দুনিয়া বিমুখীতা ও পরহেযগারীতা বিষয়ক হাদীস

দুনিয়া বিমুখীতা ও পরহেযগারীতা বিষয়ক হাদীস

দুনিয়া বিমুখীতা ও পরহেযগারীতা >> বুলুগুল মারাম এর মুল সুচিপত্র দেখুন

অধ্যায় -৩ঃ দুনিয়া বিমুখীতা ও পরহেযগারীতা

১৪৬৮. নুমান ইব্‌নু বশীর [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি তাহাঁর দুহাতের আঙ্গুলকে তাহাঁর কানের দিকে ঝুঁকিয়ে [ইঙ্গিত করে] বলেনঃ আমি আল্লাহর রসূল [সাঃআঃ] –কে বলিতে শুনিয়াছি যে, হালাল স্পষ্ট এবং হারামও স্পষ্ট। আর এ দুয়ের মাঝে রয়েছে বহু সন্দেহজনক বিষয়- যা অনেকেই জানে না। যে ব্যক্তি সেই সন্দেহজনক বিষয়সমূহ হতে বেঁচে থাকিবে, সে তার দ্বীন ও মর্যাদা রক্ষা করিতে পারবে। আর যে সন্দেহজনক বিষয়সমূহে লিপ্ত হয়ে পড়ে, তার উদাহরণ সে রাখালের ন্যায়, যে তার পশু বাদশাহ্‌সংরক্ষিত চারণভূমির আশেপাশে চরায়, অচির্ সেগুলোর সেখাবে ঢুকে পড়ার আশংকা রয়েছে। জেনে রাখ যে, প্রত্যেক বাদশাহ্‌রই একটি সংরক্ষিত এলাকা রয়েছে। আরো জেনে রাখ যে, আল্লাহর যমীনে তাহাঁর সংরক্ষিত এলাকা হলো তাহাঁর নিষিদ্ধ কাজসমূহ। জেনে রাখ, শরীরের মধ্যে একটি গোশতের টুকরো আছে, তা যখন ঠিক হয়ে যায়, গোটা শরীরই তখন ঠিক হয়ে যায়। আর তা যখন খারাপ হয়ে যায়, গোটা শরীরই তখান খারাপ হয়ে যায়। জেনে রাখ, সে গোশতের টুকরোটি হল অন্তর। {১৫৭৯}

{১৫৭৯} বোখারী ৫২, ২০৫১, মুসলিম ১৫৯৯, তিরমিজি ১২০৫, নাসাঈ ৪৪৫৩, ৫৭১০, আবু দাঊদ ৩৩২৯, ইবনি মাজাহ ৩৯৮৪, আহম্মদ ১৭৮৮, ১৭৯০৩, দারিমী ২৫৩১। দুনিয়া বিমুখীতা হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

১৪৬৯. আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেন, লাঞ্ছিত হোক দীনার ও দিরহামের গোলাম এবং চাদর ও শালের গোলাম। তাকে দেয়া হলে সন্তুষ্ট হয়, না দেয়া হয়ে অসন্তুষ্ট হয়। {১৫৮০}

{১৫৮০} বোখারী ২৮৮৫, ২৮৮৬, ৬৪৩৫, তিরমিজি ২৩৭৫, ইবনি মাজাহ ৪১৩৬। দুনিয়া বিমুখীতা হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

১৪৭০. আবদুল্লাহ ইবনি উমার [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] একবার আমার দুকাঁধ ধরে বললেনঃ তুমি দুনিয়াতে থাক যেন তুমি একজন প্রবাসী অথবা পথচারী। আর ইবনি উমার [রাদি.] নিজে বলিতেন, তুমি সন্ধ্যায় উপনীত হলে সকালের আর অপেক্ষা করো না এবং সকালে উপনীত হলে সন্ধ্যার আর অপেক্ষা করো না। তোমার সুস্থতার সময় তোমার পীড়িত অবস্থান জন্য প্রস্তুতি লও। আর তোমার জীবিত অবস্থায় তোমার মৃত্যুর জন্য প্রস্তুতি লও। {১৫৮১}

{১৫৮১} বোখারী ৬৪১৬, তিরমিজি ২৩৩৩, ইবনি মাজাহ ৪১১৪, আহম্মদ ৪৭৫০, ৪৯৮২। দুনিয়া বিমুখীতা হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

১৪৭১. ইবনি উমার [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ যে ব্যাক্তি কোন সম্প্রদায়ের অনুকরণ করিবে সে এ সম্প্রদায়ের বলেই গণ্য হইবে। {১৫৮২}

{১৫৮২} আবু দাঊদ ৪০৩১। দুনিয়া বিমুখীতা হাদিসের তাহকিকঃ হাসান হাদিস

১৪৭২. আবদুল্লাহ ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি একদিন নাবী [সাঃআঃ] এর পিছনে ছিলাম তিনি বলিলেন, হে বালক! তুমি আল্লাহর হাক্ব রক্ষা কর, আল্লাহর তোমার হিফাযাত করবেন। আল্লাহকে ধ্যানে রাখ, তাঁকে তোমার সামনে পাবে [তোমার সহযোগী থাকিবেন]। আর যখন প্রার্থনা কর আল্লাহর নিকটেই প্রার্থনা করিবে। আর যখন সাহায্য চাবে তখন আল্লাহর নিকটেই সাহায্য চাবে। {১৫৮৩}

{১৫৮৩} তিরমিজি ২৫১৬, আহম্মদ ২৬৬৪, ২৭৫৮, ২৮০০। দুনিয়া বিমুখীতা হাদিসের তাহকিকঃ হাসান হাদিস

১৪৭৩. সাহল ইবনি সাদ-সাইদী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, এক ব্যক্তি নাবী [সাঃআঃ] এর নিকট উপস্থিত হয়ে বললো, হে আল্লাহর রাসূল! আমাকে এমন একটি কাজের কথা বলে দিন যা আমি করলে আল্লাহ আমাকে ভালোবাসবেন এবং লোকেরাও আমাকে ভালোবাসবেন। রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেনঃ তুমি দুনিয়ার প্রতি অনাসস্তি অবলম্বন করো তাহলে আল্লাহ তোমাকে ভালোবাসবেন। মানুষের নিকট যা আছে, তুমি তার প্রতি অনাসক্ত হয়ে যাও, তাহলে তারাও তোমাকে ভালোবাসবে। {১৫৮৪}

{১৫৮৪} ইবনি মাজাহ ৪১০২। সমার্থক হাদিসের ভিত্তিতে হাদিসটি হাসান; তাওযিহুল আহকাম ৭/৩৬৯. দুনিয়া বিমুখীতা হাদিসের তাহকিকঃ হাসান হাদিস

১৪৭৪. সাদ ইবনি আবু ওয়াক্কাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেনঃ আমি রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] কে বলিতে শুনিয়াছি, নিশ্চয়ই আল্লাহ ঐ বান্দাকে ভালবাসেন যে বান্দাহ ধর্মভীরু [পাপ কাজ হতে বিরত থাকে,] মুখাপেক্ষীহীন [আল্লাহ ছাড়া কারো উপর নির্ভরশীল নয়] ও আত্মগোপনকারী [নিজের গুণ প্রকাশে অনিচ্ছুক]। {১৫৮৫}

{১৫৮৫} মুসলিম ২৯৬৫, আহম্মদ ১৪৪৪, ১৫৩২। দুনিয়া বিমুখীতা হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

১৪৭৫. আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেন, মুসলি ব্যক্তির অপ্রয়োজনীয় বস্তু পরিহার করার মধ্যেই ইসলামের সৌন্দর্য বিরাজ করছে। {১৫৮৬}

{১৫৮৬} তিরমিজি ২৩১৮, মালেক ১৬৭২। হাদিসটি মুরসাল; তাওযিহুল আহকাম ৭/৩৭৪,. দুনিয়া বিমুখীতা হাদিসের তাহকিকঃ মুরসাল

১৪৭৬. মিক্বদাম ইবনি মাদী কারিব [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেনঃ রাসূলু্ল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ মানুষ যে পাত্র ভর্তি করে তন্মধ্যে পেট হচ্ছে সবচেয়ে মন্দ পাত্র। {১৫৮৭}

{১৫৮৭} তিরমিজি ২৩৮০, ইবনি মাজাহ ৩৩৪৯, আহম্মদ ১৬৭৩৫। দুনিয়া বিমুখীতা হাদিসের তাহকিকঃ হাসান হাদিস

১৪৭৭. আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনিবলেন ,রাসুলুল্লাহ সাঃআঃ বলেছেন, প্রত্যেক মানুষই ভুল- ত্রুটিকারী আর ভুল- ত্রুটিকারীদের মধ্যে যারা তাওবাহ করে তারাই উত্তম । {১৫৮৮}

{১৫৮৮} তিরমিজি ২৪৯৯, ইবনি মাজাহ ৪২৫১, আহম্মদ ১২৬৭, দারিমী ২৭২৭। দুনিয়া বিমুখীতা হাদিসের তাহকিকঃ হাসান হাদিস

১৪৭৮. আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাঃআঃ বলেছেন, নীরবতা অবলম্বন বুদ্ধিমত্তার পরিচায়ক কিন্তু এটা পালনকারীর সংখ্যা খুব অল্প। {১৫৮৯}

{১৫৮৯} আবু দাউদ ৪৯০৩। ইবনি উসাইমীন তাহাঁর শরহে বুলুগুল মারামে ৬/৩৪৯ গ্রন্থে বলেন, এটি আল্লাহ্‌র রাসূলের কথা নয়, বরং এটি লুকমান হাকীম বা অন্য কারো কথা। ঈমাম বাইহাকী তাহাঁর শুআবুল ঈমাম গ্রন্থে বলেন,……এতে উসমান বিন সাঈদ আল কাতিব রয়েছেন। শাইখ আলবানী সিলসিলা যঈফা ২৪২৪, যঈফুল জামে ৩৫৫৫ এ হাদিসটিকে জঈফ বলেছেন। বাইহাকী শুআবুল ঈমান ৫০২৭, হাকিম ২য় খণ্ড ৪২২-৪২৩ পৃষ্ঠা। দুনিয়া বিমুখীতা হাদিসের তাহকিকঃ অন্যান্য

By ইবনে হাজার আসকালানী

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। তবে আমরা রাজনৈতিক পরিপন্থী কোন মন্তব্য/ লেখা প্রকাশ করি না। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই লেখাগুলো ফেসবুক এ শেয়ার করুন, আমল করুন

Leave a Reply