পোশাক-পরিচ্ছদ

পোশাক-পরিচ্ছদ

পোশাক-পরিচ্ছদ >> বুখারী শরীফ এর মুল সুচিপত্র পড়ুন

পর্বঃ ৭৭, পোশাক-পরিচ্ছদ, অধ্যায়ঃ (১-১০৩)=১০৩টি

পোশাক নিয়ে হাদিস – ইযার, চাদর, জামা, ফার্‌রূজ ইত্যাদি

৭৭/১. অধ্যায়ঃ মহান আল্লাহর বাণীঃ “বল, যে সব সৌন্দর্য- শোভামন্ডিত বস্তু ও পবিত্র জীবিকা তিনি তাহাঁর বান্দাদের জন্য সৃষ্টি করিয়াছেন কে তা হারাম করিল?” (সুরা আল-আরাফ ৭: ৩২)
৭৭/২. অধ্যায়ঃ যে ব্যক্তি অহঙ্কার ব্যতীত তার লুঙ্গি ঝুলিয়ে চলাফেরা করে।
৭৭/৩. অধ্যায়ঃ কাপড়ে আবৃত থাকা।
৭৭/৪. অধ্যায়ঃ পায়ের গোড়ালির নিচে যা থাকবে তা যাবে জাহান্নামে।
৭৭/৫. অধ্যায়ঃ যে ব্যক্তি অহংকারের সাথে কাপড় ঝুলিয়ে পরিধান করে।
৭৭/৬. অধ্যায়ঃ ঝালরযুক্ত ইযার।
৭৭/৭. অধ্যায়ঃ চাদর পরিধান করা।
৭৭/৮. অধ্যায়ঃ জামা পরিধান করা।
৭৭/৯. অধ্যায়ঃ মাথা বের করার জন্য জামা ও অন্য পোশাকে বুকের অংশ ফাঁক রাখা প্রসঙ্গে।
৭৭/১০. অধ্যায়ঃ যিনি সফরে সরু হাতওয়ালা জুববা পরেন।
৭৭/১১. অধ্যায়ঃ যুদ্ধকালে পশমী জামা পরিধান প্রসঙ্গে।
৭৭/১২. অধ্যায়ঃ কাবা ও রেশমী ফার্‌রূজ, আর তাকেও এক প্রকার কাবাই বলা হয়, যে জামার পশ্চাতে ফাঁক থাকে।

টুপি ,পায়জামা, পাগড়ী, চাদর, কম্বল ও লৌহ শিরস্ত্রাণ প্রসঙ্গে
৭৭/১৩. অধ্যায়ঃ টুপি
৭৭/১৪. অধ্যায়ঃ পায়জামা প্রসঙ্গে
৭৭/১৫. অধ্যায়ঃ পাগড়ী প্রসঙ্গে
৭৭/১৬. অধ্যায়ঃ চাদর বা অন্য কিছু দ্বারা মাথা ও মুখের অধিকাংশ অঙ্গ ঢেকে রাখা।
৭৭/১৭. অধ্যায়ঃ লৌহ শিরস্ত্রাণ প্রসঙ্গে
৭৭/১৮. অধ্যায়ঃ ডোরাওয়ালা চাদর, কারুকার্যময় ইয়ামনী চাদর ও চাদরের আঁচলের বিবরণ।
৭৭/১৯. অধ্যায়ঃ কম্বল ও কারুকার্যপূর্ণ চাদর পরিধান প্রসঙ্গে।
৭৭/২০. অধ্যায়ঃ কাপড় মুড়ি দিয়ে বসা প্রসঙ্গে।
৭৭/২১. অধ্যায়ঃ এক কাপড়ে পেঁচিয়ে বসা প্রসঙ্গে।
৭৭/২২. অধ্যায়ঃ নকশাওয়ালা কালো চাদর প্রসঙ্গে।

রঙ্গিন পোশাক – সবুজ, সাদা, লাল , কাসসী, জাফরানী ও রেশমী কাপড়
৭৭/২৩. অধ্যায়ঃ সবুজ পোশাক প্রসঙ্গে
৭৭/২৪. অধ্যায়ঃ সাদা পোশাক প্রসঙ্গে
৭৭/২৫. অধ্যায়ঃ পুরুষের জন্য রেশমী পোশাক পরা, রেশমী চাদর বিছানো এবং কী পরিমাণ রেশমী কাপড় ব্যবহার জায়িয।
৭৭/২৬. অধ্যায়ঃ পরিধান না করে রেশমী কাপড় স্পর্শ করা।
৭৭/২৭. অধ্যায়ঃ রেশমী কাপড় বিছানো।
৭৭/২৮. অধ্যায়ঃ কাসসী পরিধান করা।
৭৭/২৯. অধ্যায়ঃ চর্মরোগের কারণে পুরুষের জন্য রেশমী কাপড়ের অনুমতি প্রসঙ্গে।
৭৭/৩০. অধ্যায়ঃ স্ত্রীলোকের রেশমী কাপড় পরিধান করা।
৭৭/৩১. অধ্যায়ঃ নাবী (সাঃআঃ) কী ধরনের পোশাক ও বিছানা গ্রহণ করিতেন।
৭৭/৩২. অধ্যায়ঃ নতুন বস্ত্র পরিধানকারীর জন্য কী দুআ করা হইবে?
৭৭/৩৩. অধ্যায়ঃ পুরুষের জন্য জাফরানী রং-এর বস্ত্র পরিধান প্রসঙ্গে।
৭৭/৩৪. অধ্যায়ঃ জাফরানী রং-এর রঙিন বস্ত্র।
৭৭/৩৫. অধ্যায়ঃ লাল কাপড় প্রসঙ্গে।
৭৭/৩৬. অধ্যায়ঃ লাল মীসারা প্রসঙ্গে।

জুতা পরার সুন্নাত নিয়ম। তাঁবু ও চাটাই উপর বসা

৭৭/৩৭. অধ্যায়ঃ পশমহীন চামড়ার জুতা ও অন্যান্য জুতা।
৭৭/৩৮. অধ্যায়ঃ ডান দিক থেকে জুতা পরা আরম্ভ করা।
৭৭/৩৯. অধ্যায়ঃ বাঁ পায়ের জুতা খোলা প্রসঙ্গে।
৭৭/৪০. অধ্যায়ঃ এক পায়ে জুতা পরে হাঁটবে না।
৭৭/৪১. অধ্যায়ঃ এক চপ্পলে দু ফিতা লাগান, কারও মতে এক ফিতা লাগানও বৈধ।
৭৭/৪২. অধ্যায়ঃ লাল রঙের চামড়ার তাঁবু।
৭৭/৪৩. অধ্যায়ঃ চাটাই বা তদ্রূপ কোন জিনিসের উপর বসা।

হার, মালা, কানের দুল এবং আংটি পরার বিধান
৭৭/৪৪. অধ্যায়ঃ স্বর্ণখচিত গুটি
৭৭/৪৫. অধ্যায়ঃ স্বর্ণের আংটি
৭৭/৪৬. অধ্যায়ঃ রূপার আংটি প্রসঙ্গে।
৭৭/৪৭. অধ্যায়ঃ আংটি খুলে ফেলা
৭৭/৪৮. অধ্যায়ঃ আংটির মোহর প্রসঙ্গে।
৭৭/৪৯. অধ্যায়ঃ লোহার আংটি প্রসঙ্গে।
৭৭/৫০. অধ্যায়ঃ আংটিতে নক্‌শা অঙ্কণ করা।
৭৭/৫১. অধ্যায়ঃ কনিষ্ঠ আঙ্গুলে আংটি পরিধান।
৭৭/৫২. অধ্যায়ঃ কোন কিছুর উপর সীলমোহর করার উদ্দেশ্য অথবা আহলে কিতাব বা অন্য কারও নিকট পত্র লেখার উদ্দেশে আংটি তৈরী করা।
৭৭/৫৩. অধ্যায়ঃ যে লোক আংটির নাগিনা হাতের তালুর দিকে রাখে।
৭৭/৫৪. অধ্যায়ঃ নাবী (সাঃআঃ) -এর বাণীঃ তাহাঁর আংটির নক্‌শার মত কেউ নক্‌শা বানাতে পারবে না।
৭৭/৫৫. অধ্যায়ঃ আংটির নক্‌শা কি তিন লাইনে অঙ্কণ করা যায়?
৭৭/৫৬. অধ্যায়ঃ মহিলাদের আংটি পরিধান করা।
৭৭/৫৭. অধ্যায়ঃ মহিলাদের হার পরিধান করা, সুগন্ধি ব্যবহার ও ফুলের মালা পরিধান করা।
৭৭/৫৮. অধ্যায়ঃ হার ধার নেয়া প্রসঙ্গে।
৭৭/৫৯. অধ্যায়ঃ মহিলাদের কানের দুল।
৭৭/৬০. অধ্যায়ঃ শিশুদের মালা পরিধান করানো।
৭৭/৬১. অধ্যায়ঃ পুরুষের নারীর বেশ ধারণ এবং নারীর পুরুষের বেশ ধারণ প্রসঙ্গে।
৭৭/৬২. অধ্যায়ঃ নারীর বেশধারী পুরুষদের ঘর থেকে বের করে দেয়া প্রসঙ্গে

গোঁফ, নখ, দাড়ি, খিযাব এবং চুল সম্পর্কিত হাদিস
৭৭/৬৩. অধ্যায়ঃ গোঁফ ছাটা।
৭৭/৬৪. অধ্যায়ঃ নখ কাটা
৭৭/৬৫. অধ্যায়ঃ দাড়ি বড় রাখা প্রসঙ্গে।
৭৭/৬৬. অধ্যায়ঃ বার্ধক্যকালের (খিযাব লাগান সম্পর্কিত) বর্ণনা।
৭৭/৬৭. অধ্যায়ঃ খিযাব
৭৭/৬৮. অধ্যায়ঃ কোঁকড়ানো চুল প্রসঙ্গে।
৭৭/৬৯. অধ্যায়ঃ মাথার চুলে জট করা।
৭৭/৭০. অধ্যায়ঃ মাথার চুল মাথার মাঝখানে দুভাগে ভাগ করা।
৭৭/৭১. অধ্যায়ঃ চুলের ঝুটি প্রসঙ্গে।
৭৭/৭২. অধ্যায়ঃ কাযা অর্থাৎ মাথার কিছু চুল মুড়ানো ও কিছু অংশে চুল রেখে দেয়া।
৭৭/৭৩. অধ্যায়ঃ স্ত্রী কর্তৃক নিজ হাতে স্বামীকে খুশবু লাগানো।
৭৭/৭৪. অধ্যায়ঃ মাথায় ও দাড়িতে খুশবু লাগানো প্রসঙ্গে।
৭৭/৭৫. অধ্যায়ঃ চিরুনি করা প্রসঙ্গে।
৭৭/৭৬. অধ্যায়ঃ হারাম অবস্থায় স্বামীর মাথা আঁচড়ে দেয়া।
৭৭/৭৭. অধ্যায়ঃ চিরুনী দ্বারা মাথা আঁচড়ানো।

খুশবু , মিস্‌ক, দাঁত সরু করা, ভ্রু উপড়ে ফেলা, পরচুলা ও উল্‌কি আঁকা
৭৭/৭৮. অধ্যায়ঃ মিস্‌কের বর্ণনা।
৭৭/৭৯. অধ্যায়ঃ খুশবু লাগান মুস্তাহাব।
৭৭/৮০. অধ্যায়ঃ খুশবু প্রত্যাখ্যান না করা।
৭৭/৮১. অধ্যায়ঃ যারীরা নামের সুগন্ধি দ্রব্য।
৭৭/৮২. অধ্যায়ঃ সৌন্দর্য লাভের উদ্দেশে সম্মুখের দাঁত কেটে সরু করা ও দাঁতের মধ্যে ফাঁক করা।
৭৭/৮৩. অধ্যায়ঃ পরচুলা লাগানো প্রসঙ্গে।
৭৭/৮৪. অধ্যায়ঃ ভ্রু উপড়ে ফেলা।
৭৭/৮৫. অধ্যায়ঃ পরচুলা লাগানো সম্পর্কিত।
৭৭/৮৬. অধ্যায়ঃ উল্‌কি অঙ্কনকারী নারী
৭৭/৮৭. অধ্যায়ঃ যে নারী অঙ্গ–প্রত্যঙ্গে উল্‌কি আঁকিয়ে নেয়।

ছবি সংক্রান্ত হাদিস – ছবি থাকলে সে ঘরে ফেরেশতা প্রবেশ করেন না
৭৭/৮৮. অধ্যায়ঃ ছবি সম্পর্কিত।
৭৭/৮৯. অধ্যায়ঃ ক্বিয়ামাতের দিন ছবি নির্মাতাদের শাস্তি প্রসঙ্গে।
৭৭/৯০. অধ্যায়ঃ ছবি ভেঙ্গে ফেলা সম্পর্কিত।
৭৭/৯১. অধ্যায়ঃ ছবিওয়ালা কাপড় দিয়ে বসার আসন তৈরী করা।
৭৭/৯২. অধ্যায়ঃ ছবির উপর বসা অপছন্দনীয়।
৭৭/৯৩. অধ্যায়ঃ ছবিওয়ালা কাপড়ে সলাত আদায় করা অপছন্দনীয়।
৭৭/৯৪. অধ্যায়ঃ যে ঘরে ছবি থাকে সে ঘরে (রাহমাতের) ফেরেশতা প্রবেশ করেন না।
৭৭/৯৫. অধ্যায়ঃ ছবি আছে এমন ঘরে যিনি প্রবেশ করেন না।
৭৭/৯৬. অধ্যায়ঃ ছবি নির্মাতাকে যিনি অভিশাপ করিয়াছেন।
৭৭/৯৭. অধ্যায়ঃ যে ব্যক্তি ছবি বানায় তাকে ক্বিয়ামাতের দিন তাতে জীবন দানের জন্যে হুকুম করা হইবে, কিন্তু সে অপারগ হইবে।


৭৭/৯৮. অধ্যায়ঃ সাওয়ারীর উপর কারও পেছনে বসা।
৭৭/৯৯. অধ্যায়ঃ এক সাওয়ারীর উপর তিনজন বসা।
৭৭/১০০. অধ্যায়ঃ সওয়ারীর মালিক অন্যকে সামনে বসাতে পারে কি না?
৭৭/১০১. অধ্যায়ঃ জন্তুযানে পুরুষের পেছনে পুরুষের বসা।
৭৭/১০২. অধ্যায়ঃ সওয়ারীর উপর পুরুষের পশ্চাতে মহিলার উপবেশন।
৭৭/১০৩. অধ্যায়ঃ চিৎ হয়ে শয়ন করা এবং এক পা অন্য পায়ের উপর রাখা।

By ইমাম বুখারী

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply