মালিকের বিনানুমতিতে কোন পশুর দুধ দোহন হারাম

মালিকের বিনানুমতিতে কোন পশুর দুধ দোহন হারাম

মালিকের বিনানুমতিতে কোন পশুর দুধ দোহন হারাম >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

২. অধ্যায়ঃ মালিকের বিনানুমতিতে কোন পশুর দুধ দোহন হারাম

৪৪০৩

ইবনি উমর [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রাসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম] বলেছেনঃ কেউ যেন কোন ব্যক্তির পশুর দুধ তার অনুমতি ব্যতীত দোহন না করে। তোমাদের কেউ কি এটা পছন্দ করিবে যে, তার কুটিরে কিছু সঞ্চিত হোক, তারপর অন্য কেউ তার ভান্ডার ভেঙ্গে খাদ্য সামগ্রী বের করে নিয়ে যাক? এমনিভাবে পশুদের স্তন তাদের ধনাগার স্বরূপ, তাতে তারা তাদের খাদ্য সামগ্রী সঞ্চয় করে। অতঃপর কেউ যেন কারো পশুর দুগ্ধ মালিকের বিনানুমতিতে দোহন না করে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৩৬২, ইসলামিক সেন্টার- ৪৩৬২]

৪৪০৪

কুতাইবাহ্ ইবনি সাঈদ মুহাম্মাদ ইবনি রুম্হ আবু বাকর ইবনি আবু শাইবাহ্, ইবনি নুমায়র, আবু রাবি, আবু কামিল, যুহায়র ইবনি হারব, ইবনি আবু উমর ও মুহাম্মাদ ইবনি রাফি [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] সকলেই ইবনি উমর [রাদি.]-এর সূত্র হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম] থেকে মালিক [রাদি.] –এর হাদীসের অনুরূপ বর্ণনা করেন। তবে তাদের হাদীসে [আরবী] রয়েছে। কিন্তু লায়স ইবনি সাদ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] তাহাঁর বর্ণিত হাদীসে “তাহাঁর খাদ্য সামগ্রী স্থানান্তর করে নিয়ে যায়” অংশটি মালিক [রাদি.] –এর বর্ণনার অনুরূপ বর্ণিত রয়েছে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৩৬৩, ইসলামিক সেন্টার- ৪৩৬৩]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply