নতুন লেখা

মানবীয় ফিতরা -এর [স্বভাবের] বিবরণ

মানবীয় ফিতরা -এর [স্বভাবের] বিবরণ

মানবীয় ফিতরা -এর [স্বভাবের] বিবরণ  >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

১৬. অধ্যায়ঃ মানবীয় ফিতরা -এর [স্বভাবের] বিবরণ

৪৮৫

আবু হুরাইরাহ্[রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী[সাঃআঃ] বলেছেনঃ ফিতরা [স্বভাব] পাঁচটি অথবা বলেছেন, পাঁচটি কাজ হলো ফিতরা -এর অন্তর্ভুক্ত- খাতনা করা, ক্ষুর দ্বারা নাভীর নিচের লোম পরিষ্কার করা, নখ কাটা, বগলের লোম উপড়িয়ে ফেলা এবং গোঁফ কাটা। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৮৭, ইসলামিক সেন্টার- ৫০৩]

৪৮৬

আবু হুরাইরাহ্[রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রাসুলুল্লাহ[সাঃআঃ] বলেছেনঃ পাঁচটি কাজ ফিতরা বা [সুষ্ঠু স্বভাব] খাতনা করা, নাভীর নিচের লোম পরিষ্কার করে ফেলা, গোঁফ ছাঁটা, নখ কাটা এবং বগলের লোম উপড়িয়ে ফেলা। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৮৯, ইসলামিক সেন্টার- ৫০৫]

৪৮৭

আনাস ইব্‌নু মালিক [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

গোঁফ ছাঁটা, নখ কাটা এবং বগলের লোম উপড়িয়ে ফেলা এবং নাভীর নীচের লোম ছেঁচে ফেলার জন্যে আমাদেরকে সময়সীমা নির্দিষ্ট করে দেয়া হয়েছিল যে আমরা তা চল্লিশ দিনের অধিক দেরি না করি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৯০, ইসলামিক সেন্টার- ৫০৬]

৪৮৮

আবদুল্লাহ ইবনি উমর [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] বলেনঃ তোমরা গোঁফ কেটে ফেল [অর্থাৎ ঠোটের ওপর থেকে কেটে দেয়া] এবং দাড়ি ছেড়ে দাও অর্থাৎ বড় হইতে দাও। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৯১, ইসলামিক সেন্টার- ৫০৭]

৪৮৯

আবদুল্লাহ ইবনি উমর [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] গোঁফ ছোট করিতে এবং দাড়ি বড় করে রাখতে আদেশ করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৯২, ইসলামিক সেন্টার- ৫০৮]

৪৯০

ইবনি উমর [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রাসুলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেন, তোমরা মুশরিকদের বিরুদ্ধাচরণ কর-মোচ কেটে ফেল এবং দাড়ি লম্বা কর। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৯৩, ইসলামিক সেন্টার- ৫০৯]

৪৯১

আবু হুরাইরাহ্[রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রাসুলুল্লাহ[সাঃআঃ] বলেন, তোমরা মোচ কেটে ফেলে এবং দাড়ি লম্বা করে অগ্নি পূজকদের বিরুদ্ধাচরণ কর। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৯৪, ইসলামিক সেন্টার- ৫১০]

৪৯২

আয়িশাহ্[রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রাসুলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেন, দশটি কাজ ফিতরাতের অন্তর্ভুক্তঃ মোচ খাটো করা, দাড়ি লম্বা করা, মিসওয়াক করা, নাকে পানি দিয়ে ঝাড়া, নখ কাটা এবং আঙ্গুলের গিরাসমূহ ধোয়া, বগলের পশম উপড়ে ফেলা, নাভীর নীচের পশম মুন্ডন করা এবং পানি দ্বারা ইস্তিঞ্জা করা। যাকারিয়্যা বলেন, হাদীসের রাবী মুসআব বলেন, দশমটির কথা আমি ভুলে গিয়েছি। সম্ভবতঃ সেটি হইবে কুলি করা। এ হাদীসের বর্ণনায় কুতাইবাহ আরো একটি বাক্য বাড়াল যে, ওয়াকী বলেন, [আরবী] অর্থাৎ ইস্তিঞ্জা করা। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৯৫, ইসলামিক সেন্টার- ৫১১]

৪৯৩

আবু কুরায়ব [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

একই সানাদে মুসআব ইবনি শাইবাহ্‌[রহমাতুল্লাহি আলাইহি]-এর পুর্ব বর্ণিত হাদীসের অনুরূপ বর্ণনা করিয়াছেন। তবে তার বর্ণনায় এ কথাও আছে যে, তাহাঁর পিতা বলেছেনঃ আমি দশম বস্তুটি ভুলে গেছি। [ই.ফা.৪৯৬, ইসলামিক সেন্টার- ৫১২]

About halalbajar.com

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে”

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে” মহান আল্লাহর …

Leave a Reply

%d bloggers like this: