সুরা ফালাক্ব এর তাফসীর

সুরা ফালাক্ব এর তাফসীর

সুরা ফালাক্ব এর তাফসীর >> বুখারী শরীফ এর মুল সুচিপত্র পড়ুন >> সুরা ফালাক আরবি তে পড়ুন বাংলা অনুবাদ সহ

সুরা ফালাক্ব এর তাফসীর

৬৫/১১৩/১.অধ্যায়ঃ পরিচ্ছেদ নাই।

সুরা (১১৩) : ক্বুল আউযু বিরাবিবকাল ফালাক্ব ( সুরা ফালাক্ব এর তাফসীর )

وَقَالَ مُجَاهِدٌ{الْفَلَقُ} الصُّبْحُ وَ{غَاسِقٍ} اللَّيْلُ إِذَا وَقَبَ غُرُوْبُ الشَّمْسِ يُقَالُ أَبْيَنُ مِنْ فَرَقِ وَفَلَقِ الصُّبْحِ وَقَبَ إِذَا دَخَلَ فِيْ كُلِّ شَيْءٍ وَأَظْلَمَ.

মুজাহিদ (রহমাতুল্লাহি আলাইহি) বলেন, الْفَلَقُ রাত। غَاسِقٍ সূর্য অস্তমিত হওয়া। আরবীতে فَلَقِ ও فَرَقِ একই অর্থে ব্যবহৃত হয়। তাই বলা হয়, أَبْيَنُ مِنْ فَرَقِ وَفَلَقِ الصُّبْحِ ভোরের আলো প্রকাশিত হওয়ার চেয়েও তা স্পষ্ট। وَقَبَ অন্ধকার সব জায়গায় প্রবেশ করে এবং আচ্ছন্ন করে ফেলে।

৪৯৭৬

যির ইবনু হুবাইশ (রাদি.) হইতে বর্ণিতঃ

তিনি বলেন, আমি উবাই ইবনু কাবকে الْمُعَوِّذَتَيْنِ সম্পর্কে জিজ্ঞেস করার পর তিনি বলিলেন, এ বিষয়ে আমি রাসুলুল্লাহ (সাঃআঃ)-কে জিজ্ঞেস করেছিলাম। তিনি বলেছেন, আমাকে বলা হয়েছে, তাই আমি বলছি। উবাই ইবনু কাব (রাদি.) বলেন, রাসুলুল্লাহ (সাঃআঃ) যে রকম বলেছেন, আমরাও ঠিক সে রকম বলছি। [৪৯৭৭] (আ.প্র. ৪৬০৭, ই.ফা. ৪৬১২)

৪৯৭৭

যির ইবনু হুবাইশ (রাদি.) হইতে বর্ণিতঃ

তিনি বলেন, আমি উবাই ইবনু কাব (রাদি.)-কে জিজ্ঞেস করলাম, হে আবুল মুনযির! আপনার ভাই ইবনু মাসউদ (রাদি.) তো এ রকম কথা বলে থাকেন। তখন উবাই (রাদি.) বলিলেন, আমি এ সম্পর্কে রাসুলুল্লাহ (সাঃআঃ)-কে জিজ্ঞেস করলে তিনি আমাকে বলিলেন, আমাকে বলা হয়েছে তাই আমি বলেছি। উবাই ইবনু কাব (রাদি.) বলেন, কাজেই রাসুলুল্লাহ (সাঃআঃ) যা বলেছেন আমরাও তাই বলি। [৪৯৭৬] (আ.প্র. ৪৬০৮, ই.ফা. ৪৬১৩)

By ইমাম বুখারী

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply