মসজিদে জানাযার নামাজ আদায় করা প্রসঙ্গে

মসজিদে জানাযার নামাজ আদায় করা প্রসঙ্গে

মসজিদে জানাযার নামাজ আদায় করা প্রসঙ্গে  >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৩৪. অধ্যায়ঃ মসজিদে জানাযার নামাজ আদায় করা প্রসঙ্গে

২১৪২

আব্বাস ইবনি আবদুল্লাহ ইবনিয্‌ যুবায়র [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

আয়েশাহ [রাদি.] সাদ ইবনি আবু ওয়াক্কাস-এর লাশ মসজিদে নিয়ে আসতে ও মসজিদের ভিতরে জানাযার নামাজ আদায় করিতে নির্দেশ দিলেন। উপস্থিত লোকেরা তাহাঁর আদেশ পালনে অসম্মতি প্রকাশ করিল। তিনি বলিলেন, লোকেরা এত তাড়াতাড়ি ভুলে গেল! রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] সুহায়ল ইবনি বায়যা-এর জানাযার নামাজ মসজিদেই আদায় করেছিলেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২১২১, ইসলামিক সেন্টার- ২১২৪]

২১৪৩

আয়িশাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

যখন সাদ ইবনি আবু ওয়াক্কাস [রাদি.] ইন্তিকাল করিলেন, নবী [সাঃআঃ]-এর স্ত্রীগণ তাহাঁর লাশ মসজিদে নিয়ে আসার জন্য বলে পাঠালেন যাতে তারাও তার জানাযাহ আদায় করিতে পারেন। উপস্থিত লোকেরা তাই করলো। তাঁকে উম্মাহাতুল মুমিনীনদের ঘরের সামনে রাখা হল এবং তারা তার জানাযার নামাজ আদায় করিলেন। অতঃপর তাকে বাবুল জানায়িয [জানাযাহ বের করার দরজা] দিয়ে যা মাক্বাইদের দিকে ছিল, বের করা হল। লোকেরা এ খবর জানতে পেয়ে বলিল, কি ব্যাপার! জানাযাহ্ মসজিদে ঢুকানো হয়েছে? আয়িশা [রাদি.]-এর নিকট এ সংবাদ পৌঁছলে তিনি বলিলেন, লোকেরা কেন এত শীঘ্র সমালোচনায় প্রবৃত্ত হল, যে সম্পর্কে তাদের কোন জ্ঞান নাই? মসজিদে জানাযাহ নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে লোকেরা সমালোচনা করিল, অথচ রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] সুহায়ল ইবনি বায়যা-এর সালতে জানাযাহ্ মসজিদের ভিতরেই আদায় করিয়াছেন। ঈমাম মুসলিম বলেন, সুহায়ল বিন ওয়াদা বায়যা-এর পুত্র। তার মায়ের নাম বায়যা। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২১২২, ইসলামিক সেন্টার- ২১২৫]

২১৪৪

আবু সালামাহ্ ইবনি আবদুর রহমান [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

যখন সাদ ইবনি আবু ওয়াক্কাস ইন্তিকাল করিলেন আয়িশা [রাদি.] বলিলেন, তোমরা তার লাশ নিয়ে মসজিদে প্রবেশ কর। আমি তাহাঁর জানাযাহ পড়ব। তখন লোকেরা অস্বীকৃতি জানালে তিনি বলিলেন, আল্লাহর কসম! রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বায়যা-এর দু ছেলে সুহায়ল ও তার ভাইয়ের [সাহ্‌ল-এর] জানাযার নামাজ মসজিদেই আদায় করিয়াছেন [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২১২৩, ইসলামিক সেন্টার- ২১২৬]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply