নবী [সা] এর ওযু সম্পর্কে

নবী [সা] এর ওযু সম্পর্কে

নবী [সা] এর ওযু সম্পর্কে  >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৭. অধ্যায়ঃ নবী [সা] এর ওযু সম্পর্কে

৪৪৩

আবদুল্লাহ ইবনি যায়দ ইবনি আসিম আল আনসারী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

যিনি রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] এর সাহচর্য লাভ করেছিলেন। রাবী বলেন, তাঁকে বলা হলো যে, রসূল [সাঃআঃ] এর ওযু [কেমন ছিল] আমাদেরকে দেখিয়ে দিন। তখন তিনি পানির পাত্র আনালেন। তারপর তা থেকে দুহাতের ওপর পানি ঢেলে উভয় হাত তিনবার ধুলেন। তারপর পাত্রে হাত ঢুকিয়ে পানি বের করে এক আজলা পানি দ্বারা কুলি করিলেন ও নাকে পানি দিলেন। এরূপ তিনবার করিলেন। পুনরায় পানিতে হাত ঢুকিয়ে পানি নিয়ে তিনবার মুখমণ্ডল ধুলেন। আবার হাত ঢুকিয়ে পানি বের করে দুহাত কনুই পর্যন্ত দুবার করে ধুলেন। তারপর হাত ঢুকিয়ে পানি বের করে মাথার সামনে ও পিছনে দুহাত দিয়ে মাসাহ্‌ করিলেন- তারপর, উভয় পা গিরা পর্যন্ত ধুলেন, এরপর বললেনঃ এরূপ ছিল রসূল [সাঃআঃ] এর ওযু। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৪৬, ইসলামিক সেন্টার- ৪৬২]

৪৪৪

কাসিম ইবনি যাকারিইয়্যা, খালিদ ইবনি মাখলাদ, সুলাইমান ইবনি বিলাল, আমর ইবনি ইয়াহ্‌ইয়া [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তবে তিনি “উভয় পায়ের গিরা পর্যন্ত” ধুয়েছেন এ কথাটি উল্লেখ করেননি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৪৭, ইসলামিক সেন্টার- ৪৬৩]

৪৪৫

আমর ইবনি ইয়াহ্‌ইয়া [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

উক্ত সনদ দ্বারা এভাবেও বর্ণিত হয়েছে যে, তিনি তিনবার কুলি করিলেন এবং নাকে পানি ঢেলে ঝাড়লেন, এক হাতে পানি নিয়ে করিয়াছেন এ কথাটি তিনি বলেননি। অবশ্য এ বাক্যটির পরে নিম্নের বাক্যগুলো বর্ধিত করিয়াছেন; মাথা মাসাহ্‌ করার সময় হাত দুখানা মাথার সম্মুখভাগে রাখলেন এবং পরে তা টেনে মাথার পেছনভাগে নিয়ে গেলেন। অতঃপর আবার পূর্বের জায়গায় অর্থাৎ যেখান থেকে আরম্ভ করেছিলেন সেখানে নিয়ে আসলেন এবং পরে পা দুখানা ধুলেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৪৮, ইসলামিক সেন্টার- ৪৬৪]

৪৪৬

আমর ইবনি ইয়াহ্‌ইয়া [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

উহায়ব [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] বর্ণনা করিয়াছেন যে, আমর ইবনি ইয়াহ্‌ইয়া [রাদি.] থেকে পূর্ব বর্ণিত সানাদের অনুরূপ বর্ণনা করিয়াছেন। তবে এ হাদীসে রাবী বলেন যে, তিনি তিন আঁজলা পানি দ্বারা কুলি করিয়াছেন এবং নাকে পানি দিয়ে নাক ঝেড়েছেন। তিনি আরও বলেছেন যে, তিনি একবার মাত্র মাসাহ্‌ করিয়াছেন তবে হাতগুলো মাথার সম্মুখের দিক থেকে পেছনে টেনে নিয়েছেন। বাহয বলেছেন, উহায়ব এ হাদীসটি আমাকে লিপিবদ্ধ করে দিয়েছেন আর উহায়ব বলেছেনঃ এ হাদীসটি আমর ইবনি ইয়াহ্‌ইয়া আমাকে দুবার লিখিয়েছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৪৯, ইসলামিক সেন্টার- ৪৬৫]

৪৪৭

আবদুল্লাহ ইবনি যায়দ ইবনি আসিম আল মাযানী হইতে বর্ণীতঃ

তিনি রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] কে এভাবে ওযু করিতে দেখেছেন যে, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] কুলি করিলেন, নাকে পানি দিয়ে ঝাড়লেন, অতঃপর মুখমণ্ডল তিনবার ধুলেন। ডান হাত এবং বাম হাত খানাও তিনবার ধুলেন। এরপর হাতের অবশিষ্ট পানি ছাড়া নতুন পানি দিয়ে মাথা মাসাহ্‌ করিলেন। অতঃপর পা দুখানা খুব ভালোভাবে ধুয়ে পরিস্কার করিলেন। আবু তাহির বলেনঃ ইবনি ওয়াহ্‌ব, আম্‌র ইবনি হারিস-এর উদ্ধৃতি দিয়ে আমাদের নিকট এ হাদীসটি বর্ণনা করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫০, ইসলামিক সেন্টার- ৪৬৬]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply