জুলুম করে জায়গা-জমি এবং অন্যান্য কিছু জোর পূর্বক দখল করা হারাম

জুলুম করে জায়গা-জমি এবং অন্যান্য কিছু জোর পূর্বক দখল করা হারাম

জুলুম করে জায়গা-জমি এবং অন্যান্য কিছু জোর পূর্বক দখল করা হারাম >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৩০. অধ্যায়ঃ জুলুম করে জায়গা-জমি এবং অন্যান্য কিছু জোর পূর্বক দখল করা হারাম

৪০২৪

সাঈদ ইবনি যায়দ ইবনি আম্‌র ইবনি নুফায়ল [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ যে ব্যক্তি কারও এক বিঘত [অর্ধহাত] জমি দখল করিবে কিয়ামতের দিন আল্লাহ তার গলায় সাত স্তর যমীন বেড়িরূপে পরিয়ে দেবেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৯৮৭, ইসলামিক সেন্টার-৩৯৮৬]

৪০২৫

সাঈদ ইবনি যায়দ ইবনি আমর ইবনি নুফায়ল [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

আরওয়া নামক এক মহিলা বাড়ীর কিছু অংশ নিয়ে তার সাথে ঝগড়া বাধায়। তিনি বলিলেন, তোমরা ওকে বলিতে দাও এবং তার দাবীকৃত জমি ছেড়ে দাও। কারণ, আমি রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]- কে বলিতে শুনেছিঃ যে কেউ অন্যায়ভাবে এক বিঘত জমি জবর দখল করিবে কিয়ামতের দিন তাকে সাত স্তর জমিনের বেড়ি [তার গলায়] পরিয়ে দেয়া হইবে।

اللَّهُمَّ إِنْ كَانَتْ كَاذِبَةً فَأَعْمِ بَصَرَهَا وَاجْعَلْ قَبْرَهَا فِي دَارِهَا

হে আল্লাহ! আরওয়া যদি মিথ্যাবাদিনী হয় তবে তার চোখ অন্ধ করে দিন এবং তার ঘরেই তার কবর করুন।

রাবী বলেন, পরবর্তীকালে আমি আরওয়াকে অন্ধ অবস্থায় দেখেছি, প্রাচীরে প্রাচীরে সে আঘাত খেয়ে খেয়ে চলত। সে বলতো, সাঈদ ইবনি যায়দের বদ্‌দুআ আমার লেগেছে। একদিন সে বাড়ির মধ্যে চলাচল করছিল। বাড়ির মধ্যে এক কুয়ার কাছ দিয়ে যাওয়ার সময় সে তাতে পড়ে যায়, কুয়াই তার কবর হয়। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৯৮৮, ইসলামিক সেন্টার-৩৯৮৭]

৪০২৬

উরওয়াহ্‌ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

আরওয়া বিনতু উওয়ায়স সাঈদ ইবনি যায়দ [রাদি.]-এর উপর দাবী করেন যে, তিনি আরওয়ার জমির কিছু অংশ জবর দখল করিয়াছেন। সে মারওয়ান ইবনি হাকামের [উমাইয়াহ্‌ শাসক] নিকট এর বিচার দাবি করে। সাঈদ বললেনঃ আমি কী রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] -এর থেকে ঐ কথা শোনার পরে তার জমির কিছু অংশ জবর দখল করিতে কেমন করে পারি? তিনি বলিলেন, আপনি রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] থেকে কী কথা শুনেছেন? তিনি বলিলেন, আমি রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] -কে বলিতে শুনেছিঃ যে ব্যক্তি এক বিঘত পরিমাণ জমি জোরপূর্বক দখল করিবে কিয়ামতের দিন তাকে সাত স্তর জমিনের বেড়ি [তার গলায়] পরিয়ে দেয়া হইবে। মারওয়ান বলিলেন, এরপর আপনার নিকট আর প্রমাণের কথা জিজ্ঞেস করব না। এরপর সাঈদ বলিলেন,

اللَّهُمَّ إِنْ كَانَتْ كَاذِبَةً فَعَمِّ بَصَرَهَا وَاقْتُلْهَا فِي أَرْضِهَا

হে আল্লাহ! আরওয়া যদি মিথ্যাবাদিনী হয় তবে তার দুচোখ অন্ধ করে দিন এবং তার জমিতে তাকে মৃত্যুদান করুন।

বর্ণনাকারী বলেন, এরপর সে অন্ধ না হওয়া পর্যন্ত মৃত্যুবরণ করেনি। পরে তার জমিতে চলার সময় হঠাৎ এক গর্তে পড়ে মারা যায়। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৯৮৯, ইসলামিক সেন্টার-৩৯৮৮]

৪০২৭

সাঈদ ইবনি যায়দ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি নবী [সাঃআঃ] -কে বলিতে শুনেছিঃ যে ব্যক্তি জোরপূর্বক এক বিঘত পরিমাণ জমি দখল করিবে, কিয়ামতের দিন তাকে সাত স্তর জমির বেড়ি পরিয়ে দেয়া হইবে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৯৯০, ইসলামিক সেন্টার-৩৯৮৯]

৪০২৮

আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ কেও যদি এক বিঘত জমি না-হকভাবে জবর দখল করে কিয়ামতের দিন আল্লাহ তাকে সাত স্তর যমীনের বেড়ি পরিয়ে দিবেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৯৯১, ইসলামিক সেন্টার-৩৯৯০]

৪০২৯

মুহাম্মাদ ইবনি ইব্‌রাহীম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

আবু সালামাহ্‌ [রাদি.] তাহাঁর কাছে বর্ণনা করিয়াছেন। তার ও তার গোত্রের মাঝে একটি জমি নিয়ে ঝগড়া হয়েছিল। তিনি আয়িশা [রাদি.]-এর কাছে গমন করেন এবং তাঁকে সে বিষয়ে বলেন। আয়িশা [রাদি.] বলেন, হে আবু সালামাহ্‌! জমি থেকে বেঁচে থাকো। কেননা রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলছেনঃ যে ব্যক্তি এক বিঘত পরিমাণ জমি জুলুম করে নিবে তাঁকে সাত স্তর জমির বেড়ি পরানো হইবে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৯৯২, ইসলামিক সেন্টার-৩৯৯১]

৪০৩০

মুহাম্মাদ ইবনি ইব্‌রাহীম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

আবু সালামাহ্‌ [রাদি.] তাঁকে বলেছেন যে, তিনি আয়িশা [রাদি.]-এর নিকত উপস্থিত হন। অতঃপর উক্ত রূপ বর্ণনা করেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৯৯৩, ইসলামিক সেন্টার-৩৯৯২]

By Muslim

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply