ইবনে মাজাহ pdf – রসিকতা, হাঁচির জবাব দেয়া

ইবনে মাজাহ pdf – শিষ্টাচার অধ্যায় সমূহ

ইবনে মাজাহ pdf – শিষ্টাচার অধ্যায় সমূহ >> সুনানে ইবনে মাজাহ হাদিস এর মুল সুচিপত্র পড়ুন

পর্বঃ ৩৩, অধ্যায়ঃ (২০-২৯)=১০টি

২০. অধ্যায়ঃ হাঁচির জবাব দেয়া
২১. অধ্যায়ঃ যে কেউ নিজ সহযোগীদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করিবে
২২. অধ্যায়ঃ কোন ব্যক্তি মজলিসে নিজ স্থান থেকে উঠে গিয়ে আবার ফিরে এলে সে-ই উক্ত স্থানের অধিক হকদার
২৩. অধ্যায়ঃ ওযর বা অপারগতা প্রকাশ
২৪. অধ্যায়ঃ রসিকতা
২৫. অধ্যায়ঃ সাদা চুল উপড়ানো
২৬. অধ্যায়ঃ ছায়া ও রোদের মাঝামাঝি বসা
২৭. অধ্যায়ঃ উপুড় হয়ে শোয়া নিষেধ
২৮. অধ্যায়ঃ জ্যোতিষ বিষয়ক জ্ঞান অর্জন
২৯. অধ্যায়ঃ বাতাসকে গালি দেয়া নিষেধ

২০. অধ্যায়ঃ হাঁচির জবাব দেয়া

৩৭১৩. আনাস বিন মালিক [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, নবী [সাঃআঃ]-এর সামনে দু ব্যক্তি হাঁচি দিলে, তিনি তাহাদের একজনের হাঁচির জবাব দিলেন এবং অপর জনের জবাব দেননি। তাহাঁকে বলা হলো, ইয়া রাসূলুল্লাহ! আপনার নিকট দু ব্যক্তি হাঁচি দিয়েছে। আপনি তাহাদের একজনের জবাব দিলেন এবং অপরজনের জবাব দেননি। তিনি বলেনঃ এই ব্যক্তি আল্লাহর প্রশংসা করেছে এবং ঐ ব্যক্তি আল্লাহর প্রশংসা করেনি। {৩০৪৫}

{৩০৪৫} সহিহুল বুখারি হাদিস নং ৬২২১, ৬২২৫, মুসলিম ২৯৯১, তিরমিজি ২৭৪২, আবু দাউদ ৫০৩৯, আহমাদ ১১৫৫১, ১১৭৫৭, ১২৩৮৭, দারেমী ২৬৬০। ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

৩৭১৪. সালামা ইবনিল আকওয়া [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ হাঁচিদাতাহার উত্তর দিতে হইবে তিনবার, এর অধিকবার হাঁচি দিলে সে ঠান্ডায় আক্রান্ত। {৩০৪৬}

{৩০৪৬} মুসলিম ২৯৯৩, তিরমিজি ২৭৪৩, আবু দাউদ ৫০৩৭, আহমাদ ১৬০৬৬, দারেমী ২৬৬১। মিশকাত ৪৭৪৩। ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

৩৭১৫. আলী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ তোমাদের কেউ হাঁচি দিলে যেন বলে, আলহামদু লিল্লাহ [সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর]। তাহার আশেপাশে উপস্থিত ব্যক্তিগণ যেন বলে, ইয়ারহামুকাল্লাহ [আল্লাহ তোমায় অনুগ্রহ করুন]। প্রতি উত্তরে হাঁচিদাতা যেন বলে, ইয়াহদীকুমুল্লাহু ওয়া ইউসলিহু বালাকুম [আল্লাহ তোমাদের সৎপথ প্রদর্শন করুন এবং তোমাদের অবস্থার সংশোধন করুন]। {৩০৪৭}

{৩০৪৭} তিরমিজি ২৭৪১, দারেমী ২৬৫৯। ৭৮০, ৩/২৪৫, ২৪৬। ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

২১. অধ্যায়ঃ যে কেউ নিজ সহযোগীদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করিবে

৩৭১৬. আনাস বিন মালিক [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, নবী [সাঃআঃ] যখন কোন ব্যক্তির সাথে সাক্ষাত করিতেন এবং কথা বলিতেন, তখন সে মুখ ফিরিয়ে না নেয়া পর্যন্ত তিনি তাহাঁর মুখ ফিরিয়ে নিতেন না এবং যখন কারো সাথে মুসাফাহা করিতেন, তখন সে তাহার হাত সরিয়ে না নেয়া পর্যন্ত তিনি তাহার থেকে নিজের হাত সরিয়ে নিতেন না। তাহাঁর সাথে উপবিষ্ট লোকেদের দিকে পা ছড়িয়ে দিয়ে তাহাঁকে কখনো বসতে দেখা যায় নি। {৩০৪৮}

তাহকীক আলবানী ঃ মুসাফাহার কথা ব্যতীত দুর্বল। কেননা মুসাফাহার কথাটি প্রমাণিত।{৩০৪৮} তিরমিজি ২৪৯০। সহীহাহ ২৪৮৫। ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ দুর্বল হাদিস

২২. অধ্যায়ঃ কোন ব্যক্তি মজলিসে নিজ স্থান থেকে উঠে গিয়ে আবার ফিরে এলে সে-ই উক্ত স্থানের অধিক হকদার

৩৭১৭. আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] বলেনঃ তোমাদের কেউ তাহার বসার স্থান থেকে উঠে গিয়ে আবার ফিরে এলে সে-ই উক্ত স্থানের অধিক হকদার। {৩০৪৯}

{৩০৪৯} মুসলিম ২১৭৯, আবু দাউদ ৪৮৫৩, আহমাদ ৭৫১৪, ৭৭৫১, ৮৩০৪, ৮৮১০, ৯৪৬৩, ৯৪৮২, ৯৮৯৪, ১০৪৪২, ১১৫৫৯, দারেমী ২৬৫৪। ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

২৩. অধ্যায়ঃ ওযর বা অপারগতা প্রকাশ

৩৭১৮. জূওদান [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ কোন ব্যক্তি তাহার ভাইয়ের নিকট ওযর বা অপারগতা প্রকাশ করিলে এবং সে তা গ্রহণ না করিলে, সে কর আদায়কারীর অপরাধের সমান অপরাধী গণ্য হইবে।

{উপরোক্ত হাদীসে মোট ২টি সানাদের ১টি বর্ণিত হইয়াছে, অপর সানাদটি হলোঃ}

২/৩৭১৮ [১]. জূওদান [রাদি.], নবী [সাঃআঃ] সূত্রে অনুরূপ হাদিস বর্ণিত হইয়াছে। {৩০৫০}

{৩০৫০} হাদিসটি ঈমাম ইবনি মাজাহ এককভাবে বর্ণনা করিয়াছেন। গায়াতুল মারাম ২৩৬ নং পৃষ্ঠা। ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ দুর্বল হাদিস

২৪. অধ্যায়ঃ রসিকতা

৩৭১৯. উম্মু সালামাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, নবী [সাঃআঃ]-এর ইন্তিকালের এক বছর পূর্বে আবু বকর [রাদি.] ব্যবসা উপলক্ষে বুসরা যান। নুআয়মান [রাদি.] এবং হারমালাহর পুত্র সুয়ায়বিত [রাদি.] তাহার সাথে ছিলেন। তাহারা উভয়ে বদর যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন। নুআয়মান [রাদি.] রসদপত্রের দায়িত্বে ছিলেন। সুয়ায়বিত [রাদি.] ছিলেন কৌতুকপ্রিয়। তিনি নুআয়মান [রাদি.] কে বলেন, আমাকে কিছু আহার দিন। তিনি বলেন, আবু বকর [রাদি.] আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তিনি বলেন, না, আমি আপনাকে পেরেশান করে ছাড়বো। রাবী বলেন, অতঃপর তাহারা একদল লোককে অতিক্রম করে যাচ্ছিলেন। সুয়ায়বিত [রাদি.] তাহাদের বলেন, তোমরা কি আমার নিকট থেকে আমার একটি গোলাম খরিদ করিবে? তাহারা বলেন, হাঁ। তিনি বলেন, সে এমন গোলাম যাহার একটা কথা আছে। সে তোমাদের বলবে, আমি স্বাধীন। তোমরা তাহার এ কথায় বিশ্বাস করে তাহাকে ছেড়ে দিয়ে আমাকে কিন্তু আমার এ গোলামের ব্যাপারে ফ্যাসাদে ফেলো না যেন। তাহারা বলল, না, আমরা বরং তাহাকে তোমার থেকে ক্রয় করিব। তাহারা তাহার থেকে তাহাকে দশটি উটের বিনিময়ে ক্রয় করে তাহার নিকট এলো। তাহারা তাহার গলায় পাগড়ি অথবা রশি বাঁধলো। নুআয়মান [রাদি.] বলেন, এই লোক কিন্তু তোমাদের সাথে উপহাস করেছে, সত্যি আমি স্বাধীন, গোলাম নই। তাহারা বলল, তোমার ব্যাপারটা আমাদের অবহিত করা হইয়াছে। তাহারা তাহাঁকে নিয়ে চলে গেল। ইতোমধ্যে আবু বকর [রাদি.] এসে গেলে তাহাঁর সঙ্গীরা তাহাঁকে বিষয়টি অবহিত করিলেন। রাবী বলেন, অতঃপর তিনি তাহাদের নিকট গেলেন এবং তাহাদের উট তাহাদেরকে ফেরত দিয়ে নুআয়মান [রাদি.] কে ছাড়িয়ে আনলেন। রাবী বলেন, তাহারা নবী [সাঃআঃ]-এর নিকট ফিরে এসে বিষয়টি তাহাঁকে অবহিত করেন। রাবী বলেন, নবী [সাঃআঃ] ও তাহাঁর সাহাবীগণ তাহাকে নিয়ে [এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে] প্রায় এক বছর হাসি-তামাশা করেন। {৩০৫১}

{৩০৫১} আহমাদ ২৬১৪৭।ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ দুর্বল হাদিস

৩৭২০. আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] আমাদের সাথে মেলামেশা করিতেন, এমনকি তিনি আমার এক ছোট ভাইকে বলিতেন ঃ হে আবু উমায়র! কী করেছে নুগায়র? ওয়াকী [রাদি.] বলেন, অর্থাৎ যে পাখিটি নিয়ে আবু উমাইর খেলা করতো। {৩০৫২}

{৩০৫২} বুখারী ৬১২৯, ৬২০৩, মুসলিম ৪০০৩, তিরমিজি ৩৩৩, ১৯৮৯, আবু দাঊদ ৬৫৮, ৪৯৫৯, আহমাদ ১১৭২৭, ১১৭৮৯, ১২৩৪২, ১২৫৪৫, ১২৬৬৪, ১২৭৯৭, ১২৯১২। মুখতাসরুশ শামাইল ২০১।ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

২৫. অধ্যায়ঃ সাদা চুল উপড়ানো

৩৭২১. আবদুল্লাহ বিন আমর ইবনিল আস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] সাদা চুল উপড়াতে নিষেধ করিয়াছেন এবং বলেছেনঃ এটা মুমিনের নূর। {৩০৫৩}

{৩০৫৩} নাসাঈ ৫০৬৮, আবু দাউদ ৪২০২। আত তালীকুর রাগীব ৩/১১৩, মিশকাত ৪৪৫৮।ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ হাসান সহীহ

২৬. অধ্যায়ঃ ছায়া ও রোদের মাঝামাঝি বসা

৩৭২২. বুরায়দাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] ছায়া ও রোদের মাঝামাঝি বসতে নিষেধ করিয়াছেন। {৩০৫৪}

{৩০৫৪} হাদিসটি ঈমাম ইবনি মাজাহ এককভাবে বর্ণনা করিয়াছেন। সহীহাহ ৮৩৮।ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

২৭. অধ্যায়ঃ উপুড় হয়ে শোয়া নিষেধ

৩৭২৩. তিখফাহ বিন কায়স আল-গিফারী [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] আমাকে মসজিদে উপুড় হয়ে শোয়া অবস্থায় পেলেন। তিনি তাহাঁর পা দ্বারা আমাকে খোঁচা মেরে বলেনঃ তোমার এ ধরণের শোয়া কিরূপ। এ ধরণের শোয়া তো আল্লাহ অপছন্দ করেন বা ঘৃণা করেন। {৩০৫৫}

{৩০৫৫} তিরমিজি ২৭৬৮, আবু দাউদ ৫০৪০, আহমাদ ১৫১১৫, ১৫১১৭, ২৩১০৩। মিশকাত ৪৭১৮, ৪৭১৯, ৪৭৩১।ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

৩৭২৪. আবু যাহার [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি উপুড় হয়ে শুয়ে থাকা অবস্থায় নবী [সাঃআঃ] আমার পাশ দিয়ে গেলেন। তিনি আমাকে তাহাঁর পা দ্বারা খোঁচা মেরে বলেনঃ হে জুনাইদিব! এটা তো জাহান্নামের শয়ন। {৩০৫৬}

{৩০৫৬} হাদিসটি ঈমাম ইবনি মাজাহ এককভাবে বর্ণনা করিয়াছেন।ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

৩৭২৫. আবু উমামাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, নবী [সাঃআঃ] মসজিদে উপুড় হয়ে শায়িত এক ব্যক্তির পাশ দিয়ে যেতে তাহাঁর পা দ্বারা তাহাকে খোঁচা মেরে বলেনঃ দাঁড়াও অথবা বসো। কেননা এটা জাহান্নামীর শয়ন। {৩০৫৭}

{৩০৫৭} হাদিসটি ঈমাম ইবনি মাজাহ এককভাবে বর্ণনা করিয়াছেন।ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ দুর্বল হাদিস

২৮. অধ্যায়ঃ জ্যোতিষ বিষয়ক জ্ঞান অর্জন

৩৭২৬. ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ যে ব্যক্তি জ্যোতিষ বিদ্যার কিছু শিক্ষা করিল, সে যেন যাদু বিদ্যার একটা শাখা আয়ত্ত করিল, এখন তা যত বাড়ায় বাড়াক। {৩০৫৮}

{৩০৫৮} আবু দাউদ ৩৯০৫, আহমাদ ২০০১, ২৮৩৬। সহীহাহ ৭৯৩।ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ হাসান হাদিস

২৯. অধ্যায়ঃ বাতাসকে গালি দেয়া নিষেধ

৩৭২৭. আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ তোমরা বাতাসকে গালি দিও না। কারণ তা আল্লাহর রহমাতের অন্তর্ভুক্ত, তা রহমাত ও শাস্তি বয়ে আনে। তোমরা আল্লাহর নিকট এর মধ্যে নিহিত কল্যাণের প্রার্থনা করো এবং তাহার মধ্যে নিহিত অনিষ্ট থেকে আল্লাহর আশ্রয় প্রার্থনা করো। {৩০৫৯}

{৩০৫৯} আবু দাউদ ৫০৯৭, আহমাদ ৭৩৬৫, ৯৩৪৬। মিশকাত ১৫১৬, তাখরীজুল কালিমুত তায়্যিব ১৫৩, সহীহাহ ২৭৫৭।ইবনে মাজাহ PDF হাদিস এর তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

By ইমাম ইবনে মাজাহ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply