সুরা তাহরীম বাংলা Sura At Tahrim in Words & Audio

সুরা তাহরীম বাংলা Sura At Tahrim in Words & Audio

১১৪ টি সুরা >> তাফসীরঃ বুখারী >> তিরমিজি

Arabicতাফসীর

৬৬ – সুরা তাহরীম – আয়াত : ১২, মাদানী, রুকু ২

সুরা তাহরীম Sura At Tahrim mp3 Download

পরম করুণাময় অতি দয়ালু আল্লাহর নামেبِسۡمِ ٱللَّهِ ٱلرَّحۡمَٰنِ ٱلرَّحِيمِ
(1) হে নবী, আল্লাহ তোমার জন্য যা হালাল করেছেন তোমার স্ত্রীদের সন্তুষ্টি কামনায় তুমি কেন তা হারাম করছ? আর আল্লাহ অতীব ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু।يَٰٓأَيُّهَا ٱلنَّبِيُّ لِمَ تُحَرِّمُ مَآ أَحَلَّ ٱللَّهُ لَكَۖ تَبۡتَغِي مَرۡضَاتَ أَزۡوَٰجِكَۚ وَٱللَّهُ غَفُورٞ رَّحِيمٞ ١
(2) নিশ্চয় তোমাদের জন্য শপথ হতে মুক্তির বিধান দিয়েছেন; আর আল্লাহ তোমাদের অভিভাবক এবং তিনি সর্বজ্ঞ, প্রজ্ঞাবান।قَدۡ فَرَضَ ٱللَّهُ لَكُمۡ تَحِلَّةَ أَيۡمَٰنِكُمۡۚ وَٱللَّهُ مَوۡلَىٰكُمۡۖ وَهُوَ ٱلۡعَلِيمُ ٱلۡحَكِيمُ ٢
(3) আর যখন নবী তার এক স্ত্রীকে গোপনে একটি কথা বলেছিলেন; অতঃপর যখন সে (স্ত্রী) অন্যকে তা জানিয়ে দিল এবং আল্লাহ তার (নবীর) কাছে এটি প্রকাশ করে দিলেন, তখন নবী কিছুটা তার স্ত্রীকে অবহিত করল আর কিছু এড়িয়ে গেল। যখন সে তাকে বিষয়টি জানাল তখন সে বলল, ‘আপনাকে এ সংবাদ কে দিল?’ সে বলল, ‘মহাজ্ঞানী ও সর্বজ্ঞ আল্লাহ আমাকে জানিয়েছেন।’وَإِذۡ أَسَرَّ ٱلنَّبِيُّ إِلَىٰ بَعۡضِ أَزۡوَٰجِهِۦ حَدِيثٗا فَلَمَّا نَبَّأَتۡ بِهِۦ وَأَظۡهَرَهُ ٱللَّهُ عَلَيۡهِ عَرَّفَ بَعۡضَهُۥ وَأَعۡرَضَ عَنۢ بَعۡضٖۖ فَلَمَّا نَبَّأَهَا بِهِۦ قَالَتۡ مَنۡ أَنۢبَأَكَ هَٰذَاۖ قَالَ نَبَّأَنِيَ ٱلۡعَلِيمُ ٱلۡخَبِيرُ ٣
(4) যদি তোমরা উভয়ে আল্লাহর কাছে তওবা কর (তবে তা তোমাদের জন্য উত্তম)। কারণ তোমাদের উভয়ের অন্তর বাঁকা হয়েছে, আর তোমরা যদি তার বিরুদ্ধে পরস্পরকে সাহায্য কর তবে আল্লাহই তার অভিভাবক এবং জিব্রীল ও সৎকর্মশীল মু’মিনরাও। তাছাড়া অন্যান্য ফেরেশতারাও তার সাহায্যকারী।إِن تَتُوبَآ إِلَى ٱللَّهِ فَقَدۡ صَغَتۡ قُلُوبُكُمَاۖ وَإِن تَظَٰهَرَا عَلَيۡهِ فَإِنَّ ٱللَّهَ هُوَ مَوۡلَىٰهُ وَجِبۡرِيلُ وَصَٰلِحُ ٱلۡمُؤۡمِنِينَۖ وَٱلۡمَلَٰٓئِكَةُ بَعۡدَ ذَٰلِكَ ظَهِيرٌ ٤
(5) সে যদি তোমাদেরকে তালাক দেয়, তবে আশা করা যায় তার রব তোমাদের পরিবর্তে তোমাদের চাইতে উত্তম স্ত্রী তাকে দিবেন, যারা মুসলিম, মুমিনা, অনুগত, তাওবাকারী, ‘ইবাদতকারী, সিয়াম পালনকারী, অকুমারী ও কুমারী।عَسَىٰ رَبُّهُۥٓ إِن طَلَّقَكُنَّ أَن يُبۡدِلَهُۥٓ أَزۡوَٰجًا خَيۡرٗا مِّنكُنَّ مُسۡلِمَٰتٖ مُّؤۡمِنَٰتٖ قَٰنِتَٰتٖ تَٰٓئِبَٰتٍ عَٰبِدَٰتٖ سَٰٓئِحَٰتٖ ثَيِّبَٰتٖ وَأَبۡكَارٗا ٥
(6) হে ঈমানদারগণ, তোমরা নিজেদেরকে ও তোমাদের পরিবার-পরিজনকে আগুন হতে বাঁচাও যার জ্বালানি হবে মানুষ ও পাথর; যেখানে রয়েছে নির্মম ও কঠোর ফেরেশতাকূল, আল্লাহ তাদেরকে যে নির্দেশ দিয়েছেন তারা সে ব্যাপারে তার অবাধ্য হয় না। আর তারা তা-ই করে যা তাদেরকে আদেশ করা হয়।يَٰٓأَيُّهَا ٱلَّذِينَ ءَامَنُواْ قُوٓاْ أَنفُسَكُمۡ وَأَهۡلِيكُمۡ نَارٗا وَقُودُهَا ٱلنَّاسُ وَٱلۡحِجَارَةُ عَلَيۡهَا مَلَٰٓئِكَةٌ غِلَاظٞ شِدَادٞ لَّا يَعۡصُونَ ٱللَّهَ مَآ أَمَرَهُمۡ وَيَفۡعَلُونَ مَا يُؤۡمَرُونَ ٦
(7) হে কাফিরগণ, আজ তোমরা ওজর পেশ করো না; তোমরা যে ‘আমল করতে তার প্রতিফলই তোমাদেরকে দেয়া হচ্ছে।يَٰٓأَيُّهَا ٱلَّذِينَ كَفَرُواْ لَا تَعۡتَذِرُواْ ٱلۡيَوۡمَۖ إِنَّمَا تُجۡزَوۡنَ مَا كُنتُمۡ تَعۡمَلُونَ ٧
সুরা তাহরীমع রুকু
(8) হে ঈমানদারগণ, তোমরা আল্লাহর কাছে তাওবা কর, খাঁটি তাওবা; আশা করা যায় তোমাদের রব তোমাদের পাপসমূহ মোচন করবেন এবং তোমাদেরকে এমন জান্নাতসমূহে প্রবেশ করাবেন যার পাদদেশে নহরসমূহ প্রবাহিত, নবী ও তার সাথে যারা ঈমান এনেছে তাদেরকে সেদিন আল্লাহ লাঞ্ছিত করবেন না। তাদের আলো তাদের সামনে ও ডানে ধাবিত হবে। তারা বলবে, ‘হে আমাদের রব, আমাদের জন্য আমাদের আলো পূর্ণ করে দিন এবং আমাদেরকে ক্ষমা করুন; নিশ্চয় আপনি সর্ববিষয়ে সর্বক্ষমতাবান।’يَٰٓأَيُّهَا ٱلَّذِينَ ءَامَنُواْ تُوبُوٓاْ إِلَى ٱللَّهِ تَوۡبَةٗ نَّصُوحًا عَسَىٰ رَبُّكُمۡ أَن يُكَفِّرَ عَنكُمۡ سَيِّ‍َٔاتِكُمۡ وَيُدۡخِلَكُمۡ جَنَّٰتٖ تَجۡرِي مِن تَحۡتِهَا ٱلۡأَنۡهَٰرُ يَوۡمَ لَا يُخۡزِي ٱللَّهُ ٱلنَّبِيَّ وَٱلَّذِينَ ءَامَنُواْ مَعَهُۥۖ نُورُهُمۡ يَسۡعَىٰ بَيۡنَ أَيۡدِيهِمۡ وَبِأَيۡمَٰنِهِمۡ يَقُولُونَ رَبَّنَآ أَتۡمِمۡ لَنَا نُورَنَا وَٱغۡفِرۡ لَنَآۖ إِنَّكَ عَلَىٰ كُلِّ شَيۡءٖ قَدِيرٞ ٨
(9) ‘হে নবী, কাফির ও মুনাফিকদের বিরুদ্ধে জিহাদ কর এবং তাদের ব্যাপারে কঠোর হও; আর তাদের আশ্রয়স্থল হবে জাহান্নাম এবং তা কত নিকৃষ্ট গন্তব্যস্থল!يَٰٓأَيُّهَا ٱلنَّبِيُّ جَٰهِدِ ٱلۡكُفَّارَ وَٱلۡمُنَٰفِقِينَ وَٱغۡلُظۡ عَلَيۡهِمۡۚ وَمَأۡوَىٰهُمۡ جَهَنَّمُۖ وَبِئۡسَ ٱلۡمَصِيرُ ٩
(10) যারা কুফরি করে তাদের জন্য আল্লাহ নূহের স্ত্রীর ও লূতের স্ত্রীর উদাহরণ পেশ করেন; তারা আমার বান্দাদের মধ্য হতে দু’জন সৎবান্দার অধীনে ছিল, কিন্তু তারা উভয়ে তাদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছিল, অতঃপর আল্লাহর আযাব হতে রক্ষায় নূহ ও লূত তাদের কোন কাজে আসেনি। বলা হল, ‘তোমরা উভয়ে প্রবেশকারীদের সাথে জাহান্নামে প্রবেশ কর।’   ضَرَبَ ٱللَّهُ مَثَلٗا لِّلَّذِينَ كَفَرُواْ ٱمۡرَأَتَ نُوحٖ وَٱمۡرَأَتَ لُوطٖۖ كَانَتَا تَحۡتَ عَبۡدَيۡنِ مِنۡ عِبَادِنَا صَٰلِحَيۡنِ فَخَانَتَاهُمَا فَلَمۡ يُغۡنِيَا عَنۡهُمَا مِنَ ٱللَّهِ شَيۡ‍ٔٗا وَقِيلَ ٱدۡخُلَا ٱلنَّارَ مَعَ ٱلدَّٰخِلِينَ ١٠
(11) আর যারা ঈমান আনে তাদের জন্য আল্লাহ ফির‘আউনের স্ত্রীর উদাহরণ পেশ করেন, যখন সে বলেছিল, ‘হে আমার রব, আপনার কাছে আমার জন্য জান্নাতে একটি বাড়ি নির্মাণ করুন এবং আমাকে ফির‘আউন ও তার কর্ম হতে নাজাত দিন, আর আমাকে নাজাত দিন যালিম সম্প্রদায় হতে।وَضَرَبَ ٱللَّهُ مَثَلٗا لِّلَّذِينَ ءَامَنُواْ ٱمۡرَأَتَ فِرۡعَوۡنَ إِذۡ قَالَتۡ رَبِّ ٱبۡنِ لِي عِندَكَ بَيۡتٗا فِي ٱلۡجَنَّةِ وَنَجِّنِي مِن فِرۡعَوۡنَ وَعَمَلِهِۦ وَنَجِّنِي مِنَ ٱلۡقَوۡمِ ٱلظَّٰلِمِينَ ١١
(12) (আল্লাহ আরো উদাহরণ পেশ করেন) ইমরান কন্যা মারয়াম-এর, যে নিজের সতীত্ব রক্ষা করেছিল, ফলে আমি তাতে আমার রূহ থেকে ফুঁকে দিয়েছিলাম। আর সে তার রবের বাণীসমূহ ও তাঁর কিতাবসমূহের সত্যতা স্বীকার করেছিল এবং সে ছিল অনুগতদের অন্তর্ভুক্ত।وَمَرۡيَمَ ٱبۡنَتَ عِمۡرَٰنَ ٱلَّتِيٓ أَحۡصَنَتۡ فَرۡجَهَا فَنَفَخۡنَا فِيهِ مِن رُّوحِنَا وَصَدَّقَتۡ بِكَلِمَٰتِ رَبِّهَا وَكُتُبِهِۦ وَكَانَتۡ مِنَ ٱلۡقَٰنِتِينَ ١٢
সুরা তাহরীমع রুকু

Sura At Tahrim in Words

(1)

يَٰٓأَيُّهَا

হে

O!

ٱلنَّبِىُّ

নবী

Prophet!

لِمَ

কেন

Why (do)

تُحَرِّمُ

হারাম কর তুমি

you prohibit

مَآ

যা

what

أَحَلَّ

হালাল করেছেন

has made lawful

ٱللَّهُ

আল্লাহ

Allah

لَكَ

তোমার জন্যে

for you

تَبْتَغِى

তুমি চাও (কি)

seeking

مَرْضَاتَ

সন্তুষ্টি

(to) please

أَزْوَٰجِكَ

তোমার স্ত্রীদের

your wives?

وَٱللَّهُ

এবং আল্লাহ

And Allah

غَفُورٌ

ক্ষমাশীল

(is) Oft-Forgiving

رَّحِيمٌ

মেহেরবান

Most Merciful

(2)

قَدْ

নিশ্চয়

Indeed

فَرَضَ

নির্দিষ্ট করেছেন

has ordained

ٱللَّهُ

আল্লাহ

Allah

لَكُمْ

তোমাদের জন্যে

for you

تَحِلَّةَ

মুক্তির ব্যবস্থা

(the) dissolution

أَيْمَٰنِكُمْ

তোমাদের শপথগুলোর

(of) your oaths

وَٱللَّهُ

এবং আল্লাহ

And Allah

مَوْلَىٰكُمْ

তোমাদের মনিব

(is) your Protector

وَهُوَ

এবং তিনিই

and He

ٱلْعَلِيمُ

সর্বজ্ঞ

(is) the All-Knower

ٱلْحَكِيمُ

প্রজ্ঞাময়

the All-Wise

(3)

وَإِذْ

এবং যখন

And when

أَسَرَّ

গোপনে বলেছিল

confided

ٱلنَّبِىُّ

নবী

the Prophet

إِلَىٰ

নিকট

to

بَعْضِ

কারও

one

أَزْوَٰجِهِۦ

তার স্ত্রীদের

(of) his wives

حَدِيثًا

একটি কথা

a statement

فَلَمَّا

যখন অতঃপর

and when

نَبَّأَتْ

সে বলে দেয় (অন্য স্ত্রীকে)

she informed

بِهِۦ

তা সম্পর্কে

about it

وَأَظْهَرَهُ

ও তা প্রকাশ করলেন

and made it apparent

ٱللَّهُ

আল্লাহ

Allah

عَلَيْهِ

তার নিকট

to him

عَرَّفَ

(নবী) ব্যক্ত করল

he made known

بَعْضَهُۥ

তার কিছুটা

a part of it

وَأَعْرَضَ

ও এড়িয়ে গেল

and avoided

عَنۢ

(যে)

[of}

بَعْضٍ

কিছু

a part

فَلَمَّا

যখন অতঃপর

Then when

نَبَّأَهَا

তাকে জানাল

he informed her

بِهِۦ

সে সম্পর্কে

about it

قَالَتْ

সে বলল (স্ত্রী)

she said

مَنْ

“কে

“Who

أَنۢبَأَكَ

আপনাকে খবর দিল

informed you

هَٰذَا

এটা”

this?”

قَالَ

বলল (নবী)

He said

نَبَّأَنِىَ

“আমাকে খবর দিয়েছেন

“Has informed me

ٱلْعَلِيمُ

সর্বজ্ঞ

the All-Knower

ٱلْخَبِيرُ

ওয়াকিবহাল”

the All-Aware”

(4)

إِن

যদি

If

تَتُوبَآ

তোমরা দুজনে তওবা কর

you both turn

إِلَى

নিকট

to

ٱللَّهِ

আল্লাহর

Allah

فَقَدْ

নিশ্চয় কেননা

so indeed

صَغَتْ

ঝুঁকেছিল

(are) inclined

قُلُوبُكُمَا

তোমাদের দু’জনের অন্তর

your hearts;

وَإِن

এবং যদি

but if

تَظَٰهَرَا

তোমরা দু’জনে পরস্পরকে সাহায্য কর

you backup each other

عَلَيْهِ

তার বিরুদ্ধে

against him

فَإِنَّ

নিশ্চয় তবে

then indeed

ٱللَّهَ

আল্লাহ

Allah

هُوَ

তিনিই

He

مَوْلَىٰهُ

তার মনিব

(is) his Protector

وَجِبْرِيلُ

ও জিবরাঈল

and Jibreel

وَصَٰلِحُ

ও নেককার

and (the) righteous

ٱلْمُؤْمِنِينَ

মু’মিনরা

believers

وَٱلْمَلَٰٓئِكَةُ

ও ফেরেশতারা

and the Angels

بَعْدَ

পরে

after

ذَٰلِكَ

উপরন্তু

that

ظَهِيرٌ

সাহায্যকারী

(are his) assistants

(5)

عَسَىٰ

সম্ভবতঃ

Perhaps

رَبُّهُۥٓ

তার রব

his Lord

إِن

যদি

if

طَلَّقَكُنَّ

তোমাদের তালাক দেয় (নবী)

he divorced you

أَن

যে

[that}

يُبْدِلَهُۥٓ

তাকে বদলে দেবেন

He will substitute for him

أَزْوَٰجًا

(এমন সব) স্ত্রী

wives

خَيْرًا

উত্তম

better

مِّنكُنَّ

(যারা) তোমাদের চেয়ে

than you

مُسْلِمَٰتٍ

আত্নসমর্পণকারিণী

submissive

مُّؤْمِنَٰتٍ

মুমিনা

faithful

قَٰنِتَٰتٍ

আনুগত্যশীলা

obedient

تَٰٓئِبَٰتٍ

তওবাকারিনী

repentant

عَٰبِدَٰتٍ

ইবাদতকারিণী

who worship

سَٰٓئِحَٰتٍ

রোজাদার

who fast

ثَيِّبَٰتٍ

অকুমারী

previously married

وَأَبْكَارًا

ও কুমারী

and virgins

(6)

يَٰٓأَيُّهَا

ওহে

O!

ٱلَّذِينَ

যারা

(you) who!

ءَامَنُوا۟

ঈমান এনেছ

believe!

قُوٓا۟

তোমরা রক্ষা কর

Protect

أَنفُسَكُمْ

তোমাদের নিজেদের

yourselves

وَأَهْلِيكُمْ

ও তোমাদের পরিবারবর্গকে

and your families

نَارًا

আগুন (থেকে)

(from) a Fire

وَقُودُهَا

যার ইন্ধন

whose fuel

ٱلنَّاسُ

মানুষ

(is) people

وَٱلْحِجَارَةُ

ও পাথর

and stones

عَلَيْهَا

তার উপর

over it

مَلَٰٓئِكَةٌ

ফেরেশতারা

(are) Angels

غِلَاظٌ

নির্দয়

stern

شِدَادٌ

কঠোর

severe

لَّا

না

not

يَعْصُونَ

তারা অমান্য করে

they disobey

ٱللَّهَ

আল্লাহকে

Allah

مَآ

যা

(in) what

أَمَرَهُمْ

তাদের নির্দেশ দেন তিনি

He Commands them

وَيَفْعَلُونَ

এবং তারা করে

but they do

مَا

যা

what

يُؤْمَرُونَ

তাদের নির্দেশ দেয়া হয়

they are commanded

(7)

يَٰٓأَيُّهَا

“ওহে

“O!

ٱلَّذِينَ

“যারা

“(you) who!

كَفَرُوا۟

“কুফরী করেছ

“disbelieve!

لَا

না

(Do) not

تَعْتَذِرُوا۟

তোমরা ওজর পেশ করো

make excuses

ٱلْيَوْمَ

আজ

today

إِنَّمَا

প্রকৃতপক্ষে

Only

تُجْزَوْنَ

তোমাদের প্রতিফল দেয়া হবে

you will be recompensed

مَا

যা

(for) what

كُنتُمْ

তোমরা

you used (to)

تَعْمَلُونَ

তোমরা কাজ করতেছিলে”

do”

Sura At Tahrim in Words Ruku 1

(8)

يَٰٓأَيُّهَا

ওহে

O!

ٱلَّذِينَ

যারা

(you) who believe!

ءَامَنُوا۟

ঈমান এনেছ

believe!

تُوبُوٓا۟

তোমরা তওবা কর

Turn

إِلَى

নিকট

to

ٱللَّهِ

আল্লাহর

Allah

تَوْبَةً

তওবা

(in) repentance

نَّصُوحًا

খালেস

sincere!

عَسَىٰ

সম্ভবতঃ

Perhaps

رَبُّكُمْ

তোমাদের রব

your Lord

أَن

যে

{that}

يُكَفِّرَ

মোচন করবেন

will remove

عَنكُمْ

তোমাদের থেকে

from you

سَيِّـَٔاتِكُمْ

তোমাদের দোষগুলো

your misdeeds

وَيُدْخِلَكُمْ

এবং তোমাদের প্রবেশ করাবেন

and admit you

جَنَّٰتٍ

জান্নাতে

(into) Gardens

تَجْرِى

প্রবাহিত হয়

flow

مِن

থেকে

from

تَحْتِهَا

তার পাদদেশ

underneath it

ٱلْأَنْهَٰرُ

ঝর্নাধারাসমূহ

the rivers

يَوْمَ

সেদিন

(on the) Day

لَا

না

not

يُخْزِى

লাঞ্চিত করবেন

will be disgraced

ٱللَّهُ

আল্লাহ

(by) Allah

ٱلنَّبِىَّ

নবীকে

the Prophet

وَٱلَّذِينَ

ও যারা

and those who

ءَامَنُوا۟

ঈমান এনেছে

believed

مَعَهُۥ

তার সাথে

with him

نُورُهُمْ

তাদের নূর

Their light

يَسْعَىٰ

দৌড়াবে

will run

بَيْنَ

তাদের সামনে

before

أَيْدِيهِمْ

তাদের সামনে

their hands

وَبِأَيْمَٰنِهِمْ

ও তাদের ডানে

and on their right

يَقُولُونَ

তারা বলবে

they will say

رَبَّنَآ

“হে আমাদের রব

“Our Lord

أَتْمِمْ

পূর্ণ কর

Perfect

لَنَا

জন্যে আমাদের

for us

نُورَنَا

আমাদের নূর

our light

وَٱغْفِرْ

ও মাফ কর

and grant forgiveness

لَنَآ

আমাদেরকে

to us

إِنَّكَ

তুমি নিশ্চয়

Indeed, You

عَلَىٰ

উপর

(are) over

كُلِّ

সব

every

شَىْءٍ

কিছুর

thing

قَدِيرٌ

ক্ষমতাবান”

All-Powerful”

(9)

يَٰٓأَيُّهَا

হে

O!

ٱلنَّبِىُّ

নবী

Prophet!

جَٰهِدِ

জিহাদ কর

Strive

ٱلْكُفَّارَ

কাফেরদের (বিরুদ্ধে)

(against) the disbelievers

وَٱلْمُنَٰفِقِينَ

ও মুনাফিকদের

and the hypocrites

وَٱغْلُظْ

এবং কঠোর হও

and be stern

عَلَيْهِمْ

তাদের উপর

with them

وَمَأْوَىٰهُمْ

এবং তাদের আশ্রয়স্থল

And their abode

جَهَنَّمُ

জাহান্নাম

(is) Hell

وَبِئْسَ

ও কত নিকৃষ্ট

and wretched is

ٱلْمَصِيرُ

প্রত্যাবর্তনস্থল

the destination

(10)

ضَرَبَ

পেশ করেন

Presents

ٱللَّهُ

আল্লাহ

Allah

مَثَلًا

দৃষ্টান্ত

an example

لِّلَّذِينَ

যারা জন্যে (তাদের)

for those who

كَفَرُوا۟

কুফরি করেছে

disbelieved

ٱمْرَأَتَ

স্ত্রীর

(the) wife

نُوحٍ

নূহের

(of) Nuh

وَٱمْرَأَتَ

ও স্ত্রীর

(and the) wife

لُوطٍ

লূতের

(of) Lut

كَانَتَا

তারা দু’জনে ছিল

They were

تَحْتَ

অধীন

under

عَبْدَيْنِ

দুই বান্দার

two {slaves}

مِنْ

মধ্যে

of

عِبَادِنَا

আমাদের বান্দাদের

Our slaves

صَٰلِحَيْنِ

দুই নেককার

righteous

فَخَانَتَاهُمَا

অতঃপর খিয়ানত করেছিল উভয়ে তাদের দু’জনের

but they both betrayed them

فَلَمْ

নাই অতঃপর

so not

يُغْنِيَا

কাজে আসে তারা দু’জন

they availed

عَنْهُمَا

তাদের (স্ত্রীদের) দু’জনের

both of them

مِنَ

মুকাবেলায়

from

ٱللَّهِ

আল্লাহর

Allah

شَيْـًٔا

কিছুই

(in) anything

وَقِيلَ

ও বলা হল

and it was said

ٱدْخُلَا

“দু’জনে প্রবেশ কর

“Enter

ٱلنَّارَ

আগুনে

the Fire

مَعَ

সাথে

with

ٱلدَّٰخِلِينَ

প্রবেশকারীদের”

those who enter”

(11)

وَضَرَبَ

এবং পেশ করেন

And presents

ٱللَّهُ

আল্লাহ

Allah

مَثَلًا

দৃষ্টান্ত

an example

لِّلَّذِينَ

যারা (তাদের) জন্যে

for those who

ءَامَنُوا۟

ঈমান এনেছে

believed

ٱمْرَأَتَ

স্ত্রীর

(the) wife

فِرْعَوْنَ

ফিরআউনের

(of) Firaun

إِذْ

যখন

when

قَالَتْ

বলেছিল

she said

رَبِّ

“হে আমার রব

“My Lord!

ٱبْنِ

বানাও

Build

لِى

আমার জন্যে

for me

عِندَكَ

তোমার কাছে

near You

بَيْتًا

ঘর

a house

فِى

মধ্যে

in

ٱلْجَنَّةِ

জান্নাতের

Paradise

وَنَجِّنِى

এবং আমাকে উদ্ধার কর

and save me

مِن

হতে

from

فِرْعَوْنَ

ফিরআউন

Firaun

وَعَمَلِهِۦ

ও তার কাজ

and his deeds

وَنَجِّنِى

এবং আমাকে উদ্ধার কর

and save me

مِنَ

হতে

from

ٱلْقَوْمِ

লোকদের

the people

ٱلظَّٰلِمِينَ

যালিম”

the wrongdoers”

(12)

وَمَرْيَمَ

এবং মারয়াম

And Maryam

ٱبْنَتَ

কন্যা

(the) daughter

عِمْرَٰنَ

ইমরানের

(of) Imran

ٱلَّتِىٓ

যে

who

أَحْصَنَتْ

সংরক্ষণ করেছিল

guarded

فَرْجَهَا

তার লজ্জাস্থান

her chastity

فَنَفَخْنَا

অতঃপর আমরা ফুঁকে দেই

so We breathed

فِيهِ

তার মধ্যে

into it

مِن

থেকে

of

رُّوحِنَا

আমাদের রুহ

Our Spirit

وَصَدَّقَتْ

এবং সে সত্যতা স্বীকার করেছিল

And she believed

بِكَلِمَٰتِ

বাক্যগুলোর

(in the) Words

رَبِّهَا

তার রবের

(of) her Lord

وَكُتُبِهِۦ

ও তাঁর কিতাবগুলোর

and His Books

وَكَانَتْ

এবং সে ছিল

and she was

مِنَ

মধ্যে (একজন)

of

ٱلْقَٰنِتِينَ

অনুগতদের

the devoutly obedient

Sura At Tahrim in Words Ruku 2

৬৫ সুরা তালাক<< সুরা তাহরীম >> ৬৭ সুরা মুলক

By Quran Sharif

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply