তাফসীরে জালালাইন pdf Tafsir Jalalain Bangla

তাফসীরে জালালাইন

তাফসীরঃ তাফসীরে জালালাইন
তাফসীর পরিচিতিঃ তাফসির আল জালালাইন
লেখকঃ আল্লামা জালালুদ্দীন মুহাম্মদ ইবনে আহমদ ইবনে মুহাম্মদ আল মহল্লি
সম্পূর্ণ নামঃ আল্লামা জালালুদ্দীন মুহাম্মদ ইবনে আহমদ ইবনে মুহাম্মদ আল মহল্লি
জন্মস্থানঃ
জন্মঃ ৭৯১ হিজরি
মৃত্যুঃ ৮৬৪ হিজরি
লেখকঃ হাফেজ ইমাম জালালুদ্দীন সুয়ুতী
সম্পূর্ণ নামঃ আল্লামা জালালুদ্দীন আব্দুর রহমান ইবনে আবী ৰকর আস সুস্তী
জন্মস্থানঃ কায়রো 
জন্মঃ ৮৪৯ হিজরি
মৃত্যুঃ ৯১১ হিজরি
শব্দবিন্যাসঃ আল মাহমুদ কম্পিউটার হোম, ৩০/৩২ বাংলাবাজার, ঢাকা ১১০০
প্রকাশনীঃ ইসলামিয়া অফসেট প্রেস, প্যারীদাস রোড, ঢাকা ১১০০

তার নাম মুহাম্মদ ; উপাধি জালালুদ্দীন । পিতার নাম আহমদ দাদার নাম মুহাম্মদ । তিনি তার উপাধি ‘জালালুদ্দীন’ নামেই সর্বাধিক প্রসিদ্ধি লাভ করেন । আর নামের শেষে মহল্লী বলা হয় এজন্যে যে, মহল্লা কুবরা হল একটি সুপ্রসিদ্ধ শহরের নাম । যা পশ্চিম মিশরে অবস্থিত । মহল্লা কুবরা’র সাথে সম্পর্কিত করে তাকে মহল্লী বলা হয় : আল্লামা জালালুদ্দীন মহল্লী ।

তাফসীরে জালালাইন pdf ছারাও পড়তে পারেন কোরআন শরিফের তাফসির। ২০ টির অধিক তাফসীর ডাউনলোড ও পবিত্র কোরআন শরীফ এর ১১৪ টি সুরা বাংলা অনুবাদ ও mp3 সহ

তাফসীরে জালালাইন সকল খন্ড

তাফসীরে জালালাইনের বৈশিষ্ট্য

পবিত্র কুরআনের তাফসীর জানার ক্ষেত্রে আল্লামা জালালুদ্দীন সুযূতী ও জালালুদ্দীন মহল্লী (র.) প্রণীত তাফসীরে জালালাইন গ্রন্থটি একটি প্রাথমিক ও পূর্ণাঙ্গ বাহন। রচনাকাল থেকেই সকল ধারার মাদরাসা ও কুরআন গবেধণাকেন্দ্রে এ মূল্যবান তাফসীরটি সমভাবে সমাদৃত । কারণ বাহ্যিক বিচারে এটি অতি সংক্ষিপ্ত তাফসীর হলেও গভীর দৃষ্টিতে এটি সকল তাফসীরের সারনির্যাস।

হাজার হাজার পৃষ্ঠা ব্যাপী রচিত কোনো তাফসীর গ্রন্থের অনেক পষ্ঠা অধাযুন করে অতি কষ্টে যে তথ্যের খোজ পাওয়া যায়, তাফসীরে জালালাইনের আয়াতের ফাকে ফাঁকে স্থান পাওয়া এক-দুই শব্দেই তা মিলে যায় যেন মহ’মুদ্রকে ক্ষুদ্র পেয়ালায় ভরে দেওয়া হয়েছে। একাধিক সন্তাবনাময় কাহ্যার আহ্দে সর্কাধিক বিশুদ্ধ ও প্রাধান্যপ্রাণ্ত ব্যাধ্যাটি কোনো প্রকার অনুসন্ধান ছাড়াই অনায়াসে পাওয়া যায়।

তাফসীর গ্রস্থসসূহের ব্যপক অধ্যয়ন করলে এ সত্যটি সহজে অনুধাবন করা যাবে । ছাত্রজীবন থেকেই তাফসীরে জালালাইন pdf এর প্রতি আমার বিশেষ আগ্রহ ছিল। জামিয়া শারইয়্যাহ মালিবাগের ব্যাতিমান উস্তাদ, মুহাক্কিক আলেম মাওলানা আহমদ মায়মূন সাহেবের উৎসাহ-উদ্দীপনায় জালালাইনের সর্ববৃহৎ আরবি শরাহ আল্লামা সুলাইমান জামাল প্রণীত ওরফে ‘হাশিয়াতুল জামাল’ মুতালার সুযোগ হয়েছিল।

একটু আধটু যাই বুঝেছিলাম তাতে এ অনুভূতি হয়েছিল যে, উর্দু কামালাইন আর আরবি হাশিয়াতুল জামাল কিছুতেই একটি অপরটির বিকল্প হতে পারে না। দুটি ভিন্ন ভিন্ন বস্তু । কিতাব ‘হল’ করতে হলে হাশিয়াতুল জামালের কোনো তুলনা হয় না । ফারাগাতের কয়েক বছর পর আল্লাহ তা’আলার মেহেরবানিতে বাংলাদেশের প্রাচীনতম দীনি শিক্ষাকেন্্র নারায়ণগঞ্জের এতিহ্যবাহী মাদরাসা

দেওভোগে দরসী খেদমতের সুযোগ হয়। প্রথম বছরই আমার দায়িতেে আসে সেই প্রিয় কিতাব তাফসীরে জালালাইনের প্রথম খণ্ড। আরবি-উর্দু শরাহ ও নানা তাফসীর গ্রন্থের সাহায্যে এক বছর যথাসম্ভব শ্রম দিয়ে পড়ালাম । পরের বছর চিন্তায় এলো সহায়ক গ্রন্থাবলি থেকে সংগৃহীত তথ্য-উপাত্তগুলো যদি সুবিন্যস্তভাবে সংকলন করে রাখা যায় তাহলে ভবিষ্যতে মুতালা করতে সহজ হবে।

এ চিন্তা থেকেই প্রথমে উলুমুল কুরআন তথা কুরআন ও তাফসীর সংক্রান্ত একটি ভূমিকা তৈরি করি, যা “মুকাদ্দামায়ে জালালাইন’ নামে ভিনুভাবে ছাপা হয়েছে। তারপর মূল কিতাবের ব্যাখ্যা ও তাকরীর লিখতে শুরু করি। হাশিয়াতুল জামাল, হাশিয়াতুস সাবী, কামালাইন, তাফসীরে উসমানী, তাফসীরে মাজেদী, তাফসীরে মা’আরিফুল কুরআন [-মুফতী শফী (র.)] ও মা’আরিফুল কুরআন

আল্লামা ইদরীস কাহ্ধলতী (র.)] ইত্যাদি তাফসীর গ্রন্থ ধারাবাহিক অধ্যয়নের মাধ্যমে অধ্যাপনার ফাকে ফাকে অল্প বিস্তর করে লেখা চলতে থাকল । কিছুদিন পর বাজারে এলো আরেকটি উর্দু শরাহ জামালাইন। তাও সংগ্রহ করলাম । যেহেতু কোনো একটি উর্দু শরাহ অনুবাদ করে প্রকাশ করার ইচ্ছা আমার ছিল না, তাই সবগুলো শরাহ গভীরভাবে অধ্যয়ন করে যে কথা ও বিশ্লেষণগুলো যথার্থ পরিচ্ছন্ন ও ছাত্রদের জন্য উপযোগী এবং জরুরি মনে হয়েছে, সেগুলোই কেবল সযতেে সহজে উপস্থাপন করার চেষ্টা করেছি। এভাবে দীর্ঘ তিন বছরে তিলে তিলে সম্পন্ন হয় প্রথম তিন পারার ব্যাখ্যা ।

এ বিষয়ে বাংলাবাজারস্থ স্বনামধন্য প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান ইসলামিয়া কুতুবখানার স্বত্বাধিকারী মাওলানা মোস্তফা সাহেবের সাথে দীর্ঘ আলোচনার পর জানতে পারলাম যে, তিনি একাধিক লেখকের যৌথ প্রয়াসে তাফসীরুল জালালাইনের বাংলা ব্যাখ্যাগ্রস্থ ছাপার উদ্যোগ নিয়ে কাজ শুরু করেছেন।

ইতোমধ্যে তার উদ্যোগে ঢাকাস্থ বড় কাটারা মাদরাসার সাবেক ভাইস প্রিন্সিপ্যাল মাওলানা আমীরুল ইসলাম ফরদাবাদী [দা. বা.. প্রথম পারার এবং দারুল উলৃম পাটলি মাদরাসা, সুনামগঞ্জ -এর মুহাদ্দিস, মাওলানা হাবীবুর রহমান হবিগঞ্জী [দা. বা.] চতুর্থ পারা ও পঞ্চম পারার অর্ধাংশের পাণুলিপি তৈরি করেছেন। এদিকে আমি প্রথম তিন পারার পাণুলিপি তৈরি করেছিলাম । আর কর্তৃপক্ষের পরিকল্পনা হচ্ছে প্রথম পাচ পারা একত্রে এক ভলিয়মে প্রকাশ করা । সেক্ষেত্রে আমাদের তিনজনের পাণুলিপি একত্রে মিলালে সাড়ে চার পারা হয়ে যায়।

অবশিষ্ট রইল পঞ্চম পারার বাকি অর্ধাংশের কাজ । অবশেষে ইসলামিয়া কুতুবখানার স্বত্বাধিকারীর অনুরোধে পঞ্চম পারার অসমাপ্ত কাজটুকু আমাকেই সম্পন্ন করতে হয়েছে।

এরপর আমাদের তিনজনের লেখা পাণুলিপিকে ইসলামিয়া সম্পাদনা পর্ষদের সুদক্ষ সম্পাদক মণ্ডলীর কাছে অর্পণ করা হয়। তারা এতে প্রয়োজনীয় সংযোজন-বিয়োজন ও সংশোধন করে কিতাবটিকে যথাসাধ্য সুন্দর ও সমৃদ্ধ করার শেষ চেষ্টাটুকু করেছেন । এ বিষয়ে তাদের বিচক্ষণতাপূর্ণ দূরদৃষ্টি, বিজ্ঞতাসুলভ পদক্ষেপ ও সুন্দর পরামর্শের জন্য আমরা তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। আল্লাহ তাদেরকে জাযায়ে খায়ের দান করুন!

আশা করি কিতাবটি ছাত্র-শিক্ষক উভয়েরই যথেষ্ট উপকারে আসবে । কিতাবটিকে নিখুঁত ও নির্ভুল করার আপ্রাণ চেষ্টা করা হয়েছে। তথাপি তথ্যগত কোনো ভুল কারো দৃষ্টিগোচর হলে তা আমাদেরকে অবগতির বিনীত অনুরোধ রইল। পরবর্তী সংস্করণে তা শুধরে দেব ইনশাআল্লাহ!

কিতাবটি প্রকাশনার এ আনন্দঘন মুহূর্তে আমি অত্যন্ত শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করছি সেসব উত্তাদগণের কথা, ধাদের কাছে আমি “তাফসীরে জালালাইন’ পড়েছি। আল্লাহ আসাতোযায়ে কেরামকে দুনিয়া ও আখিরাতে কল্যাণ দান করুন!

আল্লাহ এ কিতাবটিকে কবুল করুন! কিতাবটিকে এর লেখকমণ্ডলী, সম্পাদকমণ্ডলী ও প্রকাশকসহ এর সাথে সংশ্লিষ্ট সকলের নাজাতের অসিলা হিসেবে কবুল করে নিন! আমীন!

তাফসীরে জালালাইন লেখকদের পক্ষে

আব্দুল গাফফার শাহপুরী

তাফসীরে জালালাইন pdf

আমাদের এই তাফসীর টি বিভিন্ন নামে খুজতে পারেন যেমন তাফসীরে জালালাইন pdf, তাফসীরে জালালাইন , তাফসীরে জালালাইন বাংলা , তাফসীরে জালালাইনের বৈশিষ্ট্য ইত্যাদি।

তাফসীরে জালালাইন pdf বই গুলো আপনার প্রয়োজন হলে নিচে Leave a Reply এ গিয়ে Comment করুন । Enter your comment here… এখানে বিস্তারিত লিখুন, তাহলে আমরা আপনাকে বইটি পাঠিয়ে দিব, ইনশাআল্লাহ।

By কুরআন তাফসীর

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

2 comments

  1. তাফসীরে জালালাইন (উলুমুল কুরআন ওয়াল হাদীস ১ম)

  2. আমি তাফসীর গ্রন্থটির পিডিএফ পেতে চাই

Leave a Reply