নতুন লেখা

সুরা তাকাসুর এর তাফসীর । তাফসিরুল কুরাণ

সুরা তাকাসুর এর তাফসীর । তাফসিরুল কুরাণ

সুরা তাকাসুর এর তাফসীর । তাফসিরুল কুরাণ >> তিরমিজি শরিফের তাফসিরুল কোরআন অধ্যায়ের অন্যান্য সুরার তাফসীর পড়ুন >> সুরা তাকাসুর আরবি তে পড়ুন বাংলা অনুবাদ সহ

অধ্যায়ঃ ৪৪, অনুচ্ছেদ-৮৯ঃ সুরা তাকাসুর এর তাফসীর

৩৩৫৪. মুতাররিফ ইবনি আবদুল্লাহ ইবনিশ শিখ্খীর [রঃ]হইতে তার বাবা হইতে বর্ণীতঃ

তিনি নাবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম]-এর নিকট গেলেন। তিনি তখন [সূরা তাকাসুর] “তোমাদেরকে সম্পদের প্রাচুর্যের মোহ আল্লাহ তাআলা হইতে উদাসীন করে ফেলেছে “-[সূরা তাকাসুর ১] পাঠ করছিলেন। রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেনঃ আদম সন্তান বলে, আমার মাল; আমার সম্পত্তি। কিন্তু যে জিনিস তুমি দান-খাইরাত করেছ [আল্লাহ তাআলার খাতায়] তা জমা রেখেছ, যা খেয়ে শেষ করেছ কিংবা যা পরিধান করে পুরাতন করেছ, এগুলো ব্যতীত তোমার সম্পদ বলিতে কিছু নেই।

সহীহঃ মুসলিম, ২৩২৯ নং হাদীস পূর্বে বর্ণিত হয়েছে। আবু ঈসা বলেন, হাদীসটি হাসান সহীহ। সুরা তাকাসুর এর তাফসীর – এই হাদিসটির তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

৩৩৫৫. আলী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেনঃ আমরা কবরের আযাব প্রসঙ্গে সংশয়ে ছিলাম। সেই প্রেক্ষাপটে সূরা আলহাকুমুত-তাকাসুর অবতীর্ণ হয়।

সনদ দুর্বল। আবু কুরাইব কখনো আমর ইবনি আবু কাইস হইতে তিনি ইবনি আবী লাইলা হইতে তিনি আল-মিনহাল হইতে তিনি এভাবে বর্ণনা করিয়াছেন। আমর ইবনি আবু কাইস হলেন আর-রাযী এবং আমর ইবনি আবু কাইস আল-মালাঈ হলেন কূফার বাসিন্দা। আবু ঈসা বলেনঃ এ হাদীসটি গারীব। সুরা তাকাসুর এর তাফসীর – এই হাদিসটির তাহকিকঃ দুর্বল হাদিস

৩৩৫৬. আবদুল্লাহ ইবনি যুবাইর ইবনিল আওওয়াম [রঃ]হইতে তার বাবা হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, যখন অবতীর্ণ হলঃ “তারপর তোমাদেরকে সেদিন অবশ্যই নিআমাত সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হইবে”-[সূরা তাকাসুর ৮] সে সময় যুবাইর [রাদি.] বলিলেন, হে আল্লাহ্র রাসূল! আমাদেরকে কোন্ নিআমাত সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হইবে? আমাদের নিকট তো শুধুমাত্র দুধরনের জিনিস রয়েছে; খেজুর ও পানি। রসুলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম] বললেনঃ সে [সম্পত্তি] তো অদূর ভবিষ্যতে অর্জিত হইবে।

হাদীসটির সানাদ হাসান। আবু ঈসা বলেন, হাদীসটি হাসান। সুরা তাকাসুর এর তাফসীর – এই হাদিসটির তাহকিকঃ হাসান হাদিস

৩৩৫৭. আবু হুরাইরাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, যখন “তারপর তোমাদেরকে সেদিন নিআমাত সম্পর্কে অবশ্যই জিজ্ঞাসাবাদ করা হইবে”- [সূরা তাকাসুর ৮] আয়াত অবতীর্ণ হয় সে সময় লোকেরা বলল, হে আল্লাহ্‌র রাসূল! আমাদেরকে কোন্ সমস্ত নিআমাত প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হইবে? আমাদের নিকট তো শুধু দুটি কালো জিনিস [খেজুর ও পানি] রয়েছে; আর সর্বদা দুশমন প্রস্তুত রয়েছে এবং আমাদের তরবারিগুলো আমাদের কাঁধে ঝুলন্ত রয়েছে? তিনি বললেনঃ এটা অদূর ভবিষ্যতে হইবে।

পূর্বের হাদীসের সহায়তায় এটি হাসান। আবু ঈসা [রঃ]বলেন, এ হাদীসের চাইতে মুহাম্মাদ ইবনি আম্রের সূত্রে ইবনি উয়াইনাহ্ [রঃ]বর্ণিত হাদীসটি আমার দৃষ্টিতে বেশি বিশুদ্ধ। সুফ্ইয়ান ইবনি উয়াইনাহ্ [রঃ]আবু বাক্র ইবনি আইয়্যাশের চেয়ে বেশি স্মরণশক্তি সম্পন্ন ও অনেক বিশুদ্ধ। সুরা তাকাসুর এর তাফসীর – এই হাদিসটির তাহকিকঃ হাসান হাদিস

৩৩৫৮. আবু হুরাইরাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসুলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ ক্বিয়ামাতের দিন বান্দার নিকট সর্বপ্রথম যে নিআমাত প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদ করা হইবে সে প্রসঙ্গে তাকে বলা হইবে, আমি তোমার শরীর কি সুস্থ রাখিনি এবং সুশীতল পানির মাধ্যমে তোমাকে তৃপ্ত করিনি?

সহীহঃ সহীহাহ্ [হাঃ ৫৩৯] মিশকাত [৫১৯৬]। আবু ঈসা বলেন, হাদীসটি গারীব। আয্-যাহ্হাক হলেন ইবনি আবদুর রহমান ইবনি আরযাব। ইবনি আরযাব-কে ইবনি আরযামও বলা হয়, আর ইবনি আরযামই অনেক বেশী সহীহ। সুরা তাকাসুর এর তাফসীর –  এই হাদিসটির তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

About halalbajar.com

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ ও অন্যান্য দুয়া

লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ ও অন্যান্য দুয়া লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ …

Leave a Reply

%d bloggers like this: