নতুন লেখা

সুরা ওয়াক্বিয়া বাংলা অনুবাদ Sura Al Waqia in Words & Audio

সুরা ওয়াক্বিয়া বাংলা অনুবাদ Sura Al Waqia in Words & Audio

সুরা ওয়াক্বিয়া >> ১১৪ টি সূরার সূচীপত্র লিস্ট >> ২০ টির অধিক তাফসীর কিতাব পড়ুন

৫৬, সুরা ওয়াক্বিয়া, আয়াত-৯৬, মাক্কী, রুকু-৩

সুরা ওয়াক্বিয়া mp3 Download

সুরা ওয়াক্বিয়া ع রুকু Ruku- (১)(1) >> (২)(2) >> (৩)(3)

শব্দে শব্দে সুরা ওয়াক্বিয়া Sura Al Waqia in Words, Ruku-(1)(১) >> (2)(২) >> (3)(৩)

পরম করুণাময় অতি দয়ালু আল্লাহর নামেبِسۡمِ ٱللَّهِ ٱلرَّحۡمَٰنِ ٱلرَّحِيمِ
(1) যখন কিয়ামত সংঘটিত হবে।إِذَا وَقَعَتِ ٱلۡوَاقِعَةُ ١
(2) তার সংঘটনের কোনই অস্বীকারকারী থাকবে না।لَيۡسَ لِوَقۡعَتِهَا كَاذِبَةٌ ٢
(3) তা কাউকে ভূলুণ্ঠিত করবে এবং কাউকে করবে সমুন্নত।خَافِضَةٞ رَّافِعَةٌ ٣
(4) যখন যমীন প্রকম্পিত হবে প্রবল প্রকম্পনে।إِذَا رُجَّتِ ٱلۡأَرۡضُ رَجّٗا ٤
(5) আর পর্বতমালা চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়ে পড়বে।وَبُسَّتِ ٱلۡجِبَالُ بَسّٗا ٥
(6) অতঃপর তা বিক্ষিপ্ত ধূলিকণায় পরিণত হবে।فَكَانَتۡ هَبَآءٗ مُّنۢبَثّٗا ٦
(7) আর তোমরা বিভক্ত হয়ে পড়বে তিন দলে।وَكُنتُمۡ أَزۡوَٰجٗا ثَلَٰثَةٗ ٧
(8) সুতরাং ডান পার্শ্বের দল, ডান পার্শ্বের দলটি কত সৌভাগ্যবান!فَأَصۡحَٰبُ ٱلۡمَيۡمَنَةِ مَآ أَصۡحَٰبُ ٱلۡمَيۡمَنَةِ ٨
(9) আর বাম পার্শ্বের দল, বাম পার্শ্বের দলটি কত হতভাগ্য!وَأَصۡحَٰبُ ٱلۡمَشۡ‍َٔمَةِ مَآ أَصۡحَٰبُ ٱلۡمَشۡ‍َٔمَةِ ٩
(10) আর অগ্রগামীরাই অগ্রগামী।وَٱلسَّٰبِقُونَ ٱلسَّٰبِقُونَ ١٠
(11) তারাই সান্নিধ্যপ্রাপ্ত।أُوْلَٰٓئِكَ ٱلۡمُقَرَّبُونَ ١١
(12) তারা থাকবে নিআমতপূর্ণ জান্নাতসমূহে ।فِي جَنَّٰتِ ٱلنَّعِيمِ ١٢
(13) বহুসংখ্যক হবে পূর্ববর্তীদের মধ্য থেকে,ثُلَّةٞ مِّنَ ٱلۡأَوَّلِينَ ١٣
(14) আর অল্পসংখ্যক হবে পরবর্তীদের মধ্য থেকে।وَقَلِيلٞ مِّنَ ٱلۡأٓخِرِينَ١٤
(15) স্বর্ণ ও দামী পাথরখচিত আসনে!عَلَىٰ سُرُرٖ مَّوۡضُونَةٖ ١٥
(16) তারা সেখানে হেলান দিয়ে আসীন থাকবে মুখোমুখি অবস্থায়।مُّتَّكِ‍ِٔينَ عَلَيۡهَا مُتَقَٰبِلِينَ ١٦
(17) তাদের আশ-পাশে ঘোরাফেরা  করবে চির কিশোররা,يَطُوفُ عَلَيۡهِمۡ وِلۡدَٰنٞ مُّخَلَّدُونَ ١٧
(18) পানপাত্র, জগ ও প্রবাহিত ঝর্ণার শরাবপূর্ণ পেয়ালা নিয়ে,بِأَكۡوَابٖ وَأَبَارِيقَ وَكَأۡسٖ مِّن مَّعِينٖ١٨
(19) তা পানে না তাদের মাথা ব্যথা করবে, আর না তারা মাতাল হবে।لَّا يُصَدَّعُونَ عَنۡهَا وَلَا يُنزِفُونَ ١٩
(20) আর (ঘোরাফেরা করবে) তাদের পছন্দমত ফল নিয়ে।وَفَٰكِهَةٖ مِّمَّا يَتَخَيَّرُونَ٢٠
(21) আর পাখির গোশ্ত নিয়ে, যা তারা কামনা করবে।وَلَحۡمِ طَيۡرٖ مِّمَّا يَشۡتَهُونَ ٢١
(22) আর থাকবে ডাগরচোখা হূর,وَحُورٌ عِينٞ ٢٢
(23) যেন তারা সুরক্ষিত মুক্তা,كَأَمۡثَٰلِ ٱللُّؤۡلُوِٕ ٱلۡمَكۡنُونِ ٢٣
(24) তারা যে আমল করত তার প্রতিদানস্বরূপ।جَزَآءَۢ بِمَا كَانُواْ يَعۡمَلُونَ ٢٤
(25) তারা সেখানে শুনতে পাবে না কোন বেহুদা কথা, এবং না পাপের কথা;لَا يَسۡمَعُونَ فِيهَا لَغۡوٗا وَلَا تَأۡثِيمًا ٢٥
(26) শুধু এই বাণী ছাড়া, ‘সালাম, সালাম’إِلَّا قِيلٗا سَلَٰمٗا سَلَٰمٗا ٢٦
(27) আর ডান দিকের দল; কত ভাগ্যবান ডান দিকের দল!وَأَصۡحَٰبُ ٱلۡيَمِينِ مَآ أَصۡحَٰبُ ٱلۡيَمِينِ ٢٧
(28) তারা থাকবে কাঁটাবিহীন কুলগাছের নিচে,فِي سِدۡرٖ مَّخۡضُودٖ ٢٨
(29) আর কাঁদিপূর্ণ কলাগাছের নিচে,وَطَلۡحٖ مَّنضُودٖ ٢٩
(30) আর বিস্তৃত ছায়ায়,وَظِلّٖ مَّمۡدُودٖ٣٠
(31) আর সদা প্রবাহিত পানির পাশে,وَمَآءٖ مَّسۡكُوبٖ ٣١
(32) আর প্রচুর ফলমূলে,وَفَٰكِهَةٖ كَثِيرَةٖ ٣٢
(33) যা শেষ হবে না এবং নিষিদ্ধও হবে না।لَّا مَقۡطُوعَةٖ وَلَا مَمۡنُوعَةٖ٣٣
(34)  (তারা থাকবে) সুউচ্চ শয্যাসমূহে;وَفُرُشٖ مَّرۡفُوعَةٍ ٣٤
(35) নিশ্চয় আমি হূরদেরকে বিশেষভাবে সৃষ্টি করব।إِنَّآ أَنشَأۡنَٰهُنَّ إِنشَآءٗ ٣٥
(36) অতঃপর তাদেরকে বানাব কুমারী,فَجَعَلۡنَٰهُنَّ أَبۡكَارًا٣٦
(37) সোহাগিনী ও সমবয়সী।عُرُبًا أَتۡرَابٗا ٣٧
(38) ডানদিকের লোকদের জন্য।لِّأَصۡحَٰبِ ٱلۡيَمِينِ ٣٨

সুরা ওয়াক্বিয়া ع রুকু-১ Ruku-1 >> ২ 2 >> ৩ 3

(39) তাদের অনেকে হবে পূর্ববর্তীদের মধ্য থেকে।ثُلَّةٞ مِّنَ ٱلۡأَوَّلِينَ ٣٩
(40) আর অনেকে হবে পরবর্তীদের মধ্য থেকে।وَثُلَّةٞ مِّنَ ٱلۡأٓخِرِينَ ٤٠
(41) আর বাম দিকের দল, কত হতভাগ্য বাম দিকের দল!وَأَصۡحَٰبُ ٱلشِّمَالِ مَآ أَصۡحَٰبُ ٱلشِّمَالِ ٤١
(42) তারা থাকবে তীব্র গরম হাওয়া এবং প্রচন্ড উত্তপ্ত পানিতে,فِي سَمُومٖ وَحَمِيمٖ ٤٢
(43) আর প্রচন্ড কালো ধোঁয়ার ছায়ায়,وَظِلّٖ مِّن يَحۡمُومٖ ٤٣
(44) যা শীতলও নয়, সুখকরও নয়।لَّا بَارِدٖ وَلَا كَرِيمٍ ٤٤
(45) নিশ্চয় তারা ইতঃপূর্বে বিলাসিতায় মগ্ন ছিল,إِنَّهُمۡ كَانُواْ قَبۡلَ ذَٰلِكَ مُتۡرَفِينَ ٤٥
(46) আর তারা জঘন্য পাপে লেগে থাকত।وَكَانُواْ يُصِرُّونَ عَلَى ٱلۡحِنثِ ٱلۡعَظِيمِ ٤٦
(47) আর তারা বলত, ‘আমরা যখন মরে যাব এবং মাটি ও হাড়ে পরিণত হব তখনও কি আমরা পুনরুত্থিত হব?’وَكَانُواْ يَقُولُونَ أَئِذَا مِتۡنَا وَكُنَّا تُرَابٗا وَعِظَٰمًا أَءِنَّا لَمَبۡعُوثُونَ ٤٧
(48)  ‘আমাদের পূর্ববর্তী পিতৃপুরুষরাও?’أَوَ ءَابَآؤُنَا ٱلۡأَوَّلُونَ ٤٨
(49) বল, ‘নিশ্চয় পূর্ববর্তীরা ও পরবর্তীরা,قُلۡ إِنَّ ٱلۡأَوَّلِينَ وَٱلۡأٓخِرِينَ ٤٩
(50) এক নির্ধারিত দিনের নির্দিষ্ট সময়ে অবশ্যই একত্র হবে’।لَمَجۡمُوعُونَ إِلَىٰ مِيقَٰتِ يَوۡمٖ مَّعۡلُومٖ ٥٠
(51) তারপর হে পথভ্রষ্ট ও অস্বীকারকারীরা,ثُمَّ إِنَّكُمۡ أَيُّهَا ٱلضَّآلُّونَ ٱلۡمُكَذِّبُونَ ٥١
(52) তোমরা অবশ্যই যাক্কূম গাছ থেকে খাবে,لَأٓكِلُونَ مِن شَجَرٖ مِّن زَقُّومٖ ٥٢
(53) অতঃপর তা দিয়ে পেট ভর্তি করবে।فَمَالِ‍ُٔونَ مِنۡهَا ٱلۡبُطُونَ ٥٣
(54) তদুপরি পান করবে প্রচন্ড উত্তপ্ত পানি।فَشَٰرِبُونَ عَلَيۡهِ مِنَ ٱلۡحَمِيمِ ٥٤
(55) অতঃপর তোমরা তা পান করবে তৃষ্ণাতুর উটের ন্যায়।فَشَٰرِبُونَ شُرۡبَ ٱلۡهِيمِ ٥٥
(56) প্রতিফল দিবসে এই হবে তাদের মেহমানদারী,هَٰذَا نُزُلُهُمۡ يَوۡمَ ٱلدِّينِ ٥٦
(57) আমিই তোমাদেরকে সৃষ্টি করেছি: তাহলে কেন তোমরা তা বিশ্বাস করছ না?vنَحۡنُ خَلَقۡنَٰكُمۡ فَلَوۡلَا تُصَدِّقُونَ ٥٧
(58) তোমরা কি ভেবে দেখেছ, তোমরা যে বীর্যপাত করছ সে সম্পর্কে?أَفَرَءَيۡتُم مَّا تُمۡنُونَ ٥٨
(59) তা কি তোমরা সৃষ্টি কর, না আমিই তার স্রষ্টা?ءَأَنتُمۡ تَخۡلُقُونَهُۥٓ أَمۡ نَحۡنُ ٱلۡخَٰلِقُونَ ٥٩
(60) আমি তোমাদের মধ্যে মৃত্যু নির্ধারণ করেছি এবং আমাকে অক্ষম করা যাবে না,نَحۡنُ قَدَّرۡنَا بَيۡنَكُمُ ٱلۡمَوۡتَ وَمَا نَحۡنُ بِمَسۡبُوقِينَ ٦٠
(61) তোমাদের স্থানে তোমাদের বিকল্প আনয়ন করতে এবং তোমাদেরকে এমনভাবে সৃষ্টি করতে যা তোমরা জান না।عَلَىٰٓ أَن نُّبَدِّلَ أَمۡثَٰلَكُمۡ وَنُنشِئَكُمۡ فِي مَا لَا تَعۡلَمُونَ ٦١
(62) আর তোমরা তো প্রথম সৃষ্টি সম্পর্কে জেনেছ, তবে কেন তোমরা উপদেশ গ্রহণ করছ না?وَلَقَدۡ عَلِمۡتُمُ ٱلنَّشۡأَةَ ٱلۡأُولَىٰ فَلَوۡلَا تَذَكَّرُونَ ٦٢
(63) তোমরা আমাকে বল, তোমরা যমীনে যা বপন কর সে ব্যাপারে,أَفَرَءَيۡتُم مَّا تَحۡرُثُونَ٦٣
(64) তোমরা তা অঙ্কুরিত কর, না আমি অঙ্কুরিত করি?ءَأَنتُمۡ تَزۡرَعُونَهُۥٓ أَمۡ نَحۡنُ ٱلزَّٰرِعُونَ ٦٤
(65) আমি চাইলে তা খড়-কুটায় পরিণত করতে পারি, তখন তোমরা পরিতাপ করতে থাকবে-لَوۡ نَشَآءُ لَجَعَلۡنَٰهُ حُطَٰمٗا فَظَلۡتُمۡ تَفَكَّهُونَ ٦٥
(66) (এই বলে,) ‘নিশ্চয় আমরা দায়গ্রস্ত হয়ে গেলাম’।إِنَّا لَمُغۡرَمُونَ ٦٦
(67) ‘বরং আমরা মাহরূম হয়েছি’।بَلۡ نَحۡنُ مَحۡرُومُونَ ٦٧
(68) তোমরা যে পানি পান কর সে ব্যাপারে আমাকে বল।أَفَرَءَيۡتُمُ ٱلۡمَآءَ ٱلَّذِي تَشۡرَبُونَ ٦٨
(69) বৃষ্টিভরা মেঘ থেকে তোমরা কি তা বর্ষণ কর, না আমি বৃষ্টি বর্ষণকারী?ءَأَنتُمۡ أَنزَلۡتُمُوهُ مِنَ ٱلۡمُزۡنِ أَمۡ نَحۡنُ ٱلۡمُنزِلُونَ ٦٩
(70) ইচ্ছা করলে আমি তা লবণাক্ত করে দিতে পারি: তবুও কেন তোমরা কৃতজ্ঞ হও না?لَوۡ نَشَآءُ جَعَلۡنَٰهُ أُجَاجٗا فَلَوۡلَا تَشۡكُرُونَ ٧٠
(71) তোমরা যে আগুন জ্বালাও সে ব্যাপারে আমাকে বল,أَفَرَءَيۡتُمُ ٱلنَّارَ ٱلَّتِي تُورُونَ ٧١
(72) তোমরাই কি এর (লাকড়ির গাছ) উৎপাদন কর, না আমি করি?ءَأَنتُمۡ أَنشَأۡتُمۡ شَجَرَتَهَآ أَمۡ نَحۡنُ ٱلۡمُنشِ‍ُٔونَ ٧٢
(73) একে আমি করেছি এক স্মারক ও মরুবাসীর প্রয়োজনীয় বস্তু।نَحۡنُ جَعَلۡنَٰهَا تَذۡكِرَةٗ وَمَتَٰعٗا لِّلۡمُقۡوِينَ ٧٣
(74) অতএব তোমার মহান রবের নামে তাসবীহ পাঠ কর।فَسَبِّحۡ بِٱسۡمِ رَبِّكَ ٱلۡعَظِيمِ ٧٤

সুরা ওয়াক্বিয়া ع রুকু-২ Ruku-2 ১ 1 >> ৩ 3

(75) সুতরাং আমি কসম করছি নক্ষত্ররাজির অস্তাচলের,۞فَلَآ أُقۡسِمُ بِمَوَٰقِعِ ٱلنُّجُومِ ٧٥
(76) আর নিশ্চয় এটি এক মহাকসম, যদি তোমরা জানতে,وَإِنَّهُۥ لَقَسَمٞ لَّوۡ تَعۡلَمُونَ عَظِيمٌ ٧٦
(77) নিশ্চয় এটি মহিমান্বিত কুরআন,إِنَّهُۥ لَقُرۡءَانٞ كَرِيمٞ ٧٧
(78) যা আছে সুরক্ষিত কিতাবে,فِي كِتَٰبٖ مَّكۡنُونٖ ٧٨
(79) কেউ তা স্পর্শ করবে না পবিত্রগণ ছাড়া।لَّا يَمَسُّهُۥٓ إِلَّا ٱلۡمُطَهَّرُونَ ٧٩
(80) তা সৃষ্টিকুলের রবের কাছ থেকে নাযিলকৃত।تَنزِيلٞ مِّن رَّبِّ ٱلۡعَٰلَمِينَ ٨٠
(81) তবে কি তোমরা এই বাণী তুচ্ছ গণ্য করছ?أَفَبِهَٰذَا ٱلۡحَدِيثِ أَنتُم مُّدۡهِنُونَ ٨١
(82) আর তোমরা তোমাদের রিযিক বানিয়ে নিয়েছ যে, তোমরা মিথ্যা আরোপ করবে।وَتَجۡعَلُونَ رِزۡقَكُمۡ أَنَّكُمۡ تُكَذِّبُونَ ٨٢
(83) সুতরাং কেন নয়- যখন রূহ কণ্ঠদেশে পৌঁছে যায়?فَلَوۡلَآ إِذَا بَلَغَتِ ٱلۡحُلۡقُومَ ٨٣
(84) আর তখন তোমরা কেবল চেয়ে থাক।وَأَنتُمۡ حِينَئِذٖ تَنظُرُونَ ٨٤
(85) আর তোমাদের চাইতে আমি তার খুব কাছে; কিন্তু তোমরা দেখতে পাও না।وَنَحۡنُ أَقۡرَبُ إِلَيۡهِ مِنكُمۡ وَلَٰكِن لَّا تُبۡصِرُونَ ٨٥
(86) তোমাদের যদি প্রতিফল দেয়া না হয়, তাহলে তোমরা কেনفَلَوۡلَآ إِن كُنتُمۡ غَيۡرَ مَدِينِينَ ٨٦
(87) ফিরিয়ে আনছ না রূহকে, যদি তোমরা সত্যবাদী হও?تَرۡجِعُونَهَآ إِن كُنتُمۡ صَٰدِقِينَ ٨٧
(88) অতঃপর সে যদি নৈকট্যপ্রাপ্তদের অন্যতম হয়,فَأَمَّآ إِن كَانَ مِنَ ٱلۡمُقَرَّبِينَ٨٨
(89) তবে তার জন্য থাকবে বিশ্রাম, উত্তম জীবনোপকরণ ও সুখময় জান্নাত।فَرَوۡحٞ وَرَيۡحَانٞ وَجَنَّتُ نَعِيمٖ ٨٩
(90) আর সে যদি হয় ডানদিকের একজন,وَأَمَّآ إِن كَانَ مِنۡ أَصۡحَٰبِٱلۡيَمِينِ ٩٠
(91) তবে (তাকে বলা হবে), ‘তোমাকে সালাম, যেহেতু তুমি ডানদিকের একজন’।فَسَلَٰمٞ لَّكَ مِنۡ أَصۡحَٰبِ ٱلۡيَمِينِ ٩١
(92) আর সে যদি হয় অস্বীকারকারী ও পথভ্রষ্ট,وَأَمَّآ إِن كَانَ مِنَ ٱلۡمُكَذِّبِينَ ٱلضَّآلِّينَ ٩٢
(93) তবে তার মেহমানদারী হবে প্রচন্ড উত্তপ্ত পানি দিয়ে,فَنُزُلٞ مِّنۡ حَمِيمٖ ٩٣
(94) আর জ্বলন্ত আগুনে প্রজ্জ্বলনে।وَتَصۡلِيَةُ جَحِيمٍ ٩٤
(95) নিশ্চয় এটি অবধারিত সত্য।إِنَّ هَٰذَا لَهُوَ حَقُّ ٱلۡيَقِينِ ٩٥
(96) অতএব তোমার মহান রবের নামে তাসবীহ পাঠ কর।فَسَبِّحۡ بِٱسۡمِ رَبِّكَ ٱلۡعَظِيمِ ٩٦

সুরা ওয়াক্বিয়া ع রুকু-৩ Ruku-3 (১)(1) >> (২)(2)

শব্দে শব্দে সুরা ওয়াক্বিয়া Sura Al Waqia in Words, Ruku-(1)(১) >> (2)(২) >> (3)(৩)

(1)

إِذَا

যখন

When

وَقَعَتِ

ঘটবে

occurs

ٱلْوَاقِعَةُ

ঘটনাটি (কিয়ামত)

the Event

(2)

لَيْسَ

না (হবে)

Not

لِوَقْعَتِهَا

তার সংঘটনের (ব্যাপারে)

at its occurrence

كَاذِبَةٌ

কোনো অস্বীকারকারী

a denial

(3)

خَافِضَةٌ

(তাহবে কাঊকে) অবনতকারী

Bringing down

رَّافِعَةٌ

(আবার কাঊকে) সমুন্নতকারী

raising up

(4)

إِذَا

যখন

When

رُجَّتِ

প্রকম্পিত করা হবে

will be shaken

ٱلْأَرْضُ

পৃথিবী

the earth

رَجًّا

(প্রবল) কম্পন

(with) a shaking

(5)

وَبُسَّتِ

এবং ছিন্নভিন্ন করা হবে

And will be crumbled

ٱلْجِبَالُ

পাহারসমূহকে

the mountains

بَسًّا

ছিন্নভিন্ন করার মতো

(with awful) crumbling

(6)

فَكَانَتْ

অতঃপর তা হবে

So they become

هَبَآءً

ধূলিকণা

dust particles

مُّنۢبَثًّا

বিক্ষিপ্ত

dispersing

(7)

وَكُنتُمْ

এবং তোমরা হবে বিভক্ত

And you will become

أَزْوَٰجًا

ভাগে বিভক্ত

kinds

ثَلَٰثَةً

তিনটি

three

(8)

فَأَصْحَٰبُ

লোকগুলো অতঃপর

Then (the) companions

ٱلْمَيْمَنَةِ

ডান হাতের

(of) the right

مَآ

কি (ভাগ্যবান)

what

أَصْحَٰبُ

লোকগুলো

(are the) companions

ٱلْمَيْمَنَةِ

ডানহাতের

(of) the right?

(9)

وَأَصْحَٰبُ

এবং লোকগুলো

And (the) companions

ٱلْمَشْـَٔمَةِ

বামহাতের

(of) the left

مَآ

কি (দুর্ভাগা)

what

أَصْحَٰبُ

লোকগুলো

(are the) companions

ٱلْمَشْـَٔمَةِ

বামহাতের

(of) the left?

(10)

وَٱلسَّٰبِقُونَ

এবং অগ্রবর্তীরা (তো)

And the foremost

ٱلسَّٰبِقُونَ

অগ্রবর্তীই

(are) the foremost

(11)

أُو۟لَٰٓئِكَ

তারাই

Those

ٱلْمُقَرَّبُونَ

নৈকট্যপ্রাপ্ত

(are) the nearest ones

(12)

فِى

(তারা থাকবে) মধ্যে

In

جَنَّٰتِ

জান্নাতের

Gardens

ٱلنَّعِيمِ

সুখের

(of) Pleasure

(13)

ثُلَّةٌ

বেশিসংখ্যক

A company

مِّنَ

মধ্য হতে

of

ٱلْأَوَّلِينَ

পূর্ববর্তীদের

the former people

(14)

وَقَلِيلٌ

এবং অল্পসংখ্যক (হবে)

And a few

مِّنَ

মধ্য হতে

of

ٱلْءَاخِرِينَ

পরবর্তীদের

the later people

(15)

عَلَىٰ

(তারা বসবে) উপর

On

سُرُرٍ

আসন সমূহের

thrones

مَّوْضُونَةٍ

স্বর্ণখচিত

decorated

(16)

مُّتَّكِـِٔينَ

হেলানদিয়ে বসবে

Reclining

عَلَيْهَا

তার উপর

on them

مُتَقَٰبِلِينَ

মুখোমুখি হয়ে

facing each other

(17)

يَطُوفُ

ঘুরাফিরা করবে

Will circulate

عَلَيْهِمْ

তাদের কাছে

among them

وِلْدَٰنٌ

কিশোররা

boys

مُّخَلَّدُونَ

চির

immortal

(18)

بِأَكْوَابٍ

পান পাত্রগুলো নিয়ে

With vessels

وَأَبَارِيقَ

ও কুঁজো

and jugs

وَكَأْسٍ

ও পেয়ালা (ভরা)

and a cup

مِّن

হতে

from

مَّعِينٍ

প্রবাহিত সূরারঝর্ণা

a flowing stream

(19)

لَّا

না

Not

يُصَدَّعُونَ

মাথাঘুরাবে

they will get headache

عَنْهَا

তা থেকে

therefrom

وَلَا

এবং না

and not

يُنزِفُونَ

তারা জ্ঞানহারা হবে

they will get intoxicated

(20)

وَفَٰكِهَةٍ

এবং ফলমূল (থাকবে)

And fruits

مِّمَّا

তা হতে যা (চাইবে)

of what

يَتَخَيَّرُونَ

তারা বেছে নিবে

they select

(21)

وَلَحْمِ

এবং গোশত (থাকবে)

And (the) flesh

طَيْرٍ

পাখির

(of) fowls

مِّمَّا

তাহতে যা

of what

يَشْتَهُونَ

তারা চাইবে (নিতে পারবে)

they desire

(22)

وَحُورٌ

এবং হুরসমূহ (থাকবে)

And fair ones

عِينٌ

ডাগর চোখ বিশিষ্ট

(with) large eyes

(23)

كَأَمْثَٰلِ

দৃষ্টান্ত মতো

Like

ٱللُّؤْلُؤِ

মুক্তার

pearls

ٱلْمَكْنُونِ

লুকিয়েরাখা

well-protected

(24)

جَزَآءًۢ

পুরষ্কার

A reward

بِمَا

ঐ বিষয়ের যা

for what

كَانُوا۟

তারা ছিল

they used (to)

يَعْمَلُونَ

তারা কাজ করতে

do

(25)

لَا

না

Not

يَسْمَعُونَ

তারা শুনতেপাবে

they will hear

فِيهَا

তার মধ্যে

therein

لَغْوًا

অসারকথা

vain talk

وَلَا

এবং না

and not

تَأْثِيمًا

পাপের (কথা)

sinful (speech)

(26)

إِلَّا

তবে

Except

قِيلًا

বলা হবে

a saying

سَلَٰمًا

“সালাম”

“Peace

سَلَٰمًا

“(আর) সালাম”

Peace”

(27)

وَأَصْحَٰبُ

এবং লোকগুলো

And (the) companions

ٱلْيَمِينِ

ডানহাতের

(of) the right

مَآ

কি (ভাগ্যবান)

what

أَصْحَٰبُ

লোকগুলো

(are the) companions

ٱلْيَمِينِ

ডানহাতের

(of) the right?

(28)

فِى

মধ্যে

Among

سِدْرٍ

কুলবৃক্ষসমূহের

lote trees

مَّخْضُودٍ

কাঁটাহীন

thornless

(29)

وَطَلْحٍ

এবং কলাসমূহে

And banana trees

مَّنضُودٍ

থরে থরে সাজানো

layered

(30)

وَظِلٍّ

ও ছায়ায়

And shade

مَّمْدُودٍ

বিস্তৃত

extended

(31)

وَمَآءٍ

এবং পানির (কাছে)

And water

مَّسْكُوبٍ

(সদা) প্রবহমান

poured forth

(32)

وَفَٰكِهَةٍ

এবং ফলমূল

And fruit

كَثِيرَةٍ

পর্যাপ্ত

abundant

(33)

لَّا

না

Not

مَقْطُوعَةٍ

শেষ হবে

limited

وَلَا

আর না

and not

مَمْنُوعَةٍ

নিষিদ্ধ হবে

forbidden

(34)

وَفُرُشٍ

এবং শয্যাসমূহে

And (on) couches

مَّرْفُوعَةٍ

সুউচ্চ

raised

(35)

إِنَّآ

নিশ্চয়ই আমরা

Indeed We

أَنشَأْنَٰهُنَّ

তাদের আমরা সৃষ্টি করব

[We] have produced them

إِنشَآءً

সৃষ্টি (নতুন করে)

(into) a creation

(36)

فَجَعَلْنَٰهُنَّ

তাদের অতঃপর আমরা বানানো

And We have made them

أَبْكَارًا

চিরকুমারী

virgins

(37)

عُرُبًا

স্বামীসোহাগিনী

Devoted

أَتْرَابًا

সমবয়স্কা

equals in age

(38)

لِّأَصْحَٰبِ

লোকদের জন্যে

For (the) companions

ٱلْيَمِينِ

ডানহাতের

(of) the right

শব্দে শব্দে সুরা ওয়াক্বিয়া Sura Al Waqia in Words Ruku-(1)(১) (2)(২) >> (3)(৩)

(39)

ثُلَّةٌ

বহুসংখ্যক

A company

مِّنَ

মধ্য হতে

of

ٱلْأَوَّلِينَ

পূর্ববর্তীদের

the former people

(40)

وَثُلَّةٌ

বহুসংখ্যক

And a company

مِّنَ

মধ্য হতে

of

ٱلْءَاخِرِينَ

পরবর্তীদের

the later people
(41)

وَأَصْحَٰبُ

এবং লোকদের

And (the) companions

ٱلشِّمَالِ

বামহাতের

(of) the left

مَآ

কি (দুর্ভাগ্য)

what

أَصْحَٰبُ

লোকদের

(are the) companions

ٱلشِّمَالِ

বামহাতের

(of) the left?

(42)

فِى

মধ্য (থাকবে)

In

سَمُومٍ

উষ্ণবাতাস

scorching fire

وَحَمِيمٍ

ও ফুটন্ত পানির

and scalding water

(43)

وَظِلٍّ

এবং ছায়ায়

And a shade

مِّن

থেকে (সৃষ্টি)

of

يَحْمُومٍ

কালো ধোঁয়ার

black smoke

(44)

لَّا

না

Not

بَارِدٍ

ঠাণ্ডা (হবে)

cool

وَلَا

আর না

and not

كَرِيمٍ

আনন্দদায়ক

pleasant

(45)

إِنَّهُمْ

তারা নিশ্চয়ই

Indeed they

كَانُوا۟

ছিল

were

قَبْلَ

পূর্বে

before

ذَٰلِكَ

এর

that

مُتْرَفِينَ

বিলাসী জীবনের অধিকারী

indulging in affluence

(46)

وَكَانُوا۟

এবং তারা ছিল

And were

يُصِرُّونَ

তারা অবিরত লিপ্ত থাকে

persisting

عَلَى

উপর

in

ٱلْحِنثِ

পাপের

the sin

ٱلْعَظِيمِ

ঘোরতর

the great

(47)

وَكَانُوا۟

এবং তারা ছিল

And they used (to)

يَقُولُونَ

তারা বলে

say

أَئِذَا

“যখন কি

“When

مِتْنَا

আমরা মরে যাব

we die

وَكُنَّا

ও আমরা হব

and become

تُرَابًا

মাটি

dust

وَعِظَٰمًا

ও হাড়

and bones

أَءِنَّا

নিশ্চয়ই কি আমরা

will we

لَمَبْعُوثُونَ

উত্থিত হব অবশ্যই

surely be resurrected?

(48)

أَوَءَابَآؤُنَا

অথবা আমাদের বাপদাদারও

And also

ٱلْأَوَّلُونَ

পূর্বসূরী

our forefathers?

(49)

قُلْ

বলো

Say

إِنَّ

“নিশ্চয়ই

“Indeed

ٱلْأَوَّلِينَ

পূর্বসূরীকে

the former

وَٱلْءَاخِرِينَ

এবং উত্তরসূরীকে

and the later people

(50)

لَمَجْمُوعُونَ

অবশ্যই একত্র করা হবে

Surely will be gathered

إِلَىٰ

দিকে

for

مِيقَٰتِ

(নির্দিষ্ট) সময়ে

(the) appointment

يَوْمٍ

দিনে

(of) a Day

مَّعْلُومٍ

নির্ধারিত”

well-known”

(51)

ثُمَّ

“এরপর

“Then

إِنَّكُمْ

নিশ্চয়ই তোমরা

indeed you

أَيُّهَا

হে

O those astray!

ٱلضَّآلُّونَ

পথভ্রষ্টরা

O those astray!

ٱلْمُكَذِّبُونَ

মিথ্যারোপকারীরা

the deniers

(52)

لَءَاكِلُونَ

অবশ্যই আহার করবে

Will surely eat

مِن

থেকে

from

شَجَرٍ

গাছ

(the) tree

مِّن

থেকে

of

زَقُّومٍ

যাক্কুমের

Zaqqum

(53)

فَمَالِـُٔونَ

অতঃপর পূর্ণ করবে

Then will fill

مِنْهَا

তা দিয়ে

with it

ٱلْبُطُونَ

পেট সমূহকে

the bellies

(54)

فَشَٰرِبُونَ

অতঃপর পান করবে

And drink

عَلَيْهِ

তার উপর

over it

مِنَ

থেকে

from

ٱلْحَمِيمِ

ফুটন্ত পানি

the scalding water

(55)

فَشَٰرِبُونَ

অতঃপর পান করবে

And will drink

شُرْبَ

পান করার (মত)

(as) drinking

ٱلْهِيمِ

পিপাসার্ত উট সমূহের”

(of) the thirsty camels”

(56)

هَٰذَا

এটা

This

نُزُلُهُمْ

তাদের আপ্যায়ন (হবে)

(is) their hospitality

يَوْمَ

দিনে

(on the) Day

ٱلدِّينِ

কিয়ামতের

(of) Judgment

(57)

نَحْنُ

আমরা

We

خَلَقْنَٰكُمْ

তোমাদেরকে সৃষ্টি করেছি

[We] created you

فَلَوْلَا

কেন তবুও না

so why (do) not

تُصَدِّقُونَ

তোমার বিশ্বাস কর

you admit the truth?

(58)

أَفَرَءَيْتُم

তোমরা (ভেবে) দেখেছ কি তাহলে

Do you see

مَّا

যা

what

تُمْنُونَ

তোমরা বীর্যপাত কর

you emit?

(59)

ءَأَنتُمْ

তোমরা কি

Is it you

تَخْلُقُونَهُۥٓ

তা সৃষ্টি কর

who create it

أَمْ

না

or

نَحْنُ

আমরা

(are) We

ٱلْخَٰلِقُونَ

সৃষ্টিকারী

the Creators?

(60)

نَحْنُ

আমরা

We

قَدَّرْنَا

নির্ধারণ করেছি

[We] have decreed

بَيْنَكُمُ

তোমাদের মাঝে

among you

ٱلْمَوْتَ

মৃত্যু

the death

وَمَا

এবং না

and not

نَحْنُ

আমরা

We

بِمَسْبُوقِينَ

অক্ষম

(are) outrun

(61)

عَلَىٰٓ

এক্ষেত্রে

In

أَن

যে

that

نُّبَدِّلَ

পরিবর্তন করব আমরা

We (will) change

أَمْثَٰلَكُمْ

তোমাদের আকৃতি

your likeness[es]

وَنُنشِئَكُمْ

এবং তোমাদের সৃষ্টি করব আমরা

and produce you

فِى

(এমন আকৃতির) মধ্যে

in

مَا

যা

what

لَا

না

not

تَعْلَمُونَ

তোমরা জান

you know

(62)

وَلَقَدْ

এবং নিশ্চয়ই

And certainly

عَلِمْتُمُ

তোমরা জেনেছ

you know

ٱلنَّشْأَةَ

সৃষ্টিকে

the creation

ٱلْأُولَىٰ

প্রথমবার

the first

فَلَوْلَا

কেন তবে না

so why not

تَذَكَّرُونَ

তোমরা শিক্ষা গ্রহণ কর

you take heed?

(63)

أَفَرَءَيْتُم

তোমরা তবে কি (ভেবে) দেখেছ

And do you see

مَّا

যা

what

تَحْرُثُونَ

তোমরা বীজবপণ কর

you sow?

(64)

ءَأَنتُمْ

তোমরা কি

Is it you (who)

تَزْرَعُونَهُۥٓ

সেই ফসল ফলাও

cause it to grow

أَمْ

না

or

نَحْنُ

আমরা

(are) We

ٱلزَّٰرِعُونَ

উৎপাদনকারী

the Ones Who grow?

(65)

لَوْ

যদি

If

نَشَآءُ

চাই আমরা

We willed

لَجَعَلْنَٰهُ

তা আমরা পরিণত করতে পারি অবশ্যই

We (would) surely make it

حُطَٰمًا

খড়কুটায়

debris

فَظَلْتُمْ

তোমরা তখন থাকবে

then you would remain

تَفَكَّهُونَ

অবাক বোধ করতে

wondering

(66)

إِنَّا

“(বলবে) আমরা নিশ্চয়ই

“Indeed we

لَمُغْرَمُونَ

অবশ্যই ঋণগ্রস্ত হয়েছি

surely are laden with debt

(67)

بَلْ

বরং

Nay

نَحْنُ

আমরা

we

مَحْرُومُونَ

বঞ্চিত হয়েছি”

(are) deprived”

(68)

أَفَرَءَيْتُمُ

তোমরা তবে কি (ভেবে) দেখেছ

Do you see

ٱلْمَآءَ

পানি (সম্পর্কে)

the water

ٱلَّذِى

যা

which

تَشْرَبُونَ

তোমরা পান কর

you drink?

(69)

ءَأَنتُمْ

তোমরা কি

Is it you

أَنزَلْتُمُوهُ

তা নামিয়ে আন

who send it down

مِنَ

থেকে

from

ٱلْمُزْنِ

মেঘ

the rain clouds

أَمْ

না

or

نَحْنُ

আমরা

We

ٱلْمُنزِلُونَ

বর্ষণকারী

(are) the Ones to send?

(70)

لَوْ

যদি

If

نَشَآءُ

চাই আমরা

We willed

جَعَلْنَٰهُ

তা আমরা করতে পারি

We (could) make it

أُجَاجًا

লোনা

salty

فَلَوْلَا

কেন তাহলে না

then why are you not grateful?

تَشْكُرُونَ

তোমরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ কর

then why are you not grateful?

(71)

أَفَرَءَيْتُمُ

তোমরা তবে কি (ভেবে) দেখেছ

Do you see

ٱلنَّارَ

আগুন (সম্পর্কে)

the Fire

ٱلَّتِى

যা

which

تُورُونَ

তোমরা জ্বালাও

you ignite?

(72)

ءَأَنتُمْ

তোমরা কি

Is it you

أَنشَأْتُمْ

তোমরাই সৃষ্টি করেছ

who produced

شَجَرَتَهَآ

তার গাছকে

its tree

أَمْ

না

or

نَحْنُ

আমরা

We

ٱلْمُنشِـُٔونَ

স্রষ্টা

(are) the Producers?

(73)

نَحْنُ

আমরা

We

جَعَلْنَٰهَا

তা আমরা বানিয়েছি

have made it

تَذْكِرَةً

স্মরণীয় নিদর্শন

a reminder

وَمَتَٰعًا

ও জীবনোপকরণ (হিসেবে)

and a provision

لِّلْمُقْوِينَ

(মরুচারী) মুসাফিরদের জন্যে

for the wayfarers in the desert

(74)

فَسَبِّحْ

অতএব তুমি পবিত্রতা ঘোষণা করো

So glorify

بِٱسْمِ

নামের

(the) name

رَبِّكَ

তোমার রবের

(of) your Lord

ٱلْعَظِيمِ

মহান

the Most Great

শব্দে শব্দে সুরা ওয়াক্বিয়া Sura Al Waqia in Words Ruku-2 (1)(১) >> (3)(৩)

(75)

فَلَآ

অতঃপর না

But nay

أُقْسِمُ

শপথ করছি আমি

I swear

بِمَوَٰقِعِ

অস্ত যাওয়ার স্থানের

by setting

ٱلنُّجُومِ

তারকা গুলোর

(of) the stars

(76)

وَإِنَّهُۥ

এবং তা নিশ্চয়ই

And indeed it

لَقَسَمٌ

শপথ অবশ্যই

(is) surely an oath

لَّوْ

যদি

if

تَعْلَمُونَ

তোমরা জান

you know –

عَظِيمٌ

(শপথ) বিরাট

great

(77)

إِنَّهُۥ

তা নিশ্চয়ই

Indeed it

لَقُرْءَانٌ

অবশ্যই কুরআন

(is) surely a Quran

كَرِيمٌ

মহা সম্মানিত

noble

(78)

فِى

মধ্যে

In

كِتَٰبٍ

কিতাবের

a Book

مَّكْنُونٍ

সুরক্ষিত

well-guarded

(79)

لَّا

না

None

يَمَسُّهُۥٓ

তা স্পর্শ করতে পারে

touch it

إِلَّا

এছাড়া

except

ٱلْمُطَهَّرُونَ

(যারা) পবিত্র

the purified

(80)

تَنزِيلٌ

অবতীর্ণ

A Revelation

مِّن

পক্ষ হতে

from

رَّبِّ

রবের

(the) Lord

ٱلْعَٰلَمِينَ

বিশ্বজগতের

(of) the worlds

(81)

أَفَبِهَٰذَا

তবুও কি এই

Then is it to this

ٱلْحَدِيثِ

বাণী (সম্পর্কে)

statement

أَنتُم

তোমরা

that you

مُّدْهِنُونَ

তুচ্ছজ্ঞান করবে

(are) indifferent?

(82)

وَتَجْعَلُونَ

এবং তোমরা বানিয়ে নেবে

And you make

رِزْقَكُمْ

তোমাদের জীবিকা (এই নিয়ামত)

your provision

أَنَّكُمْ

(এভাবে) যে তোমরা

that you

تُكَذِّبُونَ

মিথ্যা মনে করছ

deny

(83)

فَلَوْلَآ

তবে কেন নয়

Then why not

إِذَا

যখন

when

بَلَغَتِ

পৌঁছাবে (প্রাণ)

it reaches

ٱلْحُلْقُومَ

কণ্ঠনালীতে

the throat

(84)

وَأَنتُمْ

এবং তোমরা

And you

حِينَئِذٍ

সে সময়

(at) that time

تَنظُرُونَ

তাকিয়ে থাকবে

look on

(85)

وَنَحْنُ

এবং আমরা

And We

أَقْرَبُ

অধিকতর নিকটে

(are) nearer

إِلَيْهِ

তার কাছে

to him

مِنكُمْ

তোমাদের চেয়ে

than you

وَلَٰكِن

কিন্তু

but

لَّا

না

you (do) not see

تُبْصِرُونَ

তোমরা দেখতে পাও

you (do) not see

(86)

فَلَوْلَآ

অতঃপর কেন

Then why not

إِن

যদি

if

كُنتُمْ

তোমরা হয়ে থাক

you are

غَيْرَ

(এমন যে) নও

not

مَدِينِينَ

অধিনস্ত (কারও)

to be recompensed

(87)

تَرْجِعُونَهَآ

তা তোমরা ফিরিয়ে আন

Bring it back

إِن

যদি

if

كُنتُمْ

তোমরা হও

you are

صَٰدِقِينَ

সত্যবাদী

truthful

(88)

فَأَمَّآ

আর

Then

إِن

যদি

if

كَانَ

সে হয়

he was

مِنَ

অন্তর্ভুক্ত

of

ٱلْمُقَرَّبِينَ

নৈকট্য প্রাপ্তদের

those brought near

(89)

فَرَوْحٌ

(তার জন্যে) তবে আরাম

Then rest

وَرَيْحَانٌ

ও উত্তম জীবনোপকরণ

and bounty

وَجَنَّتُ

এবং জন্নাত

and a Garden

نَعِيمٍ

সুখকর

(of) Pleasure

(90)

وَأَمَّآ

আর

And

إِن

যদি

if

كَانَ

সে হয়

he was

مِنْ

অন্তর্ভুক্ত

of

أَصْحَٰبِ

লোকদের

(the) companions

ٱلْيَمِينِ

ডান হাতের

(of) the right

(91)

فَسَلَٰمٌ

তবে (বলা হবে) সালাম

Then peace

لَّكَ

তোমার জন্য

for you;

مِنْ

অন্তর্ভুক্ত

from

أَصْحَٰبِ

লোকদের

(the) companions

ٱلْيَمِينِ

ডান হাতের

(of) the right

(92)

وَأَمَّآ

আর

But

إِن

যদি

if

كَانَ

সে হয়

he was

مِنَ

অন্তর্ভুক্ত

of

ٱلْمُكَذِّبِينَ

মিথ্যারোপকারীদের

the deniers

ٱلضَّآلِّينَ

পথভ্রষ্টদের

the astray

(93)

فَنُزُلٌ

আপ্যায়ন তবে (হবে)

Then hospitality

مِّنْ

দিয়ে

of

حَمِيمٍ

ফুটন্ত পানির

(the) scalding water

(94)

وَتَصْلِيَةُ

ও দগ্ধকরণ

And burning

جَحِيمٍ

জাহান্নামের

(in) Hellfire

(95)

إِنَّ

নিশ্চয়ই

Indeed

هَٰذَا

এটা

this

لَهُوَ

তা অবশ্যই

surely it

حَقُّ

সত্য

(is the) truth

ٱلْيَقِينِ

ধ্রুব

certain

(96)

فَسَبِّحْ

সুতরাং পবিত্রতা ঘোষণা করো

So glorify

بِٱسْمِ

নামের

(the) name

رَبِّكَ

তোমার রবের

(of) your Lord

ٱلْعَظِيمِ

(যিনি) মহান

the Most Great

শব্দে শব্দে সুরা ওয়াক্বিয়া Sura Al Waqia in Words Ruku-3 (1)(১) >> (2)(২)

৫৫সুরা আর-রহমান<< সুরা ওয়াক্বিয়া >> ৫৭ সুরা হাদীদ

About halalbajar.com

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

তাফহিমুল কুরআন তাফসীর ১৩ খ.- সুরা ইয়াসিন, সাফফাত, সাদ, জুমার, মুমিন

তাফহিমুল কুরআন তাফসীর ১৩ খন্ড – সুরা ইয়াসিন, সাফফাত, সাদ, জুমার, মুমিন তাফহিমুল কুরআন তাফসীর …

Leave a Reply

%d bloggers like this: