নতুন লেখা

গোপনে দান খয়রাত করার ফযিলত

গোপনে দান খয়রাত করার ফযিলত

গোপনে দান খয়রাত করার ফযিলত  >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৩০. অধ্যায়ঃ গোপনে দান খয়রাত করার ফযিলত

২২৭০

আবু হুরায়রাহ্‌ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] বলেনঃ সাত ব্যক্তিকে আল্লাহ্‌ তাআলা এমন একদিন [ক্বিয়ামাতের দিন] তাহাঁর [আর্‌শের] ছায়াতলে আশ্রয় দিবেন, যেদিন তাহাঁর ছায়া ছাড়া আর কোন ছায়া অবশিষ্ট থাকিবে না। [১] ন্যায়পরায়ণ ঈমাম [জনগণের নেতা], [২] ঐ যুবক, যে আল্লাহ্‌ তাআলার ইবাদাতে মশগুল থেকে বড় হয়েছে, [৩] সে ব্যক্তি, যার অন্তর মাসজিদের সাথে লেগে রয়েছে [অর্থাৎ জামাআতের সাথে নামাজ আদায়ে যত্নবান], [৪] সে দুব্যক্তি, যারা একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে একে অপরকে ভালবাসে ও পরস্পর মিলিত হয় এবং এ জন্যই [পরস্পর] বিচ্ছিন্ন হয়, [৫] যে ব্যক্তিকে কোন অভিজাত এবং সুন্দরী রমনী [ব্যভিচারের জন্য] আহ্বান জানায় আর তার জবাবে সে বলে, আমি আল্লাহকে ভয় করি, [৬] যে ব্যক্তি এতটা গোপনে দান করে যে, তার ডান হাত কী দান করে তা তার বাম হাত টের পায়না এবং [৭] যে ব্যক্তি একাকী বসে আল্লাহকে স্মরণ করে আর তার চোখ দুটো [আল্লাহ্‌র ভয় বা ভালবাসায়] অশ্রুপাত করে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২২৪৯, ইসলামিক সেন্টার- ২২৫০]

২২৭১

আবু হুরায়রাহ্‌ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেন …… উবায়দুল্লাহ্‌র বর্ণিত হাদীসের অনূরূপ। সেখানে এ কথা রয়েছে যে ব্যক্তি মাসজিদ থেকে বের হয়ে পুনরায় এখানে ফিরে না আসা পর্যন্ত তার অন্তর মাসজিদের সাথে লেগে থাকে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ২২৫০, ইসলামিক সেন্টার- ২২৫১]

About halalbajar.com

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। তবে আমরা রাজনৈতিক পরিপন্থী কোন মন্তব্য/ লেখা প্রকাশ করি না। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই লেখাগুলো ফেসবুক এ শেয়ার করুন, আমল করুন

Check Also

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে”

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে” মহান আল্লাহর …

Leave a Reply

%d bloggers like this: