নতুন লেখা

আরবীতে আঙ্গুরের নাম করম রাখা মাকরূহ

আরবীতে আঙ্গুরের নাম করম রাখা মাকরূহ

আরবীতে আঙ্গুরের নাম করম রাখা মাকরূহ >> রিয়াদুস সালেহীন  হাদিস শরীফ এর মুল সুচিপত্র দেখুন >> নিম্নে রিয়াদুস সালেহীন হাদিস শরীফ এর একটি পরিচ্ছেদের হাদিস পড়ুন

পরিচ্ছেদ – ৩৩০ : আরবীতে আঙ্গুরের নাম করম রাখা মাকরূহ

1/1749. عَنْ أَبِي هُرَيرَةَ رضي الله عنه قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم: «لاَ تُسَمُّوا العِنَبَ الكَرْمَ، فَإنَّ الكَرْمَ المُسْلِمُ» متفق عليه، وهذا لفظ مسلم . وفي رواية : «فَإنَّمَا الكَرْمُ قَلْبُ المُؤمِنِ» . وفي رواية للبخاري ومسلم : «يَقُولُونَ الكَرْمُ، إنَّمَا الكَرْمُ قَلْبُ المُؤْمِنِ» .

১/১৭৪৯। আবু হুরায়রা রাঃআঃ হইতে বর্ণিত, তিনি বলেন, আল্লাহর রসূল সাঃআঃ বলেছেন, ‘‘তোমরা আঙ্গুরের নাম ‘করম’ [বদান্য] রেখো না। কেননা, ‘করম’ [বদান্য] তো মুসলিম হয়।’’ [মুসলিম] [1]

অন্য এক বর্ণনায় আছে, ‘‘কারম’ [বদান্য] তো মু’মিনের হৃদয়।’’ বুখারী ও মুসলিমের অপর এক বর্ণনা মতে: ‘‘লোকে [আঙ্গুরকে] ‘কারম’ [বদান্য] বলে। ‘কারম’ [বদান্য] তো কেবল মু’মিনের হৃদয়।’’

2/1750 وَعَنْ وَائِلِ بنِ حُجْرٍ رضي الله عنه عَنِ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم، قَالَ: «لاَ تَقُولُوا : الكَرْمُ، وَلَكِنْ قُولُوا : العِنَبُ، وَالحَبَلَةُ». رواه مسلم

২/১৭৫০। ওয়ায়েল ইবনি হুজ্র রাঃআঃ হইতে বর্ণিত, নবী সাঃআঃ বলেছেন, ‘‘আঙ্গুরকে ‘করম’ বলো না। বরং ‘ইনাব’ ও ‘হাবালাহ’ বল।’’ [মুসলিম] [2]

[আঙ্গুরকে আরবী ভাষায় ইনাবহাবালাহবলা হয়। এর উৎকৃষ্টতা ও উপকারিতার জন্য লোকে সম্মানের সাথে তাকে করম’ [বদান্য] নামে আখ্যায়িত করত। অথচ এ বিশেষণের অধিকারী একমাত্র মুমিন মানুষ। তাই এই নিষেধাজ্ঞা।

বলাই বাহুল্য যে, যে শব্দ প্রয়োগে শরয়ী বাধা আছে, তা বর্জন করা বাঞ্ছনীয়। যেমন, রামধনু, বিশ্বব্রহ্মান্ড, দৈবাৎক্রমে, দেবর, লক্ষ্মী মেয়ে, হরিলুট ইত্যাদি।]


[1] সহীহুল বুখারী ৪৮২৬, ৬১৮১, ৬১৮৩, ৭৪৯১, মুসলিম ২২৪৬, আবূ দাউদ ৪৯৭৪, ৫২৭৪, আহমাদ ৭২০৪, ৭২১৬, ৭৪৬৬, ৭৬২৫, ৭৬৫৯, ৮৮৭২, ৮৮৯২, ৯৮০৭, ৯৯৯৪, ১০০৬১, ১০১০১, ১০২০০, মুওয়াত্তা মালিক ১৮৪৬, দারেমী ২৭০০

[2] মুসলিম ২২৪৮, দারেমী ২১১৪

About halalbajar.com

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Check Also

ইলম (জ্ঞান ও শিক্ষা) বিষয়ক অধ্যায়

পরিচ্ছেদ – ২৪১ঃ ইল্মের ফযীলত পরিচ্ছেদ – ২৪২ঃ মহান আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করা ওয়াজেব

Leave a Reply

%d bloggers like this: