নতুন লেখা

মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ

মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ

মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ >> মিশকাতুল মাসাবীহ এর মুল সুচিপত্র দেখুন

পর্বঃ ১১, অধ্যায়ঃ ১৪

  • অধ্যায়ঃ ১৪. প্রথম অনুচ্ছেদ
  • অধ্যায়ঃ ১৪. দ্বিতীয় অনুচ্ছেদ
  • অধ্যায়ঃ ১৪. তৃতীয় অনুচ্ছেদ

অধ্যায়ঃ ১৪. প্রথম অনুচ্ছেদ

২৭১৫. আব্দুল্লাহ ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল¬াহ সাঃআঃ মক্কা বিজয়ের দিন বলেছেনঃ আর হিজরত নেই, তবে অবশিষ্ট আছে জিহাদ ও নিয়্যাত। তাই যখন তোমাদেরকে জিহাদের জন্য বের হইতে বলা হবে, বের হয়ে পড়বে। সেদিন তিনি [সাঃআঃ] আবার বললেন, এ শহরকে সেদিন হইতে আল্লাহ তাআলা সম্মানিত করিয়াছেন যেদিন তিনি আকাশ ও জমিন সৃষ্টি করিয়াছেন; আর এটা ক্বিয়ামাত পর্যন্ত আল্লাহর সম্মানেই সম্মানিত [হারাম বা পবিত্র] থাকিবে। এ শহরে আমার আগে কারো জন্য যুদ্ধ করা হালাল ছিল না আর আমার জন্যও একদিনের অল্প সময়ের জন্য মাত্র হালাল করা হয়েছিল। অতঃপর তা ক্বিয়ামাত পর্যন্ত আল্লাহর সম্মানেই সম্মানিত। এ শহরের কাঁটাযুক্ত গাছ পর্যন্ত কাটা যাবে না, এখানে শিকার হাঁকানো যাবে না, এর রাস্তায় পড়ে থাকা কোন জিনিস ঘোষণাকারী ছাড়া কেউ উঠাতে পারবে না। আর এর ঘাসও কাটতে পারবে না। বর্ণনাকারী ইবনি আব্বাস [রাদি.] বলেন, এ সময় আব্বাস [রাদি.] বলে উঠলেন, হে আল্লাহর রসূল! ইযখির ঘাস ছাড়া? এ ঘাসতো কর্মকরদের জন্যে ও লোকদের ঘরের জন্য বিশেষ প্রয়োজন। তখন তিনি [সাঃআঃ] বললেন, ঠিক আছে ইযখির ঘাস ছাড়া

।[বোখারী, মুসলিম]{১},{১} সহীহ : বোখারী ১৮৩৪, আবু দাউদ ২৪৮০, মুসলিম ১৩৫৩, নাসায়ী ৪১৭০, তিরমিজি ১৫৯০, মুসান্নাফ আবদুর রাযযাক্ব ৯৭১৩, ইবনি আবী শায়বাহ্ ৩৬৯৩০, আহমাদ ২৮৯৬, দারিমী ২৫৫৪, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ৯৯৪৪, ইরওয়া ১১৮৭, সহীহ আল জামি ৭৫৬৩। মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

২৭১৬. আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

গাছ-পালা কাটা যাবে না এবং এর পথে-ঘাটে পড়ে থাকা জিনিস ঘোষণাকারী ছাড়া উঠাতে পারবে না।

[বোখারী, মুসলিম]{১}, {১} সহীহ : বোখারী ৬৮৮০, মুসলিম ১৩৫৫, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ১৬০৩৯। মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

২৭১৭. জাবির [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাঃআঃ কে বলিতে শুনিয়াছি, মাক্কায় অস্ত্র বহন করা কারো জন্য হালাল নয়। [মুসলিম]{১}

{১} সহীহ : মুসলিম ১৩৫৬, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ৯৬৯৯, সহীহ আল জামি ৭৬৪৫। মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

২৭১৮. আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, নবী সাঃআঃ মক্কা বিজয়ের দিন মাক্কায় প্রবেশ করার সময় তাহাঁর মাথায় ছিল লোহার শিরস্ত্রাণ। যখন তিনি [সাঃআঃ] শিরস্ত্রাণটি খুললেন জনৈক ব্যক্তি এসে বললো, ইবনি খাত্বাল কাবার গেলাফের সাথে ঝুলে [আশ্রয় নিয়েছে] রয়েছে। তিনি [সাঃআঃ] বললেন, তাকে হত্যা করো। [বোখারী, মুসলিম]{১}

{১} সহীহ : বোখারী ১৮৪৬, মুসলিম ১৩৫৭, আবু দাউদ ২৬৮৫, নাসায়ী ২৮৬৮, তিরমিজি ১৬৯৩, ইবনি মাজাহ ২৮০৫, মুয়াত্ত্বা মালিক ১৫৯৯, আহমাদ ১২৯৩২, সহীহ ইবনি খুযায়মাহ্ ৩০৬৩, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ৯৮৪০, সহীহ ইবনি হিব্বান ৩৭১৯। মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

২৭১৯. জাবির [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল¬াহ সাঃআঃ মক্কা বিজয়ের দিন ইহরাম বাঁধা ছাড়াই মাক্কায় প্রবেশ করেছিলেন তখন তাহাঁর মাথায় একটি কালো পাগড়ী ছিল। [মুসলিম]{১}

{১} সহীহ : মুসলিম ১৩৫৮, আবু দাউদ ৪০৭৬, নাসায়ী ২৮৬৯, তিরমিজি ১৭৩৫, ইবনি মাজাহ ৩৫৮৫, আহমাদ ১৪৯০৪, দারিমী ১৯৮২, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ৫৯৭৬, সহীহ ইবনি হিব্বান ৫৪২৫, শামায়িল ৯২। মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

২৭২০. আয়িশাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল¬াহ সাঃআঃ বলেছেনঃ [শেষ জামানায়] কাবা ঘর ধ্বংস করার জন্য এক বিশাল বাহিনী রওয়ানা হবে। কিন্তু যখন তারা এক সমতল ময়দানে এসে পৌঁছবে, তাদের প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত সকলকেই জমিনে ধসিয়ে দেয়া হবে। আয়িশাহ্ [রাদি.] বলেন, আমি জিজ্ঞেস করলাম, হে আল্লাহর রসূল! কি করে তাদের প্রথম থেকে শেষ ব্যক্তিটি পর্যন্ত ধসিয়ে দেয়া হবে, তাদের মধ্যে বাজার থাকিবে এবং এমন লোকও থাকিবে যারা এদের দলভুক্ত নয়। তিনি [সাঃআঃ] বললেন, নিশ্চয়ই তাদের প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত সকলকে ধসিয়ে দেয়া হবে। তবে তাদেরকে [ক্বিয়ামাতের দিন] প্রত্যেকের নিয়্যাত অনুসারেই উঠানো হবে।

[বোখারী, মুসলিম]{১}, {১} সহীহ : বোখারী ২১১৮, মুসলিম ২৮৮৪, সহীহ আত তারগীব ১১, সহীহ ইবনি হিব্বান ৬৭৫৫, সহীহ আল জামি ৮১১৪। মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

২৭২১. আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল¬াহ সাঃআঃ বলেছেনঃ [শেষ জামানায়] কাবা ঘর ধ্বংস করিবে আবিসিনিয়ার এক ছোট নলাবিশিষ্ট [আল্লাহদ্রোহী] ব্যক্তি। [বোখারী, মুসলিম]{১}

{১} সহীহ : বোখারী ১৫৯১, মুসলিম ২৯০৯, নাসায়ী ২৯০৪, ইবনি আবী শায়বাহ্ ১৪০৯৮, আহমাদ ৯৪০৫, মুসতাদরাক লিল হাকিম ৮৩৯৬, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ৮৬৯৯, সহীহ ইবনি হিব্বান ৬৭৫১, সহীহ আল জামি ৮০৬৪। মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

২৭২২. ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী সাঃআঃ হইতে বর্ণনা করেন যে, তিনি [সাঃআঃ] বলেছেনঃ আমি যেন কাবা ঘর ধ্বংসকারী সেই ব্যক্তিটিকে দেখছি। সে কালো এবং কোল ভেঙ্গুর কাবার এক একটি পাথর খসিয়ে ফেলছে। [বোখারী]{১}

{১} সহীহ : বোখারী ১৫৯৫, মুজামুল কাবীর লিত্ব ত্ববারানী ১১২৩৮, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ৮৭০১, সহীহ ইবনি হিব্বান ৬৭৫২। মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

অধ্যায়ঃ ১৪. দ্বিতীয় অনুচ্ছেদ

২৭২৩. ইয়ালা ইবনি উমাইয়্যাহ্ হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল¬াহ সাঃআঃ বলেছেনঃ মূল্য বাড়ার উদ্দেশে হারামে খাদ্যশস্য জমা করে রাখা হলো ইলহাদ [সত্য হইতে সরে যাওয়া, ধর্মবিমুখতা করা, হারামে অপবিত্র বা নিষিদ্ধ কাজ করা]।

[আবু দাউদ]{১},{১} জইফ : আবু দাউদ ২০২০, মুজামুল আওসাত লিত্ব ত্ববারানী ১৪৮৫, জইফ আল জামি ১৮৪। কারণ এর সনদে মূসা ইবনি বাযান একজন মাজহূল রাবী। এই হাদিসটির তাহকীকঃ দুর্বল হাদিস

২৭২৪. আব্দুল্লাহ ইবনি আব্বাস হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, একবার রসূলুল¬াহ সাঃআঃ মাক্কাকে উদ্দেশ্য করে বললেন, কি উত্তম শহর তুমি! তুমি আমার কত পছন্দনীয়! যদি আমার জাতি আমাকে তোমার থেকে বিতাড়িত না করতো, তবে আমি কক্ষনো তোমাকে ছেড়ে অন্য কোথাও বাস করতাম না। [তিরমিজি; তিনি বলেছেন, হাদিসটি হাসান সহীহ। তবে সানাদ হিসেবে গরীব।]{১}

{১} সহীহ : তিরমিজি ৩৯২৬, সহীহ আল জামি ৫৫৩৬। মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

২৭২৫. আব্দুল্লাহ ইবনি আদী ইবনি হামরা হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি রসূলুল¬াহ সাঃআঃ কে হায্ওয়ারাহ্য় দাঁড়ানো অবস্থায় দেখেছি, তখন তিনি [সাঃআঃ] বলছেনঃ [হে মক্কা!] আল্লাহর কসম! তুমি হলো আল্লাহর সর্বোত্তম জমিন ও আল্লাহর নিকট আল্লাহর জমিনের মধ্যে সবচেয়ে প্রিয় জমিন। যদি আমি তোমার কাছ থেকে বিতাড়িত না হতাম, তাহলে [তোমাকে ছেড়ে] কক্ষনো অন্যত্র বের হতাম না। [তিরমিজি ও ইবনি মাজাহ]{১}

{১} সহীহ : তিরমিজি ৩৯২৫, ইবনি মাজাহ ৩১০৮, সহীহ ইবনি হিব্বান ৩৭০৮, দারিমী ২৫৫২, সহীহ আল জামি ৭০৮৯, মুসতাদরাক লিল হাকিম ৪২৭০। মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

অধ্যায়ঃ ১৪. তৃতীয় অনুচ্ছেদ

২৭২৬. আবু শুরাইহ আল আদাবী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি আমর ইবনি সাঈদ-কে বললেন, যখন আমীর মাক্কায় সেনাবাহিনী পাঠাচ্ছিলেন [আব্দুল্লাহ ইবনুয্ যুবায়র-এর বিরুদ্ধে এমন সময় বললেন], হে আমীর! আমাকে অনুমতি দিন, আমি আপনাকে একটি কথা বলব যা মক্কা বিজয়ের দিন সকালে রাসুলুল্লাহ সাঃআঃ ভাষণ দানকালে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন- এমন কথা যা আমার এই দুই কান শুনেছে, অন্তর মনে রেখেছে এবং দুই চোখ দেখেছে। তিনি [সাঃআঃ] যখন ভাষণ দান শুরু করিলেন, তখন প্রথমে আল্লাহর প্রশংসা স্বরূপ শুকরিয়া আদায় করিলেন, এরপর বললেন, আল্লাহ মাক্কাকে হারাম করিয়াছেন। কোন মানুষ তা হারাম করেনি। তাই আল্লাহ তাআলা ও পরকালে বিশ্বাসী এমন কোন লোকের পক্ষে মাক্কায় রক্তপাত ঘটানো এবং এর গাছ কাটা হালাল হবে না।

যদি কেউ মাক্কায় রাসুলুল্লাহ সাঃআঃ-এর যুদ্ধের অজুহাত দেখিয়ে অনুমতি আছে মনে করে, তবে তাকে বলবে- আল্লাহ তাহাঁর রসূলকে অনুমতি দিয়েছেন, তোমাকে অনুমতি দেননি। আল্লাহ তাআলা আমাকে [রসূলকে] দিনের খুব অল্প সময়ের জন্য অনুমতি দিয়েছিলেন। অতঃপর তার পবিত্রতা পুনরায় ফিরে এসেছে, যেমন গতকাল ছিল। প্রত্যেক উপস্থিত ব্যক্তিই আমার এ কথা যেন অনুপস্থিত ব্যক্তিকে পৌঁছিয়ে দেয়। তারপর আবু শুরাইহ-কে জিজ্ঞেস করা হলো, এ কথা শুনে আমর আপনাকে কি উত্তর দিয়েছিলেন? তিনি [আবু শুরাইহ্] বললেন, জবাবে তখন তিনি বললেন, এ কথা আমি আপনার চেয়েও বেশি জানি। [মক্কার] হারাম কোন অপরাধীকে আশ্রয় দেয় না এবং রক্তপাত করে এমন পলাতককেও আশ্রয় দেয় না। অথবা আশ্রয় দেয় না তাকে যে অপরাধ করে মাক্কায় পালিয়েছে [এমন ব্যক্তিকে]। [বোখারী, মুসলিম]{১}

{১} সহীহ : বোখারী ১০৪, মুসলিম ১৩৫৪, নাসায়ী ২৮৭৬, তিরমিজি ৮০৯, আহমাদ ১৬৩৭৩, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ১৩৩৭৪, সহীহাহ্ ৩৫৮৩, সহীহ আল জামি ২১৯৭। মক্কার হারামকে আল্লাহ তায়ালা কর্তৃক সংরক্ষণ -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

২৭২৭. আইয়্যাশ ইবনি আবু বরীআহ্ আল মাখযূমী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাঃআঃ বলেছেনঃ এ উম্মাত সবসময় কল্যাণের মধ্যেই থাকিবে, যতদিন পর্যন্ত তারা [মক্কার] হারামের এ মর্যাদা পরিপূর্ণরূপে রক্ষা করিবে। আর যখন তারা মক্কার এ মর্যাদা বিনষ্ট করে ফেলবে [ব্যর্থতায় পর্যবসিত হবে] তখন ধ্বংস হয়ে যাবে।

[ইবনি মাজাহ]{১}, {১} জইফ : ইবনি মাজাহ ৩১১০, আহমাদ ১৯০৪৯, জইফ আল জামি ৬২১৩। কারণ এর সনদে ইয়াযীদ ইবনি আবী যিয়াদ একজন দুর্বল রাবী। এই হাদিসটির তাহকীকঃ দুর্বল হাদিস

About halalbajar.com

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

হজ্জ পর্ব

হজ্জ পর্ব হজ্জ পর্ব >> মিশকাতুল মাসাবীহ এর মুল সুচিপত্র দেখুন পর্ব-১১ হজ্জ পর্বঅধ্যায়বিষয়হাদিস সংখ্যা১১১-১৫হজ্জ পর্ব(২৫০৫-২৭৫৮)=২৫৪১১০হজ্জ ১১১ইহরাম ও …

Leave a Reply

%d bloggers like this: