অগ্নি স্পৃষ্ট দ্রব্যাদি থেকে [খাবার পর] ওযূ করা সম্পর্কে

অগ্নি স্পৃষ্ট দ্রব্যাদি থেকে [খাবার পর] ওযূ করা সম্পর্কে  {৯৭}

অগ্নি স্পৃষ্ট দ্রব্যাদি থেকে [খাবার পর] ওযূ করা সম্পর্কে  {৯৭} >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

২৩. অধ্যায়ঃ অগ্নি স্পৃষ্ট দ্রব্যাদি থেকে [খাবার পর] ওযূ করা সম্পর্কে  {৯৭}

{৯৭} অগ্নি স্পৃষ্ট দ্রব্যাদি খাবার পর ওযূ করা। ঈমাম নাবাবী [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] বলেন, ঈমাম মুসলিম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] এ অধ্যায়ে প্রথমে এ সকল হাদীসের উল্লেখ করিয়াছেন, যেগুলোর দ্বারা সাব্যস্ত হয় যে, আগুনের দ্বারা পাকানো খাদ্যবস্তু খেলে ওযূ নষ্ট হয়ে যায়। অতঃপর ঐ সকল হাদীসের বর্ণনা পেশ করিয়াছেন, যেগুলোর দ্বারা প্রমানিত হয়েছে যে, এ ধরনের খাবার খেলে ওযূ নষ্ট হয় না। সুতরাং প্রথমে উল্লেখিত হাদীসসমুহ মানসুখ [রহিত]। এ ব্যাপারে পূর্ববর্তী জমহুর উলামায়ে কিরাম, সাহাবায়ি কিরাম ও তাবিঈনে প্রায় ঐকমত্য ঘোষণা করিয়াছেন। তবে যে কোন জিনিস খাওয়ার পর কুলি করা এবং হাত-মুখ ভাল করে ধুয়ে ফেলা মুস্তাহাব [নাবাবী]

৬৭৪

যায়দ ইবনি সাবিত [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-কে বলিতে শুনেছি তিনি বলেছেন, আগুনে পাকানো খাবার খেয়ে ওযূ করিতে হইবে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৭৮, ইসলামিক সেন্টার- ৬৯৩]

৬৭৫

ইবনি শিহাব বলেন, উমর ইবনি আবদুল আযীয [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] তাঁকে বলেছেন, আবদুল্লাহ ইবনি ইব্‌রাহীম ইবনি কারিয [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি একদিন আবু হুরায়রা [রাদি.]- কে মাসজিদের সামনে ওযূ করিতে দেখেছেন। আবু হুরায়রা[রাদি.] বলেন, আমি কয়েক টুকরো পনির খেয়েছি, তাই ওযূ করছি। কেননা, আমি রাসুলুল্লাহ [সাঃআঃ]-কে বলিতে শুনেছি। তোমরা আগুনের রান্না করা খাবার খেলে ওযূ করিবে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৭৮, ইসলামিক সেন্টার- ৬৯৩]

৬৭৬

ইবনি শিহাব হইতে বর্ণীতঃ

আমি সাঈদ ইবনি খালিদ ইবনি আম্‌র ইবনি উসমান –এর কাছে এ হাদীসটি বর্ণনা করেছিলাম। তখন তিনি আমাকে বলিলেন যে, তিনি আগুনে পাকানো খাবার খেয়ে ওযূ করা সম্পর্কে উরওয়াহ্‌ন ইবনি যুবায়রকে জিজ্ঞেস করিলেন, তিনি বলিলেন, আমি নবী [সাঃআঃ]-এর স্ত্রী আয়েশাহ [রাদি.]- কে বলিতে শুনেছি তিনি বলেছেন, তোমরা আগুনে রান্না করা খাবার খেয়ে ওযূ করিবে। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৭৮, ইসলামিক সেন্টার- ৬৯৩]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply