নতুন লেখা

মেযবানের দাওয়াত ছাড়াই যদি কেউ মেহমানের পশ্চাদানুসরণ করে ..

মেযবানের দাওয়াত ছাড়াই যদি কেউ মেহমানের পশ্চাদানুসরণ করে

মেযবানের দাওয়াত ছাড়াই যদি কেউ মেহমানের পশ্চাদানুসরণ করে >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

১৯. অধ্যায়ঃ মেযবানের দাওয়াত ছাড়াই যদি কেউ মেহমানের পশ্চাদানুসরণ করে তবে মেহমান কি করিবে? পশ্চাদানুসারীদের জন্য মেযবান থেকে অনুমতি নিয়ে নেয়া মুস্তাহাব।

৫২০৪

আবু মাসউদ আনসারী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

আবু শুআয়ব নামধারী এক আনসারী ব্যক্তি ছিল। তার একজন কসাই দাস ছিল। লোকটি একদিন রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-কে দেখে তাহাঁর অবয়বে ক্ষুধার আভাস অনুভব করলো। পরে তার গোলামকে বলিল, তোমার কল্যাণ হোক আমাদের পাঁচজনের জন্য তুমি খাবার তৈরী করো। কেননা আমি পঞ্চম ব্যক্তি হিসেবে নবী [সাঃআঃ]-কে দাওয়াত দিতে ইচ্ছা পোষণ করেছি। তখন সে খাবার তৈরী করলো। তারপর লোকটি নবী [সাঃআঃ] এর কাছে এসে তাঁকে সহ পাঁচজনকে দাওয়াত দিল। জনৈক লোক তাঁদের পিছু অনুসরণ করলো। দরজা পর্যন্ত পৌঁছলে নবী [সাঃআঃ] বললেনঃএ লোকটি আমাদের পিছু পিছু এসেছে। তুমি চাইলে তাকে অনুমতি দিতে পার, আর যদি ইচ্ছা কর তবে সে প্রত্যাবর্তন করিবে। লোকটি বলিল, না। বরং আমি তাকে অনুমতি দিচ্ছি, হে আল্লাহর রসূল! [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১৩৬, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৪৮]

৫২০৫

আবু মাসউদ [রাদি.]-এর সনদ হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] হইতে জারীর [রাদি.]-এর হাদীসের অবিকল হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন।

কিন্তু নাসর ইবনি আলী পুরো সানাদ হাদ্দাসানা দিয়ে বর্ণনা করিয়াছেন এবং পুরো হাদীসটি বর্ণনা করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১৩৭, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৪৯]

৫২০৬

জাবির [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

ভিন্ন সূত্রে সালামাহ ইবনি শাবীব [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] … আবু মাসউদ [রাদি.]-এর সনদে নবী [সাঃআঃ] হইতে হাদীস রিওয়ায়াত করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৫১৩৮, ইসলামিক সেন্টার- ৫১৫০]

৫২০৭

আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]–এর একজন ইরানী প্রতিবেশী ভাল সালুন রান্না করিতে পারতো। একদা সে রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]–এর জন্য সামান্য খাবার তৈরী করে তাঁকে দাওয়াত করিতে আসলো। তিনি আয়িশা [রাদি.]– এর দিকে ইশারা করে বলিলেন এই যে, আয়েশাহ আছেন। সে বলিল, না। রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেনঃ [তাহলে আমিও] না। লোকটি আবার তাঁকে দাওয়াত করিল। রাসূলুল্লাহ বললেনঃ ইনিও {আয়িশা [রাদি.]}? সে বলিল, না রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেনঃ [আমিও] না। এরপর সে পুনরায় তাঁকে দাওয়াত করিতে আসলো। রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেনঃ ইনিও? লোকটি তৃতীয়বার বলিল, হ্যাঁ। তারপর তাঁরা উভয়েই দাঁড়ালেন এবং একজনের পিছনে আরেকজন চলে তার গৃহে এসে পৌঁছলেন। [ই ফা. ৫১৩৯, ই সে, ৫১৫১]

About halalbajar.com

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে”

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে” মহান আল্লাহর …

Leave a Reply

%d bloggers like this: