ত্বল্হা ইবনু উবাইদুল্লাহ (রাদি.)-এর উল্লেখ।

ত্বল্হা ইবনু উবাইদুল্লাহ (রাদি.)-এর উল্লেখ।

ত্বল্হা ইবনু উবাইদুল্লাহ (রাদি.)-এর উল্লেখ। >> বুখারী শরীফ এর মুল সুচিপত্র পড়ুন

৬২/১৪. অধ্যায়ঃ ত্বল্হা ইবনু উবাইদুল্লাহ (রাদি.)-এর উল্লেখ।

৩৭২২

আবু ওসমান (রাদি.) হইতে বর্ণিতঃ

তিনি বলেন, যে সব যুদ্ধে আল্লাহর রাসুল (সাঃআঃ) স্বয়ং যোগদান করেছিলেন, তন্মধ্যে এক যুদ্ধে আল্লাহর রাসুল (সাঃআঃ)-এর সঙ্গে কোন এক সময় ত্বলহা ও সাদ (রাদি.) ছাড়া অন্য কেউ ছিলেন না। আবু ওসমান (রাদি.) তাঁদের উভয় হইতে এ হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন।

(আঃপ্রঃ ৩৪৪৫, ইঃফাঃ ৩৪৫২)

৩৭২৩

আবু ওসমান (রাদি.) হইতে বর্ণিতঃ

তিনি বলেন, যে সব যুদ্ধে আল্লাহর রাসুল (সাঃআঃ) স্বয়ং যোগদান করেছিলেন, তন্মধ্যে এক যুদ্ধে আল্লাহর রাসুল (সাঃআঃ)-এর সঙ্গে কোন এক সময় ত্বলহা ও সাদ (রাদি.) ছাড়া অন্য কেউ ছিলেন না। আবু ওসমান (রাদি.) তাঁদের উভয় হইতে এ হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন।

(আঃপ্রঃ ৩৪৪৫, ইঃফাঃ ৩৪৫২)

৩৭২৪

কাইস ইবনু আবু হাযিম (রহমাতুল্লাহি আলাইহি) হইতে বর্ণিতঃ

তিনি বলেন, আমি ত্বলহা (রহমাতুল্লাহি আলাইহি)-এর ঐ হাতকে অবশ অবস্থায় দেখেছি, যে হাত দিয়ে (উহুদ যুদ্ধে) নাবী (সাঃআঃ)-কে রক্ষা করেছিলেন।

(আঃপ্রঃ ৩৪৪৬, ইঃফাঃ ৩৪৫৩)

By ইমাম বুখারী

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply