যে ব্যক্তি সম্পদ রেখে যাবে তা তার ওয়ারিসগণ পাবে

যে ব্যক্তি সম্পদ রেখে যাবে তা তার ওয়ারিসগণ পাবে

যে ব্যক্তি সম্পদ রেখে যাবে তা তার ওয়ারিসগণ পাবে >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৪. অধ্যায়ঃ যে ব্যক্তি সম্পদ রেখে যাবে তা তার ওয়ারিসগণ পাবে

৪০৪৯

আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]- এর নিকট যদি এমনও মৃত দেহ [জানাযার জন্যে] আসতো যার উপর ঋণ থাকতো, তবে তিনি জিজ্ঞেস করিতেন, সে কি তার ঋণ পরিশোধের জন্যে ঐ পরিমাণ সম্পদ রেখে গেছে, যা দ্বারা ঋণ পরিশোধ হইতে পারে? যদি জানান হতো যে, সে ঋণ পূর্ণ করার পরিমাণ সম্পদ রেখে গেছে, তবে তিনি তার জানাযাহ পড়তেন। অন্যথায় বলিতেন, তোমরা তোমাদের সাথীর জানাযাহ্‌ পড়ো। যখন আল্লাহ্‌ তাহাঁর জন্য সম্পদের সমৃদ্ধির পথ খুলে দেন, তখন তিনি বলেন যে, আমি মুমিনদের জন্যে তাদের নিজেদের অপেক্ষাও বেশি নিকটবর্তী। সুতরাং যে ব্যক্তি ঋণগ্রস্ত অবস্থায় মারা যাবে, তার সে ঋণ পরিশোধের দায়িত্ব আমার উপর। আর যে লোক সম্পদ রেখে যাবে, তা তার উত্তরাধিকারীদের প্রাপ্য। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪০১২, ইসলামিক সেন্টার- ৪০১১]

৪০৫০

যুহরী [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

যুহরী [রহমাতুল্লাহি আলাইহি]- এর সূত্রে উক্ত সানাদে হাদীসটি বর্ণনা করেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪০১৩, ইসলামিক সেন্টার- ৪০১২]

৪০৫১

ইবনি হুরাইরাহ্ [রাদি.]- এর সূত্রে নবী [সাঃআঃ] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, ঐ সত্তার শপথ যাঁর হাতে মুহাম্মাদের প্রাণ! পৃথিবীর উপর এমন কোন মুমিন নেই, যার সবচেয়ে নিকটতম [অধিকতর আপন] লোক আমি নই। সুতরাং যে লোক ঋণ অথবা সন্তান রেখে যাবে, আমি হবো তার অভিভাবক। আর তোমাদের কেউ যদি সম্পদ রেখে যায় তবে সে মাল পাবে তার নিকটজনেরা; সে যেই হোক না কেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪০১৪, ইসলামিক সেন্টার- ৪০১৩]

৪০৫২

হাম্মাম ইবনি মুনাব্বিহ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি]- এর সূত্রে হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, এগুলো আবু হুরায়রা্ [রাদি.] রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] থেকে আমাদের কাছে বর্ণনা করিয়াছেন। অতঃপর তিনি কতগুলো হাদীস বর্ণনা করেন। তার মধ্যে একটি এই যে, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেন, আল্লাহর কিতাব মুতাবিক অন্য সব লোক অপেক্ষা আমি মুমিনদের সবচেয়ে নিকটবর্তী। সুতরাং তোমাদের মধ্যে যে ব্যক্তি ঋণ অথবা নিঃসম্বল পরিজন রেখে যায়, তখন আমাকে ডাকিও, আমি তার অভিভাবক। আর তোমাদের মধ্যে যে সম্পদ রেখে যায়, তার সম্পদের অধিকারী হইবে তার ঘনিষ্ঠ আত্মীয় যেই থাকুক। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪০১৫, ইসলামিক সেন্টার- ৪০১৪]

৪০৫৩

আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] বলেছেন, যে ব্যক্তি সম্পদ ছেড়ে যায়, তা তার উত্তরাধিকারীদের প্রাপ্য। আর যে নিঃসম্বল পরিজন রেখে যায়, তার দায়িত্ব আমাদের। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪০১৬, ইসলামিক সেন্টার- ৪০১৫]

৪০৫৪

আবু বাকর ইবনি নাফি [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] গুনদার থেকে এবং যুহায়র ইবনি হার্ব [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] আবদুর রহমান ইবনি মাহদী [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে উভয়ে শুবাহ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

উপরিউক্ত সানাদে বর্ণনা করেন। অবশ্য গুনদার বর্ণিত হাদীসে আছে, আর যে ব্যক্তি নিঃসম্বল পরিজন রেখে যায়, আমি তাদের অভিভাবক হবো। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪০১৭, ইসলামিক সেন্টার- ৪০১৬]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply