অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন সম্পর্কে বর্ণনা

অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন সম্পর্কে বর্ণনা

অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন সম্পর্কে বর্ণনা >> মিশকাতুল মাসাবীহ এর মুল সুচিপত্র দেখুন

পর্বঃ ৩, অধ্যায়ঃ ৮

  • অধ্যায়ঃ ৮. প্রথম অনুচ্ছেদ
  • অধ্যায়ঃ ৮. দ্বিতীয় অনুচ্ছেদ
  • অধ্যায়ঃ ৮. তৃতীয় অনুচ্ছেদ

অধ্যায়ঃ ৮. প্রথম অনুচ্ছেদ

৪৯০. আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ তোমাদের কারো পাত্রে যখন কুকুর পানি পান করে, তখন সে যেন তা সাতবার ধুয়ে নেয়। {১} মুসলিমের অপর বর্ণনায় আছে, তিনি বলেছেন, তোমাদের কারো পাত্রে কুকুর মুখ দিলে সে যেন তা সাতবার ধুয়ে নেয় এবং এর প্রথমবার মাটি দিয়ে। {2]

{১} সহীহ : বোখারী ১৭২, মুসলিম ২৭৯, নাসায়ী ৬৩, আহমাদ ৯৯২৯, সহীহ আল জামি ৬২৭, ইবনি মাজাহ ৩৬৪।{2] সহীহ : মুসলিম ২৭৯। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৪৯১. আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, একদিন জনৈক বেদুইন মাসজিদে দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করে দিল। লোকেরা তাকে ঘিরে ধরল। নবী [সাঃআঃ] তাদেরকে বললেন, তাকে ছেড়ে দাও এবং প্রস্রাবের উপর এক বালতি পানি ঢেলে দাও। তোমাদের [মানুষের জন্য] সহজ পন্থা অবলম্বনকারী হিসেবে পাঠানো হয়েছে, কঠোরতা সৃষ্টিকারীরূপে নয়। {১}

{১} সহীহ : বোখারী ২২০, নাসায়ী ৫৬, আহমাদ ৭৭৯৯, সহীহ ইবনি হিব্বান ১৩৯৯, আবু দাউদ ৩৮০, ইবনি মাজাহ ৫২৯, সহীহ আত তারগীব ২৬৭৪। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৪৯২. আনাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, একদিন আমরা রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর সাথে মাসজিদে [নাবাবীতে] ছিলাম। এমন সময় জনৈক বেদুইন এসে মাসজিদে দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করিতে লাগল। রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর সহাবীগণ বলে উঠলেন, থাম, থাম। তখন রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেন, তাকে প্রস্রাব করিতে বাধা দিও না, তাকে তার অবস্থায় ছেড়ে দাও। তাই সহাবীগণ তাকে ছেড়ে দিলেন। সে প্রস্রাব করা শেষ করলে রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] তাকে ডেকে বললেন, এ মাসজিদসমূহে প্রস্রাব ও অপবিত্রকরণের কোন কাজ করা জায়িয নয়। বরং এটা শুধু আল্লাহর যিক্‌র, নামাজ ও কুরআন পাঠের জন্য। [রাবী বলেন] তিনি [সাঃআঃ] ঠিক এ বাক্য বা অনুরূপ কিছু বলেছেন। অতঃপর রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] মাসজিদে উপস্থিত একজনকে নির্দেশ দিলেন সে এক বালতি পানি এনে [প্রস্রাবের উপর] ঢেলে দিল। {১}

{১} সহীহ : বোখারী ১২২১, মুসলিম ২৮৫, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ৪১৪২, ইবনি মাজাহ ৫২৮; শব্দবিন্যাস মুসলিমের। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৪৯৩. আসমা বিনতু আবু বাকর [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, একদিন জনৈক মহিলা রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-কে জিজ্ঞেস করিল, হে আল্লাহর রসূল! আমাদের মধ্যে কারও যদি কাপড়ে হায়যের রক্ত লাগে, তখন সে কি করিবে? রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেন, তোমাদের কারো কাপড়ে হায়যের রক্ত লেগে গেলে, সে আঙ্গুল দিয়ে তা খুঁটে ফেলবে। অতঃপর পানি ঢেলে ধুয়ে নিবে। তারপর তাতে নামাজ আদায় করিবে। {১}

{১} সহীহ : বোখারী ৩০৭, মুসলিম ২৯১, আবু দাউদ ৩৬১, মালিক ৪৯/১৯৬, সহীহ আল জামি ৩৫০। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৪৯৪. সুলায়মান ইবনি ইয়াসার [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি আয়িশাহ্‌ [রাদি.]-কে কাপড়ে লেগে থাকা মানী [বীর্য] সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলাম। তিনি {আয়িশাহ্‌ [রাদি.]] বললেন, আমি রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর কাপড় থেকে মানী ধুয়ে দিতাম। তারপর তিনি নামাজ আদায়ের উদ্দেশে বের হইতেন, অথচ তাহাঁর [সাঃআঃ]-এর] কাপড়ে বীর্যের আলামাত দেখা যেত। {১}

{১} সহীহ : বোখারী ২৩০, মুসলিম ২৮৯, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ৪১৮০; শব্দবিন্যাস বোখারী। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৪৯৫. [তাবিঈদ্ব্য়] আসওয়াদ ও হাম্মাম [রাহিমাহুল্লাহ] হইতে বর্ণীতঃ

উভয়ে বলেন, আয়িশাহ্‌ [রাদি.] বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ [সাঃ-এর কাপড় হইতে বীর্য খুঁটে তুলে ফেলতাম। {১}

{১} সহীহ : মুসলিম ২৮৮, আবু দাউদ ৩৭২, আহমাদ ২৪৯৩৬, ইরওয়া ১৮০, ইবনি মাজাহ ৫৩৭। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৪৯৬. আয়িশাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তবে তাতে আরো আছে, “অতঃপর তিনি [সাঃআঃ] সে কাপড় পড়ে নামাজ আদায় করিতেন। {১}

{১} সহীহ : মুসলিম ২৮৮। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৪৯৭. উম্মু ক্বায়স বিনতু মিহসান [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

একদিন তিনি তার একটি শিশু নিয়ে রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর খিদমাতে উপস্থিত হলেন। [পুত্র শিশুটি মায়ের দুধের বিকল্প খাদ্য গ্রহণে অনুপযুক্ত ছিল]। রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] তাকে আপন কোলে বসালেন। শিশুটি তাহাঁর [সাঃআঃ]-এর কোলে প্রস্রাব করে দিল। তিনি [সাঃআঃ] পানি আনালেন, প্রস্রাবের উপর পানি ঢেলে দিলেন, ধুলেন না। {১}

{১} সহীহ : বোখারী ২২৩, মুসলিম ২৮৭, আবু দাউদ ৩৭৪, নাসায়ী ৩০২, ইবনি মাজাহ ৫২৪, ইরওয়া ১৬৯। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৪৯৮. আবদুল্লাহ ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-কে বলিতে শুনিয়াছি, তিনি [সাঃআঃ] বলেছেনঃ [কাঁচা] চামড়া যখন পাকা [প্রক্রিয়াজাত] করা হয়, তখন তা পাক হয়ে যায়। {১}

অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৪৯৯. আবদুল্লাহ ইবনি আব্বাস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, [আমার খালা] মায়মূনাহ্‌ [রাদি.]-এর এক মুক্তদাসীকে একটি বকরী দান করা হল। পরে সেটি মারা গেল। রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] তার নিকট দিয়ে যাবার সময় বললেন, তোমারা বকরীর চামড়াটা খুলে নিয়ে পাকা করলে না, অথচ এটা কাজে লাগাতে পারতে। তারা বলিল, এটা যে মৃত! তিনি [সাঃআঃ] বললেন, এটা শুধু খাওয়াই হারাম করা হয়েছে। {১}

{১} সহীহ : বোখারী ১৪৯২, মুসলিম ৩৬৩; শব্দ বিন্যাস মুসলিমের, আবু দাউদ ৪১২০, নাসায়ী ৪২৩৫, ইবনি মাজাহ ৩৬১০, আহমাদ ২৩৬৯, সহীহ ইবনি হিব্বান ১২৮২। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫০০. নবী [সাঃআঃ]-এর সহধর্মিণী সাওদাহ্‌ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমাদের একটি বকরী মারা গেলে আমরা এর চামড়াটা পাকা করলাম। অতঃপর আমরা সব সময় এতে নবীয বানাতে থাকি, যা পরবর্তীতে একটা পুরান মশকে পরিণত হল। {১}

{১} সহীহ : বোখারী ৬৬৮৬, আহমাদ ২৭৪১৮, সহীহ ইবনি হিব্বান ৫৪১৪, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ৫৪। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

অধ্যায়ঃ ৮. দ্বিতীয় অনুচ্ছেদ

৫০১. লুবাবাহ্ বিনতু হারিস [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, হুসায়ন ইবনি আলী [রাদি.] রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর কোলে তাহাঁর কাপড়ে প্রস্রাব করে দিলেন। তখন আমি বললাম, আপনি অন্য কাপড় পরে নিন এবং আমাকে আপনার কাপড়টি দিন, আমি তা ধুয়ে দেই। তিনি [সাঃআঃ] তার উত্তরে বললেন, মেয়েদের প্রস্রাব ধুতে হয়। ছেলেদের প্রস্রাবের উপর পানি ছিটিয়ে দিলেই হয়। {১}

{১} সহীহ : আবু দাউদ ৩৭৫, ইবনি মাজাহ ৫২২, আহমাদ ৬/৩৩৯, হাকিম ১/১৬৬। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫০২. আবুস্‌ সাম্‌হ হইতে বর্ণীতঃ

আবু দাউদ ও নাসায়ীর এক বর্ণনায় আবুস্‌ সাম্‌হ হইতে এ শব্দগুলো অনুরূপ বর্ণিত হয়েছে যে, তিনি [সাঃআঃ] বলেছেনঃ মেয়ে শিশুদের প্রস্রাব ধুতে হয়। আর ছেলে শিশুদের প্রস্রাবে পানি ছিটিয়ে দিলেই যথেষ্ট হয়। {১}

{১} সহীহ : আবু দাউদ ৩৭৬, নাসায়ী ৩০৪, সহীহুল জামি ৮১১৭। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫০৩. আবু হুরাইরাহ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ তোমাদের কেউ যখন নিজের জুতা দিয়ে অপবিত্র জিনিস মাড়ায়, তখন মাটিই এর জন্য পবিত্রকারী। {১} ইবনি মাজাহ্‌ও অনুরূপ অর্থবোধক হাদিস বর্ণনা করিয়াছেন।

{১} সহীহ : আবু দাউদ ৩৮৫, ইবনি মাজাহ ৫৩২। হাদিসটির সানাদটি মূলত দুর্বল, তবে আয়িশাহ্ [রাদি.] এবং আবু সাঈদ আল খুদরী [রাদি.] হইতে সহীহ সূত্রে দুটি শাহিদ হাদিস বিদ্যমান থাকায় হাদিসটি সহীহের স্তরে পৌঁছেছে। কিন্তু ইবনি মাজাহর সানাদটি অত্যধিক দুর্বল। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫০৪. উম্মু সালামাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তাঁকে এক মহিলা এসে বলিল, আমি আমার কাপড়ের আঁচল নিচে লম্বা করে দেই, আর অপবিত্র জায়গায় চলি, [এখন আমি কী করব?] তিনি বললেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেনঃ পরের পবিত্র জায়গার মাটি এটাকে পবিত্র করে দেয়। {১}

আবু দাউদ ও দারিমী বলেন, প্রশ্নকারী মহিলা ছিলেন ইব্‌রাহীম ইবনি আবদুর রহমান ইবনি আওফ-এর উম্মু ওয়ালাদ বা সন্তানের মা।

{১} সহীহ : আহমাদ ২৬১৪৬, আবু দাউদ ৩৮৩, তিরমিজি ১৪৩, ইবনি মাজাহ ৫৩১, মুয়াত্ত্বা মালিক ১/২৪/১৬, দারিমী ৭৬৯। হাদিসের সানাদটি মূলত দুর্বল। তবে সহীহ সূত্রে বর্ণিত একটি শাহিদ হাদিস থাকায় তা সহীহ-এর স্তরে পৌঁছেছে। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫০৫. মিক্বদাম ইবনি মাদীকারীব [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] হিংস্র জন্তুর চামড়া পরতে ও এর উপর আরোহণ করিতে নিষেধ করিয়াছেন। {১}

{১} সহীহ : নাসায়ী ৪২৫৫, সিলসিলাহ্ আস্ সহীহাহ্ ১০১১। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫০৬. আবুল মালীহ ইবনি উসামাহ্ [রাহিমাহুল্লাহ] হইতে বর্ণীতঃ

নবী [সাঃআঃ] হিংস্র পশুর চামড়া ব্যবহার করিতে নিষেধ করিয়াছেন। {১} কিন্তু তিরমিজি ও দারিমীর বর্ণনায় আরো আছে, এবং তা বিছাতে [বিছানা বা গদী হিসেবে ব্যবহার করিতে নিষেধ করিয়াছেন] {2]

{১} সহীহ : আবু দাউদ ৪১৩২, সহীহুল জামি ২৯৫৩, আহমাদ ২০৭০৬, হাকিম ১/১৪৪, তিরমিজি ১৭৭০, নাসায়ী ৪২৫৩, দারিমী ২০২৬। যদিও ঈমাম তিরমিজি হাদিসটি মুরসাল বলেছেন। তবে শায়খ আলবানী [রাহিমাহুল্লাহ] বলেনঃ আমার মতে হাদিসটি বিশ্বস্ত রাবী কর্তৃক মাওসূল সূত্রে বর্ণিত হওয়ায় মুরসাল নয় বরং মাওসূল। {2] সহীহ : তিরমিজি ১৭৭১, [সহীহ সুনান আত তিরমিজি], দারিমী ১৯৮৩। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫০৭. আবুল মালীহ [রাহিমাহুল্লাহ] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি হিংস্র জন্তুর চামড়ার মূল্য অপছন্দ করিতেন। {১}

{১} সহীহ : তিরমিজি ১৭৭১। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫০৮. আবদুল্লাহ ইবনি উকায়ম [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমাদের কাছে এ মর্মে রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর পত্র এসেছে: তোমরা মৃত জীবজন্তুর চামড়া বা রগ দ্বারা ফায়দা উঠাবে না। {১}

{১} সহীহ : আবু দাউদ ৪১২৭, তিরমিজি ১৭২৯, নাসায়ী ৪২৪৯, ইবনি মাজাহ ৩৬১৩, ইরওয়া ৩৮। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫০৯. আয়িশাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সা:] মৃত জীবের চামড়া প্রক্রিয়াজাত করার পর এর থেকে উপকৃত হইতে নির্দেশ দিয়েছেন।{১}

{১} জইফ : মালিক ১৮, আবু দাউদ ৪১২৪, নাসায়ী ৪২৫২। এই হাদিসটির তাহকীকঃ দুর্বল হাদিস

৫১০. মায়মূনাহ্ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, কুরায়শ গোত্রের কিছু লোক গাধার মতো বড় একটি মৃত বকরীকে নবী [সাঃআঃ]-এর কাছ দিয়ে টেনে হেঁচড়ে নিয়ে যাচ্ছিল। তখন রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] তাদেরকে বললেন, তোমরা যদি এর চামড়া ছিলে নিতে [তাহলে হয়তো তোমাদের কাজে লাগত]। তারা বলিল, এটা তো মৃত[যাবাহ করা নয়]। রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেন, পানি এবং সলম গাছের পাতা এক পবিত্র করে।{১}

{১} সহীহ : আবু দাউদ ৪১২৬, সিলসিলাহ্ আস্ সহীহাহ্ ২১৬৩, নাসায়ী ৪২৪৮, আহমাদ ২৬৮৩৩। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫১১. সালামাহ্ ইবনুল মুহাব্বিক্ব [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, তাবূকের যুদ্ধের সময় রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] একটি পরিবারের নিকট গেলেন। সেখানে তিনি একটি মশক লটকানো দেখিতে পেলেন। তিনি [সাঃআঃ] [তাত্থেকে] পানি চাইলেন। লোকেরা বলিল, হে আল্লাহর রসূল! এটা তো মরা [জন্তুর পাকা করা] চামড়া। তিনি [সাঃআঃ] বললেন, এটাকে দাবাগত করাই হল এর পবিত্রতা। {১}

{১} সহীহ : আবু দাউদ ৪১২৫, আহমাদ ১৫৯০৯। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

অধ্যায়ঃ ৮. তৃতীয় অনুচ্ছেদ

৫১২. আবদুল আশহাল বংশের জনৈকা রমণী হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমি বললাম, হে আল্লাহর রসূল! মাসজিদের দিকে আমাদের [চলাচলের পথে] একটি অতি গন্ধময় রাস্তা আছে। সেখানে বৃষ্টি হবার পর আমরা কীভাবে সতর্কতা অবলম্বন করব? তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বললেন: মাসজিদের দিকে যাওয়ার জন্য পূর্বের চেয়ে আর কোন ভাল পবিত্র পথ পড়বে না? আমি বললাম, হ্যাঁ আছে। তিনি [সাঃআঃ] বললেন, এটাই হল ওটার বদলা [অর্থাৎ-পরবর্তী রাস্তার পবিত্র মাটি দিয়ে লেগে থাকা নাপাকী পবিত্র হয়ে যাবে]। {১}

{১} সহীহ : আবু দাউদ ৩৮৪। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫১৩. আবদুল্লাহ ইবনি মাস্ঊদ [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, আমরা রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর সাথে নামাজ আদায় করতাম। অথচ [পবিত্র মাটির] রাস্তায় চলার কারণে উযূ করতাম না। {১}

{১} সহীহ : আবু দাউদ ২০৪, সিলসিলাহ্ আস্ সহীহাহ্ ১৯৯। হাদিসটি ঈমাম তিরমিজি সানাদবিহীন অবস্থায় নিয়ে এসেছেন। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫১৪. ইবনি উমার [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ]-এর যুগে মাসজিদে [নাবাবীতে] কুকুর চলাচল করত। অথচ সাহাবীগণ [কুকুর হাঁটার জায়গায়] কোন পানি ছিটাতেন না [ধুইতেন না]। {১}

{১} সহীহ : বোখারী ১৭৪, আবু দাউদ ৩৮২, সহীহ ইবনি হিব্বান ১৬৫৬। অপবিত্রতা হতে পবিত্রতা অর্জন -এই হাদিসটির তাহকীকঃ সহীহ হাদিস

৫১৫. বারা [ইবনি আযিব] [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ [সাঃআঃ] বলেছেন: যার গোশত খাওয়া হয় তার প্রস্রাব গায়ে লাগলে ক্ষতি নেই। {১}

{১} খুবই দুর্বল : দারাকুত্বনী ১/১২৮, সিলসিলাহ্ আয্ যঈফাহ্ ৪৮৫০। কারণ এর সানাদে তিনজন রাবী- আমর ইবনুল হুসায়ন এবং ইয়াহ্ইয়া ইবনুল আলা দুর্বল আর সাও্ওয়ার ইবনি মুস্আব মাতরুক। ইবনি হাযম তার আল মুহাল্লা গ্রন্থে একে মাওযূ বলেছেন আর ইবনুল জাওযী হাদিসটি মাওযুআত-এর অন্তর্ভুক্ত করিয়াছেন। এই হাদিসটির তাহকীকঃ খুবই দুর্বল

৫১৬. জাবির [ইবনি আবদুল্লাহ] [রাদি.] হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, যে জীব-জন্তুর গোশত খাওয়া হয় তার প্রস্রাবে দোষ নেই। {১}

{১} জইফ : দারাকুত্বনী ১/১২৮। এই হাদিসটির তাহকীকঃ দুর্বল হাদিস

By মুসলিম শরীফ

এখানে কুরআন শরীফ, তাফসীর, প্রায় ৫০,০০০ হাদীস, প্রাচীন ফিকাহ কিতাব ও এর সুচিপত্র প্রচার করা হয়েছে। প্রশ্ন/পরামর্শ/ ভুল সংশোধন/বই ক্রয় করতে চাইলে আপনার পছন্দের লেখার নিচে মন্তব্য (Comments) করুন। “আমার কথা পৌঁছিয়ে দাও, তা যদি এক আয়াতও হয়” -বুখারি ৩৪৬১। তাই এই পোস্ট টি উপরের Facebook বাটনে এ ক্লিক করে শেয়ার করুন অশেষ সাওয়াব হাসিল করুন

Leave a Reply