সূর্যগ্রহণের সলাতে প্রতি রাকআতে তিনটি রুকূর বর্ণনা

সূর্যগ্রহণের সলাতে প্রতি রাকআতে তিনটি রুকূর বর্ণনা

সূর্যগ্রহণের সলাতে প্রতি রাকআতে তিনটি রুকূর বর্ণনা >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

২. অধ্যায়ঃ সূর্যগ্রহণের সলাতে প্রতি রাকআতে তিনটি রুকূর বর্ণনা

১৯৮১

আয়েশাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর সময় সূর্যগহণ লাগলে তিনি নামাজের উদ্দেশে দাঁড়ালেন এবং দীর্ঘ ক্বিয়াম করিলেন। অতঃপর রুকু করেন। রুকূর পর আবার দাঁড়ালেন আবার রুকূ করিলেন। আবার দাঁড়ালেন, আবার রুকূ করিলেন। এভাবে দু রাকআতে তিন রূকূ ও চার সাজদায় আদায় করিলেন। নামাজ শেষ হইতে হইতে সূর্যও পরিষ্কার হয়ে গেল। তিনি রুকূতে যাওয়ার সময়

اللَّهُ أَكْبَرُ

“আল্ল-হু আকবার”

বলিতেন, অতঃপর রুকূ করিতেন। রুকূ থেকে মাথা উঠিয়ে

سَمِعَ اللَّهُ لِمَنْ حَمِدَهُ

“সামিআল্ল-হু লিমান হামিদাহ”

বলিতেন। অতঃপর দাঁড়িয়ে আল্লাহর প্রশংসা ও গুণগান করিলেন এবং বললেনঃচন্দ্র ও সূর্য গ্রহণ কারো জন্ম বা মৃত্যুর কারণে লাগে না বরং এ দুটি আল্লাহর নিদর্শন, যা দ্বারা আল্লাহ তাহাঁর বান্দাকে সতর্ক করেন। অতএব তোমরা যখন সূর্যগ্রহণ লাগতে দেখ, আল্লাহর যিক্‌রে মশ্‌গুল হও যতক্ষণ তা আলোকিত হয়ে না যায়। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ১৯৬৫, ইসলামিক সেন্টার- ১৯৭২]

১৯৮২

আয়েশাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] [সূর্য গ্রহণের সময়] ছয় রুকূ ও চার সাজদাহ্‌ সহকারে দু রাকআত নামাজ আদায় করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ১৯৬৬, ইসলামিক সেন্টার- ১৯৭৩]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply