নতুন লেখা

নামাজ

অধ্যায়ঃ ২, অনুচ্ছেদঃ (১-২০২)=২০২টি

ওয়াক্তসমূহের বর্ণনা, আসরের নামাজ বিলম্বে আদায় করা

১. অনুচ্ছেদঃ নাবী [সাঃআঃ] হইতে নামাযের ওয়াক্তসমূহের বর্ণনা
২. অনুচ্ছেদঃ ঐ সম্পর্কেই
৩. অনুচ্ছেদঃ একই বিষয় সম্পর্কিত
৪. অনুচ্ছেদঃ ফযরের নামাজ অন্ধকার থাকতেই আদায় করা
৫. অনুচ্ছেদঃ ফযরের নামাজ অন্ধকার বিদূরিত করে আদায় করা
৬. অনুচ্ছেদঃ যুহরের নামাজ তাড়াতাড়ি আদায় করা
৭. অনুচ্ছেদঃ অধিক গরমের সময় যুহরের নামাজ দেরিতে আদায় করা
৮. অনুচ্ছেদঃ আসরের নামাজ শীঘ্রই আদায় করা
৯. অনুচ্ছেদঃ আসরের নামাজ বিলম্বে আদায় করা
১০. অনুচ্ছেদঃ মাগরিবের ওয়াক্ত সম্পর্কে
১১. অনুচ্ছেদঃ ইশার নামাযের ওয়াক্ত
১২. অনুচ্ছেদঃ ইশার নামাজ দেরি করে আদায় করা
১৩. অনুচ্ছেদঃ ইশার নামাজের পূর্বে শোয়া এবং নামাজ আদায়ের পর কথাবার্তা বলা মাকরূহ
১৪. অনুচ্ছেদঃ ইশার নামাযের পর কথাবার্তা বলার অনুমতি সম্পর্কে
১৫. অনুচ্ছেদঃ প্রথম ওয়াক্তের ফাযিলত
১৬. অনুচ্ছেদঃ আসরের নামাযের ওয়াক্ত ভুলে যাওয়া সম্পর্কে
১৭. অনুচ্ছেদঃ ঈমাম যদি বিলম্বে নামাজ আদায় করে তবে মুক্তাদীদের তা প্রথম ওয়াক্তে আদায় করা সম্পর্কে
১৮. অনুচ্ছেদঃ নামাজ আদায় না করে শুয়ে থাকা
১৯. অনুচ্ছেদঃ যে ব্যক্তি নামাযের কথা ভুলে গেছে
২০. অনুচ্ছেদঃ যার একাধারে কয়েক ওয়াক্তের নামাজ ছুটে গেছে সে কোন ওয়াক্ত থেকে শুরু করিবে
২১. অনুচ্ছেদঃ মধ্যবর্তী নামাজ আসরের নামাজ। তা যুহরের নামাজ বলেও কথিত আছে
২২. অনুচ্ছেদঃ আসর ও ফযরের নামাযের পর অন্য কোন নামাজ আদায় করা মাকরূহ
২৩. অনুচ্ছেদঃ আসরের নামাযের পর অন্য নামাজ আদায় প্রসঙ্গে
২৪. অনুচ্ছেদঃ সূর্যাস্তের পর মাগরিবের নামাযের পূর্বে নফল নামাজ আদায় করা
২৫. অনুচ্ছেদঃ যে ব্যক্তি সূর্যাস্তের পূর্বে আসরের এক রাকআত নামাজ পেয়েছে
২৬. অনুচ্ছেদঃ মুক্বীম অবস্থায় দুই ওয়াক্তের নামাজ এক সাথে আদায় করা

আযান ও ইকামতের শব্দগুলো কতবার, ফাযীলাত, জবাব ও দুআ

২৭. অনুচ্ছেদঃ আযানের প্রবর্তন
২৮. অনুচ্ছেদঃ আযানের তারজী করা
২৯. অনুচ্ছেদঃ ইক্বামাতের শব্দগুলো একবার করে বলা সম্পর্কে
৩০. অনুচ্ছেদঃ ইকামাতের শব্দগুলো দুইবার বলা প্রসঙ্গে
৩১. অনুচ্ছেদঃ আযানের শব্দগুলো থেমে থেমে স্পষ্টভাবে বলা
৩২. অনুচ্ছেদঃ আযান দেওয়ার সময় কানের মধ্যে আঙ্গুল ঢোকানো
৩৩. অনুচ্ছেদঃ ফযরের নামাযের ওয়াক্তে তাসবীব করা প্রসঙ্গে
৩৪. অনুচ্ছেদঃ যে আযান দিয়েছে সে ইক্বামাত দিবে
৩৫. অনুচ্ছেদঃ বিনা ওযূতে আযান দেয়া মাকরূহ
৩৬. অনুচ্ছেদঃ ঈমামই ইকামাত দেবার বেশি হকদার
৩৭. অনুচ্ছেদঃ রাত থাকতে [ফযরের] আযান দেওয়া সম্পর্কে
৩৮. অনুচ্ছেদঃ আযান হওয়ার পর মসজিদ হইতে চলে যওয়া মাকরূহ
৩৯. অনুচ্ছেদঃ সফরে থাকাকালে আযান দেওয়া
৪০. অনুচ্ছেদঃ আযান দেওয়ার ফাযীলাত
৪১. অনুচ্ছেদঃ ঈমাম যিম্মাদার এবং মুয়াযযিন আমানাতদার
৪২. অনুচ্ছেদঃ আযান শুনে যা বলিতে হইবে
৪৩. অনুচ্ছেদঃ আযানের বিনিময়ে পারিশ্রমিক গ্রহণ করা মাকরূহ
৪৪. অনুচ্ছেদঃ মুয়াযযিনের আযান শুনে যে দুআ পাঠ করিতে হইবে
৪৫. অনুচ্ছেদঃ পূর্ববর্তী অনুচ্ছেদের পরিপূরক
৪৬. অনুচ্ছেদঃ আযান ও ইক্বামাতের মধ্যবর্তী সময়ের দুআ ব্যর্থ হইবে না

জামায়াতে নামাজ পড়ার ফজিলত , কাতার সোজা করা ও ইমামতি

৪৭. অনুচ্ছেদঃ আল্লাহ তাআলা বান্দাদের উপর কত ওয়াক্ত নামাজ ফরয করিয়াছেন
৪৮. অনুচ্ছেদঃ পাঁচ ওয়াক্ত নামাযের ফাযীলাত
৪৯. অনুচ্ছেদঃ জামাআতে নামযে আদায়ের ফাযীলাত
৫০. অনুচ্ছেদঃ আযান শুনে যে ব্যক্তি তাতে সাড়া না দেয় [জামাআতে উপস্থিত না হয়]
৫১. অনুচ্ছেদঃ যে ব্যক্তি একাকী নামাজ আদায়ের পর আবার জামাআত পেল
৫২. অনুচ্ছেদঃ মসজিদে এক জামাআত হয়ে যাবার পর আবার জামাআত করা
৫৩. অনুচ্ছেদঃ ফযর ও ইশার নামাজ জামাআতে আদায়ের ফাযীলাত
৫৪. অনুচ্ছেদঃ প্রথম কাতারে দাঁড়ানোর ফাযীলাত
৫৫. অনুচ্ছেদঃ কাতার সমান্তরাল করা সম্পর্কে
৫৬. অনুচ্ছেদঃ রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের নির্দেশঃ তোমাদের মধ্যকার বুদ্ধিমান ও জ্ঞানীরা আমরা নিকটে দাঁড়াবে
৫৭. অনুচ্ছেদঃ খাম্বাসমূহের [খুঁটির] মাঝখানে কাতার করা মাকরূহ
৫৮. অনুচ্ছেদঃ কাতারের পেছনে একাকী দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করা
৫৯. অনুচ্ছেদঃ দুই ব্যক্তির একসাথে নামাজ আদায় করা
৬০. অনুচ্ছেদঃ তিন ব্যক্তি একসাথে নামাজ আদায় করা
৬১. অনুচ্ছেদঃ ইমামের সাথে পুরুষ ও স্ত্রীলোক উভয় ধরনের মুক্তাদী থাকলে
৬২. অনুচ্ছেদঃ কে ঈমাম হওয়ার যোগ্য
৬৩. অনুচ্ছেদঃ ঈমাম নামাজ সংক্ষিপ্ত করিবে

নামাজ শুরু করার নিয়ম ছানা বিসমিল্লাহ ও সুরা ফাতিহা

৬৪. অনুচ্ছেদঃ নামাজ শুরু এবং শেষ করার বাক্য
৬৫. অনুচ্ছেদঃ তাকবীরে তাহরীমা বলার সময় হাতের আঙ্গুলগুলো ফাঁক করা এবং ছাড়িয়ে দেয়া
৬৬. অনুচ্ছেদঃ তাকবীরে উলার ফাযীলাত
৬৭. অনুচ্ছেদঃ নামাজ শুরু করে যা পাঠ করিতে হয়
৬৮. অনুচ্ছেদঃ “বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম” সশব্দে পাঠ না করা প্রসঙ্গে
৬৯. অনুচ্ছেদঃ “বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম” সশব্দে পাঠ করা
৭০. অনুচ্ছেদঃ সূরা ফাতিহার মাধ্যমে নামাযের কিরাআত শুরু করা
৭১. অনুচ্ছেদঃ ফাতিহাতুল কিতাব ছাড়া নামাজ হয় না
৭২. অনুচ্ছেদঃ আমীন বলা সম্পর্কে
৭৩. অনুচ্ছেদঃ আমীন বলার ফাযীলাত
৭৪. অনুচ্ছেদঃ দুই বিরতি স্থান
৭৫. অনুচ্ছেদঃ নামাযের মধ্যে ডান হাত বাঁ হাতের উপর রাখা

রুকু ও সিজদার নিয়ম ,তাসবীহ, দুয়া ও হাত উত্তোলন করা

৭৬. অনুচ্ছেদঃ রুকূ-সিজদা সময়ে তাকবীর বলা
৭৭. অনুচ্ছেদঃ একই বিষয় সম্পর্কিত
৭৮. অনুচ্ছেদঃ রুকূর সময় উভয় হাত উত্তোলন করা [রফউল ইয়াদাইন]
৭৯. অনুচ্ছেদঃ রসুলুল্লাহ [সাঃআঃ] প্রথমবার ব্যতীত নামাযে আর কোথাও রফউল ইয়াদাইন করেননি
৮০. অনুচ্ছেদঃ রুকূতে দুই হাত দুই হাঁটুতে রাখা
৮১. অনুচ্ছেদঃ রুকূ অবস্থায় উভয় হাত পেটের পার্শ্বদেশ হইতে পৃথক রাখা
৮২. অনুচ্ছেদঃ রুকূ-সিজদা তাসবীহ
৮৩. অনুচ্ছেদঃ রুকূ-সাজদাহ্‌তে কুরআন পাঠ নিষেধ
৮৪. অনুচ্ছেদঃ যে ব্যক্তি রুকূ ও সাজদাহ্‌তে পিঠ সোজা করে না
৮৫. অনুচ্ছেদঃ রুকূ হইতে মাথা উঠানোর সময় যা বলিতে হইবে
৮৬. অনুচ্ছেদঃ একই বিষয়
৮৭. অনুচ্ছেদঃ সিজদার সময় হাঁটু দুটি রাখার পর দুই হাত রাখতে হইবে
৮৮. অনুচ্ছেদঃ একই বিষয়বস্তু
৮৯. অনুচ্ছেদঃ নাক ও কপাল দিয়ে সিজদা করা
৯০. অনুচ্ছেদঃ সিজদা সময় মুখমন্ডল কোন্ জায়গায় রাখতে হইবে
৯১. অনুচ্ছেদঃ সাত অঙ্গের সমন্বয়ে সিজদা করা
৯২. অনুচ্ছেদঃ সাজদাহ্‌তে হাত বাহু হইতে ফাঁক করে রাখা
৯৩. অনুচ্ছেদঃ সঠিকভাবে সিজদা করা
৯৪. অনুচ্ছেদঃ সিজদা সময় যমিনে হাত রাখা এবং পায়ের পাতা খাড়া করে রাখা
৯৫. অনুচ্ছেদঃ রুকূ ও সিজদা হইতে মাথা তুলে পিঠ সোজা রাখা
৯৬. অনুচ্ছেদঃ ইমামের সাথে সাথে রুকূ-সাজদাহ্য় যাওয়া ভাল নয়
৯৭. অনুচ্ছেদঃ দুই সিজদার মঝখানে ইক্আ করা মাকরুহ
৯৮. অনুচ্ছেদঃ ইক্বআর অনুমতি
৯৯. অনুচ্ছেদঃ দুই সিজদা মাঝে বিরতির সময় যা পাঠ করিতে হইবে
১০০. অনুচ্ছেদঃ সিজদার সময় কিছুতে ভর দেওয়া
১০১. অনুচ্ছেদঃ সাজদাহ্‌ হইতে উঠার নিয়ম
১০২. অনুচ্ছেদঃ একই বিষয়

তাশাহুদ আরবি ও বাংলা পাঠ করার সময় আঙ্গুল দিয়ে ইশারা করা

১০৩. অনুচ্ছেদঃ তাশাহহুদ পাঠ করা
১০৪. অনুচ্ছেদঃ একই বিষয় সম্পর্কিত
১০৫. অনুচ্ছেদঃ নীরবে তাশাহুদ পাঠ করিবে
১০৬. অনুচ্ছেদঃ তাশাহ্‌হুদের সময় বসার নিয়ম
১০৭. অনুচ্ছেদঃ তাশাহুদ সম্পর্কেই
১০৮. অনুচ্ছেদঃ তাশাহুদ পাঠ করার সময় আঙ্গুল দিয়ে ইশারা করা

সালাম ফিরানোর নিয়ম এবং ফিরানোর পর যা বলবে

১০৯. অনুচ্ছেদঃ নামাযের সালাম ফিরানো সম্পর্কে
১১০. অনুচ্ছেদঃ সালাম সম্পর্কেই
১১১. অনুচ্ছেদঃ সালাম খুব লম্বা করে টানবে না, এটাই সুন্নত
১১২. অনুচ্ছেদঃ সালাম ফিরানোর পর যা বলবে
১১৩. অনুচ্ছেদঃ ডান অথবা বাম পাশে ফেরা

নামাজ পড়ার নিয়ম ও সূরা – ইমামের পিছনে কিরাত পাঠ করা

১১৪. অনুচ্ছেদঃ নামাজ পড়ার নিয়ম
১১৫. অনুচ্ছেদঃ একই বিষয়
১১৬. অনুচ্ছেদঃ ফযরের নামাযের কিরাআত
১১৭. অনুচ্ছেদঃ যুহর ও আসরের নামাযের কিরাআত
১১৮. অনুচ্ছেদঃ মাগরিবের নামাযের কিরাআত
১১৯. অনুচ্ছেদঃ ইশার নামাযের কিরাআত
১২০. অনুচ্ছেদঃ ইমামের পিছনে কিরাআত পাঠ করা

মসজিদ নির্মাণের গুরুত্ব ও ফজিলত এবং প্রবেশের দুআ

১২২. অনুচ্ছেদঃ মসজিদে প্রবেশের দুআ
১২৩. অনুচ্ছেদঃ মসজিদে ঢুকে দুই রাকআত নামাজ আদায় করিবে
১২৪. অনুচ্ছেদঃ কবরস্থান ও গোসলখানা ছাড়া সমগ্র পৃথিবীই নামাজ আদায়ের জায়গা
১২৫. অনুচ্ছেদঃ মসজিদ নির্মাণের ফাযীলাত
১২৬. অনুচ্ছেদঃ কবরের উপর মসজিদ তৈরি করা মাকরুহ
১২৭. অনুচ্ছেদঃ মসজিদে ঘুমানো
১২৮. অনুচ্ছেদঃ মসজিদের মধ্যে ক্রয়-বিক্রয়, হারানো জিনিস খোঁজা এবং কবিতা আবৃত্তি করা মাকরূহ
১২৯. অনুচ্ছেদঃ যে মসজিদের ভিত্তি তাকওয়ার উপর প্রতিষ্ঠিত
১৩০. অনুচ্ছেদঃ কুবার মসজিদে নামাজ আদায় করা
১৩১. অনুচ্ছেদঃ কোন্ মসজিদ সবচেয়ে বেশি মর্যাদাপূর্ণ
১৩২. অনুচ্ছেদঃ মসজিদে পায়ে হেঁটে যাতায়াত
১৩৩. অনুচ্ছেদঃ মসজিদে বসা এবং নামাযের জন্য অপেক্ষা করার ফযিলত

নামাজের বিছানা চাটাই মাদুর – কুকুর, গাধা ও স্ত্রীলোক সামনে গেলে

১৩৪. অনুচ্ছেদঃ চাটাইর উপর নামাজ আদায় করা
১৩৫. অনুচ্ছেদঃ মাদুরের উপর নামাজ আদায় করা
১৩৬. অনুচ্ছেদঃ বিছানার উপর নামাজ আদায় করা
১৩৭. অনুচ্ছেদঃ বাগানের মধ্যে নামাজ আদায় করা
১৩৮. অনুচ্ছেদঃ নামাযীর সামনে অন্তরাল [সুতরা] রাখা
১৩৯. অনুচ্ছেদঃ নামাজরত ব্যক্তির সামনে দিয়ে যাওয়া মাকরূহ
১৪০. অনুচ্ছেদঃ নামাযীর সামনে দিয়ে কোন কিছু গেলে তাতে নামাজ নষ্ট হয় না
১৪১. অনুচ্ছেদঃ কুকুর, গাধা ও স্ত্রীলোক ছাড়া অন্য কিছু নামাযীর সামনে দিয়ে গেলে নামাজ নষ্ট হয় না
১৪২. অনুচ্ছেদঃ এক কাপড়ে নামাজ আদায় করা

নামাজের দিক নির্ণয়

১৪৩. অনুচ্ছেদঃ কিবলা শুরু হওয়ার বর্ণনা
১৪৪. অনুচ্ছেদঃ পূর্ব ও পশ্চিমের মাঝখানে কিবলা
১৪৫. অনুচ্ছেদঃ যে ব্যক্তি বৃষ্টি–বাদলের কারণে কিবলা ব্যতীত অন্যদিকে ফিরে নামাজ আদায় করে
১৪৬. অনুচ্ছেদঃ কোথায় এবং কিসের দিকে ফিরে নামাজ আদায় করা মাকরুহ
১৪৭. অনুচ্ছেদঃ ছাগলের ঘরে ও উটশালায় নামাজ আদায় করা
১৪৮. অনুচ্ছেদঃ চতুস্পদ জন্তুর পিঠে থাকা কালে জন্তুটি যেদিকে মুখ করে আছে সেদিকে ফিরে নামাজ আদায় করা
১৪৯. অনুচ্ছেদঃ জন্তুযানের দিকে ফিরে নামাজ আদায় করা
১৫০. অনুচ্ছেদঃ রাতের খাবার উপস্থিত হওয়ার পর নামাজ শুরু হলে প্রথমে খাবার খেয়ে নাও

ইমামের দায়িত্ব ও কর্তব্য , নামাযের মধ্যে হাই তোলা মাকরূহ

১৫১. অনুচ্ছেদঃ তন্দ্রা অবস্থায় নামাজ আদায় করা উচিত নয়
১৫২. অনুচ্ছেদঃ কোন সম্প্রদায়ের সাথে দেখা-সাক্ষাত করিতে গিয়ে তাহাদের ঈমাম হওয়া উচিত নয়
১৫৩. অনুচ্ছেদঃ ইমামের কেবল নিজের জন্য দুআ করা মাকরূহ
১৫৪. অনুচ্ছেদঃ লোকদের অসন্তোষ সত্ত্বেও তাহাদের ঈমামতি করা
১৫৫. অনুচ্ছেদঃ ঈমাম যখন বসে নামাজ আদায় করে তখন তোমরাও বসে নামাজ আদায় কর
১৫৬. অনুচ্ছেদঃ একই বিষয় সম্পর্কে
১৫৭. অনুচ্ছেদঃ ঈমাম যদি দুরাকআত আদায় করে ভুলে দাঁড়িয়ে যায়
১৫৮. অনুচ্ছেদঃ প্রথম দুই রাকআতের পর বসার পরিমাণ
১৫৯. অনুচ্ছেদঃ নামাযের মধ্যে ইশারা করা
১৬০. অনুচ্ছেদঃ পুরুষদের সুবহানাল্লাহ বলা ও নারীদের হাততালি দেয়া
১৬১. অনুচ্ছেদঃ নামাযের মধ্যে হাই তোলা মাকরূহ

নামাজের মাকরুহ সমূহ ও নফল নামাজ বসে আদায় করা

১৬২. অনুচ্ছেদঃ বসে নামাজ আদায় করলে দাড়িয়ে আদায়ের অর্ধেক সাওয়াব পাওয়া যায়
১৬৩. অনুচ্ছেদঃ নফল নামাজ বসে আদায় করা
১৬৪. অনুচ্ছেদঃ রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের বাণীঃ আমি শিশুদের কান্না শুনলে নামাজ সংক্ষেপ করি
১৬৫. অনুচ্ছেদঃ দোপাট্টা পরিধান ছাড়া প্রাপ্তবয়স্কার নামাজ ক্ববূল হয় না
১৬৬. অনুচ্ছেদঃ নামাযের মধ্যে সাদল করা [কাঁধের উপর কাপর লটকে রাখা] মাকরুহ
১৬৭. অনুচ্ছেদঃ নামাযের মধ্যে পাথর-টুকরা অপসারণ করা মাকরূহ
১৬৮. অনুচ্ছেদঃ নামাযের মধ্যে [মাটিতে] ফুঁ দেওয়া মাকরূহ
১৬৯. অনুচ্ছেদঃ নামাযের মধ্যে কোমরে হাত রাখা নিষেধ
১৭০. অনুচ্ছেদঃ চুল বেঁধে নামাজ আদায় করা মাকরূহ

নামাজে খুশু – নামাযে থাকা অবস্থায় সাপ, বিছা হত্যা করা

১৭১. অনুচ্ছেদঃ নামাযে বিনয় হওয়া
১৭২. অনুচ্ছেদঃ নামাযের মধ্যে উভয় হাতের আঙ্গুলসমূহ পরস্পরের মধ্যে ঢোকানো মাকরূহ
১৭৩. অনুচ্ছেদঃ নামাযে দীর্ঘ কিয়াম করা [দাঁড়ানো]
১৭৪. অনুচ্ছেদঃ অধিক পরিমাণে রুকু-সাজদাহ্‌ করার [নামাজ আদায় করা] ফাযিলাত
১৭৫. অনুচ্ছেদঃ নামাযে থাকা অবস্থায় সাপ, বিছা হত্যা করা

সাহু সিজদার নিয়ম ও ভুলের সিজদার পর তাশাহ্‌হুদ পাঠ করা

১৭৬. অনুচ্ছেদঃ সালাম ফিরানোর পূর্বে সাহুসাজদাহ্‌ করা
১৭৭. অনুচ্ছেদঃ সালাম ও কথাবার্তা বলার পর সাহুসাজদাহ্‌ করা
১৭৮. অনুচ্ছেদঃ ভুলের সিজদার পর তাশাহ্‌হুদ পাঠ করা
১৭৯. অনুচ্ছেদঃ যে ব্যক্তি নামাযে কম অথবা বেশি আদায় করার সন্দেহে পরে যায়
১৮০. অনুচ্ছেদঃ যে ব্যক্তি যুহর বা আসরের দুই রাকআত আদায় করে সালাম ফিরায়

সুন্নাত নামাজের হাদিস – নামাযে কষ্ট স্বীকার করা

১৮৯. অনুচ্ছেদঃ বৃষ্টির সময় ঘরে নামাজ আদায় করা প্রসঙ্গে
১৯০. অনুচ্ছেদঃ নামাযের পর তাসবীহ পাঠ করা
১৯১. অনুচ্ছেদঃ বৃষ্টি ও কাদার কারণে পশুর [যানবাহনে] উপর নামাজ আদায় প্রসঙ্গে
১৯২. অনুচ্ছেদঃ নামাযে কষ্ট স্বীকার করা
১৯৩. অনুচ্ছেদঃ কিয়ামাতের দিন বান্দার নিকট হইতে সর্বপ্রথম নামাযের হিসাব নেয়া হইবে
১৯৪. অনুচ্ছেদঃ যে ব্যক্তি দৈনিক বার রাকাআত সুন্নাত নামাজ আদায় করে তার ফযিলত
১৯৫. অনুচ্ছেদঃ ফজরের দুই রাকআত সুন্নাতের ফাজিলাত
১৯৬. অনুচ্ছেদঃ ফজরের সুন্নাত এবং তার কিরাআত সংক্ষিপ্ত করা
১৯৭. অনুচ্ছেদঃ ফজরের দুই রাকআত সুন্নাত আদায়ের পর কথাবার্তা বলা
১৯৮. অনুচ্ছেদঃ ফজর শুরু হওয়ার পর দুই রাকআত সুন্নাত ব্যতীত আর কোন নামাজ নেই
১৯৯. অনুচ্ছেদঃ ফজরের সুন্নাত আদায়ের পর শোয়া
২০০. অনুচ্ছেদঃ ইক্বামাত হয়ে গেলে ফরয নামাজ ছাড়া অন্য নামাজ নেই
২০১. অনুচ্ছেদঃ ফজরের সুন্নাত ফরযের আগে আদায় করিতে না পারলে ফরয নামাজ আদায়ের পর তা আদায় করিবে
২০২. অনুচ্ছেদঃ ফজরের দুই রাকআত সুন্নাত ফরযের পূর্বে আদায় করিতে না পারলে তা সূর্য উঠার পর আদায় করিবে

About halalbajar.com

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ ও অন্যান্য দুয়া

লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ ও অন্যান্য দুয়া লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ …

Leave a Reply

%d bloggers like this: