরায়ণদের

the good-doers

(106)

إِنَّ

নিশ্চয়ই

Indeed

هَٰذَا

এটা

this

لَهُوَ

তা অবশ্যই (ছিলো)

was surely

ٱلْبَلَٰٓؤُا۟

পরীক্ষা

the trial

ٱلْمُبِينُ

সুস্পষ্ট

clear

(107)

وَفَدَيْنَٰهُ

এবং তাকে আমরা ছাড়িয়ে নিই

And We ransomed him

بِذِبْحٍ

জবাই পশুর বিনিময়ে

with a sacrifice

عَظِيمٍ

বড়

great

(108)

وَتَرَكْنَا

এবং আমরা প্রচলিত রাখলাম

And We left

عَلَيْهِ

তাঁর উপর

for him

فِى

মধ্যে

among

ٱلْءَاخِرِينَ

পরবর্তীদের (তাঁর স্মরণ)

the later generations

(109)

سَلَٰمٌ

“সালাম (বর্ষিত হোক)

“Peace be

عَلَىٰٓ

উপর

on

إِبْرَٰهِيمَ

ইবরাহীমের”

Ibrahim”

(110)

كَذَٰلِكَ

এরূপে

Thus

نَجْزِى

প্রতিফল দিই আমরা

We reward

ٱلْمُحْسِنِينَ

উত্তম কর্মশীলদেরকে

the good-doers

(111)

إِنَّهُۥ

সে নিশ্চয়ই (ছিলো)

Indeed he (was)

مِنْ

অন্তর্ভুক্ত

of

عِبَادِنَا

আমাদের দাসদের

Our slaves

ٱلْمُؤْمِنِينَ

(যারা ছিলো) মু’মিন

believing

(112)

وَبَشَّرْنَٰهُ

এবং তাকে আমরা সুসংবাদ দিলাম

And We gave him glad tidings

بِإِسْحَٰقَ

ইসহাক সম্পর্কে

of Ishaq

نَبِيًّا

একজন নাবী হিসেবে

a Prophet

مِّنَ

অন্যতম

among

ٱلصَّٰلِحِينَ

সৎকর্মশীলদের

the righteous

(113)

وَبَٰرَكْنَا

এবং আমরা সমৃদ্ধি দিলাম

And We blessed

عَلَيْهِ

তাঁর উপর

him

وَعَلَىٰٓ

ও উপর

and [on]

إِسْحَٰقَ

ইসহাকের

Ishaq

وَمِن

এবং মধ্য হ’তে

And of

ذُرِّيَّتِهِمَا

তাদের দু’জনের বংশধরদের

their offspring

مُحْسِنٌ

(কেউ হয়) সৎকর্মপরায়ণ

(are) good-doers

وَظَالِمٌ

ও (কেউ হয়) সীমালঙ্ঘনকারী

and unjust

لِّنَفْسِهِۦ

তার নিজের উপর

to himself

مُبِينٌ

সুস্পষ্ট

clear

Sura Al Saffat in Words ع Ruku [৩][3] >> [৪][4] >> [৫][5]

(114)

وَلَقَدْ

এবং নিশ্চয়ই

And verily

مَنَنَّا

আমরা অনুগ্রহ করেছি

We conferred Favor

عَلَىٰ

উপর

upon

مُوسَىٰ

মূসার

Musa

وَهَٰرُونَ

ও হারূনের

and Harun

(115)

وَنَجَّيْنَٰهُمَا

এবং উদ্ধার করেছি আমরা উভয়কে

And We saved both of them

وَقَوْمَهُمَا

ও উভয়ের জাতিকে

and their people

مِنَ

হ’তে

from

ٱلْكَرْبِ

সংকট

the distress

ٱلْعَظِيمِ

মহা

the great

(116)

وَنَصَرْنَٰهُمْ

এবং তাদেরকে আমরা সাহায্য করেছি

And We helped them

فَكَانُوا۟

অতঃপর তারা হয়েছিলো

so they became

هُمُ

তারাই

so they became

ٱلْغَٰلِبِينَ

বিজয়ী

the victors

(117)

وَءَاتَيْنَٰهُمَا

এবং উভয়কে আমরা দিয়েছি

And We gave both of them

ٱلْكِتَٰبَ

কিতাব

the Book

ٱلْمُسْتَبِينَ

স্পষ্ট

the clear

(118)

وَهَدَيْنَٰهُمَا

এবং উভয়কে আমরা পরিচালিত করেছি

And We guided both of them

ٱلصِّرَٰطَ

পথে

(to) the Path

ٱلْمُسْتَقِيمَ

সরল সঠিক

the Straight

(119)

وَتَرَكْنَا

এবং আমরা অবশিষ্ট রেখেছি

And We left

عَلَيْهِمَا

তাদের উভয়ের সম্বন্ধে

for both of them

فِى

মধ্যে

among

ٱلْءَاخِرِينَ

পরবর্তীদের (উত্তম স্মরণ)

the later generations

(120)

سَلَٰمٌ

“সালাম (বর্ষিত হউক)

“Peace be

عَلَىٰ

উপর

upon

مُوسَىٰ

মূসার

Musa

وَهَٰرُونَ

ও হারূনের”

and Harun”

(121)

إِنَّا

নিশ্চয়ই আমরা

Indeed We

كَذَٰلِكَ

এরূপে

thus

نَجْزِى

প্রতিফল দিই আমরা

reward

ٱلْمُحْسِنِينَ

সৎকর্মপরায়ণদের

the good-doers

(122)

إِنَّهُمَا

নিশ্চয়ই তারা দু’জনও

Indeed both of them

مِنْ

অন্তর্ভুক্ত

(were) of

عِبَادِنَا

আমাদের দাসদের

Our slaves

ٱلْمُؤْمِنِينَ

(যারা ছিলো) মু’মিন

believing

(123)

وَإِنَّ

এবং নিশ্চয়ই

And indeed

إِلْيَاسَ

ইলয়াস

Ilyas

لَمِنَ

অবশ্যই অন্যতম

(was) surely of

ٱلْمُرْسَلِينَ

রাসূলদের

the Messengers

(124)

إِذْ

(স্মরণ করো) যখন

When

قَالَ

সে বলেছিলো

he said

لِقَوْمِهِۦٓ

তার জাতিকে

to his people

أَلَا

“না কি

“Will not

تَتَّقُونَ

তোমরা সাবধান হবে

you fear?

(125)

أَتَدْعُونَ

তোমরা ডাকবে কি

Do you call

بَعْلًا

বা’আল (নামক মূর্তিকে)

Baal

وَتَذَرُونَ

আর ত্যাগ করবে

and you forsake

أَحْسَنَ

সর্বশ্রেষ্ঠ

(the) Best

ٱلْخَٰلِقِينَ

স্রষ্টা

(of) Creators –

(126)

ٱللَّهَ

(অর্থাৎ) আল্লাহকে

Allah

رَبَّكُمْ

(যিনি) তোমাদের রব

your Lord

وَرَبَّ

ও রব

and (the) Lord

ءَابَآئِكُمُ

তোমাদের পিতৃপুরুষদেরও”

(of) your forefathers?”

ٱلْأَوَّلِينَ

পূর্বের”

(of) your forefathers?”

(127)

فَكَذَّبُوهُ

তাকে তারা তখন অমান্য করলো

But they denied him

فَإِنَّهُمْ

নিশ্চয় তাই তাদের

so indeed they

لَمُحْضَرُونَ

উপস্থিত করা হবে অবশ্যই (শাস্তির জন্যে)

(will) surely be brought

(128)

إِلَّا

তবে (ব্যতিক্রম)

Except

عِبَادَ

দাসরা

(the) slaves

ٱللَّهِ

আল্লাহর

(of) Allah

ٱلْمُخْلَصِينَ

(যারা) একনিষ্ঠ

the chosen ones

Sura Al Saffat in Words ع Ruku [৪][4] >> [৩][3] >> [৫][5]

(129)

وَتَرَكْنَا

এবং আমরা রেখেছি

And We left

عَلَيْهِ

তার সমন্ধে

for him

فِى

মধ্যে

among

ٱلْءَاخِرِينَ

পরবর্তীদের (উত্তম স্মরণ)

the later generations

(130)

سَلَٰمٌ

“সালাম (বর্ষিত হোক)

“Peace be

عَلَىٰٓ

উপর

upon

إِلْ يَاسِينَ

ইলিয়াসের”

Ilyas”

(131)

إِنَّا

নিশ্চয়ই আমরা

Indeed We

كَذَٰلِكَ

এরূপে

thus

نَجْزِى

প্রতিফল দিই আমরা

reward

ٱلْمُحْسِنِينَ

সৎকর্মশীলদের

the good-doers

(132)

إِنَّهُۥ

সে নিশ্চয়ই

Indeed he (was)

مِنْ

অন্তর্ভুক্ত

of

عِبَادِنَا

আমাদের দাসদের

Our slaves

ٱلْمُؤْمِنِينَ

(যারা) মু’মিন

believing

(133)

وَإِنَّ

এবং নিশ্চয়ই

And indeed

لُوطًا

লুতও (ছিলো)

Lut

لَّمِنَ

অন্যতম অবশ্যই

(was) of

ٱلْمُرْسَلِينَ

রাসূলদের

the Messengers

(134)

إِذْ

(স্মরণ করো) যখন

When

نَجَّيْنَٰهُ

তাকে আমরা উদ্ধার করেছিলাম

We saved him

وَأَهْلَهُۥٓ

এবং তারা পরিবারের

and his family

أَجْمَعِينَ

সকলকে

all

(135)

إِلَّا

ব্যতীত

Except

عَجُوزًا

এক বৃদ্ধাকে (অর্থাৎ তার স্ত্রীকে)

an old woman

فِى

(সে ছিলো) অন্তর্ভুক্ত

(was) among

ٱلْغَٰبِرِينَ

পিছনে অবস্থানকারীদের

those who remained behind

(136)

ثُمَّ

এরপর

Then

دَمَّرْنَا

আমরা ধ্বংস করেছিলাম

We destroyed

ٱلْءَاخَرِينَ

বাকিদেরকে

the others

(137)

وَإِنَّكُمْ

এবং নিশ্চয়ই তোমরা

And indeed you

لَتَمُرُّونَ

অবশ্যই আসা-যাওয়া করে থাকো

surely pass

عَلَيْهِم

তাদের (ধ্বংসপ্রাপ্ত এলাকার) উপর দিয়ে

by them

مُّصْبِحِينَ

সকালে

(in the) morning

(138)

وَبِٱلَّيْلِ

ও সন্ধ্যায়

And at night

أَفَلَا

তবুও কিনা

Then will not

تَعْقِلُونَ

তোমরা জ্ঞান কাজে লাগাও

you use reason?

(139)

وَإِنَّ

এবং নিশ্চয়ই

And indeed

يُونُسَ

ইউনূসও (ছিলো)

Yunus

لَمِنَ

অবশ্যই অন্যতম

(was) surely of

ٱلْمُرْسَلِينَ

রাসূলদের

the Messengers

(140)

إِذْ

(স্মরণ করো) যখন

When

أَبَقَ

সে পালিয়েছিলো

he ran away

إِلَى

দিকে

to

ٱلْفُلْكِ

নৌকার

the ship

ٱلْمَشْحُونِ

বোঝাই

laden

(141)

فَسَاهَمَ

অতঃপর সে লটারীতে অংশ নিলো

Then he drew lots

فَكَانَ

তখন সে হলো

and was

مِنَ

অন্তর্ভুক্ত

of

ٱلْمُدْحَضِينَ

পরাস্তদের (আর পানিতে নিক্ষিপ্ত হলো)

the losers

(142)

فَٱلْتَقَمَهُ

তাকে অতঃপর গিলে ফেললো

Then swallowed him

ٱلْحُوتُ

মাছ

the fish

وَهُوَ

এবং সে

while he

مُلِيمٌ

নিজেকে ধিক্কারকারী হলো

(was) blameworthy

(143)

فَلَوْلَآ

তখন যদি না

And if not

أَنَّهُۥ

সে

that he

كَانَ

হতো

was

مِنَ

অন্তর্ভুক্ত

of

ٱلْمُسَبِّحِينَ

মহিমা ঘোষণাকারীদের

those who glorify

(144)

لَلَبِثَ

অবশ্যই সে থাকতো

Certainly he (would have) remained

فِى

মধ্যে

in

بَطْنِهِۦٓ

তার পেটের

its belly

إِلَىٰ

পর্যন্ত

until

يَوْمِ

দিন

the Day

يُبْعَثُونَ

উত্থানের

they are resurrected

(145)

فَنَبَذْنَٰهُ

তাকে আমরা এরপর নিক্ষেপ করলাম

But We cast him

بِٱلْعَرَآءِ

তৃণহীন প্রান্তরে

onto the open shore

وَهُوَ

এমনাবস্হায় যে সে

while he

سَقِيمٌ

(ছিলো) অসুস্থ

(was) ill

(146)

وَأَنۢبَتْنَا

এবং আমরা উৎপন্ন করলাম

And We caused to grow

عَلَيْهِ

তার জন্যে

over him

شَجَرَةً

গাছ

a plant

مِّن

থেকে

of

يَقْطِينٍ

লাউগাছ

gourd

(147)

وَأَرْسَلْنَٰهُ

এবং তাকে আমরা পাঠালাম

And We sent him

إِلَىٰ

প্রতি

to

مِا۟ئَةِ

একশত

a hundred

أَلْفٍ

হাজার (অর্থাৎ এক লক্ষ)

thousand

أَوْ

বা

or

يَزِيدُونَ

আরও বেশী (লোকদের কাছে)

more

(148)

فَـَٔامَنُوا۟

তারা অতঃপর ঈমান আনে

And they believed

فَمَتَّعْنَٰهُمْ

তাদেরকে আমরা অতঃপর জীবন উপভোগ করতে দিলাম

so We gave them enjoyment

إِلَىٰ

পর্যন্ত

for

حِينٍ

নির্দিষ্টকাল

a while

(149)

فَٱسْتَفْتِهِمْ

তাদেরকে অতঃপর জিজ্ঞাসা করো

Then ask them

أَلِرَبِّكَ

“তোমার রবের জন্যে কি

“Does your Lord

ٱلْبَنَاتُ

কন্যাসমূহ (আছে)

(have) daughters

وَلَهُمُ

এবং তাদের জন্যে (আছে)

while for them

ٱلْبَنُونَ

পুত্রসমূহ”

(are) sons?”

(150)

أَمْ

অথবা

Or

خَلَقْنَا

আমরা সৃষ্টি করেছি

did We create

ٱلْمَلَٰٓئِكَةَ

ফেরেশতাদেরকে

the Angels

إِنَٰثًا

নারীরূপে

females

وَهُمْ

আর তারা

while they

شَٰهِدُونَ

দেখেছে

(were) witnesses?

(151)

أَلَآ

সাবধান

No doubt

إِنَّهُم

তারা নিশ্চয়ই

indeed they

مِّنْ

হ’তে

of

إِفْكِهِمْ

তাদের মনগড়া কথা

their falsehood

لَيَقُولُونَ

বলছে অবশ্যই (যে)

[they] say

(152)

وَلَدَ

“সন্তান জন্ম দিয়েছেন”

“Allah has begotten”

ٱللَّهُ

“আল্লাহ”

“Allah has begotten”

وَإِنَّهُمْ

এবং তারা নিশ্চয়ই

and indeed, they

لَكَٰذِبُونَ

মিথ্যাবাদী অবশ্যই

surely (are) liars

(153)

أَصْطَفَى

তিনি পছন্দ করেছেন কি

Has He chosen

ٱلْبَنَاتِ

কন্যাদেরকে

[the] daughters

عَلَى

পরিবর্তে

over

ٱلْبَنِينَ

পুত্রসন্তানদের

sons?

(154)

مَا

কি

What is with you?

لَكُمْ

তোমাদের হয়েছে

What is with you?

كَيْفَ

কেমন

How

تَحْكُمُونَ

তোমরা বিচার করো

you judge?

(155)

أَفَلَا

তবে কি না

Then will not

تَذَكَّرُونَ

তোমরা উপদেশ গ্রহণ করবে

you pay heed?

(156)

أَمْ

অথবা

Or

لَكُمْ

তোমাদের (আছে)

(is) for you

سُلْطَٰنٌ

প্রমাণ

an authority

مُّبِينٌ

সুস্পষ্ট

clear?

(157)

فَأْتُوا۟

তাহ’লে তোমরা আনো

Then bring

بِكِتَٰبِكُمْ

তোমাদের কিতাব

your book

إِن

যদি

if

كُنتُمْ

তোমরা হও

you are

صَٰدِقِينَ

সত্যবাদী

truthful

(158)

وَجَعَلُوا۟

এবং তারা স্হির করেছে

And they have made

بَيْنَهُۥ

তাঁর মাঝে

between Him

وَبَيْنَ

ও মাঝে

and between

ٱلْجِنَّةِ

জিনদের

the jinn

نَسَبًا

বংশীয় সম্পর্ক

a relationship

وَلَقَدْ

অথচ নিশ্চয়ই

but certainly

عَلِمَتِ

জেনেছে

know

ٱلْجِنَّةُ

জিনরা

the jinn

إِنَّهُمْ

নিশ্চয়ই তাদেরকে

that they

لَمُحْضَرُونَ

অবশ্যই উপস্থিত করা হবে

(will) surely be brought

(159)

سُبْحَٰنَ

পবিত্র

Glory be

ٱللَّهِ

আল্লাহ

(to) Allah

عَمَّا

তা হ’তে যা

above what

يَصِفُونَ

তারা আরোপ করে

they attribute

(160)

إِلَّا

তবে ব্যতিক্রম

Except

عِبَادَ

(ঐসব) দাস

(the) slaves

ٱللَّهِ

আল্লাহর

(of) Allah

ٱلْمُخْلَصِينَ

(যারা) একনিষ্ঠ

the chosen

(161)

فَإِنَّكُمْ

সুতরাং তোমরা নিশ্চয়ই

So indeed you

وَمَا

এবং যাদেরকে

and what

تَعْبُدُونَ

তোমরা উপাসনা করো

you worship

(162)

مَآ

না

Not

أَنتُمْ

তোমরা

you

عَلَيْهِ

তাঁর সম্বন্ধে (কাউকে)

from Him

بِفَٰتِنِينَ

বিভ্রান্ত করতে পারবে

can tempt away (anyone)

(163)

إِلَّا

তবে (পারবে)

Except

مَنْ

তাকে

who

هُوَ

যে

he

صَالِ

প্রবেশকারী

(is) to burn

ٱلْجَحِيمِ

প্রজ্জ্বলিত আগুনে

(in) the Hellfire

(164)

وَمَا

“এবং নাই

“And not

مِنَّآ

আমাদের মধ্য কেউ

among us

إِلَّا

এ ব্যতীত যে

except

لَهُۥ

তার জন্যে

for him

مَقَامٌ

স্থান

(is) a position

مَّعْلُومٌ

নির্দিষ্ট (রয়েছে)

known

(165)

وَإِنَّا

এবং নিশ্চয়ই

And indeed we

لَنَحْنُ

আমরা অবশ্যই

surely [we]

ٱلصَّآفُّونَ

সারি বেঁধে দাঁড়িয়ে আছি

stand in rows

(166)

وَإِنَّا

এবং নিশ্চয়ই আমরা

And indeed we

لَنَحْنُ

আমরা অবশ্যই

surely [we]

ٱلْمُسَبِّحُونَ

মহিমা ঘোষণাকারী”

glorify (Allah)”

(167)

وَإِن

এবং যদিও

And indeed

كَانُوا۟

(তারা)

they used (to)

لَيَقُولُونَ

তারা বলেই আসছে

say

(168)

لَوْ

“যদি

“If

أَنَّ

নিশ্চিত

that

عِندَنَا

আমাদের কাছে

we had

ذِكْرًا

কোনো কিতাব

a reminder

مِّنَ

মতো

from

ٱلْأَوَّلِينَ

পূর্ববর্তীদের

the former (people)

(169)

لَكُنَّا

অবশ্যই আমরা হতাম

Certainly we (would) have been

عِبَادَ

দাস

slaves

ٱللَّهِ

আল্লাহর

(of) Allah

ٱلْمُخْلَصِينَ

(যারা) একনিষ্ঠ”

the chosen”

(170)

فَكَفَرُوا۟

কিন্তু তারা অস্বীকার করলো

But they disbelieved

بِهِۦ

তাকে

in it

فَسَوْفَ

শীঘ্রই তাই

so soon

يَعْلَمُونَ

তারা জানবে

they will know

(171)

وَلَقَدْ

এবং নিশ্চয়ই

And verily

سَبَقَتْ

পূর্বে স্থির হয়েছে

has preceded

كَلِمَتُنَا

আমাদের বাণী (ওয়াদা)

Our Word

لِعِبَادِنَا

আমাদের দাসদের জন্যে

for Our slaves

ٱلْمُرْسَلِينَ

যারা প্রেরিত রাসূল

the Messengers

(172)

إِنَّهُمْ

(ঐ বিষয়ে যে) তারা নিশ্চয়ই

Indeed they

لَهُمُ

তারাই

surely they

ٱلْمَنصُورُونَ

সাহায্যপ্রাপ্ত হবে

(would be) the victorious

(173)

وَإِنَّ

এবং নিশ্চয়ই

And indeed

جُندَنَا

আমাদের সৈন্যরা

Our host

لَهُمُ

তারাই

surely they

ٱلْغَٰلِبُونَ

বিজয়ী হবে

(will be) those who overcome

(174)

فَتَوَلَّ

সুতরাং উপেক্ষা করো

So turn away

عَنْهُمْ

তাদেরকে

from them

حَتَّىٰ

পর্যন্ত

for

حِينٍ

কিছুকাল

a time

(175)

وَأَبْصِرْهُمْ

এবং দেখতে থাকো তাদেরকে

And see them

فَسَوْفَ

অতঃপর শীঘ্রই

so soon

يُبْصِرُونَ

তারাই দেখবে

they will see

(176)

أَفَبِعَذَابِنَا

আমাদের শাস্তি সম্পর্কে তবে কি

Then is (it) for Our punishment

يَسْتَعْجِلُونَ

তারা তাড়াহুড়া করছে

they hasten?

(177)

فَإِذَا

অতঃপর যখন

But when

نَزَلَ

নেমে আসবে (তা)

it descends

بِسَاحَتِهِمْ

তাদের আঙ্গিনায়

in their territory

فَسَآءَ

কত মন্দ হবে তখন

then evil (will be)

صَبَاحُ

প্রভাত

(the) morning

ٱلْمُنذَرِينَ

সতর্কীকৃতদের

(for) those who were warned

(178)

وَتَوَلَّ

উপেক্ষা করো এবং

So turn away

عَنْهُمْ

তাদেরকে

from them

حَتَّىٰ

পর্যন্ত

for

حِينٍ

কিছুুকাল

a time

(179)

وَأَبْصِرْ

আর দেখতে থাকো

And see

فَسَوْفَ

শীঘ্র্রই

so soon

يُبْصِرُونَ

তারাও দেখতে পাবে

they will see

(180)

سُبْحَٰنَ

পবিত্র

Glory

رَبِّكَ

তোমার রব

(be to) your Lord

رَبِّ

রব

(the) Lord

ٱلْعِزَّةِ

সম্মানের (মালিক)

(of) Honor

عَمَّا

তাহ’তে যা

above what

يَصِفُونَ

তারা আরোপ করে

they attribute

(181)

وَسَلَٰمٌ

এবং শান্তি (বর্ষিত হোক)

And peace be

عَلَى

উপর

upon

ٱلْمُرْسَلِينَ

রাসূলদের

the Messengers

(182)

وَٱلْحَمْدُ

এবং সমস্ত প্রশংসা

And all praise

لِلَّهِ

আল্লাহরই

(be) to Allah

رَبِّ

(যিনি) রব

(the) Lord

ٱلْعَٰلَمِينَ

বিশ্বজগতের

(of) the worlds

Sura Al Saffat in Words ع Ruku [৫][5] >> [৩][3] >> [৪][4]

[1] এ আয়াতে اليمين বলতে দীন বুঝানো হয়েছে। কারো কারো মতে এ দ্বারা শক্তি-সামর্থ্য বা কল্যাণ-স্বাচ্ছন্দ্য বুঝানো হয়েছে।

[2] غول অর্থ নেশা, মাতলামি, মাথাব্যথা ও পেটের পীড়া।

[3] অতি তিক্ত স্বাদযুক্ত জাহান্নামের এক গাছ।

[4] ইসমাঈলকে

[5] তা ছিল একটি জান্নাতী দুম্বা।

[6] بعل একটি দেবতার নাম, যার উপাসনা তারা করত।

[7] শসা, কাঁকড় ও লাউ জাতীয় গাছকে ইয়কতীন বলে। যা কান্ডের উপর দাঁড়াতে পারে না। তার জন্য মাচা তৈরী করতে হয়।

[8] এটা ফেরেশতাদের বক্তব্য।

[9] مقام অর্থঃ স্থান, মর্যাদা, ইত্যাদি।

৩৬সুরা ইয়া-সীন << সুরা সাফফাত >>৩৮ সুরা সা’দ

By Quran Sharif

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply