মুক্তাদীগণ ইমামের অনুসরন করিবে

মুক্তাদীগণ ইমামের অনুসরন করিবে

মুক্তাদীগণ ইমামের অনুসরন করিবে >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

১৯. অধ্যায়ঃ মুক্তাদীগণ ইমামের অনুসরন করিবে

৮০৭

আনাস ইবনি মালিক [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন , নবী [সাঃআঃ] ঘোড়ার পিঠ থেকে পড়ে গেলেন। ফলে তাহাঁর শরীরের ডানপাশ আহত হল। আমরা তাঁকে দেখিতে গেলাম। ইতিমধ্যে নামাজের সময় হয়ে গেল। তিনি আমাদের নিয়ে বসে বসে নামাজ আদায় করিলেন। আমরাও তার পেছনে বসে নামাজ আদায় করলাম। তিনি নামাজ শেষ করে বললেনঃ ঈমাম এজন্যই বানানো হয় যে, তার অনুসরন করা হইবে। অতএব সে যখন আল্ল-হু আকবার বলে তোমরাও আল্ল-হু আকবার বল। সে যখন সাজদাহ্ করে , তোমরাও সাজদাহ্ কর।সে যখন হাত উঁচু করে দাঁড়ায় তোমরাও হাত উঁচু করে দাঁড়াও। সে যখন

 سَمِعَ اللَّهُ لِمَنْ حَمِدَهُ

সামি আল্ল-হু লিমান হামিদাহ” বলে, তোমরা তখন

رَبَّنَا وَلَكَ الْحَمْدُ

রব্বানা- ওয়ালাকাল হামদ” বল। সে যখন বসে নামাজ আদায় করে [ঈমামতি করে] , তোমরাও সবাই মিলে বসে নামাজ আদায় কর। [ই.ফা.৮০৪, ইসলামিক সেন্টার- ৮১৬]

৮০৮

আনাস ইবনি মালিক [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ[সাঃআঃ] ঘোড়ার পিঠ থেকে পড়ে গিয়ে আহত হলেন। তিনি বসে বসে আমাদের নামাজ আদায় করালেন। ………… অবশিষ্টাংশ উপরের হাদীসের অনুরুপ।[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৮০৫, ইসলামিক সেন্টার- ৮১৭]

৮০৯

আনাস ইবনি মালিক [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ[সাঃআঃ] ঘোড়ার পিঠ থেকে পড়ে গেলেন। ফলে তাহাঁর শরীরের ডানপাশ আহত হল। উপরের হাদীসের অনুরূপ। এ বর্ণনায় আরো আছে, ঈমাম যখন দাঁড়িয়ে পড়ে, তোমরাও দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় কর। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৮০৬, ইসলামিক সেন্টার-৮১৮]

৮১০

আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] ঘোড়ার সওয়ার হলেন। তিনি এর পিঠ থেকে পড়ে গেলেন। ফলে তাহাঁর শরীরের ডানপাশ আঘাতপ্রাপ্ত হল। উপরের হাদীসের অনুরূপ। এতে আরো আছেঃ সে [ঈমাম] যখন দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করে, তোমরাও দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় কর। [ই. ফা.৮০৭, ইসলামিক সেন্টার-৮১৯]

৮১১

আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী[সাঃআঃ] ঘোড়া থেকে পড়ে গেলেন। এতে তাহাঁর শরীরের ডানপাশে আঘাত পেলেন। উপরের হাদীসের অনুরূপ। এ বর্ণনায় ইউনুস ও মালিকের বর্ধিত বর্ণনাটুকু নেই। [ই. ফা.৮০৮, ইসলামিক সেন্টার- ৮২০]

৮১২

আয়িশাহ্[রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ[সাঃআঃ] অসুস্থ হলেন। সহাবাদের কিছু সংখ্যক লোক তাঁকে দেখিতে আসলেন। রসূলুল্লাহ[সাঃআঃ] বসে বসে নামাজ আদায় করিলেন। তাঁরা তাহাঁর সাথে দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করিতে শুরু করলে তিনি তাদেরকে ইশারায় বললেনঃ তোমরা বসে যাও। তাঁরা বসে গেলেন। নামাজ শেষ করে তিনি বললেনঃ অনুসরন করার জন্যেই ঈমাম নিযুক্ত করা হয়। সে যখন রুকু তে যাবে তোমরাও তখন রুকুতে যাবে। সে যখন মাথা উঠাবে তোমরাও তখন মাথা উঠাবে। সে যখন বসে বসে নামাজ আদায় করিবে তোমরাও বসে বসে নামাজ আদায় করিবে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৮০৯, ইসলামিক সেন্টার- ৮২১]

৮১৩

হিশাম ইবনি উরওয়াহ্ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

উপরোল্লেখিত হাদীসের অনুরূপ বর্ণিত হয়েছে। [ই.ফা.,৮১০, ইসলামিক সেন্টার-৮২২]

৮১৪

জাবির [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ[সাঃআঃ] অসুস্থ হয়ে পড়লেন। আমরা তাহাঁর পিছনে নামাজ আদায় করলাম। তিনি বসে বসে নামাজ আদায় করছিলেন। আবু বাকর [রাদি.] লোকদেরকে তার তাকবীর জোরে শুনিয়ে দিচ্ছিলেন। তিনি আমাদের দিকে খেয়াল করে আমাদেরকে দাঁড়ানো অবস্থায় দেখিতে পেলেন। তিনি আমাদের ইশারা করিলেন। সে জন্য আমরা বসে গেলাম। আমরা তাহাঁর সাথে বসে নামাজ আদায় করলাম। সালাম ফিরানোর পর তিনি বললেনঃ তোমরা পারস্য ও রোমের [সাম্রাজ্যের] লোকদের মতোই করিতে যাচ্ছিলে। তাদের বাদশাহ বসে থাকে আর তারা দাঁড়িয়ে থাকে। তোমরা কখনো এমন করো না। সবসময় তোমাদের ঈমামদের অনুসরণ করিবে। সে যদি দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করে, তোমরাও দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করিবে। সে যদি বসে নামাজ আদায় করে তোমরাও বসে নামাজ আদায় করিবে। [ই.ফা.,৮১১, ইসলামিক সেন্টার-৮২৩]

৮১৫

জাবির [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ[সাঃআঃ] আমাদেরকে নামাজ আদায় করালেন। আবু বাক্‌র[রাদি.] তার পেছনেই ছিলেন রসূলুল্লাহ[সাঃআঃ] যখন তাকবীর বলিলেন, আবু বাক্‌র আমাদেরকে শুনিয়ে জোরে তাকবীর বলিলেন। ……হাদীসের অবশিষ্ট অংশ উপরের হাদীসের অনুরূপ। [ই.ফা.. ৮১২, ইসলামিক সেন্টার-৮২৪]

৮১৬

আবু হুরাইরাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ[সাঃআঃ] বলেনঃ ঈমাম এজন্য নিযুক্ত করা হয় যে, তার অনুসরন করা হইবে, তোমরা কখনো তার উল্টো করো না। সে যখন আল্ল-হু আকবার বলে, তোমরাও আল্ল-হু আকবার বলো। সে যখন রুকু করে, তোমরাও তখন রুকু করো। সে যখন

سَمِعَ اللَّهُ لِمَنْ حَمِدَهُ

“সামিআল্ল-হু লিমান হামিদাহ” বলে তোমরাও তখন

اللَّهُمَّ رَبَّنَا لَكَ الْحَمْدُ

আল্ল-হুম্মা রব্বানা-লাকাল হামদ” বলো। সে যখন সাজদায় যায়, তোমরাও তখন সাজদায় যাও। সে যখন বসে নামাজ আদায় করে, তোমরাও সবাই মিলে বসে নামাজ আদায় করো। [ই.ফ.৮১৩, ইসলামিক সেন্টার- ৮২৫]

৮১৭

আবু হুরাইয়াহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি নবী[সাঃআঃ]-এর কাছ থেকে উপরের হাদীসের অনুরূপ হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৮১৪, ইসলামিক সেন্টার-৮২৬]

By বুলূগুল মারাম

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। তবে আমরা রাজনৈতিক পরিপন্থী কোন মন্তব্য/ লেখা প্রকাশ করি না। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই লেখাগুলো ফেসবুক এ শেয়ার করুন, আমল করুন

Leave a Reply