আঙ্গুল ও বাসন চেটে খাওয়া এবং পড়ে যাওয়া খাবারে যে আবর্জনা ..

আঙ্গুল ও বাসন চেটে খাওয়া এবং পড়ে যাওয়া খাবারে যে আবর্জনা লেগেছে

আঙ্গুল ও বাসন চেটে খাওয়া এবং পড়ে যাওয়া খাবারে যে আবর্জনা লেগেছে >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

১৮. অধ্যায়ঃ আঙ্গুল ও বাসন চেটে খাওয়া এবং পড়ে যাওয়া খাবারে যে আবর্জনা লেগেছে তা মুছে খাওয়া মুস্তাহাব, আর চেটে খাওয়ার আগে হাত মুছে ফেলা মাকরূহ; [কারণ ঐ বাকী অংশের মধ্যে খাদ্যের বারাকাত থেকে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে]

৫১৮৯

ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেন: তোমাদের কেউ যখন আহার করে, সে যেন তার হাত মুছে না ফেলে যতক্ষণ না সে তা চেটে খায় {৮} বা অপরকে দিয়ে চাটায়। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১২২, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৩৩]

{৮} এ সুন্নাতটা বর্তমান সময়ে আমাদের মধ্যে নেই বললেই চলে। এ বিষয়গুলো পুনরায় চালু করলে খাদ্যে অধিক বারাকাত লাভের সুযোগ রয়েছে।

৫১৯০

ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেন: যখন তোমাদের কেউ আহার করে, সে যেন স্বীয় হস্ত মুছে না ফেলে যতক্ষণ না সে তা নিজে চেটে খায় কিংবা অপরকে দিয়ে চাটায়। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১২৩, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৩৪]

৫১৯১

কাব ইবনি মালিক [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]কে তাহাঁর আঙ্গুল তিনটি {৯} হইতে খাবার চেটে খেতে দেখেছি। কিন্তু ইবনি হাতিম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] [আরবি] [তিন] শব্দটি উল্লেখ করেননি। আর ইবনি আবু শাইবাহ তাহাঁর বর্ণনায় আবদুর রহমান ইবনি কাব [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] তাহাঁর পিতা হইতে সূত্রটির কথা বলেছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১২৪, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৩৫]

{৯} আরবের প্রধান খাদ্য ছিল তখন রুটি বা শুকনো জাতীয় খাবার। ঐগুলো খেতে নবী [সাঃআঃ] তাহাঁর [১] বৃদ্ধ [২] শাহাদাত [৩] মধ্যমা আঙ্গুলগুলোই ব্যবহার করিতেন। [আমাদেরও ঐ রকম খাদ্যে একই রকমভাবে নবী [সাঃআঃ]-এর অনুসরণ করা দরকার]

৫১৯২

কাব ইবনি মালিক [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] তিন আঙ্গুলে খাবার খেতেন এবং হাত মুছার আগে তা চেটে খেতেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১২৫, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৩৬]

৫১৯৩

কাব [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] তিন আঙ্গুলে খাবার খেতেন এবং খাবার শেষ করে আঙ্গুলগুলো চেটে খেতেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১২৬, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৩৭]

৫১৯৪

কাব ইবনি মালিক [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] থেকে হুবহু রিওয়ায়াত করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১২৭, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৩৮]

৫১৯৫

জাবির [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] আঙ্গুল ও বাসন চেটে খেতে {১০} নির্দেশ করিয়াছেন। আর তিনি বলেছেন: [খাদ্যের] কোন অংশে বারাকাত আছে তা তোমরা জান না। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১২৮, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৩৯]

{১০} বাসন চেটে বা পরিষ্কার করে খাওয়া নবী [সাঃআঃ]-এর সুন্নাত। এ সুন্নাতটা আরো অধিক পরিমাণে অবহেলার স্বীকার। এ সুন্নাতটাও আমাদের জীবিত করা দরকার।

৫১৯৬

জাবির [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেন: তোমাদের কারো লোকমা পড়ে গেলে সে যেন তা তুলে নেয়। তারপর তাতে যে আবর্জনা স্পর্শ করেছে তা যেন দূরীভূত করে এবং খাদ্যটুকু খেয়ে ফেলে। শাইতানের জন্য সেটি যেন ফেলে না রাখে। আর তার আঙ্গুল চেটে না খাওয়া পর্যন্ত সে যেন তার হাত রুমাল দিয়ে মুছে না ফেলে। কেননা সে জানে না খাদ্যের কোন অংশে বারাকাত রয়েছে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১২৯, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৪০]

৫১৯৭

সুফইয়ান [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

উপরোল্লিখিত সূত্রে হুবহু বর্ণনা করিয়াছেন। তাঁদের দুজনের হাদীসে আছে, সে ব্যক্তি যেন তার হাত রুমাল দিয়ে মুছে না ফেলে, যতক্ষণ না সে তার নিজের হাত চেটে খায় কিংবা অপরকে দিয়ে চাটায়।

… পরবর্তীতে বাকী অংশে উল্লেখ করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১৩০, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৪১]

৫১৯৮

জাবির [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি নবী [সাঃআঃ]-কে বলিতে শুনেছি যে, শাইতান তোমাদের সকল কাজ-কর্মে উপস্থিত হয়। এমনকি তোমাদের কারো খাবারের সময়ও সে উপস্থিত হয়। সুতরাং তোমাদের যদি কারো লোকমা মাটিতে পড়ে যায়, সে যেন তাতে লেগে যাওয়া আবর্জনা সরিয়ে তা খেয়ে ফেলে। শাইতানের জন্য জন্য যেন ফেলে না রাখে। খাবার শেষে সে যেন তার আঙ্গুলগুলো চেটে খায়। কেননা সে জানেনা, তার খাদ্যের কোন অংশে বারাকাত [কল্যাণ] রয়েছে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১৩১, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৪২]

৫১৯৯

আবু কুরায়ব ও ইসহাক ইবনি ইবরাহীম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] দুজনই আবু মুআবিয়াহ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে, তিনি আমাশ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে উপরোক্ত সূত্র হইতে বর্ণীতঃ

“যখন তোমাদের কারো লোকমা পড়ে যায়, … হাদীসের শেষ পর্যন্ত। তবে আবু মুআবিয়াহ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হাদীসের প্রথমাংশ শাইতান তোমাদের প্রতিটি কাজে-কর্মে উপস্থিত হয়-কথাটি উত্থাপন করেননি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১৩২, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৪৩]

৫২০০

জাবির [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি নবী [সাঃআঃ] থেকে চেটে খাওয়ার ব্যাপারে হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন। আবু সুফইয়ান [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] জাবির [রাদি.]-এর সনদে নবী [সাঃআঃ] থেকে রিওয়ায়াত করিয়াছেন। তিনিও তাদের উভয়ের হাদীসের ন্যায় লোকমার কথা বর্ণনা করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১৩৩, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৪৪]

৫২০১

আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] যখন কোন খাদ্য খেতেন তখন তাহাঁর আঙ্গুল তিনটি চেটে খেতেন এবং তিনি বলেছেন: তোমাদের কারো লোকমা যদি মাটিতে পড়ে যায় তবে সে যেন তা হইতে ময়লা দূর করে এবং খাবারটুকু খেয়ে ফেলে, তা যেন শাইতানের জন্য রেখে না দেয়। আর তিনি আমাদের বাসন মুছে খেতে নির্দেশ দিয়ে বলেছেন, কারণ তোমরা জান না, তোমাদের খাবারের কোন অংশে কল্যাণ রয়েছে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১৩৪, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৪৫]

৫২০২

আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] হইতে বর্ণিত। তিনি বলেছেন: তোমাদের কেউ যখন খাবার খায়, সে যেন তার আঙ্গুলগুলো চেটে খায়। কারণ সে জানে না খাদ্যের কোন অংশে বারাকাত রয়েছে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১৩৫, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৪৬]

৫২০৩

হাম্মাদ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

উপরোল্লিখিত সূত্রে হাদীসটি বর্ণিত। তবে তিনি বলেছেন, তোমাদের সবাই যেন বাসন চেটে খায়। আর তিনি [সাঃআঃ] বলেছেন, তোমরা জান না তোমাদের কোন খাদ্যে বারাকাত রয়েছে অথবা কোন খাদ্যে বারাকাত দেয়া হয়। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১৩৫, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৪৭]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply