সুরা নূহ বাংলা অনুবাদ Sura Nuh in Words & Audio

সুরা নূহ বাংলা অনুবাদ Sura Nuh in Words & Audio

সুরা নূহ >> ১১৪ টি সূরার সূচীপত্র লিস্ট >> ২০ টির অধিক তাফসীর কিতাব পড়ুন

৭১ – সুরা নূহ – আয়াত : ২৮, মাক্কী, রুকু ২

সুরা নূহ Sura Nuh mp3 Download

পরম করুণাময় অতি দয়ালু আল্লাহর নামেبِسۡمِ ٱللَّهِ ٱلرَّحۡمَٰنِ ٱلرَّحِيمِ
(1) নিশ্চয় আমি নূহকে পাঠিয়েছিলাম তার কওমের কাছে (এ কথা বলে), ‘তোমার কওমকে সতর্ক কর, তাদের নিকট যন্ত্রণাদায়ক আযাব আসার পূর্বে’।إِنَّآ أَرۡسَلۡنَا نُوحًا إِلَىٰ قَوۡمِهِۦٓ أَنۡ أَنذِرۡ قَوۡمَكَ مِن قَبۡلِ أَن يَأۡتِيَهُمۡ عَذَابٌ أَلِيمٞ ١
(2) সে বলল, ‘হে আমার কওম! নিশ্চয় আমি তোমাদের জন্য এক স্পষ্ট সতর্ককারী-قَالَ يَٰقَوۡمِ إِنِّي لَكُمۡ نَذِيرٞ مُّبِينٌ ٢
(3) যে, তোমরা আল্লাহর ‘ইবাদাত কর, তাঁকে ভয় কর এবং আমার আনুগত্য কর’।أَنِ ٱعۡبُدُواْ ٱللَّهَ وَٱتَّقُوهُ وَأَطِيعُونِ ٣
(4) ‘তিনি তোমাদের জন্য তোমাদের পাপসমূহ ক্ষমা করবেন এবং তোমাদেরকে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত অবকাশ দেবেন; আল্ল­াহর নির্ধারিত সময় আসলে কিছুতেই তা বিলম্বিত করা হয় না, যদি তোমরা জানতে’!يَغۡفِرۡ لَكُم مِّن ذُنُوبِكُمۡ وَيُؤَخِّرۡكُمۡ إِلَىٰٓ أَجَلٖ مُّسَمًّىۚ إِنَّ أَجَلَ ٱللَّهِ إِذَا جَآءَ لَا يُؤَخَّرُۚ لَوۡ كُنتُمۡ تَعۡلَمُونَ ٤
(5) সে বলল, ‘হে আমার রব! আমি তো আমার কওমকে রাত-দিন আহবান করেছি।قَالَ رَبِّ إِنِّي دَعَوۡتُ قَوۡمِي لَيۡلٗا وَنَهَارٗا ٥
(6) ‘অতঃপর আমার আহবান কেবল তাদের পলায়নই বাড়িয়ে দিয়েছে’।فَلَمۡ يَزِدۡهُمۡ دُعَآءِيٓ إِلَّا فِرَارٗا ٦
(7) ‘আর যখনই আমি তাদেরকে আহবান করেছি ‘যেন আপনি তাদেরকে ক্ষমা করেন’, তারা নিজদের কানে আঙ্গুল ঢুকিয়ে দিয়েছে, নিজদেরকে পোশাকে আবৃত করেছে, (অবাধ্যতায়) অনড় থেকেছে এবং দম্ভভরে ঔদ্ধত্য প্রকাশ করেছে’।وَإِنِّي كُلَّمَا دَعَوۡتُهُمۡ لِتَغۡفِرَ لَهُمۡ جَعَلُوٓاْ أَصَٰبِعَهُمۡ فِيٓ ءَاذَانِهِمۡ وَٱسۡتَغۡشَوۡاْ ثِيَابَهُمۡ وَأَصَرُّواْ وَٱسۡتَكۡبَرُواْ ٱسۡتِكۡبَارٗا٧
(8) ‘তারপর আমি তাদেরকে প্রকাশ্যে আহবান করেছি’।ثُمَّ إِنِّي دَعَوۡتُهُمۡ جِهَارٗا ٨
(9) অতঃপর তাদেরকে আমি প্রকাশ্যে এবং অতি গোপনেও আহবান করেছি।ثُمَّ إِنِّيٓ أَعۡلَنتُ لَهُمۡ وَأَسۡرَرۡتُ لَهُمۡ إِسۡرَارٗا ٩
(10) আর বলেছি, ‘তোমাদের রবের কাছে ক্ষমা চাও; নিশ্চয় তিনি পরম ক্ষমাশীল’।فَقُلۡتُ ٱسۡتَغۡفِرُواْ رَبَّكُمۡ إِنَّهُۥ كَانَ غَفَّارٗا ١٠
(11) ‘তিনি তোমাদের উপর মুষলধারে বৃষ্টি বর্ষণ করবেন,يُرۡسِلِ ٱلسَّمَآءَ عَلَيۡكُم مِّدۡرَارٗا ١١
(12) ‘আর তোমাদেরকে ধন-সম্পদ ও সন্তান- সন্ততি দিয়ে সাহায্য করবেন এবং তোমাদের জন্য বাগ-বাগিচা দেবেন আর দেবেন নদী-নালা’।وَيُمۡدِدۡكُم بِأَمۡوَٰلٖ وَبَنِينَ وَيَجۡعَل لَّكُمۡ جَنَّٰتٖ وَيَجۡعَل لَّكُمۡ أَنۡهَٰرٗا ١٢
(13) তোমাদের কী হল, তোমরা আল্লাহর শ্রেষ্ঠত্বের পরোয়া করছ না’?مَّا لَكُمۡ لَا تَرۡجُونَ لِلَّهِ وَقَارٗا ١٣
(14) অথচ তিনি তোমাদেরকে নানা স্তরে সৃষ্টি করেছেন’।وَقَدۡ خَلَقَكُمۡ أَطۡوَارًا ١٤
(15) তোমরা কি লক্ষ্য কর না যে, কীভাবে আল্লাহ স্তরে স্তরে সপ্তাকাশ সৃষ্টি করেছেন’?أَلَمۡ تَرَوۡاْ كَيۡفَ خَلَقَ ٱللَّهُ سَبۡعَ سَمَٰوَٰتٖ طِبَاقٗا ١٥
(16) আর এগুলোর মধ্যে চাঁদকে সৃষ্টি করেছেন আলো আর সূর্যকে সৃষ্টি করেছেন প্রদীপরূপে’।وَجَعَلَ ٱلۡقَمَرَ فِيهِنَّ نُورٗا وَجَعَلَ ٱلشَّمۡسَ سِرَاجٗا ١٦
(17) আর আল্লাহ তোমাদেরকে উদগত করেছেন মাটি থেকে’।وَٱللَّهُ أَنۢبَتَكُم مِّنَ ٱلۡأَرۡضِ نَبَاتٗا ١٧
(18) তারপর তিনি তোমাদেরকে তাতে ফিরিয়ে নেবেন এবং নিশ্চিতভাবে তোমাদেরকে পুনরুত্থিত করবেন’।ثُمَّ يُعِيدُكُمۡ فِيهَا وَيُخۡرِجُكُمۡ إِخۡرَاجٗا ١٨
(19) আর আল্লাহ পৃথিবীকে তোমাদের জন্য বিস্তৃত করেছেন,    وَٱللَّهُ جَعَلَ لَكُمُ ٱلۡأَرۡضَ بِسَاطٗا ١٩
(20) যেন তোমরা সেখানে প্রশস্ত পথে চলতে পার’।لِّتَسۡلُكُواْ مِنۡهَا سُبُلٗا فِجَاجٗا ٢٠
সুরা নূহع রুকু
(21) নূহ বলল, ‘হে আমার রব! তারা আমার অবাধ্য হয়েছে এবং এমন একজনের অনুসরণ করেছে যার ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততি কেবল তার ক্ষতিই বাড়িয়ে দেয়’।قَالَ نُوحٞ رَّبِّ إِنَّهُمۡ عَصَوۡنِي وَٱتَّبَعُواْ مَن لَّمۡ يَزِدۡهُ مَالُهُۥ وَوَلَدُهُۥٓ إِلَّا خَسَارٗا ٢١
(22) আর তারা ভয়ানক ষড়যন্ত্র করেছে’।وَمَكَرُواْ مَكۡرٗا كُبَّارٗا ٢٢
(23) আর তারা বলে, ‘তোমরা তোমাদের উপাস্যদের বর্জন করো না; বর্জন করো না ওয়াদ, সুওয়া‘, ইয়াগূছ, ইয়া‘ঊক ও নাসরকে’।وَقَالُواْ لَا تَذَرُنَّ ءَالِهَتَكُمۡ وَلَا تَذَرُنَّ وَدّٗا وَلَا سُوَاعٗا وَلَا يَغُوثَ وَيَعُوقَ وَنَسۡرٗا ٢٣
(24) বস্তুত তারা অনেককে পথভ্রষ্ট করেছে, আর (হে আল্লাহ) আপনি যালিমদেরকে ভ্রষ্টতা ছাড়া আর কিছুই বাড়াবেন না’।    وَقَدۡ أَضَلُّواْ كَثِيرٗاۖ وَلَا تَزِدِ ٱلظَّٰلِمِينَ إِلَّا ضَلَٰلٗا ٢٤
(25) তাদের পাপের কারণে তাদেরকে ডুবিয়ে দেয়া হল অতঃপর আগুনে প্রবেশ করানো হল; তারা নিজদের সাহায্যকারী হিসেবে আল্লাহ ছাড়া আর কাউকে পায়নি।مِّمَّا خَطِيٓـَٰٔتِهِمۡ أُغۡرِقُواْ فَأُدۡخِلُواْ نَارٗا فَلَمۡ يَجِدُواْ لَهُم مِّن دُونِ ٱللَّهِ أَنصَارٗا ٢٥
(26) আর নূহ বলল, ‘হে আমার রব! যমীনের উপর কোন কাফিরকে অবশিষ্ট রাখবেন না’।وَقَالَ نُوحٞ رَّبِّ لَا تَذَرۡ عَلَى ٱلۡأَرۡضِ مِنَ ٱلۡكَٰفِرِينَ دَيَّارًا ٢٦
(27) আপনি যদি তাদেরকে অবশিষ্ট রাখেন তবে তারা আপনার বান্দাদেরকে পথভ্রষ্ট করবে এবং দুরাচারী ও কাফির ছাড়া অন্য কারো জন্ম দেবে না’।إِنَّكَ إِن تَذَرۡهُمۡ يُضِلُّواْ عِبَادَكَ وَلَا يَلِدُوٓاْ إِلَّا فَاجِرٗا كَفَّارٗا ٢٧
(28) হে আমার রব! আমাকে, আমার পিতা-মাতাকে, যে আমার ঘরে ঈমানদার হয়ে প্রবেশ করবে তাকে এবং মুমিন নারী-পুরুষকে ক্ষমা করুন এবং ধ্বংস ছাড়া আপনি যালিমদের আর কিছুই বাড়িয়ে দেবেন না।’رَّبِّ ٱغۡفِرۡ لِي وَلِوَٰلِدَيَّ وَلِمَن دَخَلَ بَيۡتِيَ مُؤۡمِنٗا وَلِلۡمُؤۡمِنِينَ وَٱلۡمُؤۡمِنَٰتِۖ وَلَا تَزِدِ ٱلظَّٰلِمِينَ إِلَّا تَبَارَۢا ٢٨
সুরা নূহع রুকু

Sura Nuh in Words

(1)

إِنَّآ

আমরা নিশ্চয়

Indeed, We

أَرْسَلْنَا

আমরা পাঠিয়েছি

{We} sent

نُوحًا

নূহকে

Nuh

إِلَىٰ

প্রতি

to

قَوْمِهِۦٓ

তার জাতির

his people

أَنْ

যে

that

أَنذِرْ

“তুমি সতর্ক কর

“Warn

قَوْمَكَ

তোমার জাতিকে

your people

مِن

মধ্য হতে

from

قَبْلِ

পূর্বে

before

أَن

যে

{that}

يَأْتِيَهُمْ

তাদের উপর আসবে

comes to them

عَذَابٌ

আযাব

a punishment

أَلِيمٌ

কষ্টদায়ক”

painful”

(2)

قَالَ

বলেছিল

He said

يَٰقَوْمِ

“আমার জাতি হে

“O my people!

إِنِّى

আমি নিশ্চয়

Indeed I am

لَكُمْ

জন্যে তোমাদের

to you

نَذِيرٌ

সতর্ককারী

a warner

مُّبِينٌ

সুস্পষ্ট

clear

(3)

أَنِ

যেন

That

ٱعْبُدُوا۟

তোমরা এবাদত কর

Worship

ٱللَّهَ

আল্লাহর

Allah

وَٱتَّقُوهُ

এবং তাঁকে ভয় কর

and fear Him

وَأَطِيعُونِ

ও আমার আনুগত্য কর

and obey me

(4)

يَغْفِرْ

মাফ তিনি করবেন

He will forgive

لَكُم

তোমাদের জন্য

for you

مِّن

থেকে

{of}

ذُنُوبِكُمْ

তোমাদের গুনাহ সমূহকে

your sins

وَيُؤَخِّرْكُمْ

এবং তোমাদের অবকাশ দেবেন

and give you respite

إِلَىٰٓ

পর্যন্ত

for

أَجَلٍ

সময়

a term

مُّسَمًّى

নির্দিষ্ট

specified

إِنَّ

নিশ্চয়

Indeed

أَجَلَ

নির্দধারিত কাল

(the) term

ٱللَّهِ

আল্লাহর

(of) Allah

إِذَا

যখন

when

جَآءَ

আসে

it comes

لَا

না

not

يُؤَخَّرُ

বিলম্বিত করা হয়

is delayed

لَوْ

যদি

if

كُنتُمْ

তোমরা হতে

you

تَعْلَمُونَ

অবগত”

know”

(5)

قَالَ

সে বলল

He said

رَبِّ

“আমার রব হে

“My Lord!

إِنِّى

আমি নিশ্চয়

Indeed I

دَعَوْتُ

আমি ডেকেছি

invited

قَوْمِى

আমার জাতিকে

my people

لَيْلًا

রাতে

night

وَنَهَارًا

ও দিনে

and day

(6)

فَلَمْ

তাই অতঃপর

But not

يَزِدْهُمْ

তাদের বৃদ্ধি পায়

increased them

دُعَآءِىٓ

আমার দাকে

my invitation

إِلَّا

ছাড়া

except

فِرَارًا

পলায়ন

(in) flight

(7)

وَإِنِّى

এবং আমি নিশ্চয়

And indeed I

كُلَّمَا

যখনই

every time

دَعَوْتُهُمْ

তাদের আমি দেকেছি

I invited them

لِتَغْفِرَ

তুমি মাফ যাতে কর

that You may forgive

لَهُمْ

তাদেরকে

them

جَعَلُوٓا۟

তারা রেখেছিল

they put

أَصَٰبِعَهُمْ

তাদের আংগুলগুলোকে

their fingers

فِىٓ

মধ্যে

in

ءَاذَانِهِمْ

তাদের কানগুলোর

their ears

وَٱسْتَغْشَوْا۟

ও তারা ঢেকেছে

and covered themselves

ثِيَابَهُمْ

তাদের কাপড় (দ্বারা)

(with) their garments

وَأَصَرُّوا۟

ও অনমনীয় হয়েছে

and persisted

وَٱسْتَكْبَرُوا۟

এবং অহংকার করেছে

and were arrogant

ٱسْتِكْبَارًا

বড়ই অহংকার

(with) pride

(8)

ثُمَّ

অতঃপর

Then

إِنِّى

আমি নিশ্চয়

indeed I

دَعَوْتُهُمْ

তাদের ডেকেছি

invited them

جِهَارًا

প্রকাশ্যে

publicly

(9)

ثُمَّ

এরপর

Then

إِنِّىٓ

আমি নিশ্চয়

indeed I

أَعْلَنتُ

আমি ঘোষণা দিয়াছি

announced

لَهُمْ

তাদের জন্যে

to them

وَأَسْرَرْتُ

এবং আমি গোপনে বলেছি

and I confided

لَهُمْ

তাদেরকে

to them

إِسْرَارًا

গোপনে বলা

secretly

(10)

فَقُلْتُ

আমি বলেছি অতঃপর

Then I said

ٱسْتَغْفِرُوا۟

“তোমরা মাফ চাও

“Ask forgiveness

رَبَّكُمْ

তোমাদের রবের (কাছে)

(from) your Lord

إِنَّهُۥ

তিনি নিশ্চয়

Indeed He

كَانَ

হলেন

is

غَفَّارًا

বড় ক্ষমাশীল

Oft-Forgiving

(11)

يُرْسِلِ

পাঠাবেন তিনি

He will send down

ٱلسَّمَآءَ

আকাশ (থেকে)

(rain from) the sky

عَلَيْكُم

তোমাদের উপর

upon you

مِّدْرَارًا

বৃষ্টি

(in) abundance

(12)

وَيُمْدِدْكُم

এবং তোমাদের সাহায্য করবেন

And provide you

بِأَمْوَٰلٍ

মালসমূহ দিয়ে

with wealth

وَبَنِينَ

ও সন্তান সন্ততি দিয়ে

and children

وَيَجْعَل

এবং সৃষ্টি করবেন

and make

لَّكُمْ

তোমাদের জন্যে

for you

جَنَّٰتٍ

বাগবাগিচাসমূহ

gardens

وَيَجْعَل

ও বানাবেন

and make

لَّكُمْ

তোমাদের জন্যে

for you

أَنْهَٰرًا

ঝর্ণাসমূহ

rivers

(13)

مَّا

কী হয়েছে

What

لَكُمْ

তোমাদের

(is) for you

لَا

না

not

تَرْجُونَ

তোমরা আশা কর

you attribute

لِلَّهِ

আল্লাহর জন্যে

to Allah

وَقَارًا

মর্যাদা

grandeur?

(14)

وَقَدْ

এবং নিশ্চয়

And indeed

خَلَقَكُمْ

তোমাদের তিনি সৃষ্টি করেছেন

He created you

أَطْوَارًا

পর্যায়ক্রমে

(in) stages

(15)

أَلَمْ

নাই কি

Do not

تَرَوْا۟

তোমরা দেখ

you see

كَيْفَ

কেমনে

how

خَلَقَ

সৃষ্টি করেছেন

did create

ٱللَّهُ

আল্লাহ

Allah

سَبْعَ

সাত

(the) seven

سَمَٰوَٰتٍ

আসমান

heavens

طِبَاقًا

স্তরে স্তরে

(in) layers

(16)

وَجَعَلَ

এবং বানিয়েছেন

And made

ٱلْقَمَرَ

চাঁদকে

the moon

فِيهِنَّ

তার মধ্যে

therein

نُورًا

আলো

a light

وَجَعَلَ

এবং বানিয়েছেন

and made

ٱلشَّمْسَ

সূর্যকে

the sun

سِرَاجًا

প্রদীপ রূপে

a lamp?

(17)

وَٱللَّهُ

এবং আল্লাহ

And Allah

أَنۢبَتَكُم

তোমাদের উদ্ভুত করেছেন

has caused you to grow

مِّنَ

থেকে

from

ٱلْأَرْضِ

মৃত্তিকা

the earth

نَبَاتًا

(বিস্ময়করভাবে উদ্ভুত)

(as) a growth

(18)

ثُمَّ

এরপর

Then

يُعِيدُكُمْ

তোমাদের ফিরিয়ে নেবেন

He will return you

فِيهَا

তার মধ্যে

into it

وَيُخْرِجُكُمْ

এবং তোমাদেরকে বের করবেন

and bring you forth

إِخْرَاجًا

(সম্পূর্ণরূপে) বহিষ্কার

(a new) bringing forth

(19)

وَٱللَّهُ

এবং আল্লাহ

And Allah

جَعَلَ

বানিয়েছেন

made

لَكُمُ

তোমাদের জন্যে

for you

ٱلْأَرْضَ

যমীনকে

the earth

بِسَاطًا

বিছানারুপে

an expanse

(20)

لِّتَسْلُكُوا۟

তোমরা চলো যেন

That you may go along

مِنْهَا

তা থেকে

therein

سُبُلًا

রাস্তাসমূহে

(in) paths

فِجَاجًا

প্রশস্ত”

wide”

Sura Nuh Ruku 1

(21)

قَالَ

বলল

Said

نُوحٌ

নূহ

Nuh

رَّبِّ

“হে আমার রব

“My Lord!

إِنَّهُمْ

তারা নিশ্চয়

Indeed they

عَصَوْنِى

আমাকে অমান্য করেছে

disobeyed me

وَٱتَّبَعُوا۟

এবং তারা অনুসরণ করেছে

and followed

مَن

(তার) যার

(the one) who

لَّمْ

নাই

(did) not

يَزِدْهُ

তাকে বাড়ায়

increase him

مَالُهُۥ

তার মাল

his wealth

وَوَلَدُهُۥٓ

ও তার সন্তান

and his children

إِلَّا

ব্যতীত

except

خَسَارًا

লোকসান (আর কিছুই)

(in) loss

(22)

وَمَكَرُوا۟

এবং তারা ষড়যন্ত্র করেছে

And they have planned

مَكْرًا

ষড়যন্ত্র

a plan

كُبَّارًا

অতি বড়

great

(23)

وَقَالُوا۟

এবং তারা বলেছে

And they said

لَا

“না

“(Do) not

تَذَرُنَّ

কখনোতোমরা ছেড়ো

leave

ءَالِهَتَكُمْ

তোমাদের ইলাহদেরকে

your gods

وَلَا

এবং না

and (do) not

تَذَرُنَّ

কখনো তোমরা ছেড়ো

leave

وَدًّا

ওয়াদ্দাকে

Wadd

وَلَا

ও না

and not

سُوَاعًا

সূয়া’আকে

Suwa

وَلَا

এবং না

and not

يَغُوثَ

য়াগূছকে

Yaguth

وَيَعُوقَ

আর ইয়াউক

and Yauq

وَنَسْرًا

ও নছরকে”

and Nasr”

(24)

وَقَدْ

এবং নিশ্চয়

And indeed

أَضَلُّوا۟

তারা পথভ্রষ্ট করেছে

they have led astray

كَثِيرًا

অনেককে

many

وَلَا

এবং না

And not

تَزِدِ

বারাবেন

increase

ٱلظَّٰلِمِينَ

জালেমদেরকে

the wrongdoers

إِلَّا

ছাড়া

except

ضَلَٰلًا

পথভ্রষ্টতা”

(in) error”

(25)

مِّمَّا

একারণে

Because of

خَطِيٓـَٰٔتِهِمْ

তাদের অপরাধসমূহের

their sins

أُغْرِقُوا۟

তাদের ডুবান হয়েছে

they were drowned

فَأُدْخِلُوا۟

দাখিল করা হয়েছে অতঃপর কর

then made to enter

نَارًا

আগুনে

(the) Fire

فَلَمْ

নাই অতঃপর

and not

يَجِدُوا۟

তারা পায়

they found

لَهُم

তাদের জন্যে

for themselves

مِّن

থেকে

from

دُونِ

ছাড়া

besides

ٱللَّهِ

আল্লাহ

Allah

أَنصَارًا

সাহায্যকারী হিসেবে

any helpers

(26)

وَقَالَ

এবং বলল

And said

نُوحٌ

ণুহ

Nuh

رَّبِّ

“হে আমার রব

“My Lord!

لَا

না

(Do) not

تَذَرْ

ছাড়বেন

leave

عَلَى

উপর

on

ٱلْأَرْضِ

যমীনের

the earth

مِنَ

থেকে

any

ٱلْكَٰفِرِينَ

কাফিরদের

(of) the disbelievers

دَيَّارًا

কোন গৃহবাসী

(as) an inhabitant

(27)

إِنَّكَ

আপনি নিশ্চয়

Indeed You

إِن

যদি

if

تَذَرْهُمْ

তাদের ছাড়েন

You leave them

يُضِلُّوا۟

তারা গোমরাহ করবে

they will mislead

عِبَادَكَ

আপনার বান্দাদেরকে

Your slaves

وَلَا

এবং না

and not

يَلِدُوٓا۟

তারা জন্ম দেবে

they will beget

إِلَّا

ছাড়া

except

فَاجِرًا

পাপাচারী

a wicked

كَفَّارًا

কট্টর কাফির

a disbeliever

(28)

رَّبِّ

হে আমার রব

My Lord!

ٱغْفِرْ

মাফ করুন

Forgive

لِى

আমাকে

me

وَلِوَٰلِدَىَّ

ও আমার পিতা-মাতাকে

and my parents

وَلِمَن

ও যে (তার) জন্য

and whoever

دَخَلَ

প্রবেশ করেছে

enters

بَيْتِىَ

আমার ঘরে

my house –

مُؤْمِنًا

মু’মিন রূপে

a believer

وَلِلْمُؤْمِنِينَ

এবং মু’মিনপুরুষদের জন্যে

and believing men

وَٱلْمُؤْمِنَٰتِ

মুমিন স্ত্রীলোকদের

and believing women

وَلَا

এবং না

And (do) not

تَزِدِ

বাড়াবেন

increase

ٱلظَّٰلِمِينَ

জালেমদের অন্যকিছু

the wrongdoers

إِلَّا

ছাড়া

except

تَبَارًۢا

ধ্বংস”

(in) destruction”

Sura Nuh Ruku 2

৭০ সুরা মা’য়ারিজ<< সুরা নূহ >>৭২ সুরা জ্বীন

Leave a Reply