নতুন লেখা

জান্নাতীদের অধিকাংশই দুঃস্থ গরীব এবং জাহান্নামীদের অধিকাংশই মহিলা

জান্নাতী দের অধিকাংশই দুঃস্থ-গরীব এবং জাহান্নামীদের অধিকাংশই মহিলা

জান্নাতী দের অধিকাংশই দুঃস্থ-গরীব এবং জাহান্নামীদের অধিকাংশই মহিলা >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

২৬. অধ্যায়ঃ জান্নাতী দের অধিকাংশই দুঃস্থ-গরীব এবং জাহান্নামীদের অধিকাংশই মহিলা আর মহিলা জাতির ফিতনাহ্‌ প্রসঙ্গে

৬৮৩০ : উসামাহ্‌ ইবনি যায়দ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ [মিরাজের রাতে] আমি জান্নাতের প্রবেশদ্বারে দাঁড়ালাম। প্রত্যক্ষ করলাম, যারা জান্নাতে প্রবেশ করছে তাদের অধিকাংশই দরিদ্র শ্রেণী, মিস্‌কীন আর ধনীদেরকে দেখলাম বন্দী অবস্থায়। যারা জাহান্নামবাসী হিসেবে পরিগণিত হয়েছে তাদেরকে জাহান্নামে নিয়ে যাওয়ার আদেশ করা হয়েছে। আর আমি জাহান্নামের প্রবেশদ্বারে দাঁড়িয়ে দেখলাম যে, যারা জাহান্নামে প্রবেশ করেছে তাদের অধিকাংশই মহিলা জাতি।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৮৬, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৪১]

৬৮৩১ : ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, মুহাম্মাদ [সাঃআঃ] বলেছেন, আমি জান্নাতের দিকে উঁকি দিলাম, আর দেখিতে পেলাম, তার অধিকাংশই দুঃস্থ গরীব লোক। তারপর জাহান্নামের দিকে উঁকি দিলাম, আর দেখিতে পেলাম জাহান্নামবাসীদের অধিকাংশই মহিলা জাতি।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৮৭, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৪২]

৬৮৩২ : ইসহাক্ ইবনি ইব্রাহীম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] এ সূত্র হইতে বর্ণীতঃ

অবিকল হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৮৮, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৪৩]

৬৮৩৩ : ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] জাহান্নামের দিকে উঁকি দিলেন। অতঃপর আবুল আশহাব আইয়ূব-এর বর্ণিত হাদীসের অবিকল বর্ণনা করেন।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৮৯, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৪৩]

৬৮৩৪ :ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ …… এরপর সাঈদ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] তার হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৯০, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৪৪]

৬৮৩৫ : আবু তাইয়্যাহ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, মুতার্‌রিফ ইবনি আবদুল্লাহ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি]-এর দু স্ত্রী ছিল। তিনি একবার তাদের একজনের নিকট হইতে আসলেন। তখন অপরজন বলিল, আপনি তো অমুকের কাছ হইতে আসছেন। তিনি বলিলেন, আমি ইমরান ইবনি হুসায়ন [রাদি.]-এর নিকট হইতে এসেছি। তিনি আমাদের নিকট হাদীস বর্ণনা করিলেন যে, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ জান্নাতে মহিলা জাতি সবচেয়ে কম।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৯১, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৪৫]

৬৮৩৬ :আবু তাইয়্যাহ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি মুতার্‌রিফকে হাদীস বর্ণনা করিতে শুনেছি যে, “সত্যিই তার দুজন স্ত্রী ছিল”। মুআয-এর হাদীসের মর্মে অবিকল হাদীস।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৯২, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৪৬]

৬৮৩৭ : আবদুল ইবনি উমর [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর দুআর মধ্যে একটি ছিল এই যে,

اللَّهُمَّ إِنِّي أَعُوذُ بِكَ مِنْ زَوَالِ نِعْمَتِكَ وَتَحَوُّلِ عَافِيَتِكَ وَفُجَاءَةِ نِقْمَتِكَ وَجَمِيعِ سَخَطِكَ

“আল্ল-হুম্মা ইন্নী আঊযুবিকা মিন যাওয়া-লি নিমাতিকা ওয়াতা হাও্‌উলি আ-ফিয়াতিকা ওয়া ফুজা-য়াতি নিক্‌মাতিকা ওয়া জামীই সাখাতিকা”

অর্থাৎ- “হে আল্লাহ! আমি তোমার নিকট আশ্রয় চাই নিআমাত দূর হয়ে যাওয়া হইতে, তোমার দেয়া সুস্থতা পরিবর্তন হয়ে যাওয়া থেকে, তোমার অকস্মাৎ শাস্তি আসা হইতে এবং তোমার সকল প্রকার অসন্তুষ্টি থেকে।”

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৯৩, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৪

৬৮৩৮ :উসামাহ্‌ ইবনি যায়দ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ আমি আমার [ইন্তিকালের] পরে পুরুষদের জন্য মহিলাদের ফিতনার চেয়ে অধিকতর কোন ফিতনাহ্‌ রেখে যাইনি।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৯৪, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৪৮]

৬৮৩৯ : সাঈদ ইবনি যায়দ ইবনি আম্‌র ইবনি নুফায়ল [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেছেন, আমি আমার [ইন্তিকালের] পরে মানুষদের মধ্যে পুরুষদের জন্য নারীদের তুলনায় অধিকতর ক্ষতিকর কোন ফিতনাহ্‌ ছেড়ে যাইনি।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৯৫, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৪৯]

৬৮৪০ : সুলাইমান আত্ তাইমী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

এ সূত্রে তার অবিকল হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৯৬, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৫০]

৬৮৪১ : আবু সাঈদ আল খুদরী [রাদি.]-এর সানাদে নবী [সাঃআঃ] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, অবশ্যই দুনিয়াটা চাকচিক্যময় মিষ্টি ফলের মতো আকর্ষণীয়। আল্লাহ তাআলা সেখানে তোমাদেরকে প্রতিনিধি নিযুক্ত করিয়াছেন। তিনি লক্ষ্য করিতেছেন যে, তোমরা কিভাবে কাজ করো? তোমরা দুনিয়া ও নারী জাতি থেকে সতর্ক থেকো। কেননা বানী ইসরাঈলের মাঝে প্রথম ফিতনাহ্ নারীকেন্দ্রিক ছিল।

ইবনু বাশশার (রহঃ) এর বর্ণিত হাদীসে فَيَنْظُرُ এর স্থানে لِيَنْظُرَ কথাটি আছে। (ইসলামিক ফাউন্ডেশন ৬৬৯৭, ইসলামিক সেন্টার ৬৭৫১)

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৬৯৭, ইসলামিক সেন্টার- ৬৭৫১]

About halalbajar.com

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে”

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে” মহান আল্লাহর …

Leave a Reply

%d bloggers like this: