আরাফাহ্ দিবসে মিনা থেকে আরাফাতে যাবার পথে তালবিয়াহ

আরাফাহ্ দিবসে মিনা থেকে আরাফাতে যাবার পথে তালবিয়াহ

আরাফাহ্ দিবসে মিনা থেকে আরাফাতে যাবার পথে তালবিয়াহ >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৪৬. অধ্যায়ঃ আরাফাহ্ দিবসে মিনা থেকে আরাফাতে যাবার পথে তালবিয়াহ ও তাকবীর পাঠ করার বর্ণনা

২৯৮৬

আবদুল্লাহ ইবনি উমর [রাদি.] তার পিতা হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমরা সকালবেলা যখন রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]–এর সাথে মিনা থেকে আরাফার দিকে রওনা হলাম, তখন আমাদের মধ্যে কতক তালবিয়াহ্‌ পাঠকারী এবং কতক তাকবীর পাঠকারী ছিল। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২৯৬১, ইসলামিক সেন্টার- ২৯৫৯]

২৯৮৭

আবদুল্লাহ ইবনি উমর [রাদি.] তাহাঁর পিতা হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমরা আরাফাহ্‌ দিবসের সকালবেলা রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]–এর সাথে ছিলাম। আমাদের মধ্যে কতক তাকবীর ধ্বনি উচ্চারণ করছিল, আর কতক তালবিয়াহ্‌ পাঠ করছিল। আমরা তাকবীর ধ্বনি করেছি। অধঃস্তন রাবী [আবদুল্লাহ ইবনি আবু সালামাহ্‌] বলেন, আমি [আবদুল্লাহ ইবনি আবদুল্লাহকে] বললাম, কী আশ্চর্য! আপনি তাকে [আবদুল্লাহ ইবনি উমর] কেন জিজ্ঞেস করিলেন না যে, আপনি এ ক্ষেত্রে রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]–কে কী করিতে দেখেছেন? [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২৯৬২, ইসলামিক সেন্টার- ২৯৬০]

২৯৮৮

মুহাম্মাদ ইবনি আবু বকর আস্ সাক্বাফী [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি আনাস ইবনি মালিক [রাদি.]–এর সাথে সকালবেলা মিনা থেকে আরাফায় যাওয়ার সময় তাকে জিজ্ঞেস করিলেন, আপনারা এ দিন রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]–এর সাথে কিভাবে কী করিতেন? তিনি বলিলেন, আমাদের কতক তালবিয়াহ পাঠ করত কিন্তু তাতে বাধা দেয়া হতো না এবং কতক তাকবীর ধ্বনি উচ্চারণ করত কিন্তু তাতেও বাধা দেয়া হতো না। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২৯৬৩, ইসলামিক সেন্টার- ২৯৬১]

২৯৮৯

মুহাম্মাদ ইবনি আবু বকর [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি আরাফাহ্ দিবসের সকালবেলা আনাস ইবনি মালিক [রাদি.]–কে জিজ্ঞেস করলাম, এ দিন আপনারা তালবিয়ার ক্ষেত্রে কী বলিতেন? তিনি বলিলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]–এর সাথে আমি ও তাহাঁর সাহাবীগণ এ পথ ভ্রমণ করেছি। আমাদের কতক আল্ল-হু আকবার ধ্বনি উচ্চারণ করেছে এবং কতক তালবিয়াহ

 لَبَّيْكَ اللَّهُمَّ لَبَّيْكَ ‏

[লাব্বায়কা আল্ল-হুম্মা লাব্বায়কা] উচ্চারণ করেছে। এতে আমাদের কেউ কারো দোষ ধরেনি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২৯৬৪, ইসলামিক সেন্টার- ২৯৬২]

By বুলূগুল মারাম

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। তবে আমরা রাজনৈতিক পরিপন্থী কোন মন্তব্য/ লেখা প্রকাশ করি না। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই লেখাগুলো ফেসবুক এ শেয়ার করুন, আমল করুন

Leave a Reply