যে সকল কাফিরদের কাছে ইসলামের দাওয়াত পৌঁছেছে

যে সকল কাফিরদের কাছে ইসলামের দাওয়াত পৌঁছেছে

যে সকল কাফিরদের কাছে ইসলামের দাওয়াত পৌঁছেছে >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

১. অধ্যায়ঃ যে সকল কাফিরদের কাছে ইসলামের দাওয়াত পৌঁছেছে, তাদের বিরুদ্ধে পূর্ব ঘোষণা ব্যতীত যুদ্ধের বৈধতা

৪৪১১

ইবনে আওন [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি নাফি [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] -কে এ কথা জানতে চেয়ে পত্র লিখলাম যে, যুদ্ধের পূর্বে বিধর্মীদের প্রতি দ্বীনের দাওয়াত দেয়া প্রয়োজন কি-না? ইবনি আওন বলেন, তখন তিনি আমাকে লিখলেন যে, এ [প্রথা] ইসলামের প্রারম্ভিক যুগে ছিল। রসূলুল্লাহ [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] বানূ মুসতালিকের উপর অতর্কিত আক্রমণ করিলেন এমন অবস্থায় যে, তাদের পশুদের পানি পান করানো হচ্ছিল। তিনি তাদের যোদ্ধাদের হত্যা করিলেন এবং বাকীদের বন্দী করিলেন। আর সেদিনেই তাহাঁর হস্তগত হয়েছিল- ইয়াহইয়া বলেন যে, আমার মনে হয় তিনি বলেছেন – জুওয়াইরিয়াহ্ কিংবা নিশ্চিতরূপে বলেছেন হারিসের কন্যা। বর্ণনাকারী বলেন, এ হাদীস আমাকে আবদুল্লাহ ইবনি উমর [রাদি.] বর্ণনা করিয়াছেন। তিনি তখন সে সেনাদলের মধ্যে ছিলেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৩৭০, ইসলামিক সেন্টার- ৪৩৭০]

৪৪১২

ইবনি আওন [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে এ একই সূত্র হইতে বর্ণীতঃ

উল্লিখিত হাদীসের অনুরূপ হাদীস বর্ণনা করিয়াছেন। কিন্তু তিনি জুওয়াইরিয়াহ্ বিনতু হারিস এর নাম উল্লেখ করিয়াছেন তাতে সন্দেহ পোষণ করেননি। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৩৭১, ইসলামিক সেন্টার- ৪৩৭১]

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply