নকশা বিশিষ্ট কাপড়ে নামাজ আদায় করা মাকরূহ

নকশা বিশিষ্ট কাপড়ে নামাজ আদায় করা মাকরূহ

নকশা বিশিষ্ট কাপড়ে নামাজ আদায় করা মাকরূহ >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

১৫. অধ্যায়ঃ নকশা বিশিষ্ট কাপড়ে নামাজ আদায় করা মাকরূহ

১১২৫

আয়িশাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

একদিন নবী [সাঃআঃ] একখানা নকশা অঙ্কিত কাপড়ের মধ্যে নামাজ আদায় করিলেন এবং [নামাজ শেষে] বলিলেন, এ কাপড়ের নকশা ও কারুকার্য আমার মনোযোগ আকর্ষণ করে নিয়েছে। এটা নিয়ে আবু জাহম-এর কাছে যাও এবং তার সাদামাটা মোটা চাদরখানা আমাকে এনে দাও। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ১১১৮, ই.সে ১১২৭]

১১২৬

আয়িশাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, একখানা নকশা ও কারুকার্য করা চাদরে রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] নামাজ আদায় করিতে দাঁড়ালেন। নামাজের মধ্যে তিনি এর নকশার প্রতি দেখিতে থাকেলন। [অর্থাৎ–কাপড়খানার নকশা ও কারুকার্য নামাজে তার একাগ্রতা নষ্ট করে দিলো।] তাই নামাজ শেষে তিনি [সাঃআঃ] বললেনঃ এ চাদরখানা নিয়ে আবু জাহম ইবনি হুযায়ফাহ-এর কাছে যাও। আর আমাকে তার কম্বলখানা এনে দাও। কারণ এ চাদরখানা এখন নামাজের মধ্যে আমাকে অন্যমনস্ক করে ফেলছে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ১১১৯, ই.সে ১১২৮]

১১২৭

আয়েশাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

[তিনি বলেছেনঃ ] নবী [সাঃআঃ] -এর একখানা নক্‌শা করা চাদর ছিল। এ চাদর পরে নামাজ আদায় করিতে তাহাঁর মন সেদিকে আকৃষ্ট হত। সুতরাং তিনি উক্ত চাদর আবু জাহ্‌মকে দিয়ে তাহাঁর সাদামাটা চাদরখানা নিলেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ১১২০, ইসলামিক সেন্টার- ১১২৯]

By najmulislam

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। তবে আমরা রাজনৈতিক পরিপন্থী কোন মন্তব্য/ লেখা প্রকাশ করি না। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই লেখাগুলো ফেসবুক এ শেয়ার করুন, আমল করুন

Leave a Reply