নামাজের ভুল সমুহ । মুয়াত্তা ইমাম মালিক

নামাজের ভুল সমুহ । মুয়াত্তা ইমাম মালিক

নামাজের ভুল সমুহ । মুয়াত্তা ইমাম মালিক, এই অধ্যায়ে হাদীস =৩ টি ( ২১৭-২১৯ পর্যন্ত ) >> মুয়াত্তা ইমাম মালিক এর মুল সুচিপত্র দেখুন

অধ্যায় – ৪ নামাযের ভুলভ্রান্তি

পরিচ্ছেদঃ ১ঃ ভুলভ্রান্তি হলে কি করণীয়

২১৬ আবু হুরাইরা [রাদি.] হইতে বর্ণিতঃ
রাসূলুল্লাহ সাঃআঃ বলেছেন, [এমনও হয়] তোমাদের কেউ যখন নামাযে দাঁড়ায় তখন শয়তান উপস্থিত হয়; অতঃপর তার উপর ইলতিবাস {১} সৃষ্টি করে। ফলে সে কত রাকআত পড়েছে তা স্মরণ করিতে পারে না। তোমাদের কেউ এইরূপ অবস্থার সম্মুখীন হলে তবে সে যেন বসা অবস্থায়ই দুটি [সহু] সিজদা করে নেয়।

[বুখারি ১২৩২, মুসলিম ৩৮৯]{১} التباس [ইলতিবাস]: অস্পষ্টতা, বিজড়ন, জটিলতা।নামাজের ভুল সমুহ -এই হাদীসটির তাহকিকঃ সহীহ হাদীস

২১৭ মালিক [রাহিমাহুল্লাহ] হইতে বর্ণিতঃ
তাঁর কাছে হাদীস পৌঁছেছে যে, রাসূলুল্লাহ সাঃআঃ বলেছেন, আমি ভুলে থাকি অথবা ভুলিয়ে দেয়া হয় এজন্য, যেন আমি হুকুম বা বিধান বর্ণনা করি। [হাদীসটি ঈমাম মালিক [রাহিমাহুল্লাহ] একক ভাবে বর্ণনা করিয়াছেন]

এই হাদীসটির তাহকিকঃ নির্ণীত নয়

২১৮ মালিক [রাহিমাহুল্লাহ] হইতে বর্ণিতঃ
এক ব্যক্তি কাসিম ইবনি মুহাম্মাদ [রাহিমাহুল্লাহ]-কে প্রশ্ন করিল আমি আমার নামাযে সন্দেহে [ওহমে] লিপ্ত হই এবং ইহা আমার প্রায়ই ঘটে থাকে। কাসিম [রাহিমাহুল্লাহ] উত্তর দিলেন তুমি নামায [সমাপ্ত হওয়া পর্যন্ত] পড়তে থাক, শয়তান তোমাকে ছেড়ে যাবে না যতক্ষণ তুমি নামায সমাপ্ত করে এটা না বলবে, আমি নামায সমাপ্ত করিনি। [হাদীসটি ঈমাম মালিক [রাহিমাহুল্লাহ] একক ভাবে বর্ণনা করিয়াছেন]

নামাজের ভুল সমুহ -এই হাদীসটির তাহকিকঃ নির্ণীত নয়

By ইমাম মালিক

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply