নতুন লেখা

বদরের যুদ্ধ

বদরের যুদ্ধ

বদরের যুদ্ধ >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৩০. অধ্যায়ঃ বদরের যুদ্ধ

৪৫১৩

আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]–এর কাছে যখন আবু সুফইয়ানের [মাদীনায়] অগ্রাভিযানের সংবাদ পৌঁছল তখন তিনি সাহাবীদের সাথে এ নিয়ে পরামর্শ করিলেন। আবু বাকর [রাদি.] এ ব্যাপারে কথা বলিলেন, কিন্তু তিনি তাহাঁর কথার উত্তর দিলেন না। এরপর উমর [রাদি.] কথা বলিলেন। তিনি তার কথারও কোন উত্তর দিলেন না। পরিশেষে সাদ ইবনি উবাদাহ [রাদি.] দণ্ডায়মান হলেন। এরপর তিনি বলিলেন, হে আল্লাহর রসূল! আপনি কি আমাদের জবাব আশা করেন? সে আল্লাহর শপথ! যাঁর হাতে আমার জীবন, যদি আপনি আমাদেরকে আমাদের ঘোড়া নিয়ে সমুদ্রে ঝাঁপিয়ে পড়তে বলেন, তবে নিশ্চয়ই আমরা সেখানে ঝাঁপিয়ে পড়ব। আর যদি আপনি আমাদেরকে নির্দেশ দেন, সওয়ারী হাঁকিয়ে বারকুল গামাদ পর্যন্ত পৌঁছার জন্য তবে নিশ্চয়ই আমরা তাই করবো। এরপর রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] মুসলিমদেরকে আহ্বান করিলেন। তখন সকলেই রওয়ানা হলেন এবং বাদর নামক স্থানে উপনীত হলেন। আর সাহাবীগণের সামনে সেখানে কুরায়শের সাথীগণও উপনীত হল। তাদের মধ্যে বানী হাজ্জাজের একজন কৃষ্ণকায় দাস ছিল। সাহাবীগণ তাকে পাকড়াও করিলেন। তারপর তাকে আবু সুফইয়ান এবং তার সাথীদের সম্পর্কে তাঁরা জিজ্ঞাসাবাদ করিলেন। তখন সে বলিতে লাগলো, আবু সুফইয়ান সম্পর্কে আমার কোন কিছু জানা নেই। তবে আবু জাহল, উতবাহ, শাইবাহ এবং উমাইয়াহ ইবনি খালাফ তো-উপস্থিত আছে। যখন সে এরূপ বলিল তখন তাঁরা তাকে প্রহার করিতে লাগলেন। এমতাবস্থায় সে বলিল, হ্যাঁ, আমি আবু সুফইয়ান সম্পর্কে খবর দিচ্ছি। তখন তাঁরা তাকে ছেড়ে দিলেন। এরপর যখন তারা পুনরায় আবু সুফইয়ান সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করিলেন, তখন সে বলিল, আবু সুফইয়ান জনগণের মাঝে উপস্থিত আছেন। যখন সে পুনরায় এ একই কথা বলিল, তখন তাঁরা আবার তাকে প্রহার করিতে লাগলেন। সে সময় রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] সলাতে দণ্ডায়মান ছিলেন। অতএব যখন তিনি এ অবস্থা দেখলেন, তখন নামাজ সমাপ্ত করার পর বলিলেন, সে আল্লাহর শপথ! যাঁর হাতে আমার জান, যখন সে তোমাদের কাছে সত্য কথা বলে তখন তোমরা তাকে প্রহার করো, আর যখন সে মিথ্যে কথা বলে তখন তোমরা তাকে ছেড়ে দাও।

এরপর রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] ভূমির উপর স্বীয় হাত রেখে বলিলেন, এ স্থান অমুক বিধর্মীয় ধরাশায়ী হওয়ার স্থান বা মৃত্যুস্থল। বর্ণনাকারী বলেন যে, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] যে স্থানে যে বিধর্মীর নাম নিয়ে হাত রেখেছিলেন, সেখানেই তার মৃত্যু হয়েছে, এর সামান্যও ব্যতিক্রম হয়নি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৪৭০, ইসলামিক সেন্টার- ৪৪৭২]

About Muslim

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে”

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে” মহান আল্লাহর …

Leave a Reply

%d bloggers like this: