লালন পালনের দায়িত্ব বহন। প্রাণীদের শাস্তি দেওয়া নিষেধ

লালন পালনের দায়িত্ব বহন। প্রাণীদের শাস্তি দেওয়া নিষেধ

লালন পালনের দায়িত্ব বহন >> বুলুগুল মারাম এর মুল সুচিপত্র দেখুন

অধ্যায় – ১৪ঃ লালন পালনের দায়িত্ব বহন

পরিচ্ছেদ ০১. মা`ই সন্তান পালনের ব্যাপারে অধিক হাক্বদার যতক্ষণ সে অন্যত্র বিবাহ না করে
পরিচ্ছেদ ০২. মাতা-পিতার বিচ্ছেদে সন্তানের যে কোন একজনকে বেছে নেয়া
পরিচ্ছেদ ০৩. স্বামী/স্ত্রীর কেউ কাফির হলে সন্তান লালন-পালনের অধিকারী হওয়ার হুকুম
পরিচ্ছেদ ০৪. সন্তান লালন-পালনের ব্যাপারে খালা মায়ের সমতুল্য
পরিচ্ছেদ ০৫. দাস, কর্মচারীর প্রতি দয়া প্রদর্শন করার ফযীলত
পরিচ্ছেদ ০৬. প্রাণীদের শাস্তি দেওয়া নিষেধ

পরিচ্ছেদ ০১. মা`ই সন্তান পালনের ব্যাপারে অধিক হাক্বদার যতক্ষণ সে অন্যত্র বিবাহ না করে

১১৫১ – আবদুল্লাহ ইবনু আমর [রাঃআঃ] হইতে বর্ণিতঃ

কোন এক রমণী এসে বললোঃ হে আল্লাহর রাসূল! আমার এ পুত্রের জন্য আমার পেট তার আধার, আমার স্তনদ্বয় তার জন্য মশক, আমার কোলই তাহাঁর আশ্রয় স্থল ছিল। তার পিতা আমাকে ত্বালাক দিয়েছে এবং আমার নিকট থেকে তাকে ছিনিয়ে নেয়ার ইচ্ছা করছে। রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] ঐ মেয়েটিকে বললেনঃ তুমিই এ সন্তানের [পালনের] অধিক হাক্বদার যতক্ষণ তুমি অন্য স্বামী গ্রহণ না করিবে। {১২৫৪}

{১২৫৪} আবূ দাউদ ২২৭৬, আহমাদ ৬৬৬৮, হাকিম ২০৭। হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পরিচ্ছেদ ০২. মাতা-পিতার বিচ্ছেদে সন্তানের যে কোন একজনকে বেছে নেয়া

১১৫২ – আবূ হুরাইরা [রাঃআঃ] হইতে বর্ণিতঃ

কোন এক রমণী বললঃ হে আল্লাহর রাসূল! আমার স্বামী আমার পুত্রকে নিয়ে যেতে চান আর ঐ পুত্র আমার উপকার করছে এবং ইনাবার কুয়া থেকে আমাকে পানি এনে পান করাচ্ছে। তারপর তার স্বামী এসে গেল তখন রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেনঃ হে বৎস! এটা তোমার পিতা আর এটা তোমার মাতা, তুমি তাহাদের যে কোন একজনের হাত ধরো বালকটি তার মা-এর হাত ধরলো ফলে তার মা তাকে নিয়ে চলে গেল। {১২৫৫}

{১২৫৫} আবূ দাউদ ২২৭৭, তিরমিজি ১৩৫৭, নাসায়ী ৩৪৯৬, আহমাদ ৯৪৭৯, দারেমী ২২৯৩। হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পরিচ্ছেদ ০৩. স্বামী/স্ত্রীর কেউ কাফির হলে সন্তান লালন-পালনের অধিকারী হওয়ার হুকুম

১১৫৩ – রাফি` ইবনু সিনান [রাঃআঃ] হইতে বর্ণিতঃ

তিনি ইসলাম ক্ববুল করিলেন আর তার স্ত্রী ইসলাম ক্ববুল করিতে অস্বীকার করে। এরূপ অবস্থায় নবী [সাঃআঃ] [কাফিরা] মাকে এক প্রান্তে বসালেন এবং পিতাকে বসালেন এবং বালকটিকে দু`জনের মাঝে বসালেন। বালকটি তার মার দিকে ঝুকেঁ পড়তে আরম্ভ করলে রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] এ বলে দু`য়া করিলেন, হে আল্লাহ! তাকে সঠিক পথের সন্ধান দাও। তারপর সে তার পিতার দিকে অগ্রসর হলো, ফলে তার পিতা তাকে ধরে নিলো। {১২৫৬}

{১২৫৬} আবূ দাউদ ২২৪৪, আহমাদ ২৩২৪৫। আলবানি সহিহ বলেছেন, দেখুন তাহকিক নাসায়ী/ হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পরিচ্ছেদ ০৪. সন্তান লালন-পালনের ব্যাপারে খালা মায়ের সমতুল্য

১১৫৪ – বারা ইবনু আযিব [রাঃআঃ] হইতে বর্ণিতঃ

নবী [সাঃআঃ] হামযার কন্যা প্রসঙ্গে [দাবী উঠলে] নবী [সাঃআঃ] খালার পক্ষে ফয়সালা দিলেন এবং বলিলেন, `খালা মায়ের স্থান অধিকারিণী`। {১২৫৭}

{১২৫৭} বুখারি ১৭৮১, ১৮৪৪, ২৬৯৮, ৩১৮৪, ৪২৫৮, মুসলিম ১৭৮৩, তিরমিজি ৯৩৮, ১৯০৪, আবূ দাঊদ ১৮৩২, আহমাদ ১৮০৭৪, ১৮০৯৫, দারেমী ২৫০৭। হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

১১৫৫ – আলি [রাঃআঃ] হইতে বর্ণিতঃ

রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেনঃ মেয়ে খালার নিকটে থাকিবে, কেননা খালা মাতার সমতুল্য। {১২৫৮}

{১২৫৮} আহমাদ ৭৭২, আবূ দাউদ ২২৭৮। হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পরিচ্ছেদ ০৫. দাস, কর্মচারীর প্রতি দয়া প্রদর্শন করার ফযীলত

১১৫৬ – আবূ হুরাইরা [রাঃআঃ] হইতে বর্ণিতঃ

তিনি বলেনঃ রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেন, তোমাদের কারো খাদিম যখন তার খাবার নিয়ে আসে, তখন তাকে যদি সাথে না বসায় তাহলে সে যেন তাকে এক লুক্‌মা বা দু`লুকমা খাবার দেয় । {১২৫৯}

{১২৫৯} বুখারি ২৫৫৭, মুসলিম ১৬৬৩, তিরমিজি ১৮৫৩, ইবনু মাযাহ ৩২৮৯, ৩২৯০, আহমাদ ৭২৯৩, ৭৪৬২, ৭৬৬৯, দারেমী ২০৭৩, ২০৭৪। হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পরিচ্ছেদ ০৬. প্রাণীদের শাস্তি দেওয়া নিষেধ

১১৫৭ – ইবনু উমার [রাঃআঃ] হইতে বর্ণিতঃ

নবী [সাঃআঃ] বলেনঃ এক নারীকে একটি বিড়ালের কারণে আযাব দেয়া হয়েছিল। সে বিড়ালটিকে বেঁধে রেখেছিল। সে অবস্থায় বিড়ালটি মরে যায়। মহিলাটি ঐ কারণে জাহান্নামে গেল। কেননা সে বিড়ালটিকে খানা-পিনা কিছুই করায়নি এবং ছেড়েও দেয়নি যাতে সে যমীনের পোকা-মাকড় খেয়ে বেঁচে থাকত। {১২৬০}

{১২৬০} উক্ত হাদিসটি মুসলিমের শব্দানুযায়ী বর্ণিত হয়েছে। কেননা বুখারির বর্ণনায় [আরবী] শব্দটির উল্লেখ নেই। বুখারি ২৩৬৫, ৩৩১৮, মুসলিম ২২৪২, দারেমী ২৮১৪। হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

By বুলূগুল মারাম

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। তবে আমরা রাজনৈতিক পরিপন্থী কোন মন্তব্য/ লেখা প্রকাশ করি না। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই লেখাগুলো ফেসবুক এ শেয়ার করুন, আমল করুন

Leave a Reply