খোলা তালাক্বের বিবরণ। বুল্গুল মারাম হাদিস

খোলা তালাক্বের বিবরণ। বুল্গুল মারাম হাদিস

খোলা তালাক্বের বিবরণ। বুল্গুল মারাম হাদিস >> বুলুগুল মারাম এর মুল সুচিপত্র দেখুন

অধ্যায় – ৬ঃ খোলা তালাক্বের বিবরণ

১০৬৫ – ইবনু `আব্বাস [রাঃআঃ] হইতে বর্ণিতঃ

সাবিত ইবনু কায়স এর স্ত্রী নবী [সাঃআঃ] এর কাছে এসে বলিল, হে আল্লাহর রসূল! চরিত্রগত বা দ্বীনী বিষয়ে সাবিত ইবনু কায়সের উপর আমি দোষারোপ করছি না। তবে আমি ইসলামের ভিতরে থেকে কুফুরী করা [অর্থাৎ স্বামীর সঙ্গে অমিল] পছন্দ করছি না। রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেনঃ তুমি কি তাহাঁর বাগানটি ফিরিয়ে দেবে? সে বললঃ হ্যাঁ। রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেনঃ তুমি বাগানটি গ্রহণ কর এবং মহিলাকে এক ত্বালাক্ব দিয়ে দাও। বুখারির অন্য বর্ণনায় এরূপ আছে – নবী [সাঃআঃ] তাঁকে তালাক দেয়ার জন্য আদেশ করিলেন। {১১৬৪}

{১১৬৪} বুখারি ৫২৭৫,৫২৭৭, নাসায়ী ৩৪৬৩, ইবনু মাযাহ ২০৫৬। শাইখ আল্বানী ইরওয়াউল গালীল ৭/১০৩ পৃষ্ঠার বলেন, এর সনদে আল হাজ্জাজ বিন আরত্বাআ নামক বর্ণনাকারী রয়েছে, তিনি মুদাল্লিস, আন আন করে হাদিস বর্ণনা করিয়াছেন। হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

১০৬৬ – আবূ দাউদ হইতে বর্ণিতঃ

এতে আছে যে, অবশ্য সাবিত বিন কায়েসের স্ত্রী সাবিতের নিকট থেকে খোলা তালাক গ্রহণ করেছিলেন। ফলে নবী [সাঃআঃ] মাত্র এক হায়িয তার ইদ্দতের ব্যবস্থা করেছিলেন। {১১৬৫}

{১১৬৫} তিরমিজি ১১৮৫, নাসায়ী ৩৪৯৮, ২০৫৮। ইবনু উসাইমীন বুলুগুল মারামের শরাহ ৫/৪ গ্রন্থে বলেন, এর সনদ দিয়ে আলিমগণের মধ্যে মতানৈক্য বিদ্যমান যে, এটি মুরসাল নাকি মুত্তালিস, আর এর অর্থগত দিক দিয়েও এটি মুনকার। শাইখ আলবানী জঈফ আবূ দাউদ ২১৭৮, ইরওয়াউল গালীল ২০৪০, সিলসিলা সহীহাহ ৫/১৮ গ্রন্থত্রয়ে একে দুর্বল বলেছেন, ইমাম শওকানী নাইলুল আওত্বার ৭/২ গ্রন্থে বলেন, এর সনদে ইয়াহইয়া বিন সুলাইম রয়েছে যাকে নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। আর মুরসাল হিসেবে বর্ণিত হাদীসের সনদে উবাইদুল্লাহ ইবনুল ওয়ালীদ আল ওয়াসাফী নামক দুর্বল বর্ণনাকারী রয়েছে। অপরপক্ষে ইমাম সুয়ূত্বী আল জামেউস সগীর ৫৩ গ্রন্থে, বিন বায মাজমুআ ফাতাওয়া ২৫/২৫৩ গ্রন্থে একে সহিহ বলেছেন। বিন বায বুলুগুল মারামের হাশিয়া ৬১২ গ্রন্থে বলেনঃ এর সনদ উত্তম ও শক্তিশালী, কোন সনদে এটি মুরসাল হিসেবে বর্ণিত হলেও সঠিক কথা হলো, এটি মুত্তালিস। হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

১০৬৭ – আমর [রাঃআঃ] হইতে বর্ণিতঃ

তিনি তার দাদা থেকে বর্ণনা করিয়াছেন, সাবিত বিন কায়েস [রাঃআঃ] কুৎসিত ছিলেন। ফলে তার স্ত্রী বলেছিলেন, হে আল্লাহর রসূল! আল্লাহর শপথ আল্লাহর ভয় না থাকলে সাবিত যখন আমার নিকট আসে তখন অবশ্যই আমি তার মুখে খুধু নিক্ষেপ করতাম।

{১১৬৬} ইবনু মাযাহ ২৫০৭। ইমাম হাইসামী তাহাঁর মাজমাউয যাওয়ায়েদ ৫/৭ গ্রন্থে বলেন, এর বর্ণনাকারীদের মধ্যে হাজ্জাজ বিন আরত্বাআ নামক বর্ণনাকারী রহিয়াছে সে মুদাল্লিস। হাদিসের তাহকিকঃ দুর্বল হাদিস

১০৬৮ – সাহল বিন আবূ হাসমাহ হইতে বর্ণিতঃ

সাবিত বিন কায়েসের ঘটনাটি ছিল ইসলামের ইতিহাসে প্রথম খোলা তালাক।

{১১৬৭} আহমাদ ১৫৬৬৩। শাইখ আলবানী ইরওয়াউল গালীল ৭/১০৩ পৃষ্ঠায় বলেন, এর সনদে আল হাজ্জাজ বিন আরত্বাআ নামক বর্ণনাকারী রহিয়াছে, তিনি মুদাল্লিস, আন আন করে হাদিস বর্ণনা করিয়াছেন। হাদিসের তাহকিকঃ অন্যান্য

By বুলূগুল মারাম

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। তবে আমরা রাজনৈতিক পরিপন্থী কোন মন্তব্য/ লেখা প্রকাশ করি না। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই লেখাগুলো ফেসবুক এ শেয়ার করুন, আমল করুন

Leave a Reply