মানুষের নিকট চাওয়া অপছন্দনীয়

মানুষের নিকট চাওয়া অপছন্দনীয়

মানুষের নিকট চাওয়া অপছন্দনীয়  >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৩৫. অধ্যায়ঃ মানুষের নিকট চাওয়া অপছন্দনীয়

২২৮৬

আবদুল্লাহ ইবনি উমর [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] বলেনঃ তোমাদের কেউ কেউ মানুষের কাছে ভিক্ষা চাইতে চাইতে আল্লাহ্‌র সাথে এমন অবস্থায় মিলিত হইবে যে তার মুখমন্ডলে গোশ্‌তের কোন টুকরা অবশিষ্ট থাকিবে না। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২২৬৫, ইসলামিক সেন্টার- ২২৬৫]

২২৮৭

মামার [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] যুহরীর ভাই এর সুত্র হইতে বর্ণীতঃ

উপরের হাদীসের অনুরূপ হাদীস বর্র্ণিত হয়েছে। তবে এ সূত্রে [আরবী] “টুকরা”” শব্দটির উল্লেখ নেই। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২২৬৫, ই,সে. ২২৬৬]

২২৮৮

আবদুল্লাহ ইবনি উমর [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি তার পিতাকে [আবদুল্লাহ] বলিতে শুনেছেনঃ রসূলুলাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ কোন ব্যক্তি অনবরত লোকের কাছে হাত পেতে প্রার্থনা [ভিক্ষা] করিতে থাকিবে। পরিণামে ক্বিয়ামাতের দিন যখন সে উপস্থিত হইবে তার মুখমন্ডলে গোশতের কোন টুকরা থাকিবে না। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২২৬৬, ইসলামিক সেন্টার- ২২৬৭]

২২৮৯

আবু হুরায়রাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ “যে ব্যক্তি [অভাবের তাড়না ছাড়াই] নিজের সম্পদ বাড়ানোর জন্য মানুষের কাছে সম্পদ ভিক্ষা করে বেড়ায় বস্তুতঃ সে আগুনের ফুলকি ভিক্ষা করছে। কাজেই এখন তার ভেবে দেখা উচিত সে বেশী নিবে না কম নিবে।” [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২২৬৭, ইসলামিক সেন্টার-২২৬৮]

২২৯০

আবু হুরায়রাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি রসুলুল্লাহ্ [সাঃআঃ] কে বলিতে শুনেছিঃ “কোন ব্যক্তি সকালে উঠে গিয়ে লাকড়ি সংগ্রহ করে তা নিজের পিঠে বহন করে এনে অপরকে দান করে এবং এ দিয়ে অপরের দ্বারস্থ হওয়া থেকে মুক্ত থাকে। তার এ কাজ মানুষের দরজায় দরজায় বেড়ানোর চেয়ে উত্তম-তারা কিছু দিক বা না দিক। কেননা উপরের হাত নীচের হাতের চেয়ে উত্তম। যাদের ভরণ-পোষণের দায়িত্ব তোমার উপর ন্যস্ত তাদের দিয়েই দান শুরু কর।” [ই.ফা.২২৬৮, ই,সে ২২৬৯]

২২৯১

আবু হুরায়রাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] বলেছেনঃ “আল্লাহর শপথ! যদি তোমাদের কোন ব্যক্তি সকালে গিয়ে এক বোঝা কাঠ সংগ্রহ করে তা পিঠে করে নিয়ে এসে বিক্রি করে।” ………. হাদীসের বাকি অংশ বায়ান বর্ণিত [উপরের] হাদীসের অনুরূপ। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২২৬৯, ইসলামিক সেন্টার- ২২৭০]

২২৯২

আবু হুরায়রাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুলাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ যদি কোন ব্যক্তি নিজের পিঠে করে লাকড়ির বোঝা বয়ে এনে তা বিক্রি করে তবে এটা তার জন্য কোন লোকের কাছে ভিক্ষা চেয়ে বেড়ানো থেকে উত্তম। কেননা তার জানা নেই যে, সে ব্যক্তি তাকে দিবে না বিমুখ করিবে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২২৭০,ইসলামিক সেন্টার- ২২৭১]

২২৯৩

আওফ ইবনি মালিক আল আশজাঈ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

আমাদের সাত বা আট বা নয় জন লোকের উপস্থিতিতে রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেনঃতোমরা কেন রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] এর কাছে বায়আত করছো না?” অথচ আমরা ইতোপূর্বে বায়আত গ্রহণের সময় তাহাঁর হাতে বায়আত গ্রহণ করেছি। আমরা বললাম, হে আল্লাহর রসূল! আমরা তো আপনার কাছে বায়আত গ্রহণ করেছি। তিনি আবার বললেনঃ“তোমরা কেন রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] এর কাছে বায়আত হচ্ছো না?” বর্ণনাকারী বলেন, অতঃপর আমরা হাত বাড়িয়ে বললাম, হে আল্লাহর রসূল! আমরা তো ইতোপূর্বেই আপনার কাছে বায়আত গ্রহণ করেছি, এখন আবার আপনার কাছে কিসের বায়আত করবো? তিনি বললেনঃতোমরা আল্লাহর ইবাদাত করো, তার সাথে কাউকে অংশীদার স্থাপন করিবে না, ৫ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করিবে। এবং আল্লাহর আনুগত্য করিবে। তিনি আর একটি কথা বলিলেন চুপে চুপে, তা হলো লোকের কাছে কিছুর জন্য হাত পাতবে না। বর্ণনাকারী বলেন, এরপর আমি দেখেছি, সে বায়আত গ্রহণকারী দলের কারো কারো উটের পিঠে থাকা অবস্থায় হাত থেকে চাবুক পড়ে গেছে কিন্তু সে কাউকে তা তুলে দেয়ার জন্য অনুরোধ করেনি বরং নিজেই নীচে নেমে তুলে নিয়েছে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২২৭১, ইসলামিক সেন্টার- ২২৭২]

By বুলূগুল মারাম

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। তবে আমরা রাজনৈতিক পরিপন্থী কোন মন্তব্য/ লেখা প্রকাশ করি না। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই লেখাগুলো ফেসবুক এ শেয়ার করুন, আমল করুন

Leave a Reply