নতুন লেখা

খন্দকের বা আহযাব যুদ্ধ

খন্দকের বা আহযাব যুদ্ধ

খন্দকের বা আহযাব যুদ্ধ >> সহীহ মুসলিম শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে মুসলিম শরীফ এর একটি অধ্যায়ের হাদিস পড়ুন

৪৪. অধ্যায়ঃ খন্দকের বা আহযাব যুদ্ধ

৪৫৬২

বারা [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] খন্দকের যুদ্ধের দিন আমাদের সঙ্গে একত্রে মাটি বহন করেন। মাটি তাহাঁর পেটের শুভ্রতাকে আচ্ছন্ন করে ফেলে। আর তখন তিনি আবৃত্তি করছিলেন:

“আল্লাহর কসম! আপনি না করলে আমরা হিদায়াত পেতাম না, সদাকাহ্ দিতাম না এবং নামাজও আদায় করতাম না। আমাদের প্রতি প্রশান্তি দান করুন, আর তারাতো [মাক্কাবাসীরা] আমাদেরকে মেনে নিলো না।”

আবার কখনোও কখনোও বলছিলেন: “সে দলটি আমাদের মানতে অস্বীকার করিল, তারা যখন ফিতনা [শিরক ও কুফরী] চাইল, তখন আমরা অস্বীকার করলাম।”

আর তা উচ্চারণের সময় তিনি তাহাঁর স্বর উচ্চ করছিলেন। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫১৯, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫২১]

৪৫৬৩

আবু ইসহাক্ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি বারা [রাদি.]-কে অনুরূপ বলিতে শুনেছি। তবে তিনি বলেন যে, সর্দারেরা আমাদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করিল। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫২০, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫২২]

৪৫৬৪

সাহল ইবনি সাদ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] আমাদের কাছে এলেন, আমরা তখন পরিখা [খন্দক] খনন করছিলাম এবং কাঁধে করে মাটি একস্হান থেকে অন্যস্হানে ফেলছিলাম। তিনি বলিলেন, “হে আল্লাহ! আখিরাতের সূখ ছাড়া সূখ নেই, মুহাজির ও আনসারদেরকে ক্ষমা করুন।” [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫২১, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫২৩]

৪৫৬৫

আনাস ইবনি মালিক [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছিলেন, “হে আল্লাহ! আখিরাতের সূখ ছাড়া সূখ নেই। আপনি ক্ষমা করে দিন আনসার মুহাজিদেরকে”। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫২২, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫২৪]

৪৫৬৬

আনাস [রাদি.] -এর অন্য রিওয়ায়াত হইতে বর্ণীতঃ

রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলছিলেন: “হে আল্লাহ! সুখতো [কেবল] আখিরাতের সূখই। শুবাহ [রাদি.] বলেন, অথবা তিনি বলেছেন: ইয়া আল্লাহ! আখিরাতের সুখ ছাড়া কোন সুখ নেই। আনসার ও মুহাজিরদেরকে সম্মানিত করুন”। [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫২৩, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫২৫]

৪৫৬৭

আনাস ইবনি মালিক [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, তাঁরা [সেদিন] সমবেত সুরে গাইতে ছিলেন এবং তাঁদের সঙ্গে রসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] ছিলেন। তাঁরা বলছিলেন : “হে আল্লাহ! প্রকৃত কল্যাণ তো আখিরাতে। আনসার ও মুহাজিরদের সাহায্য করুন। আর শাইবানের হাদীস [আরবি] এর পরিবর্তে [আরবি] শব্দ ব্যবহার করা হয়েছে।” [ ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫২৪, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫২৬]

৪৫৬৮

আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

মুহাম্মাদ [সাঃআঃ] এর সাহাবীগণ খন্দকের দিন বলেছিলেন : আমরা সে লোক যারা মুহাম্মাদ [সাঃআঃ] এর নিকট বাইআত হয়েছি। আর ইসলামের উপরই আছি। রাবি মুহাম্মাদ [রহমাতুল্লাহি আলাইহি] সন্দেহ করে বলেন, অথবা বলেছিল : জিহাদের উপরই আছি সর্বদা। আর নবী [সাঃআঃ] বলছিলেন : “ হে আল্লাহ! আসল তো আখিরাতের কল্যাণ। আনসারদের এবং মুহাজিরদের ক্ষমা করুন।” [ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৫২৫, ইসলামিক সেন্টার- ৪৫২৭]

About Muslim

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে”

মহান আল্লাহর বাণী : “তারা দুটি বিবদমান পক্ষ তাদের প্রতিপালক সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে” মহান আল্লাহর …

Leave a Reply

%d bloggers like this: