নতুন লেখা

জনগণ কুরায়শদের অনুগামী এবং খিলাফত কুরায়শদের মধ্যে সীমিত

জনগণ কুরায়শদের অনুগামী এবং খিলাফত কুরায়শদের মধ্যে সীমিত

জনগণ কুরায়শদের অনুগামী এবং খিলাফত কুরায়শদের মধ্যে সীমিত >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

১. অধ্যায়ঃ জনগণ কুরায়শদের অনুগামী এবং খিলাফত কুরায়শদের মধ্যে সীমিত

৪৪৯৫

আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলেছেনঃ “জনগণ প্রশাসনিক ব্যাপারে কুরায়শদের অনুসারী। মুসলিমরা তাঁদের মুসলিমদের এবং কাফিররা তাঁদের কাফিরদের অনুসারী। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৫০, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৫৩]

৪৪৯৬

হাম্মাম ইবনি মুনাব্বিহ্‌ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আবু হুরায়রা্‌ [রাদি.] যে সকল হাদীস রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] থেকে আমাদের কাছে বর্ণনা করেন তন্মধ্যে একটি হল যে, রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলেছেনঃ লোকজন এ ব্যাপারে কুরায়শদের অনুসারী। মুসলিমরা মুসলিমদের অনুসারী এবং কাফেররা কাফেরদের অনুসারী। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৫১, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৫৪]

৪৫৯৭

জাবির ইবনি আবদুল্লাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন যে, নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলেছেনঃ লোকজন ভাল-মন্দ উভয় ব্যাপারেই কুরায়শদের অনুসারী। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৫২, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৫৫]

৪৫৯৮

আবদুল্লাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলেছেন, এ কৃতিত্ব সর্বদা কুরায়শদের মধ্যেই থাকিবে যতক্ষণ পর্যন্ত দুনিয়ায় দুটি লোকও বেঁচে থাকিবে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৫৩, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৫৬]

৪৫৯৯

সামুরাহ্‌ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেছেন, আমি আমার পিতার সঙ্গে নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম]-এর নিকট গেলাম। তখন আমরা তাঁকে বলিতে শুনলাম, শাসন কর্তৃত্ব ধারাবাহিক চলতে থাকিবে যতক্ষণ না উম্মাতের মধ্যে বারজন খলীফা অতিবাহিত হইবেন। তারপর তিনি অস্ফুট আওয়াজে কিছু বলিলেন, যা আমি শুনতে পেলাম না। তখন আমি আমার পিতাকে জিজ্ঞেস করলাম, রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] কী বলিলেন? তিনি বলিলেন যে, তিনি বলেছেন, তাঁদের সকলেই হইবে কুরায়শ বংশ থেকে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৫৪, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৫৭]

৪৬০০

জাবির ইবনি সামুরাহ্‌ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম]-কে বলিতে শুনেছি, মুসলিম শাসন থাকিবে যতক্ষণ না তাদের মধ্যে বারজন শাসক শাসন ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হন। জাবির [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] বলেন, এরপর নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] কিছু কথা বলিলেন, যা আমি শুনতে পাইনি। তাই আমি আমার পিতাকে জিজ্ঞেস করলাম যে, রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] কী বলিলেন? তিনি বলিলেন, তিনি বলেছেনঃ সবাই কুরায়শ বংশ থেকে হইবে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৫৫, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৫৮]

৪৬০১

জাবির ইবনি সামুরাহ্‌ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] থেকে এ হাদীসটি বর্ণনা করেন। তিনি তাতে “লোকদের মধ্যে শাসন ক্ষমতা অব্যাহত গতিতে চলতে থাকিবে” কথাটি উল্লেখ করেননি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৫৬, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৫৯]

৪৬০২

জাবির ইবনি সামুরাহ্‌ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম]-কে বলিতে শুনেছি, বারজন খলীফা অতিবাহিত না হওয়া পর্যন্ত ইসলাম প্রবল শক্তিধর অবস্থায় চলতে থাকিবে। তারপর তিনি যে কী বলিলেন, আমি তা বুঝতে পারিনি। তখন আমি আমার পিতাকে জিজ্ঞেস করলাম, রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] কী বলেছেন? তিনি বলিলেন, বলেছেন, তাঁদের সকলেই হইবে কুরায়শ বংশ থেকে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৫৭, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৬০]

৪৬০৩

জাবির ইবনি সামুরাহ্‌ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলেছেন, শাসন কর্তৃত্ব অতি শক্তিশালী থাকিবে বারজন খলীফা পর্যন্ত। রাবী বলেন, তারপর তিনি কিছু বলিলেন, যা আমি বুঝতে পারিনি। তাই আমি আমার পিতাকে জিজ্ঞেস করলাম, রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] কী বলিলেন? তিনি বলিলেন, নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলেছেনঃ তাঁদের সকলেই হইবে কুরায়শ বংশের। {৪১} [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৫৮, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৬১]

{৪১} কাজী আয়াত [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] বলেন, জটিলতা দাঁড়ায় শাসকদের সংখ্যা বিষয়ে। এর জবাব হলো নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম]-এর মৃত্যু পরবর্তী ৩০ বছরে ৫ জন খলীফার {ঈমাম হাসান [রাদি.]-সহ} খিলাফাত ছিল নুবূওয়াতের আদলে। বাকীদের খিলাফাত হইবে খিলাফাতে আম বা সাধারণ খিলাফাত। [মুখতাসার শারহে মুসলিম লিন নাবাবী, ৫ম খণ্ড, ১১২ পৃষ্ঠা]

৪৬০৪

জাবির ইবনি সামুরাহ্‌ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেছেন, আমি রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম]-এর নিকট গেলাম। আমার সাথে আমার পিতাও ছিলেন। আমি তখন তাঁকে বলিতে শুনলাম, এ ধর্ম শক্তিমত্তাসম্পন্ন, সংরক্ষিত থাকিবে বারজন খলীফা অতিবাহিত হওয়া পর্যন্ত। তারপর তিনি কোন্‌ কথা বলিলেন, লোকজনের কথাবার্তার দরুন আমি তা বুঝতে পারিনি। তখন আমি আমার পিতাকে বললাম, তিনি কী বলিলেন? তিনি বলিলেন, বলেছেন, তাঁদের সকলেই হইবে কুরায়শ বংশের লোক। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৫৯, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৬২]

৪৬০৫

আমের ইবনি সাআদ ইবনি আবু ওয়াক্কাস [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি জাবির ইবনি সামুরাহ্‌ [রাদি.]-এর নিকট আমার গোলাম নাফির মাধ্যমে চিঠি প্রেরণ করলাম যে, আপনি আমাকে এমন কিছু সম্পর্কে অবহিত করুন যা আপনি রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম]-এর নিকট শুনেছেন। রাবী বলেন, তিনি আমাকে লিখলেনঃ জুমুআর দিন সন্ধ্যায় যে দিন [মায়েজ] আসলামীকে রজম [ব্যাভিচারজনিত অপরাধের শাস্তি হিসেবে পাথর মেরে হত্যা] করা হয়, সেদিন আমি রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম]-কে বলিতে শুনেছি, এ দ্বীন অব্যাহতভাবে প্রতিষ্ঠিত থাকিবে যতক্ষণ কিয়ামাত কায়িম হয় অথবা তোমরা বারজন খলীফা কর্তৃক শাসিত হও, এঁদের সকলেই হইবে কুরায়শ থেকে। আমি তাঁকে আরও বলিতে শুনেছি, মুসলিমদের একটি ছোট্ট দল জয় করিবে শ্বেতভবন যা কিসরা কিংবা কিসরা বংশীয় রাজমহল। আমি আরও বলিতে শুনেছি, “কিয়ামাতের প্রাক্কালে অনেক মিথ্যাবাদীর আবির্ভাব হইবে, তোমরা তাদের ব্যাপারে সতর্ক থাকিবে।” আমি তাঁকে আরও বলিতে শুনেছি, “তোমাদের কাউকে যখন আল্লাহ কল্যাণ [সম্পদ] দান করেন তখন সে নিজের এবং তার পরিবারস্থ লোকজন দ্বারা ব্যয় শুরু করিবে।” আমি তাঁকে আরও বলিতে শুনেছি, “হাওযে [কাউসারে] আমি তোমাদের অগ্রগামী হবো।” [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৬০, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৬৩]

৪৬০৬

আমীর ইবনি সাদ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি ইবনি সামুরাহ্‌ আদাবীর কাছে চিঠি প্রেরণ করেন যে, আপনি রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] থেকে যা জেনেছেন তা বর্ণনা করুন। তিনি বলিলেন, আমি রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম]-কে বলিতে শুনেছি… পরবর্তী অংশ হাতিমের হাদীসের অনুরূপ বর্ণনা করেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৬১, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৬৮]

About halalbajar.com

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে”

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে” মহান আল্লাহর …

Leave a Reply

%d bloggers like this: