সরকারী কর্মচারীদের উপহার গ্রহণ নিষিদ্ধ

সরকারী কর্মচারীদের উপহার গ্রহণ নিষিদ্ধ

সরকারী কর্মচারীদের উপহার গ্রহণ নিষিদ্ধ >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৭. অধ্যায়ঃ সরকারী কর্মচারীদের উপহার গ্রহণ নিষিদ্ধ

৪৬৩২. আবু হুমায়দ সাইদী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] আসাদ গোত্রের এক ব্যক্তিকে কর্মচারী নিযুক্ত করিলেন- যাকে ইবনিল লুত্বিয়্যাহ্ নামে অভিহিত করা হতো। রাবী আম্‌র ও ইবনি আবু উমর বলেন, যাকাত আদায়ের জন্য। যখন সে ফিরে এলো, তখন সে বললো, এটি আপনাদের [অর্থাৎ- বায়তুল মালের] এবং ওটি আমাকে উপহার হিসেবে দেয়া হয়েছে। রাবী বলেন, তখন রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] মিম্বারের উপরে দাঁড়ালেন এবং আল্লাহর প্রশংসা করার পর বলিলেন, সে কর্মচারীর কী হলো, যাকে আমি [আদায়কারীরূপে] প্রেরণ করলাম, আর সে [যেমন দিয়ে আসে তেমন] বলে! ওটা আপনাদের আর এটি আমাকে উপঢৌকন দেয়া হয়েছে? সে তার পিতার বা মাতার ঘরে বসে থেকে দেখে না কেন যে তাকে উপঢৌকন দেয়া হয় কি-না? মুহাম্মাদের প্রাণ যে পবিত্র সত্তার হাতে তাহাঁর কসম! যে কেউ এরূপ সম্পদের কিছুমাত্র কুক্ষিগত করিবে, কিয়ামাতের দিন তাই সে তার ঘাড়ে বহন করে নিয়ে আসবে- তার ঘাড়ের উপর চিৎকাররত উট হইবে অথবা হাম্বা-হাম্বারত গাভী হইবে অথবা চিৎকাররত বকরী হইবে। তারপর তিনি দুহাত উপরের দিকে উঠিয়ে ধরলেন, এমনকি তাহাঁর বগলের শুভ্রতা আমাদের দৃষ্টিগোচর হলো। তিনি বলিলেন, “হে আল্লাহ! আমি কি তোমার নির্দেশ পৌঁছিয়ে দিয়েছি?” এ কথা তিনি দুবার বলিলেন।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৮৬, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৮৯]

৪৬৩৩. আবু হুমায়দ সাইদী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] আয্দ গোত্রের ইবনিল লুত্বিয়্যাহ্ নামক এক ব্যক্তিকে যাকাত উসূলের উদ্দেশে কর্মচারী নিয়োগ করেন। সে যখন [যাকাতের উসূলকৃত] মালামাল নিয়ে এসে নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম]-এর নিকট অর্পণ করলো, তখন সে বলিল, এগুলো হচ্ছে আপনাদের, আর ওটা আমাকে উপঢৌকন স্বরূপ দেয়া হয়েছে। তখন নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলিলেন, তুমি তোমার পিতা-মাতার ঘরে বসে থেকে দেখলে না কেন, তোমার জন্য উপঢৌকনাদি প্রেরিত হয় কি-না? তারপর নবী [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] খুৎবাহ্ দিতে দাঁড়ালেন। এরপর রাবী সুফ্ইয়ান [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] বর্ণিত হাদীসের অনুরূপ বর্ণনা দেন।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৮৭, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৯০]

৪৬৩৪. আবু হুমায়দ আস্-সাইদী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] আয্দ গোত্রের এক ব্যক্তিকে বানূ সুলায়ম গোত্রের যাকাত উসূল করার জন্য কর্মচারী নিযুক্ত করেন। লোকটিকে ইবনি উত্বিয়্যাহ্ বলে ডাকা হতো। যখন সে [কাজ সম্পাদন করে] আসলো, তখন তিনি [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] হিসাব-নিকাশ চাইলেন। সে বলিল, এগুলো হচ্ছে আপনাদের মাল আর ওটা [আমাকে প্রদত্ত] উপঢৌকন। তখন রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলিলেন, তুমি তোমার পিতা-মাতার ঘরে বসে থাকলে না কেন? তোমার উপঢৌকন পৌঁছাতো, যদি তুমি সত্যবাদী হও। তারপর তিনি আমাদেরকে লক্ষ্য করে খুৎবাহ্ দিলেন। তাতে আল্লাহর প্রশংসা করে বলিলেন, “আমি তোমাদের মধ্যকার এক ব্যক্তিকে কোন কাজে নিযুক্ত করি যার দায়িত্ব আল্লাহ আমার উপর বর্তিয়েছেন। তারপর সে [কর্ম সম্পাদন করে] এসে বলে, এটা আপনাদের মাল আর এটা আমাকে উপঢৌকন স্বরূপ দেয়া হয়েছে। সে কেন তার পিতা-মাতার ঘরে বসে রইলো না তার উপঢৌকন সেখানে তার কাছে এসে পৌঁছতো, যদি সে সত্যবাদী হয়ে থাকে? আল্লাহর কসম! তোমাদের মধ্যকার যে কেউ তার প্রাপ্য ব্যতিরেকে সেসব সম্পদের অংশবিশেষও কুক্ষিগত করিবে, কিয়ামাতের দিন সে তা বহন করে আল্লাহ তাআলার সমীপে উপস্থিত হইবে। তোমাদের মধ্যকার যে কেউ চিৎকাররত উট, গাভী বা বকরী বহত করতঃ আল্লাহর সমীপে উপস্থিত হইবে, আমি তাকে পুরোপুরি চিনতে পারবো। তারপর তিনি দুহাত এমনভাবে ঊর্ধ্বে তুললেন যে তাহাঁর বগলদ্বয়ের শুভ্রতা দেখা গেল। তিনি বলছিলেন, হে আল্লাহ! আমি কি [তোমার নির্দেশ] পৌঁছে দিয়েছি? [রাবী বলেন, সে দৃশ্যটি] আমার চোখ দেখেছে এবং সে বক্তব্য আমার কান শুনেছে।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৮৮, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৯১]

৪৬৩৬. উরওয়াহ্ ইবনি যুবায়র [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] এক ব্যক্তিকে সদাকাহ্ উসূলের জন্য কর্মচারী নিযুক্ত করেন। সে প্রচুর মাল নিয়ে আসলো আর বলিতে লাগলো এটা আপনাদের আর ওটা আমাকে উপহার দেয়া হয়েছে। তারপর রাবী অনুরূপ বর্ণনা করেন। রাবী উরওয়াহ্ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] বলেন, আমি আবু হুমায়দ আস্-সাইদী [রাদি.]-কে জিজ্ঞেস করলাম আপনি নিজে কি তা রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম]-এর নিকট থেকে শুনেছেন? জবাবে তিনি বলিলেন, তাহাঁর পবিত্র মুখ থেকে  আমার কানে শুনেছি।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৯০, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৯৩]

৪৬৩৭. আদী ইবনি উমাইরাহ্‌ আল-কিন্দী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম]-কে বলিতে শুনেছিঃ আমরা তোমাদের মধ্যে যাকে আদায়কারী নিযুক্ত করি, আর সে একটি সূঁচ পরিমাণ বা তার চাইতেও কম মাল আমাদের কাছে গোপন করে, তাই আত্মসাৎ বলে গণ্য হইবে এবং তা নিয়েই কিয়ামতের দিন সে উপস্থিত হইবে। রাবী বলেন, তখন একজন কৃষ্ণকায় আনসারী [সাহাবী] তাহাঁর দিকে অগ্রসর হলেন, আমি যেন তাঁকে দেখিতে পাচ্ছি। তিনি আরয করিলেন, হে আল্লাহ্‌র রাসূল! আপনার দায়িত্বভার আপনি বুঝে নিন। তখন রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বলিলেন, তোমার কি হয়েছে? তিনি আরয করিলেন, আমি আপনাকে এরূপ এরূপ [কঠিন ভাষা] বলিতে শুনেছি। তখন তিনি বলিলেন, আমি এখনও বলছি, তোমাদের মধ্যকার যাকেই আমি কর্মচারী নিযুক্ত করি আর সে অল্প বিস্তর যা-ই আদায় করে এনে উপস্থিত করে, তারপর তাকে যা-ই দেয়া হয় তা-ই গ্রহণ করে এবং যা থেকে নিষেধ করা হয় তা থেকে বিরত থাকে [তার জন্য ভয়ের কারণ নেই]।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৯১, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৯৪]

৪৬৩৮. ইসমাঈল [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

উক্ত সানাদে অনুরূপ বর্ণিত আছে।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৯২, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৯৪/ক]

৪৬৩৯. আদী ইবনি আমীর আল-কিন্দী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] কে অনুরূপ বলিতে শুনেছি।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫৯৩, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫৯৫]

By ইমাম মুসলিম

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply