প্রাকৃতিক প্রয়োজন পূরণের জন্যে মহিলাদের ঘরের বাইরে যাওয়ার বৈধতা

প্রাকৃতিক প্রয়োজন পূরণের জন্যে মহিলাদের ঘরের বাইরে যাওয়ার বৈধতা

প্রাকৃতিক প্রয়োজন পূরণের জন্যে মহিলাদের ঘরের বাইরে যাওয়ার বৈধতা >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৭. অধ্যায়ঃ প্রাকৃতিক প্রয়োজন পূরণের জন্যে মহিলাদের ঘরের বাইরে যাওয়ার বৈধতা

৫৫৬১

আয়েশাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, পর্দার বিধান আমাদের উপরে আসার পর সাওদাহ্‌ [রাদি.] তার প্রাকৃতিক প্রয়োজনে বের হলেন, তিনি ছিলেন স্বাস্থ্যবতী, দেহাকৃতিতে তিনি মহিলাদের উপরে থাকতেন; যারা তাঁকে চিনতো, তাদের নিকট নিজেকে আড়াল করিতে পারতেন না। তখন উমর ইবনিল খাত্তাব [রাদি.] তাকে দেখিতে পেয়ে বলিলেন, হে সাওদাহ্‌! আল্লাহ্‌র কসম! তুমি আমাদের নিকট আড়াল করিতে পারবে না। চিন্তা করে দেখো, কিভাবে তুমি বের হচ্ছো? আয়েশাহ [রাদি.] বলেন, এ কথা শুনে তিনি ফিরে আসলেন। সে সময় রাসুলুল্লাহ [সাঃআঃ] আমার ঘরে ছিলেন এবং রাতে আহার করছিলেন। তাহাঁর হাতে সে সময় গোশ্‌তের টুকরো একটি হাড় ছিল। সাওদাহ্‌ [রাদি.] [প্রবেশ করে বলিলেন,] হে আল্লাহ্‌র রসূল! আমি বের হয়েছিলাম, উমর আমাকে এ এ কথা বলেছে। আয়েশাহ [রাদি.] বলেন, সে সময় আল্লাহ্‌ তাআলা তাহাঁর প্রতি ওয়াহী অবতীর্ণ করেন। অতঃপর তাহাঁর উপর হইতে [ওয়াহীর] অবস্থা উঠিয়ে নেয়া হয় এবং হাড়টি তখনও তাহাঁর হাতেই ছিল, তা তিনি রেখে দেননি। তখন তিনি বলিলেন, তোমাদের দরকারে বের হওয়ার অনুমতি প্রদান করা হয়েছে [এ বর্ণনা আবু কুরায়ব-এর]।

আবু বাক্‌র [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] বর্ণিত বর্ণনায় রয়েছে-“তাহাঁর দেহাকৃতি নারীদের ঊর্ধ্বে থাকত”। আবু বাক্‌র [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] তাহাঁর বর্ণিত হাদীসে বেশি বর্ণনা করিয়াছেন যে, বর্ণনাকারী হিশাম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] বলেছেন, [আরবি] অর্থাৎ-পায়খানার প্রয়োজনে।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫৪৮২, ইসলামিক সেন্টার- ৫৫০৫]

৫৫৬২

হিশাম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

আবু কুরায়ব [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] ….. হিশাম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে উপরোল্লিখিত সূত্রে হাদীস রিওয়ায়াত করিয়াছেন। তিনি বলেছেন, তিনি ছিলেন এমন এক নারী, যার শরীর অন্যদের তুলনায় উঁচু থাকত। তিনি [আরও] বলেছেন, আর তখন রাসুলুল্লাহ [সাঃআঃ] রাতের খাবার গ্রহণ করছিলেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫৪৮৩, ইসলামিক সেন্টার- ৫৫০৬]

৫৫৬৩

হিশাম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

সুওয়াইদ ইবনি সাঈদ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] ….. হিশাম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে উপরোল্লিখিত সূত্রে এ হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫৪৮৩, ইসলামিক সেন্টার- ৫৫০৭]

৫৫৬৪

আয়েশাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রাসুলুল্লাহ [সাঃআঃ] -এর স্ত্রীগণ প্রকৃতির ডাকে সারা দেয়ার [প্রস্রাব-পায়খানায় যাওয়ার] সময় রাতের বেলা মানাসি-এর দিকে বেরিয়ে যেতেন। মানাসি হলো প্রশস্ত খোলা জায়গা। ওদিকে উমর ইবনিল খাত্তাব [রাদি.] রাসুলুল্লাহ [সাঃআঃ] -কে বলিতেন- আপনার স্ত্রীগণের প্রতি পর্দার বিধান আরোপ করুন। কিন্তু রাসুলুল্লাহ [সাঃআঃ] সেটি করেননি। একরাতে ইশার সময় নবী [সাঃআঃ] -এর স্ত্রী সাওদাহ্‌ বিনতু যাম্‌আহ্‌ [রাদি.] বের হলেন। তিনি ছিলেন দীর্ঘাঙ্গী নারী। উমর [রাদি.] তাঁকে ডাক দিয়ে বলিলেন, হে সাওদাহ্‌! আমরা তোমাকে চিনে ফেলেছি। পর্দার বিধান অবতীর্ণ করার প্রতি দৃঢ় প্রত্যাশায় তিনি এমন করিলেন।

আয়েশাহ [রাদি.] বলেন, তখন আল্লাহ্‌ তাআলা পর্দা-বিধি অবতীর্ণ করিলেন।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫৪৮৪, ইসলামিক সেন্টার- ৫৫০৮]

৫৫৬৫

ইবনি শিহাব [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

৫৫৬৫-[…/…] আম্‌র ইন্‌ নাকিদ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] ….. ইবনি শিহাব [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে উপরোল্লিখিত হাদীস সূত্রে হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫৪৮৫, ইসলামিক সেন্টার- ৫৫০৯]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply