খাদ্যের বিনিময়ে জমি ইজারা

খাদ্যের বিনিময়ে জমি ইজারা

খাদ্যের বিনিময়ে জমি ইজারা >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

১৮. অধ্যায়ঃ খাদ্যের বিনিময়ে জমি ইজারা

৩৮৩৭

রাফি খাদীজ [রা.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমরা রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর সময়ে জমির মুহাকালাহ করতাম এবং এক তৃতীয়াংশ, এক চতুর্থাংশ বা নির্দিষ্ট পরিমাণ খাদ্যের বিনিময়ে ইজারা দিতাম। এরপর এক সময় আমার এক চাচা আমাদের নিকট এসে বলিলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] আমাদেরকে এমন একটি বিষয় থেকে নিষেধ করিয়াছেন যা আমাদের জন্যে লাভজনক ছিল। আর আল্লাহ ও তাহাঁর রসূলের কথা মেনে চলা আমাদের জন্যে অধিক কল্যাণকর। তিনি আমাদেরকে জমি মুহকালাহ করিতে এবং এক তৃতীয়াংশ, এক চতুর্থাংশ বা নির্দিষ্ট পরিমাণ খাদ্যের বিনিময়ে ইজারা দিতে নিষেধ করিয়াছেন। আর জমির মালিককে নিজে চাষ করিতে বা অপরের দ্বারা চাষ করাতে নির্দেশ দিয়েছেন এবং ইজারা বা অন্য কিছু করার বিষয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করিয়াছেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৮০১, ইসলামিক সেন্টার- ৩৮০১]

৩৮৩৮

রাফি ইবনি খাদীজ [রা.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমরা জমির মুহাকালাহ করতাম এবং এক তৃতীয়াংশ ও এক চতুর্থাংশের বিনিময়ে ইজারা দিতাম। এরপর ইবনি উলাইয়্যার হাদীসের অনুরূপ বর্ণনা করেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৮০২, ইসলামিক সেন্টার- ৩৮০২]

৩৮৩৯

ইয়ালা ইবনি হাকীম [রা.] হইতে বর্ণীতঃ

ইয়ালা ইবনি হাকীম [রাদি.]-এর সানাদে উপরোক্ত হাদীসের অনুরূপ বর্ণনা করেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৮০৩, ইসলামিক সেন্টার- ৩৮০৩]

৩৮৪০

রাফির সূত্রে নবী [সাঃআঃ] হইতে বর্ণীতঃ

রাফির সূত্রে নবী [সাঃআঃ] হইতে বর্ণনা করেন। কিন্তু তাতে তার কোন এক চাচার কথা বলেননি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৮০৪, ইসলামিক সেন্টার- ৩৮০৪]

৩৮৪১

রাফি [রা.] হইতে বর্ণীতঃ

যুহায়র ইবনি রাফি [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] তাহাঁর চাচা হন। রাফি বলেন, যুহায়র একদা আমার নিকট এসে বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] আমাদেরকে এমন একটি বিষয় থেকে নিষেধ করিয়াছেন যা আমাদের জন্যে ছিল লাভজনক। আমি বললাম, তা কী? রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] যা বলেছেন তাই যথার্থ। তিনি বলিলেন, আমার নিকট তিনি জিজ্ঞেস করিয়াছেন, কিভাবে তোমরা মুহাকালাহ করো? আমি বললাম, হে আল্লাহর রসূল! আমরা খালের সন্নিকটবর্তী জমির ফসলের শর্তে বিংবা খুরমা বা যবের কয়ের অসক প্রদানের শর্তে জমি বর্গা দিয়ে থাকি। তিনি বলিলেন, আর এরূপ করো না। তোমরা নিজেরা চাষ করো অথবা অপরকে দিয়ে চাষ করাও, তা না হলে এমনি রেখে দাও। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৮০৫, ইসলামিক সেন্টার- ৩৮০৪ {ক}]

৩৮৪২

রাফি [রা.] সূ্ত্রে নবী [সাঃআঃ] হইতে বর্ণীতঃ

উপরোক্ত হাদীস বর্ণিত। কিন্তু এতে তার চাচা যুহায়রের নাম উল্লেখ করেননি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৩৮০৬, ইসলামিক সেন্টার- ৩৮০৫]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply