রাসূলুল্লাহ সাঃ এর ঘামের সুঘ্রাণ নবুয়তের প্রমান

রাসূলুল্লাহ সাঃ এর ঘামের সুঘ্রাণ নবুয়তের প্রমান

রাসূলুল্লাহ সাঃ এর ঘামের সুঘ্রাণ নবুয়তের প্রমান << নবুওয়তের মুজিযা হাদীসের মুল সুচিপত্র দেখুন

ত্রিশতম পরিচ্ছেদ – রাসূলুল্লাহ সাঃ এর ঘামের সুঘ্রাণ নবুয়তের প্রমান

আনাস ইবনু মালিক রাদি. আনহু হইতে বর্ণিত, তিনি বলেন: রাঃসাঃ  আমাদের ঘরে আসলেন এবং বিশ্রাম নিলেন। তিনি ঘামছিলেন আর আমার মা একটি শিশি নিয়ে তা মুছে মুছে তাতে ভরতে লাগলেন। নাবী রাঃসাঃ জেগে গেলেন। তিনি জিজ্ঞাসা করিলেন, হে উম্মে সুলাইম! একি করছ? আমার মা বলিলেন, এ আপনার ঘাম, যা আমরা সুগন্ধির সাথে মিশ্রিত করি, আর এ তো সব সুগন্ধির সেরা সুগন্ধি।[1]

আনাস ইবনু মালিক রাদি. আনহু হইতে বর্ণিত, তিনি বলেন: নাবী রাঃসাঃ উম্মে সুলাইমের ঘরে যেতেন এবং তার বিছানায় ঘুমাতেন আর উম্মে সুলাইম তখন ঘরে থাকতেন না। আনাস রাদি. আনহু বলেন, একদিন তিনি এলেন এবং তার বিছানায় ঘুমালেন। অতঃপর তিনি [উম্মে সুলাইম] এলে তাকে বলা হল, ইনি নাবী রাঃসাঃ তোমার ঘরে, তোমার বিছানায় ঘুমিয়ে আছেন। আনাস রাদি. আনহু বলেন, উম্মে সুলাইম ঘরে এলেন, নাবী রাঃসাঃ তখন ঘেমেছিলেন, আর তাহাঁর ঘাম চামড়ার বিছানার উপর জমেছিল। উম্মে সুলাইম তার কৌটা খুললেন এবং সে ঘাম মুছে মুছে শিশিতে ভরতে লাগলেন। নাবী রাঃসাঃ ঘুম থেকে উঠে তাকে বলিলেন, তুমি কি করছ, হে উম্মে সুলাইম! তিনি বলিলেন, ইয়া রাসুলুল্লাহ! আমাদের শিশুদের বরকতের উদ্দেশ্যে নিচ্ছি। রাঃসাঃ  বলিলেন, ভাল করেছ।[2]

উম্মে সুলাইম রাদি. আনহা হইতে বর্ণিত যে, নাবী রাঃসাঃ তার কাছে আসতেন এবং বিশ্রাম নিতেন। উম্মে সুলাইম তার জন্য একটা চামড়া বিছিয়ে দিলে তিনি তার উপর “কায়লুলা- করতেন। তিনি খুব ঘামতেন আর উম্মে সুলায়ম তা জমা করতেন এবং সুগন্ধির শিশিতে তা রাখতেন। নাবী রাঃসাঃ বলেন, হে উম্মে সুলাইম! এ কী করছ? তিনি বলিলেন, আপনার ঘাম, আমি তা সুগন্ধির সাথে মিশিয়ে রাখি।[3]


[1] সহিহ মুসলিম, হাদিস নম্বর ২৩৩১।

[2] সহিহ মুসলিম, হাদিস নম্বর ২৩৩১।

[3] সহিহ মুসলিম, হাদিস নম্বর ২৩৩২।

Leave a Reply