কুরবানীর বিধান পশু জবেহ করার সময় দোয়া পাঠ করা

কুরবানীর বিধান পশু জবেহ করার সময় দোয়া পাঠ করা

কুরবানীর বিধান >> বুলুগুল মারাম এর মুল সুচিপত্র দেখুন

অধ্যায় – ২ঃ কুরবানীর বিধান

পরিচ্ছেদ ১৮. কুরবানীর বৈধতা এবং এর কিছু বিবরণ
পরিচ্ছেদ ১৯. কুরবানীর পশু জবেহ করার সময় দোয়া পাঠ করা মুস্তাহাব
পর্ব [১২] ঃ খাদ্য
পরিচ্ছেদ ২০. কুরবানীর বিধান
পরিচ্ছেদ ২১. কুরবানীর পশু জবেহ করার সময়
পরিচ্ছেদ ২২. যে সমস্ত জন্তু কুরবানী করা জায়েয নয়
পরিচ্ছেদ ২৩. কুরবানীর পশুর বিবেচ্য বয়স
পরিচ্ছেদ ২৪. কুরবানীর পশুর ক্ষেত্রে যা অপছন্দনীয়
পরিচ্ছেদ ২৫. কুরবানীর পশু যবাই ও বন্টনে দায়িত্বশীল নিয়োগ
পরিচ্ছেদ ২৬. উট এবং গরু সাতজনের পক্ষ থেকে কুরবানী করা প্রসঙ্গে

পরিচ্ছেদ ১৮. কুরবানীর বৈধতা এবং এর কিছু বিবরণ

১৩৪৬. আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, নাবী [সাঃআঃ] দুটি সাদা-কালো রং এর শিং ওয়ালা দুম্বা কুরবানী করিতেন। আর এতে আল্লাহর নাম নিতেন, তাহাঁর শ্রেষ্ঠত্ব ঘোষণা করিতেন এবং তিনি স্বীয় পা তাহাদের পাঁজরে রাখতেন। আরেক বর্ণনায় আছে, তিনি স্বহস্তে সে দুটিকে যবহ্ করেন।

অন্য বর্ণনায় আছে, সামীনাইনে [দুটো মোটা তাজা], হাসানঃ ইবনি মাজাহ [৩১২২] আর আবু আওয়ানাহ সহিহ সংকলনে আছে, [ছামীনাইনে] দুটো মূল্যবান দুম্বা-অর্থাৎ সীন-এর বদলে ছা রয়েছে। আর মুসলিমের শব্দে আছে, তিনি বিসমিল্লাহি আল্লাহু আকবার বলিতেন। {১৪৫৪} . {১৪৫৪} বোখারী ৯৫৪, ৯৮৪, ১৮৯, ১৫৪৬, ১৫৪৭, ১৫৪৮, মুসলিম ৬৯০, ১২৩২, ১৩৫০, ১৯৬৬, তিরমিজি ৫৪৬, ৮২১, ১৪৯৪, নাসাঈ ৪৬৯, ৪৭৭, আবু দাঊদ ১২০২, ২৭৭৩, ইবনি মাজাহ ১৯৯৭, ২৯৬৮, আহম্মদ ১১৫৪৭, ১১৫৭৩, দারিমী ১৫০৭, ১৫০৮। কুরবানীর বিধান হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পরিচ্ছেদ ১৯. কুরবানীর পশু জবেহ করার সময় দোয়া পাঠ করা মুস্তাহাব

১৩৪৭. আয়িশা [রাদি. হইতে বর্ণীতঃ

তিনি কুরবানী করার জন্য শিং বিশিষ্ট একটি দুম্বা নিয়ে আসার জন্য নির্দেশ দিলেন-যার পা, পেট, চোখের পার্শ্বদেশ কাল রংয়ের ছিল। তিনি [আয়িশা] [রাদি.] কে বলেনঃ ছুরিখানা পাথরে ঘষে ধার দাও। তারপর রসূলুল্লাহ [সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম] ছুরিটি নিলেন ও দুম্বাটি ধরলেন, তারপর দুম্বাটিকে মাটিতে ফেলে ধরে যবাহ করিলেন, যবাহ করার সময় বললেনঃ

بِسْمِ اللَّهِ، اللَّهُمَّ تَقَبَّلْ مِنْ مُحَمَّدٍ وَآلِ مُحَمَّدٍ وَمِنْ أُمّةِ مُحَمَّدٍ

বাংলা উচ্চারণঃ বিসমিল্লাহি আল্লাহুম্মা তাক্বাব্বাল মিন মুহাম্মাদিন ওয়া আলি মুহাম্মাদিন ওয়া মিন উম্মাতি মুহাম্মাদিন।

অর্থঃ আল্লাহর নামে-হে আল্লাহ! তুমি এটা মুহাম্মাদ; মুহাম্মাদের স্বজন ও তার উম্মতগণের তরফ থেকে ক্ববূল কর। {১৪৫৫}

{১৪৫৫} হাফিজ ইবনি হাজার আসকালানী উক্ত হাদিসের কতিপয় শব্দ সংক্ষিপ্ত করিয়াছেন। বোখারী ৫৪৭৩, ৫৪৭৪, তিরমিজি ১৫১২, নাসাঈ ৪২২২, ৪২২৩, আবু দাউদ ২৮৩১, ইবনি মাজাহ ৩১৬৮, আহম্মদ ৭০৯৫, ৭২১৫, দারিমী ১৯৬৪। কুরবানীর বিধান হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পর্ব [১২] ঃ খাদ্য

পরিচ্ছেদ ২০. কুরবানীর বিধান

১৩৪৮. আবু হুরাইরা [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেনঃ রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ যার কুরবানী করার সামর্থ্য রয়েছে তবুও কুরবানী করিল না তবে যেন সে আমাদের ঈদগাহের নিকটবর্তী না হয়। {১৪৫৬}

{১৪৫৬} ইবুন মাজাহ ৩১২৩, আহম্মদ ৮০৭৪। হাদিসটি হাসান মাওকূফ তবে বর্ণনাকারী নির্ভরযোগ্য; তাওযিহুল আহকাম ৭/৭৯ . কুরবানীর বিধান হাদিসের তাহকিকঃ হাসান মাওকুফ

পরিচ্ছেদ ২১. কুরবানীর পশু জবেহ করার সময়

১৩৪৯. জুনদুব ইবনি সুফ্ইয়ান [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেনঃ আমি কুরবানীর দিন নাবী [সাঃআঃ] এর নিকট হাজির ছিলাম। লোকেদের সাথে সালাত আদায় শেষে দেখলেন যে, একটি বকরী যবহ করা হয়েছে। তখন তিনি বললেনঃ যে ব্যক্তি সালাত আদায়ের আগে যবহ্ করেছে, সে যেন এর স্থলে আরেকটি বকরী যবহ্ করে। আর যে ব্যক্তি যবহ্ করেনি, সে যেন আল্লাহর নাম নিয়ে যবহ্ করে। {১৪৫৭}

{১৪৫৭} বোখারী ৯৮৫, ৫৫০০, ৬৬৭৪, ৭৪০০, মুসলিম ১৯৬০, নাসাঈ ৪৩৬৮, ৪৩৯৮, ইবনি মাজাহ ৩১৫২, আহম্মদ ১৮৩২১। কুরবানীর বিধান হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পরিচ্ছেদ ২২. যে সমস্ত জন্তু কুরবানী করা জায়েয নয়

১৩৫০. বারা ইবনি আযিব [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেনঃ রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] আমাদের মধ্যে দাঁড়িয়ে ঘোষণা করিলেন, চার প্রকার জন্তুর কুরবানী করা বৈধ হইবে নাঃ কানা, যার কানা হওয়া পরিষ্কার [নিশ্চিত] রয়েছে; রুগ্ন যার রুগ্নতা প্রকট; খোঁড়া যার খঞ্জত্ব সন্দেহাতীত ও মেদ শূন্য, বয়ঃবৃদ্ধ। {১৪৫৮}

{১৪৫৮} আবু দাউদ ২৮০২, তিরমিজি ১৪৯৭, নাসাঈ ৪৩৬৯, ৪৩৭০, ইবুন মাজাহ ৩১৪৪, আহম্মদ ১৮০৩৯, ১৮০৭১, মালেক ১০৪১, দারিমী ১৯৪৯, ১৯৫০। কুরবানীর বিধান হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পরিচ্ছেদ ২৩. কুরবানীর পশুর বিবেচ্য বয়স

১৩৫১. জাবির [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেনঃ রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ তোমরা মুসিন্না জন্তু ছাড়া কুরবানী করিবেনা। যদি তা তোমাদের জন্য সহজসাধ্য না হয় তবে জাযা [ছয় মাসের ভেড়া] কুরবানী করিবে। {১৪৫৯}

{১৪৫৯} মুসলিম ১৯৬৩, নাসাঈ ৪৩৭৮, আবু দাউদ ২৭৯৭, ইবনি মাজাহ ৩১৪১, আহম্মদ ১৩৯৩৮, ১৪০৯৩। সহিহ মুসলিম ১৯৬৩, জঈফ আবু দাউদ ২৭৯৭, জঈফ নাসাঈ ৪৩৯০, জঈফ ইবনি মাজাহ ৬১৮, যঈফুল জামে ৬২০৯, ইরওয়াউল গালীল ১১৪৫ গ্রন্থসমূহে এক দুর্বল বলেছেন। ইবনি হযম তাহাঁর আল মাহাল্লা ৭/৩৬৩ গ্রন্থে বলেন, এর সনদে আবু যুবাইর নামক বর্ণনাকারী রয়েছে যে মুদাল্লিস। কুরবানীর বিধান হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পরিচ্ছেদ ২৪. কুরবানীর পশুর ক্ষেত্রে যা অপছন্দনীয়

১৩৫২. আলী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেনঃ রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] আমাদের কুরবানীর জন্তু [কেনার সময়] চোখ, কান ভালভাবে দেখে নিতে হুকুম দিয়েছেন। আর কানা, কানের অগ্রভাগ কাটা, পেছনের অংশ কাটা, ছিদ্র কান, বা কান ফাড়া জন্তু কুরবানী করিতে নিষেধ করছেন। {১৪৬০}

{১৪৬০} তিরমিজি ১৪৯৮, নাসাঈ ৪৩৭২, ৪৩৭৩, ৪৩৭৪, আবু দাউদ ২৮০৪, ইবুন মাজাহ ৩১৪২, ৩১৪৩, আহম্মদ ৭৩৪, ৮২৮, ৮৪৩, দারিমী ১৯৫১। শাইখ আলবানী ইরওয়াউল গালীল ৪/৩৬৩ গ্রন্থে বলেন, এর সনদে আবু ইসহাক আস সাবীঈ মুদাল্লিস, সে আন আন ও উল্টা পাল্টা করে বর্ণনা করেছে। তাখরীজ মিশকাতুল মাসাবীহ ১৪০৮ গ্রন্থেও উক্ত রাবী সম্পর্কে অনুরূপ কথাই বলেছেন। আলবানী জঈফ নাসাঈ ৪৩৮৫ তে জঈফ আবু দাউদ ২৮০৪ গ্রন্থে দুর্বল বলেছেন। ঈমাম দারাকুতনী আত্-তালখীসুল হাবীল ৪/১৪৮৮ গ্রন্থে এটিকে ক্রটিযুক্ত হিসেবে উল্লেখ করিয়াছেন। কুরবানীর বিধান হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পরিচ্ছেদ ২৫. কুরবানীর পশু যবাই ও বন্টনে দায়িত্বশীল নিয়োগ

১৩৫৩. আলী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তাঁকে নাবী [সাঃআঃ] তাহাঁর নিজের কুরবানীর জানোয়ারের পাশে দাঁড়াতে আর এগুলোর সমুদয় গোশত, চামড়া এবং পিঠের আবরণসমূহ বিতরণ করিতে নির্দেশ দেন এবং তা হতে যেন কসাইকে পারিশ্রমিক হিসেবে কিছুই না দেয়া হয়। {১৪৬১}

{১৪৬১} বোখারী ১৭১৬, ১৭১৭, ১৭১৮, ২২৯৯, মুসলিম ১৩১৭, আবু দাউদ ১৭৬৪, ১৭৬৯, ইবনি মাজাহ ৩০৯৯, আহম্মদ ৫৯৪, ৮৯৬, দারিমী ১৬৫১। কুরবানীর বিধান হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

পরিচ্ছেদ ২৬. উট এবং গরু সাতজনের পক্ষ থেকে কুরবানী করা প্রসঙ্গে

১৩৫৪. জাবির ইবনি আবদিল্লাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেনঃ আমরা হদাইবিয়ার [ঐতিহাসিক] সন্ধির সময় নাবী [সাঃআঃ] এর সাথে থেকে একটা উট সাতজনের পক্ষ থেকে ও একটা গরু সাত জনের পক্ষ থেকে কুরবানী করেছিলাম। {১৪৬২}

{১৪৬২} বোখারী ৩৫৬০, মুসলিম ১৩১৮, মুসলিম ৯০৪, ১৫০২, নাসাঈ ৪৩৯৩, আবু দাউদ ২৮০৭, ২৮০৮, ইবুন মাজাহ ৩১৩২, আহম্মদ ১৩৭১৩, ১৩৯৮৯, মালেক ১০৪৯, দারিমী ১৯৩৪, ১৯৫৫। কুরবানীর বিধান হাদিসের তাহকিকঃ সহিহ হাদিস

By বুলূগুল মারাম

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। তবে আমরা রাজনৈতিক পরিপন্থী কোন মন্তব্য/ লেখা প্রকাশ করি না। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই লেখাগুলো ফেসবুক এ শেয়ার করুন, আমল করুন

Leave a Reply