মৃতকে গোসল করানো প্রসঙ্গে

মৃতকে গোসল করানো প্রসঙ্গে

মৃতকে গোসল করানো প্রসঙ্গে  >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

১২. অধ্যায়ঃ মৃতকে গোসল করানো প্রসঙ্গে

২০৫৭

উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি নবী [সাঃআঃ] এর কন্যা [যায়নাব]-কে গোসল দেয়ার সময় তিনি আমাদের কাছে এসে বলিলেন, “তাকে তিনবার, পাঁচবার অথবা প্রয়োজনবোধে এর চেয়ে অধিক বড়ইপাতা মিশ্রিত পানি দিয়ে গোসল করাও এবং শেষে কিছুটা কর্পুর দিয়ে দাও।” তোমরা গোসল শেষ করলে আমাকে খবর দিও। আমরা গোসল শেষ করে তাঁকে খবর দিলাম। তিনি [সাঃআঃ] তাহাঁর নিজ লুঙ্গি আমাদের কাছে দিয়ে বলিলেন, এ কাপড় তার গায়ে জড়িয়ে দাও। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২০৩৬, ইসলামিক সেন্টার- ২০৪১]

২০৫৮

উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

আমরা তাহাঁর [যায়নাব] মাথার চুল আঁচড়িয়ে তিনভাগে ভাগ করে দিয়েছি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২০৩৭, ইসলামিক সেন্টার- ২০৪২]

২০৫৯

উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, নবী [সাঃআঃ] এর কোন কন্যা ইনতিকাল করেন। ইবনি উলাইয়্যাহ্-এর বর্ণনায় আছে। উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] বলেন, আমরা রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] এর কন্যাকে গোসল দেয়ার সময় তিনি আমাদের নিকট আসলেন। মালিক-এর হাদীসে এভাবে বর্ণিত হয়েছে। রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর কন্যা ইনতিকাল করলে তিনি আমাদের কাছে আসলেন, অনুরূপ ইয়াযীদ ইবনি যুরাই [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] এর হাদীস যা ….. উম্মু আত্বিয়্যাহ্ সূত্রে বর্ণিত হয়েছে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২০৩৮, ইসলামিক সেন্টার- ২০৪৩]

২০৬০

উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

অনুরূপ বর্ণিত হয়েছে কেবল ব্যতিক্রম এই যে, তিনি [সাঃআঃ] বলেছেনঃ তিনবার, পাঁচবার, সাতবার বা এর চেয়েও অধিকবার গোসল দেয়া যদি তোমরা প্রয়োজনবোধ কর তাই করিবে। এরপর হাফসাহ [রাদি.] উম্মু আত্বিয়্যাহ সূত্রে বলেন, আমরা তার মাথার চুলকে তিন গোছায় ভাগ করে দিয়েছি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২০৩৯, ইসলামিক সেন্টার- ২০৪৪]

২০৬১

উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, তিনি [সাঃআঃ] বলেছেনঃ তাকে [যায়নাবকে] বেজোড় সংখ্যায় গোসল দাও তিনবার, পাঁচবার বা সাতবার। আর উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] বলেছেন, আমরা তার চুলকে তিন গোছায় বিভক্ত করে আঁচড়ে দিয়েছি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২০৪০, ইসলামিক সেন্টার- ২০৪৫]

২০৬২

উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] এর কন্যা যায়নাব [রাদি.] যখন ইনতিকাল করেন, রসূলূল্লাহ [সাঃআঃ] আমাদেরকে বলিলেন, তাকে বেজোড় সংখ্যায় গোসল দাও, তিনবার বা পাঁচবার। আর পঞ্চমবারের সাথে কর্পুর দাও অথবা বলেছেন কিছু কর্পুর দাও। গোসল শেষ করে আমাকে খবর দিও। উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] বলেন, গোসল শেষ করে আমরা তাঁকে খবর দিলাম। তিনি [সাঃআঃ] আমাদের কাছে তাহাঁর লুঙ্গি দিয়ে বলিলেন, এটা কাফনের ভিতরে তার গায়ে জড়িয়ে দাও। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২০৪১, ইসলামিক সেন্টার- ২০৪৬]

২০৬৩

উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] আমাদের কাছে আসলেন। তখন আমরা তাহাঁর এক মৃত কন্যাকে গোসল দিচ্ছিলাম। তিনি বলিলেন, তাকে বেজোড় সংখ্যায় পাঁচবার বা তার চেয়ে অধিকবার গোসল দাও। অবশিষ্ট বর্ণনায় আইয়ূব ও আসিম-এর বর্ণনার অনুরূপ। আর হাদীস বর্ণনাকালে উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] বলিলেন, এরপর আমরা তার চুলকে তিন গোছায় ভাগ করে দু কানের দু দিকে ও কপালের দিকে ঝুলিয়ে দিলাম। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২০৪২, ইসলামিক সেন্টার- ২০৪৭]

২০৬৪

উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] যখন তাকে তাহাঁর [রসূলের] মৃত কন্যাকে গোসল দেয়ার আদেশ করিলেন, তাকে বলিলেন, তার ডানদিক থেকে আরম্ভ কর এবং তার ওযূর অঙ্গগুলো আগে ধৌত করো। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২০৪৩. ইসলামিক সেন্টার- ২০৪৮]

২০৬৫

উম্মু আত্বিয়্যাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] তাহাঁর কন্যার গোসল দেয়ার সময় তাদেরকে বলে দিলেনঃ তোমরা তার ডান দিক থেকে আরম্ভ কর এবং তাহাঁর ওযূর অঙ্গগুলো আগে ধুয়ে নাও। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২০৪৪, ইসলামিক সেন্টার- ২০৪৯]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply