সুরা নাবা বাংলা তরজমা Sura Naba in Words & Audio

সুরা নাবা বাংলা তরজমা Sura Naba in Words & Audio

সুরা নাবা >> ১১৪ টি সূরার সূচীপত্র ও লিস্ট >> ২০ টির অধিক তাফসীর কিতাব পড়ুন

সুরা নাবা Sura Naba: Ruku 1>>2

শব্দে শব্দে সুরা নাবা Sura Naba in Words: Ruku 1 >> 2

৭৮ – সুরা নাবা – আয়াত : ৪০, মাক্কী, রুকু ২

সুরা নাবা Sura Naba mp3 Download

পরম করুণাময় অতি দয়ালু আল্লাহর নামেبِسۡمِ ٱللَّهِ ٱلرَّحۡمَٰنِ ٱلرَّحِيمِ
(1) কোন্ বিষয় সম্পর্কে তারা পরস্পর জিজ্ঞাসাবাদ করছে ?عَمَّ يَتَسَآءَلُونَ ١
(2) মহাসংবাদটি সম্পর্কে,عَنِ ٱلنَّبَإِ ٱلۡعَظِيمِ ٢
(3) যে বিষয়ে তারা মতভেদ করছে।ٱلَّذِي هُمۡ فِيهِ مُخۡتَلِفُونَ ٣
(4) কখনো না, অচিরেই তারা জানতে পারবে।كَلَّا سَيَعۡلَمُونَ ٤
(5) তারপর কখনো না, তারা অচিরেই জানতে পারবে।ثُمَّ كَلَّا سَيَعۡلَمُونَ ٥
(6) আমি কি বানাইনি যমীনকে শয্যা?أَلَمۡ نَجۡعَلِ ٱلۡأَرۡضَ مِهَٰدٗا ٦
(7) আর পর্বতসমূহকে পেরেক?وَٱلۡجِبَالَ أَوۡتَادٗا ٧
(8) আর আমি তোমাদেরকে সৃষ্টি করেছি জোড়ায় জোড়ায়।وَخَلَقۡنَٰكُمۡ أَزۡوَٰجٗا ٨
(9) আর আমি তোমাদের নিদ্রাকে করেছি বিশ্রাম।وَجَعَلۡنَا نَوۡمَكُمۡ سُبَاتٗا ٩
(10) আর আমি রাতকে করেছি আবরণ।وَجَعَلۡنَا ٱلَّيۡلَ لِبَاسٗا ١٠
(11) আর আমি দিনকে করেছি জীবিকার্জনের সময়।وَجَعَلۡنَا ٱلنَّهَارَ مَعَاشٗا ١١
(12) আর আমি তোমাদের উপরে বানিয়েছি সাতটি সুদৃঢ় আকাশ।وَبَنَيۡنَا فَوۡقَكُمۡ سَبۡعٗا شِدَادٗا ١٢
(13) আর আমি সৃষ্টি করেছি উজ্জ্বল একটি প্রদীপ।وَجَعَلۡنَا سِرَاجٗا وَهَّاجٗا ١٣
(14) আর আমি মেঘমালা থেকে প্রচুর পানি বর্ষণ করেছি।وَأَنزَلۡنَا مِنَ ٱلۡمُعۡصِرَٰتِ مَآءٗ ثَجَّاجٗا ١٤
(15) যাতে তা দিয়ে আমি শস্য ও উদ্ভিদ উৎপন্ন করতে পারি।لِّنُخۡرِجَ بِهِۦ حَبّٗا وَنَبَاتٗا ١٥
(16) আর ঘন উদ্যানসমূহ।وَجَنَّٰتٍ أَلۡفَافًا ١٦
(17) নিশ্চয় ফয়সালার দিন নির্ধারিত আছে।إِنَّ يَوۡمَ ٱلۡفَصۡلِ كَانَ مِيقَٰتٗا ١٧
(18) সেদিন শিঙ্গায় ফুঁক দেয়া হবে, তখন তোমরা দলে দলে আসবে।يَوۡمَ يُنفَخُ فِي ٱلصُّورِ فَتَأۡتُونَ أَفۡوَاجٗا ١٨
(19) আর আসমান খুলে দেয়া হবে, ফলে তা হবে বহু দ্বারবিশিষ্ট।وَفُتِحَتِ ٱلسَّمَآءُ فَكَانَتۡ أَبۡوَٰبٗا ١٩
(20) আর পর্বতসমূহকে চলমান করা হবে, ফলে সেগুলো মরীচিকা হয়ে যাবে।وَسُيِّرَتِ ٱلۡجِبَالُ فَكَانَتۡ سَرَابًا ٢٠
(21) নিশ্চয় জাহান্নাম গোপন ফাঁদ।إِنَّ جَهَنَّمَ كَانَتۡ مِرۡصَادٗا ٢١
(22) সীমালঙ্ঘনকারীদের জন্য প্রত্যাবর্তন স্থল।لِّلطَّٰغِينَ مَ‍َٔابٗا ٢٢
(23) সেখানে তারা যুগ যুগ ধরে অবস্থান করবে।لَّٰبِثِينَ فِيهَآ أَحۡقَابٗا ٢٣
(24) সেখানে তারা কোন শীতলতা আস্বাদন করবে না এবং না কোন পানীয়।لَّا يَذُوقُونَ فِيهَا بَرۡدٗا وَلَا شَرَابًا٢٤
(25) ফুটন্ত পানি ও পুঁজ ছাড়া।إِلَّا حَمِيمٗا وَغَسَّاقٗا ٢٥
(26) উপযুক্ত প্রতিফলস্বরূপ।جَزَآءٗ وِفَاقًا ٢٦
(27) নিশ্চয় তারা হিসাবের আশা করত না।إِنَّهُمۡ كَانُواْ لَا يَرۡجُونَ حِسَابٗا ٢٧
(28) আর তারা আমার আয়াতসমূহকে সম্পূর্ণরূপে অস্বীকার করেছিল।وَكَذَّبُواْ بِ‍َٔايَٰتِنَا كِذَّابٗا ٢٨
(29) আর সব কিছুই আমি লিখিতভাবে সংরক্ষণ করেছি।وَكُلَّ شَيۡءٍ أَحۡصَيۡنَٰهُ كِتَٰبٗا ٢٩
(30) সুতরাং তোমরা স্বাদ গ্রহণ কর। আর আমি তো কেবল তোমাদের আযাবই বৃদ্ধি করব।فَذُوقُواْ فَلَن نَّزِيدَكُمۡ إِلَّا عَذَابًا ٣٠
সুরা নাবাع রুকুRuku 1
(31) নিশ্চয় মুত্তাকীদের জন্য রয়েছে সফলতা।إِنَّ لِلۡمُتَّقِينَ مَفَازًا ٣١
(32) উদ্যানসমূহ ও আঙ্গুরসমূহ।حَدَآئِقَ وَأَعۡنَٰبٗا ٣٢
(33) আর সমবয়স্কা উদ্ভিন্ন যৌবনা তরুণী।وَكَوَاعِبَ أَتۡرَابٗا ٣٣
(34) আর পরিপূর্ণ পানপাত্র।وَكَأۡسٗا دِهَاقٗا ٣٤
(35) তারা সেখানে কোন অসার ও মিথ্যা কথা শুনবে না।لَّا يَسۡمَعُونَ فِيهَا لَغۡوٗا وَلَا كِذَّٰبٗا ٣٥
(36) তোমার রবের পক্ষ থেকে প্রতিফল, যথোচিত দানস্বরূপ।جَزَآءٗ مِّن رَّبِّكَ عَطَآءً حِسَابٗا ٣٦
(37) যিনি আসমানসমূহ, যমীন ও এতদোভয়ের মধ্যবর্তী সবকিছুর রব, পরম করুণাময়। তারা তাঁর সামনে কথা বলার সামর্থ্য রাখবে না।رَّبِّ ٱلسَّمَٰوَٰتِ وَٱلۡأَرۡضِ وَمَا بَيۡنَهُمَا ٱلرَّحۡمَٰنِۖ لَا يَمۡلِكُونَ مِنۡهُ خِطَابٗا ٣٧
(38) সেদিন রূহ[1] ও ফেরেশতাগণ সারিবদ্ধভাবে দাঁড়াবে, যাকে পরম করুণাময় অনুমতি দেবেন সে ছাড়া অন্যরা কোন কথা বলবে না। আর সে সঠিক কথাই বলবে।يَوۡمَ يَقُومُ ٱلرُّوحُ وَٱلۡمَلَٰٓئِكَةُ صَفّٗاۖ لَّا يَتَكَلَّمُونَ إِلَّا مَنۡ أَذِنَ لَهُ ٱلرَّحۡمَٰنُ وَقَالَ صَوَابٗا ٣٨
(39) ঐ দিনটি সত্য। অতএব যে চায়, সে তার রবের নিকট আশ্রয় গ্রহণ করুক।ذَٰلِكَ ٱلۡيَوۡمُ ٱلۡحَقُّۖ فَمَن شَآءَ ٱتَّخَذَ إِلَىٰ رَبِّهِۦ مَ‍َٔابًا ٣٩
(40) নিশ্চয় আমি তোমাদেরকে একটি নিকটবর্তী আযাব সম্পর্কে সতর্ক করলাম। যেদিন মানুষ দেখতে পাবে, তার দু’হাত কী অগ্রে প্রেরণ করেছে এবং কাফির বলবে ‘হায়, আমি যদি মাটি হতাম’!إِنَّآ أَنذَرۡنَٰكُمۡ عَذَابٗا قَرِيبٗا يَوۡمَ يَنظُرُ ٱلۡمَرۡءُ مَا قَدَّمَتۡ يَدَاهُ وَيَقُولُ ٱلۡكَافِرُ يَٰلَيۡتَنِي كُنتُ تُرَٰبَۢا ٤٠
সুরা নাবাع রুকু ২ Ruku 2

[1] জিবরীল (আঃ)।

Sura Naba in Words ع রুকু ১ Ruku 1 (Ayat 1-30)

(1)

عَمَّ

কি সম্পর্কে

About what

يَتَسَآءَلُونَ

তারা পরস্পরকে জিজ্ঞাসা করছে

are they asking one another?

(2)

عَنِ

সম্পর্কে

About

ٱلنَّبَإِ

সংবাদ

the News

ٱلْعَظِيمِ

মহা (অর্থাৎ কিয়ামত)

the Great

(3)

ٱلَّذِى

তা (এমন যে)

(About) which

هُمْ

তারা

they

فِيهِ

সে বিষয়ে

(are) concerning it

مُخْتَلِفُونَ

(নিজেরাই) মতানৈক্যকারী

(in) disagreement

(4)

كَلَّا

কখনও না

Nay!

سَيَعْلَمُونَ

তারা শীঘ্র জানবে

Soon they will know

(5)

ثُمَّ

আবার (বলি)

Then

كَلَّا

কখনও না

Nay!

سَيَعْلَمُونَ

তারা শীঘ্র জানবে

soon they will know

(6)

أَلَمْ

নি কি

Have not

نَجْعَلِ

আমরা বানাই

We made

ٱلْأَرْضَ

ভূমিকে

the earth

مِهَٰدًا

বিছানা স্বরূপ

a resting place?

(7)

وَٱلْجِبَالَ

এবং পাহাড়-পর্বতকে

And the mountains

أَوْتَادًا

কীলক স্বরূপ

(as) pegs

(8)

وَخَلَقْنَٰكُمْ

এবং তোমাদেরকে আমরা সৃষ্টি করেছি

And We created you

أَزْوَٰجًا

জোড়ায় জোড়ায়

(in) pairs

(9)

وَجَعَلْنَا

এবং আমরা বানিয়েছি

And We made

نَوْمَكُمْ

তোমাদের ঘুমকে

your sleep

سُبَاتًا

বিশ্রাম (শান্তির বাহন)

(for) rest

(10)

وَجَعَلْنَا

এবং আমরা বানিয়েছি

And We made

ٱلَّيْلَ

রাতকে

the night

لِبَاسًا

আবরণ স্বরূপ

(as) covering

(11)

وَجَعَلْنَا

এবং আমরা বানিয়েছি

And We made

ٱلنَّهَارَ

দিনকে

the day

مَعَاشًا

জীবিকা অর্জনের সময়

(for) livelihood

(12)

وَبَنَيْنَا

এবং আমরা নির্মাণ করেছি

And We constructed

فَوْقَكُمْ

তোমাদের উপর

over you

سَبْعًا

সাত

seven

شِدَادًا

সুদৃঢ় (আকাশ)

strong

(13)

وَجَعَلْنَا

এবং আমরা বানিয়েছি

And We placed

سِرَاجًا

প্রদীপ (সূর্য)

a lamp

وَهَّاجًا

উজ্জ্বল

burning

(14)

وَأَنزَلْنَا

আমরা বর্ষণ করেছি

And We sent down

مِنَ

হতে

from

ٱلْمُعْصِرَٰتِ

মেঘমালা

the rain clouds

مَآءً

পানি

water

ثَجَّاجًا

মুষলধারে

pouring abundantly

(15)

لِّنُخْرِجَ

এজন্য যে আমরা বের করব

That We may bring forth

بِهِۦ

তা দিয়ে

thereby

حَبًّا

শস্য

grain

وَنَبَاتًا

ও উদ্ভিদ

and vegetation

(16)

وَجَنَّٰتٍ

এবং বাগিচাসমূহ

And gardens

أَلْفَافًا

ঘনসন্নিবিষ্ট

(of) thick foliage

(17)

إِنَّ

নিশ্চয়ই

Indeed

يَوْمَ

দিন

(the) Day

ٱلْفَصْلِ

বিচারের

(of) the Judgment

كَانَ

আছে

is

مِيقَٰتًا

নির্দিষ্ট

an appointed time

(18)

يَوْمَ

সেদিন

(The) Day

يُنفَخُ

ফুঁ দেওয়া হবে

is blown

فِى

মধ্যে

in

ٱلصُّورِ

শিঙ্গার

the trumpet

فَتَأْتُونَ

অতঃপর তোমরা আসবে

and you will come forth

أَفْوَاجًا

দলে দলে

(in) crowds

(19)

وَفُتِحَتِ

এবং সেদিন উন্মুক্ত করা হবে

And is opened

ٱلسَّمَآءُ

আকাশ

the heaven

فَكَانَتْ

অতঃপর তা হবে

and becomes

أَبْوَٰبًا

অনেক দরজা

gateways

(20)

وَسُيِّرَتِ

এবং চালিয়ে দেয়া হবে

And are moved

ٱلْجِبَالُ

পাহাড়গুলো

the mountains

فَكَانَتْ

অতঃপর তা হবে

and become

سَرَابًا

মরীচিকা

a mirage

(21)

إِنَّ

নিশ্চয়ই

Indeed

جَهَنَّمَ

জাহান্নাম

Hell

كَانَتْ

হলো

is

مِرْصَادًا

ঘাঁটি

lying in wait

(22)

لِّلطَّٰغِينَ

সীমালঙ্ঘনকারীদের জন্য

For the transgressors

مَـَٔابًا

প্রত্যাবর্তনস্থল

a place of return

(23)

لَّٰبِثِينَ

তারা অবস্থানকারী হবে

(They will) be remaining

فِيهَآ

তার মধ্যে

therein

أَحْقَابًا

যুগ যুগ ধরে

(for) ages

(24)

لَّا

না

Not

يَذُوقُونَ

তারা স্বাদ গ্রহণ করবে

they will taste

فِيهَا

তার মধ্যে

therein

بَرْدًا

ঠাণ্ডা

coolness

وَلَا

আর না

and not

شَرَابًا

পানীয়

any drink

(25)

إِلَّا

এ ব্যতীত

Except

حَمِيمًا

উত্তপ্ত পানি

scalding water

وَغَسَّاقًا

ও পুঁজ

and purulence

(26)

جَزَآءً

(এটাই তাদের) প্রতিদান

A recompense

وِفَاقًا

উপযুক্ত

appropriate

(27)

إِنَّهُمْ

তারা নিশ্চয়ই

Indeed they

كَانُوا۟

(এমন) ছিল যে

were

لَا

না

not

يَرْجُونَ

আশঙ্কা করতো

expecting

حِسَابًا

হিসাবের

an account

(28)

وَكَذَّبُوا۟

এবং তারা মিথ্যারোপ করত

And denied

بِـَٔايَٰتِنَا

আমাদের নিদর্শনগুলোকে

Our Signs

كِذَّابًا

(সম্পূর্ণভাবে) মিথ্যা

(with) denial

(29)

وَكُلَّ

এবং সব

And every

شَىْءٍ

কিছু

thing

أَحْصَيْنَٰهُ

আমরা তা গুনে রেখেছি

We have enumerated it

كِتَٰبًا

লিখিত (আকারে)

(in) a Book

(30)

فَذُوقُوا۟

অতএব তোমরা স্বাদ নাও

So taste

فَلَن

অতঃপর কখনও না

and never

نَّزِيدَكُمْ

আমরা তোমাদের বাড়াবো (অন্যকিছু)

We will increase you

إِلَّا

এ ছাড়া

except

عَذَابًا

শাস্তি

(in) punishment

Sura Naba in Words ع রুকু ২ Ruku 2 (Ayat 31-40)

(31)

إِنَّ

নিশ্চয়ই

Indeed

لِلْمُتَّقِينَ

মুত্তাকীদের জন্যে

for the righteous

مَفَازًا

সাফল্য (রয়েছে)

(is) success

(32)

حَدَآئِقَ

বাগিচাসমূহ

Gardens

وَأَعْنَٰبًا

ও আঙুরসমূহ

and grapevines

(33)

وَكَوَاعِبَ

এবং নব্য যুবতীরা

And splendid companions

أَتْرَابًا

সমবয়স্কা

well-matched

(34)

وَكَأْسًا

এবং পানপাত্র

And a cup

دِهَاقًا

পূর্ণ

full

(35)

لَّا

না

Not

يَسْمَعُونَ

তারা শুনবে

they will hear

فِيهَا

তার মধ্যে

therein

لَغْوًا

কোনো অসার কথা

any vain talk

وَلَا

আর না

and not

كِذَّٰبًا

মিথ্যা

any falsehood

(36)

جَزَآءً

পুরস্কার

(As) a reward

مِّن

পক্ষ হতে

from

رَّبِّكَ

তোমার রবের

your Lord

عَطَآءً

(এ ছাড়াও) দান

a gift

حِسَابًا

যথোচিত

(according to) account

(37)

رَّبِّ

(পক্ষ হতে) রবের

Lord

ٱلسَّمَٰوَٰتِ

আকাশসমূহের

(of) the heavens

وَٱلْأَرْضِ

এবং পৃথিবীর

and the earth

وَمَا

এবং যা কিছু

and whatever

بَيْنَهُمَا

তাদের দু’য়ের মাঝে আছে

(is) between both of them

ٱلرَّحْمَٰنِ

অশেষ দয়াবানের (পক্ষ হতে)

the Most Gracious

لَا

না

not

يَمْلِكُونَ

তারা সক্ষম হবে

they have power

مِنْهُ

তাঁর সাথে

from Him

خِطَابًا

কথা বলতে

(to) address

(38)

يَوْمَ

সেদিন

(The) Day

يَقُومُ

দাঁড়াবে

will stand

ٱلرُّوحُ

রূহ (জিবরাইল)

the Spirit

وَٱلْمَلَٰٓئِكَةُ

ও ফেরেশতারা

and the Angels

صَفًّا

সারিবদ্ধ ভাবে

(in) rows

لَّا

না

not

يَتَكَلَّمُونَ

তারা কথা বলবে

they will speak

إِلَّا

(সে) ছাড়া

except

مَنْ

যাকে

(one) who –

أَذِنَ

অনুমতি দেবেন

permits

لَهُ

তার জন্যে

[for] him

ٱلرَّحْمَٰنُ

দয়াময়

the Most Gracious

وَقَالَ

এবং বলবে

and he (will) say

صَوَابًا

যথাযথ

(what is) correct

(39)

ذَٰلِكَ

সে-ই

That

ٱلْيَوْمُ

দিন

(is) the Day

ٱلْحَقُّ

সুনিশ্চিত

the True

فَمَن

অতএব যে

So whoever

شَآءَ

চায়

wills

ٱتَّخَذَ

গ্রহণ করুক (আজ)

let him take

إِلَىٰ

দিকে

towards

رَبِّهِۦ

তার রবের

his Lord

مَـَٔابًا

প্রত্যাবর্তনের (পথ)

a return

(40)

إِنَّآ

নিশ্চয়ই আমরা

Indeed We

أَنذَرْنَٰكُمْ

তোমাদেরকে আমরা সতর্ক করছি

[We] have warned you

عَذَابًا

শাস্তির

(of) a punishment

قَرِيبًا

আসন্ন

near

يَوْمَ

সেদিন

(the) Day

يَنظُرُ

দেখবে

will see

ٱلْمَرْءُ

মানুষ

the man

مَا

যা

what

قَدَّمَتْ

আগে পাঠিয়েছে

have sent forth

يَدَاهُ

তার দু’হাত

his hands

وَيَقُولُ

এবং বলবে

and will say

ٱلْكَافِرُ

কাফের

the disbeliever

يَٰلَيْتَنِى

“হায় আমার আফসোস

“O I wish!

كُنتُ

যদি আমি হতাম

I were

تُرَٰبًۢا

মাটি”

dust!”

৭৭ সুরা মুরসালাত << সুরা নাবা >> ৭৯ সুরা নাজিয়াত

By Quran Sharif

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply