চিকিৎসা, ব্যাধি ও ঝাড়ফুঁক

চিকিৎসা, ব্যাধি ও ঝাড়ফুঁক

চিকিৎসা, ব্যাধি ও ঝাড়ফুঁক >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

১৬. অধ্যায়ঃ চিকিৎসা, ব্যাধি ও ঝাড়ফুঁক

৫৫৯২ঃ রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] -এর স্ত্রী আয়িশাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেছেনঃ রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] অসুস্থ হয়ে পড়লে জিব্‌রীল [আঃ] এ দুআ পড়ে তাঁকে ফুঁকে দিতেন, তিনি বলিতেন,

بِاسْمِ اللَّهِ يُبْرِيكَ وَمِنْ كُلِّ دَاءٍ يَشْفِيكَ وَمِنْ شَرِّ حَاسِدٍ إِذَا حَسَدَ وَشَرِّ كُلِّ ذِي عَيْنٍ

আল্লাহ্‌র নামে-তিনি আপনাকে [ব্যাধি] সুস্থতা দান করুন, সব ব্যাধি থেকে আপনাকে মুক্ত করুন, আর হিংসুকের অনিষ্ট থেকে এবং যখন সে হিংসা করে এবং সকল প্রকার কুদৃষ্টি ব্যক্তির ক্ষতি হইতে।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫৫১১, ইসলামিক সেন্টার- ৫৫৩৬]

৫৫৯৩ঃ সাঈদ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

জিবরীল [আঃ] নবী [সাঃআঃ] -এর নিকট আগমন করে বলিলেন, হে মুহাম্মাদ! আপনি কি অসুস্থতা বোধ করছেন? তিনি বলিলেন, হ্যাঁ। তিনি [জিবরীল] বললেনঃ

بِاسْمِ اللَّهِ أَرْقِيكَ مِنْ كُلِّ شَىْءٍ يُؤْذِيكَ مِنْ شَرِّ كُلِّ نَفْسٍ أَوْ عَيْنِ حَاسِدٍ اللَّهُ يَشْفِيكَ بِاسْمِ اللَّهِ أَرْقِيكَ

বিসমিল্লা-হি আরক্বীকা, মিন কুল্লি শাইয়িন ইউ’যীকা, অমিন শার্রি কুল্লি নাফসিন আউ ‘আইনি হা-সিদিন, আল্লা-হু য়্যাশফীকা, বিসমিল্লা-হি আরক্বীকা আল্লাহর নামে আপনাকে ঝাড়-ফুঁক করছি- সে সব জিনিস হইতে, যা আপনাকে কষ্ট দেয়, সব আত্মার খারাবী অথবা কুদৃষ্টি হইতে আল্লাহ আপনাকে মুক্তি দিন; আল্লাহর নামে আপনাকে ঝাড়-ফুঁক করছি।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫৫১২, ইসলামিক সেন্টার- ৫৫৩৭]

৫৫৯৪

হাম্মাম ইবনি মুনাব্বিহ্‌ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, এ হলো ঐ সমস্ত [হাদীস] , যা আবু হুরায়রা্‌ [রাদি.] রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] হইতে আমাদের নিকট বর্ণনা করিয়াছেন। এরপর তিনি কয়েকটি হাদীস আলোচনা করেন। সেগুলোর অন্যতম একটি হলো- রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ কুদৃষ্টির পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বাস্তব।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫৫১৩, ইসলামিক সেন্টার- ৫৫৩৮]

৫৫৯৫

ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

ইবনি আব্বাস [রাদি.] -এর সানাদে রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] হইতে বর্ণিত। তিনি বলেনঃ কুদৃষ্টির পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বাস্তব। কোন বিষয় যদি ভাগ্যলিপিকে অতিক্রম করত, তাহলে কুদৃষ্টি ভাগ্যলিপিকে অতিক্রম করত এবং তোমাদের [কুদৃষ্টি সম্পন্ন লোকদের] -কে গোসল করিতে বলা হলে তোমরা গোসল করাবে। {২৬} [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫৫১৪, ইসলামিক সেন্টার- ৫৫৩৯]

{২৬} বদনযর-এর চিকিৎসারূপে বিশেষ পদ্ধতিতে বদ ন‌যরওয়ালা ব্যক্তির বিভিন্ন অঙ্গ ধোয়া পানি দিয়ে রোগীকে বিশেষ কায়দায় গোসল করানো হয়। এটা পরীক্ষিত ও সুন্নাহ্‌ স্বীকৃত চিকিৎসা পদ্ধতি। এ হাদীসে সে গোসলের কথাই বলা হয়েছে।

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply