উপদেশ দানের ক্ষেত্রে মধ্যপন্থা অবলম্বন করা

উপদেশ দানের ক্ষেত্রে মধ্যপন্থা অবলম্বন করা

উপদেশ দানের ক্ষেত্রে মধ্যপন্থা অবলম্বন করা >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

১৯. অধ্যায়ঃ উপদেশ দানের ক্ষেত্রে মধ্যপন্থা অবলম্বন করা

৭০১৯. শাকীক্ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আবদুল্লাহ [রাদি.]-এর অপেক্ষায় আমরা তাহাঁর [বাড়ীর] দ্বারপ্রান্তে বসা ছিলাম। এ সময় ইয়াযীদ ইবনি মুআবিয়াহ্ নাখাঈ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] আমাদের পাশ দিয়ে অতিক্রম করিতে লাগলেন। আমরা তাকে বললাম, আপনি তাকে আমাদের অবস্থানের সংবাদটি দিন। তিনি ভেতরে তাহাঁর নিকট গেলেন। অমনি দেরী না করে আবদুল্লাহ [রাদি.] আমাদের সম্মুখে বেরিয়ে আসলেন। তারপর তিনি বলিলেন, তোমাদের অবস্থানের সংবাদ আমাকে পৌঁছানো হয়েছে। তবে তোমাদের কাছে আসতে এ জিনিসই আমাকে নিষেধ করেছে যে, আমি যেন তোমাদেরকে বিরক্ত না করে ফেলি। রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] আমাদের উদ্দেশে নির্ধারিত দিনে উপদেশ দিতেন, আমাদের মধ্যে যাতে বিরক্ত ভাব সৃষ্টি না হয়।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৮৬৬, ইসলামিক সেন্টার- ৬৯২৩]

৭০২০. আবু সাঈদ আল আশাজ্জ ও মিনজাব ইবনিল হারিস আত্ তামীমী, ইসহাক্ ইবনি ইব্রাহীম ও আলী ইবনি খাশরাম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি], ইবনি আবু উমর [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] ….. আমাশ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

আবু সাঈদ আল আশাজ্জ ও মিনজাব ইবনিল হারিস আত্ তামীমী, ইসহাক্ ইবনি ইব্রাহীম ও আলী ইবনি খাশরাম [রহমাতুল্লাহি আলাইহি], ইবনি আবু উমর [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] ….. আমাশ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে এ সূত্রে অবিকল হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন।

মিনজাব আরও উল্লেখ করিয়াছেন যে, ইবনি মুসহির হইতে। তিনি বলেন, আমাশ বলেছেন, আম্‌র ইবনি মুর্রাহ্ হইতে, তিনি শাকীক্ হইতে, তিনি আবদুল্লাহ হইতে।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৮৬৭, ইসলামিক সেন্টার- ৬৯২৪]

৭০২১. ওয়ায়িল-এর পিতা শাকীক [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আবদুল্লাহ [রাদি.] প্রত্যেক বৃহস্পতিবার দিন আমাদেরকে উপদেশ দিতেন। এক লোক তাকে বলিলেন, হে আবদুর রহ্মানের পিতা! আমরা আপনার কাছ থেকে হাদীস বর্ণনা শুনতে ভালো লাগে এবং ইচ্ছা পোষণ করি যে, আপনি আমাদের কাছে প্রত্যেক দিন হাদীস বর্ণনা করেন। এ কথা শুনে তিনি বলিলেন, এ কাজ হইতে আমাকে যা বিরত রাখে তা হলো, আমি তোমাদেরকে বিরক্ত করা পছন্দ করি না, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] আমাদের অবস্থার প্রতি লক্ষ্য রেখে নির্ধারিত দিনে উপদেশ দিতেন, আমরা যাতে বিরক্ত না হই।

[ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬৮৬৮, ইসলামিক সেন্টার- ৬৯২৫]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply